ইসলামোফোবিক???!!!…

66388_434193899977332_181533514_n
525165_362971010480513_611125551_n374169_441660542564001_2053927877_n526983_364852290292385_748961774_n581782_357060387738242_1738589065_n
জীবনে কখনো ইসলাম ধর্ম, কোরান, হাদিস, নবী, মেরাজ, শিশু বিবাহ, নারী অধিকার, হিলা, বহুবিবাহ, দাসপ্রথা, দাসী সেক্স, মুরতাদ, রজম, যুদ্ধবন্দী, সেকুলারিজম, ব্লাসফেমি ল এর কোন একটা নিয়ে কথা বলেছেন, ডাউট দিয়েছেন?
হয়তো আপনাকেও শুনতে হয়েছে যে আপনি ইসলামোফোবিক।

আপনাকে হয়তো সপাটে মাথা নেড়ে বলতে হয়েছে না, আপনি ইসলামোফোবিক নন।
বলেছেন, আপনার কিছু প্রশ্ন আছে।
– কিন্তু আপনি জানেন না যে প্রশ্ন করার অধিকার ইসলামে কারো নেই।
মেনে নাও, মেনে যাও।
আপনি কিছু বুঝেন নাই, তাতে কি অফ থাকেন।
আপনি কি আল্লাহ, নবী, রাসূলের চাইতে বেশি বুঝেন মিয়া!
আপনে দেখি মুরতাদ, কাফির।
আল্লাহ আপনারে আগুনে রোষ্ট করবে।

তুই রাজাকার যেমন একটা গালি, ইসলামোফোবিক ও অনেকটা তেমনি।

নিচের ভিডিওটি দেখুন।

Islamophobia1

Islamophobia2

Islamophobia3

Islamophobia4

ভাবুন।

কিন্তু না, কিচ্ছু বলা যাবে না।

রজম
madraasa225723_366466276796551_1539191540_n531437_435805416460006_1869507770_n
মহান ধর্ম ইসলাম
ছবি ও ভিডিও সূত্রঃ ইন্টারনেট

২,৬৬৮ বার দেখা হয়েছে

২৬ টি মন্তব্য : “ইসলামোফোবিক???!!!…”

  1. হারুন (৮৫-৯১)

    "কিন্তু আপনি জানেন না যে প্রশ্ন করার অধিকার ইসলামে কারো নেই।"-- ডাহা মিথ্যাচার। ইসলামোরিয়ালিজমে অবশ্যই প্রশ্ন করার অধিকার আছে।

    ইসলামে ন্যায়সংগতভাবেই ধর্মত্যাগী, ধর্ম সম্পর্কে কটুক্তিকারী নাস্তিক, মুরতাদ, ধর্মদ্রোহীর শাস্তিস্বরূপ মৃত্যূদন্ডের বিধান এবং এর কার্যধারার প্রকৃ্ষ্ট নজীর বিদ্যমান আছে। ধর্মত্যাগী, ধর্মদ্রোহীর মৃত্যূদন্ডের বিধান শুধু ইসলামে নয়, ইহুদী, খৃষ্টান ধর্মেও আছে। ইসলাম দাসপ্রথাকে কার্যকরভাবেই উচ্ছেদ করেছে, দাসী সেক্স নয় বরং দাসীকে স্ত্রীর মর্যাদা দিয়েছে। মিরাজের বিস্ময়কর অলৌ্কিক ঘটনা সেটাতো এযুগে বৈজ্ঞানিকভাবেই সত্য প্রমানিত হয়েছে।

