টাকা, ও আমার টাকা

বিতর্ক টা বেশ পুরানো। নতুন করে আবার উষ্কে দিলেন প্রবাদপুরুষ তাজউদ্দিন আহমেদ এর জ্যেষ্ঠ কন্যা শারমিন আহমেদ।
কি সেই বিতর্ক?
বাঙলাদেশের কারেন্সি নোটের সবগুলোতে বঙ্গবন্ধু/ মুজিব/শেখ মুজিবুর রহমান/জাতির পিতার ছবির ব্যবহার।
শারমিন আহমেদ এর বক্তব্যর ভিডিও

১ম বার যখন শেখ মুজিবের ছবি সংক্রান্ত বিতর্ক শুনি কোন উত্তর ছিলো না। শুধু মনে হয়েছিলো এতোটা বাড়াবাড়ি। কিন্তু এতোটা মানে কতোটা????

আওয়ামী লীগ ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় এসে ১০ টাকার নোটে বঙ্গবন্ধুর ছবি দেয়। প্রথমে মনে হয় কাগজে ছিলো, পরে প্লাষ্টিকে করে। আবার উল্টাটাও হতে পারে। সঠিক মনে পড়ছে না।
১০ টাকার নোট

নোটের গায়ে নিজেদের নাম ঠিকানা লেখা ছিলো আমাদের পুরানো অভ্যাস। এবার আমরা নোটের গায়ে গালি গালাজ করতে থাকি। সরকার ব্যাবস্থা নিলে এইসব গালাগালি বন্ধ হয়।

২০০১ এ বিএনপি-জামাত ক্ষমতায় এসে সেই ১০ টাকার নোট বন্ধ করেছিলো কিনা মনে নেই।

২০০৮ এ আওয়ামীলীগ আবার ক্ষমতায় এসে প্রতিটি ব্যাংক নোটেই বঙ্গবন্ধুর ছবি দেয়।
বাঙলাদেশ কারেন্সি নোট

চোখে লাগার মতোই বটে। ৭৫ থেকে ৯৫ প্রায় বিশ বছর শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন প্রায় অনুচ্চারিত একটি শব্দ আর সেখানে আজ প্রায় প্রতিটি নোটে শেখ মুজিবের নাম। যেনবা নিতেই হবে শেখ মুজিবের নাম।

বিশেষ করে যারা শেখ মুজিবের এত্তো এত্তো ছবি মেনে নিতে পারেননি বা পারেন না তারা হাজির করেন চমৎকার একটি তথ্য; আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের কারেন্সি নোটের ছবি।
usa currencyএ যেনো চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখানো, দেখ ওরা ওদের জাতির পিতার ছবি রেখেছে মাত্র একটি নোটে; তাও আবার এক ডলারে…
তাহলে তোদের কেনো প্রতিটি নোটেই বঙ্গবন্ধুর ছবি রাখতে হবে????

ব্যক্তিগত ভাবে বাঙলাদেশের প্রতিটি নোটেই যে বঙ্গবন্ধুর ছবি আছে এর বিরোধী নই, কিন্তু সেই সাথে আমাদের আরো অনেক বীরদের-গুণিদের-জ্ঞানীদের ছবি আসবে এইটাই চাই।

ভাবলাম আচ্ছা পাকিস্থান আমলে আমাদের কারেন্সি নোটের কি অবস্থা ছিলো একটু দেখি তো।
পাকিস্থানি আমলের কারেন্সি নোট আরে সবগুলোতেই দেখি কায়েদ এর ছবি।
এখনকার অবস্থা দেখি।
pakistani-currency2এহ!!!!

ভারতের  অবস্থা দেখি তো…
indian currency

অবস্থান করছি লন্ডন, ইউ কে তে।
আমাদের নোটের ছবিই বা বাদ যাবে কেনো। দেখি না এখানকার নোটের অবস্থা।
UK_banknotesএরা প্রতিটি কারেন্সি নোট এবং কয়েনে রাণী ২য় এলিজাবেথ এর ছবি ব্যবহার করে। উপরের ছবির ডানপাশে যাদের ছবি দেখা যাচ্ছে তাদের ছবিও নোটে আছে তবে তা নোটের আরেকদিকে।

হে বাঙালি মানুষ হ, তর্ক করবি ভালো কথা, বেকুবের মতো কথা কইস না।

২,৩৩৮ বার দেখা হয়েছে

১১ টি মন্তব্য : “টাকা, ও আমার টাকা”

  1. মাহমুদুল (২০০০-০৬)

    বঙ্গবন্ধুর ছবি থাকবে টাকায় এটাই স্বাভাবিক। না থাকাটাই অস্বাভাবিক বলে আমার কাছে মনে হয়।

    তবে বিষয়টা অন্যান্য বিষয়ের সাথে সম্পর্কিত। যেমন ধরা যাক, মাওলানা ভাসানী নভোথিয়েটার। বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সম্মেলন কেন্দ্র। এমন অনেক স্থাপনা আছে যেগুলোর নাম চেঞ্জ না করলেই বরং ভালো হত। বঙ্গবন্ধুকে ভালোবাসার জায়গায় রাখতে চাই, সারাদিন তার নাম জপতে চাই না। ভালোবাসার বাড়াবাড়িটা মনে হয় আওয়ামী লীগ করছে। সবকিছুতে এই মহান ব্যক্তিত্বকে টেনে আনা, অস্ত্র বানানোটাকে ভাড়ামীর পর্যায়ে নিয়ে যাচ্ছে এরা। এটা আমার ব্যক্তিগত অভিমত। এই জিনিসগুলোর সাথেই টাকার ব্যাপারটাও জড়িত। আমার এলার্জি নেই তবে জাতির পিতাকে হাইলাইট করতে গিয়ে অন্যদের অবদান কে পাত্তাই দিচ্ছে না ব্যাপারটা আসলে একটু ভাববার। (টাকার ছবির ব্যাপারটা বাদে)

    আর পাকিস্তানের উদাহরন টেনে আনাটা এক শ্রেনীর মানুষের জবাব দেয়া মনে হয়েছে আমার কাছে। তাছাড়া পাকিস্তান টেনে আনা অযৌক্তিক।


    মানুষ* হতে চাই। *শর্ত প্রযোজ্য

    জবাব দিন
    • রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

      প্রতিটা কথার সাথে সহমত।

      ওবায়দুল কাদের সম্ভবত ৯৬-০১ এর টার্মে শেখ হাসিনারে বুদ্ধি দিছিল শেখ মুজিবুর রহমান এর ক্বরের মাটি হেলিকপ্টারে করে বাঙলাদেশে ছড়িয়ে দেবার জন্য।
      হাসিনা তারে ঝারি দিছিলেন।

      ইন্ডিয়া ইন্দিরা গান্ধীর ভস্ম নিয়া কি জানি করছিলো।

      প্রি ৭১ পাকিস্থানের নোট দিছি কারণ পাকি লাভাররা তোরা অতীত ভুলিস কি করে এটা দেখানোর জন্য।


      এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

      জবাব দিন
  2. মাহমুদ (১৯৯০-৯৬)

    ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ সবগুলাই দীর্ঘদিন রাজা+রানীর অধীনে ছিল বলে হয়ত নির্বাচিত শসকদেরও রাজা/রাণী ভেবে নেয়। 😉


    There is no royal road to science, and only those who do not dread the fatiguing climb of its steep paths have a chance of gaining its luminous summits.- Karl Marx

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।