    উপরের ছবিতে দেখা যাচ্ছে এক যুবতী নারীকে মাটিতে পুঁতে ফেলা হচ্ছে- তোমার উক্তি "কিন্তু না, কিচ্ছু বলা যাবে না"।- কিন্তু বলার আছে, মিথ্যাচারের জবাব আছে, সেটা এরকম-- ইসলামপূর্ব আরবের পৌত্তলিকরা কন্যা সন্তানকে জীবিত কবর দিত, ইসলাম সে প্রথা বিলো্প করে তাদেরকে বাঁচার অধিকার দিয়েছে। বর্তমানে ভারত চীনসহ অনেক দেশে গর্ভপাত করে কন্যা সন্তানকে হত্যা করা হয়। জাহিলিয়াতের যুগে যখন নারীদের কোন অধিকার ছিলনা তখন একমাত্র ইসলামই তাদেরকে মানবাধিকারমূলে মুক্তি দিয়েছে (দের হাজার বছর পর জাতিসংঘ UDHR সনদ নিয়ে শুধু তোলপার করছে)। জাহিলিয়াতের যুগে কন্যা সন্তানকে জীবন্ত কবর দেয়া আর বর্তমানের মানব ভ্রণ বিনষ্ট করা বা গর্ভপাত ঘটানোর মাধ্যমে নির্বিচারে মানুষ হত্যার মধ্যে কতটুকু পার্থক্য আছে ? তাহলে জাহেলিয়াতের যুগ আর এযুগের মধ্যে তফাতটা কোথায় ?


    শুধু যাওয়া আসা শুধু স্রোতে ভাসা..

    জবাব দিন
  2. হারুন (৮৫-৯১)

    Obama asks Pro-Sharia PM Erdogan for advice on "how to raise his daughters" againerdogan
    Obama met with his favorite "most trusted ally" today, Prime Minister Erdogan, the Turkish leader who rolled back a near-century of modernization in Turkey to install the barbaric sharia and hurl Turkey backwards in time. Obama asked Erdogan for advise on how to raise his daughters, again.

    During their tet a tet, Obama said this:

    And I also appreciate the advice he gives me, because he has two daughters that are a little older than mine -- they've turned out very well, so I'm always interested in his perspective on raising girls.

    Hmmmm, honor killings, honor violence, FGM, forced marriage, child marriage .....

    Prime Minister previously told Barack Hussein that there was no extreme Islam, no moderate Islam, only Islam. "Islam is Islam."
    kkk
    (সম্পাদিত)


    শুধু যাওয়া আসা শুধু স্রোতে ভাসা..

    জবাব দিন
  3. হুমায়ুন (২০০২-০৮)

    ভাই এখানে এরদোয়ান এর প্রশংসা করলেন না কি বুঝলাম না।তুরস্কের লজ্জা যে কামাল আতাতুরকের সেকুলার দেশে এই লোকের মতো একজন কট্টর ডানপন্থীকে শাসক হিসেবে দেখতে হচ্ছে।ইনি নিজেরে ইসলামের সেবক বলেন আবার ইজরায়েল থেকে বিমান আর অস্ত্র কিনেন,নিজেরে মুসলমান দাবী করেন কিন্তু সিরিয়ায় মুসলমান মারার জন্য টাকা অস্ত্র সব দেন,কুরদিশ মুসলমানদের মাইরা উনি মাটির সাথে শুয়ায়া দিতেসেন।এই লোকের মতো ফালতু,চতুর,একরোখা শাসক পৃথিবীতে মনে হয় আর নাই।
    একটা কথা মনে রাখবেন তুরস্ক আজ যে পর্যায়ে এসেছে তার পেছনে যে মানুষটির অবদান সবচেয়ে বেশী তিনি হলেন কামাল আতাতুরক।আপনার প্রিয় এই নেতা তার যৌবনকালে আতাতুরককে নিয়ে খারাপ কথা বলায় গ্রেফতার হয়েছিলেন।এরদোয়ান কর্মের ফিরিস্তি নিয়ে আস্ত একটা ব্লগই লিখে ফেলব একদিন।টিল দ্যান ভালো থাকেন।


    তুমি গেছো
    স্পর্ধা গেছে
    বিনয় এসেছে।

    জবাব দিন
  4. হুমায়ুন (২০০২-০৮)

    এগুলা আজকের খবর।এই হইলো আপনার মহান নেতা এরদোয়ান
    http://www.dailymotion.com/video/x10fa2s_bbc-in-az-onceki-yayinindan-01-06-2013-04-00-tsi_news#.Uallg9L-KSo
    http://www.bbc.co.uk/news/world-europe-22732139
    http://www.aljazeera.com/news/europe/2013/05/2013531112443894367.html


    তুমি গেছো
    স্পর্ধা গেছে
    বিনয় এসেছে।

    জবাব দিন
  5. হারুন (৮৫-৯১)

    হুমায়ুন, আমি শুধু ইসলামী দৃষ্টিকোন থেকে পশ্চিমা প্রেসিডেন্টের মনোভাবটুকু কোট করেছি মাত্র। পশ্চিমা পদলেহনকারী কোন কট্টর/সেকুলার মহান শাসকের প্রশংসা করবো এমন যুগোপযোগী ভাবনা আমার নাই অন্ততপক্ষে ইসলামী স্বতন্ত্র সভ্যতার খাতিরে। বিদেশ পরিসরে একসংগে কাজ করতে গিয়ে অনেক তুর্কিকে দেখেছি অত্যন্ত যৌক্তিকভাবে তোমার সেই মহান আতাতুর্ককে বুক ফুলিয়ে গালি দিতে। তুরস্কসহ বর্তমান মধ্যপ্রাচ্যে যে দ্বন্দ্ব-সংঘাতের পরিস্হিতির কথা বললে তার প্রেক্ষিত এ আলোচনায় গুরুত্ব বহন করেনা। কারন, দেশে দেশে ইসলামপন্হি রাজনৈ্তিক দলগুলো্কে একাট্টা একইরকম ভাববার কোন কারন নাই। তাদের মধ্যে মতাদর্শিক বিরোধ যেমন আছে তেমনি স্বার্থের সংঘাতও রয়েছে। ফলে শুধু কোন শক্তির লড়াইয়ের ক্ষেত্রে মূল চরিত্র বুঝতে যাওয়া ভুল হবে। কে কাকে কিভাবে খেলাচ্ছে, খেলছে সেটা বিস্তর আলোচনা, গবেষনার দাবী রাখে।


    শুধু যাওয়া আসা শুধু স্রোতে ভাসা..

    জবাব দিন
    • রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

      হারুন ভাই
      আমরা পশ্চিমাদের গালি দিতে পারলে এক চিমটি লবণ দিয়া সেভেন আপ পান করার আনন্দ পাই।
      যেই তুর্কিদের আপনি রেফারেন্স টানলেন তারা হাত-পায়ে ভর দিয়া উবু হইয়া আছে ইইউ তে ঢোকার জন্য।
      @হুমায়ুন ভালো বলতে পারবে এ বিষয়ে।


      এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

      জবাব দিন
    • হুমায়ুন (২০০২-০৮)

      তুরস্কের কোন নাগরিক যদি বুক ফুলিয়ে আতাতুরক কে গালি দেয়,সরি টু সে সে একটা অকৃতজ্ঞ জারজ।টার্কি যে আফগানিস্তান বা ইরান হয় নাই,তা এই আতাতুরকের কারনেই
      বঙ্গবন্ধুকে গালি দেয়া বরাহশাবক ও কিন্তু আমাদের দেশে কম না।


      তুমি গেছো
      স্পর্ধা গেছে
      বিনয় এসেছে।

      জবাব দিন
    • রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

      হারুন ভাই,
      আমি যদি কাউরে বুঝাইতে ব্যার্থ হই যে আমি ভালো তাইলে না হয় বুইঝা নিলাম আমি বুঝাইতে পারি নাই।
      কিন্তু অনেককেই যদি বুঝাইতে ব্যার্থ হই তাইলে??? (সম্পাদিত)


      এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

      জবাব দিন
  6. হারুন (৮৫-৯১)

    বর্তমানে পাশ্চাত্যের সাথে ইসলামের যে দ্বন্দ্ব-সঙ্ঘাত তা কোনো আঞ্চলিক, ভৌগোলিক, বর্ণবাদী, অর্থনৈতিক, বিজ্ঞান বনাম বিশ্বাস এমনকি ধর্মীয় সঙ্ঘাতও নয়, এ হচ্ছে ব্যাপকভিত্তিক আদর্শিক দ্বন্দ্ব, দুটো ভিন্নমুখী সভ্যতা সংস্কৃতির দ্বন্দ্ব। ইসলাম ও মুসলমানদের সম্পর্কে পাশ্চাত্যের সঙ্কীর্ণ দৃষ্টিভঙ্গি,আক্রমণাত্মক ও স্বার্থপ্রণোদিত কার্যকলাপ সর্বোত্রই স্পষ্ট। এ আক্রমণাত্মক মনোভাবের কারণেই পাশ্চাত্যের সাথে ইসলামের দ্বন্দ্বের মীমাংসা অবাস্তব ও অযৌক্তিক।

    "যেই তুর্কিদের আপনি রেফারেন্স টানলেন তারা হাত-পায়ে ভর দিয়া উবু হইয়া আছে ইইউ তে ঢোকার জন্য"- ঐতিহাসিকভাবে চূড়ান্ত ফলাফলের জন্য ঢুকে পড়াটা আশু প্রয়োজন।


    শুধু যাওয়া আসা শুধু স্রোতে ভাসা..

    জবাব দিন
  7. হুমায়ুন (২০০২-০৮)

    তুর্কি জনগন অবশ্যই ইইউ তে ঢুকতে চায়।সেই স্বপ্নই আতাতুরক দেখিয়েছেন তুরস্ককে।সেজন্যই তিনি আরবি হরফ পরিবর্তন করে ল্যাটিন হরফ প্রবর্তন করেছেন,সমগ্র ইউরোপে সবার আগে নারীর ভোটাধিকার নিশ্চিত করেছেন,মাদ্রাসা শিক্ষা থেকে আধুনিক বিজ্ঞানভিত্তিক শিক্ষা চালু করেছেন।
    তবে বরতমান ক্ষমতাসীন আক পার্টি ইউরোপে যেতে চায়না।তারা আফ্রিকা,মধ্য-প্রাচ্য,এশিয়ার মুসলিম দেশগুলোকে নিয়ে খেলাফত গড়তে চায়,অনেকটা অটোম্যান সম্রাজ্জের মতো।


    তুমি গেছো
    স্পর্ধা গেছে
    বিনয় এসেছে।

    জবাব দিন
  8. হারুন (৮৫-৯১)

    “তবে বরতমান ক্ষমতাসীন আক পার্টি ইউরোপে যেতে চায়না।তারা আফ্রিকা,মধ্য-প্রাচ্য,এশিয়ার মুসলিম দেশগুলোকে নিয়ে খেলাফত গড়তে চায়,অনেকটা অটোম্যান সম্রাজ্জের মতো”
    — In 2007, Turkey stated that they were aiming to comply with EU law by 2013, but Brussels has refused to back this as a deadline for membership. In 2006 European Commission President José Manuel Barroso said that the accession process will take at least until 2021. In a visit to Germany on 31 October 2012, Turkish Prime Minister R.T. Erdoğan made clear that Turkey was expecting membership in the Union to be realised by 2023, the 100th Anniversary of the Turkish Republic, implying that they could end membership negotiations if the talks had not yielded a positive result by then. Turkish President Abdullah Gül said that upon completing the accession process Turkey will hold a referendum for Turkish membership in the European Union.
    http://en.wikipedia.org/wiki/Accession_of_Turkey_to_the_European_Union

    http://euobserver.com/843/29016
    http://www.30-days.net/muslims/statistics/about-europe/
    http://www.mcb.org.uk/library/statistics.php


    শুধু যাওয়া আসা শুধু স্রোতে ভাসা..

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।