দেশপ্রেমিকের লেখা

[এই লেখাটি কেবলমাত্র প্রচন্ড নিরাবেগ, স্থিরবুদ্ধি এবং চিন্তাশীল দেশপ্রেমীদের জন্যে…কাজেই, পিলখানায় নিহত/নিখোঁজ কতিপয় “অসাধু/দুর্নীতিবাজ” আর্মি কিংবা এই ঘটনায় বিন্দুমাত্র মন খারাপ করা পাবলিকরা এটা পড়ার প্রয়োজন নেই!!!!!!]

কেস-১
আমার মতে আমরা যাঁরা বুদ্ধিজীবি… আমরা যাঁরা রাজনীতিবিদ…আমরা যাঁরা ব্যবসায়ী…এবং অন্যরা… আমরা-ই শুধুমাত্র সত্যিকারের দেশপ্রেমী।
আর দেশপ্রেমী হলো বাংলাদেশের সীমানা পাহারা দেয়া বিডিআর জওয়ানেরা। তাঁদের লাল, নীল, বেগুনী, সবুজ, হলুদ সালাম।
আর, যারা সশস্ত্রবাহিনী থেকে প্রেষণে নিয়োজিত হয়ে আমাদের সেই জওয়ানদের ভালোমন্দ দেখে…যারা তাদের উপরে থেকে “শেল্টার” দেয়…যারা স্বরাস্ট্র কিংবা অর্থ মন্ত্রনালয়ে কোনকিছুর প্রশাসনিক/আর্থিক অনুমোদনের জন্যে দৌড়ায়…বাজেট অনুমোদনের জন্যে সবার কাছে কান্নাকাটি করে… যারা সকল ধরণের টেনশন নেয়… তারা কিন্তু কোনক্রমেই দেশপ্রেমিক নয়।
শুধু কি তাই?
সামরিক বাহিনীর কেউই আদৌ দেশপ্রেমিক নয়। তারা দেশপ্রেমিক হবে কি করে?
যে সকল লোক সামরিক বাহিনীতে যোগ দেয়… তাদের কারোরই তো আর বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত শুনে বুকের মধ্যে কাঁপন ওঠে না… চোখ ভিজে ওঠে না… ওরা তো আর “দেশকে ভালোবেসে” ওখানে জয়েন করে না… জয়েন করে টাকা চুরি করতে…বড় চোর হতে (কারণ সারাদেশে কেবল ওরা-ই চোর, কারণ আমাদের কাছে প্রমাণ আছে বলেই তো ওদের সবাইকে এই অপবাদ দিতে পারছি)…ওরা তো দেশের জন্যে কিছু-ই করে না!!!!!!
ওদের কোন প্রকার হেল্প ছাড়াই তো আমরা সারা দেশে বন্যায়…ঘুর্নিঝড়ে…জলোচ্ছাসে…সিডরে…নার্গিসে…সবসময়ে আসল “দেশপ্রেমিকদের” সহায়তায় সব দুর্গতদের সাহায্য করে থাকি…ওদের কোন প্রকার হেল্প ছাড়াই তো আমরা সারা দেশে আসল “দেশপ্রেমিকদের” সহায়তায় ভোটার তালিকা করেছি…ওরা তো আমাদের কোন কাজেই লাগে না !!!!!!
শুধু তাই নয়…যে সকল লোক সামরিক বাহিনীতে অফিসার পদে যোগ দেয়…(WITH ALL RESPECT TO NON-COMMISSIONED, AND PEOPLE OTHER THAN OFFICERS)…ওরা তো আর আমাদের কেউ থাকে না… ওরা তো আমাদের কারো পরিবারের কেউ নয়… ওরা তো কোন কস্ট করে না…শুধু আরাম করে………… আর আরাম করে……
ওরা তো সব-ই গরু গাধা (কারণ ভালো রেজাল্ট করা কেউ তো আর অফিসার পদে জয়েন করে না, তারা জয়েন করে বিডিআর-এ, সৈনিক হিসাবে)…কেবল ইন্টার পাশ (কারণ ওরা কেউ তো আর একাডেমীতে অনার্স করে না… পরে জেএসসি/পিএসসি/এএফডব্লিউসি/এমবিএ/এনডিসি/এনডিইউ এসব করেনা…)… তাই নিয়ে দামী দামী গাড়ি চড়ে…আর আমরা যখন ক্যান্টনমেন্ট-এ আমাদের কম দামী গাড়ি নিয়ে (কারণ দেশের সব বিএমডব্লিঊ,লেক্সাস,মার্সিডিজ,ফেরারী সবই তো সামরিক বাহিনীদের অফিসারদের!!!) ওই দিক দিয়ে যেতে চাই…আমাদের মত দেশপ্রেমিকদের ওরা অন্যদিক দিয়ে যেতে বলে!!!
আমাদের মত দেশে কেন শুধু শুধু এইসব “অদেশপ্রেমিক”…দেশপ্রেমবিহীন ডিফেন্স অফিসারদেরকে পুষতে হবে!!!!
ওরা আমাদের জন্যে কি নিয়ে আসে??? মিশনে গিয়ে আমাদের এইসব “অদেশপ্রেমিক”…দেশপ্রেমবিহীন ডিফেন্স অফিসাররা কিভাবে যে সুনাম নিয়ে আসে…বুঝিনা!!!
কেন যে আমাদের এইসব “অদেশপ্রেমিক”…দেশপ্রেমবিহীন ডিফেন্স অফিসারদের জন্যে সারা পৃথিবীর লোকজন চিন্তা করে তা-ও বুঝি না…
এদের মধ্যে কয়েকজন মাত্র (মাত্র ১৪৪জন) মারা গেলো…ওদের মাঝে মাত্র কয়েকজনের চোখ উপড়ে ফেলা হলো…পোড়ানো হলো…মাত্র কয়েক জনের ফ্যামিলীর (মাত্র কয়েকশ’) খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না…এতে এতো উতলা হওয়ার কি আছে?? সত্যিকারের দেশপ্রেমী হিসাবে আমরা এর কোন কারণ-ই দেখতে পারছি না…!!!!!!
সে কারণেই তো আমরা গত দুই দিন সব মিডিয়াতে এই ফালতু বিষয় নিয়ে একটুকুও কথা বলিনি…আমরা আসল ঘটনা নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম… বিডিআর জওয়ানদের নিয়ে ফিচার করেছি…কয়জন দেশপ্রেমিক জওয়ানদেরকে এইসব “অদেশপ্রেমিক”…দেশপ্রেমবিহীন ডিফেন্স অফিসাররা লাথি মেরেছে…দেশপ্রেমিক জওয়ানদের মিশনে যাওয়ার বিষয়টি এইসব “অদেশপ্রেমিক”…দেশপ্রেমবিহীন ডিফেন্স অফিসার দ্বারা লুট হওয়ার বিষয়ে কথা বলতে ব্যস্ত ছিলাম (কারণ এইসব দেশপ্রেমিক জওয়ানদের মিশনে যাওয়ার বিষয়টি তো আর স্বরাস্ট্র মন্ত্রনালয় দ্বারা নয়, প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয় দ্বারাই নিয়ন্ত্রিত হয়!!!)… আর সেসব বিষয়ে তো কেবল এইসব “অদেশপ্রেমিক”…দেশপ্রেমবিহীন ডিফেন্স অফিসার-ই ডিসিশন নেয়…প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয়ের অ্যাডমিন ক্যাডারের অফিসারেরা (সহকারী সচিব, সিনিয়র সহকারী সচিব, উপ সচিব, যুগ্ম সচিব, অতিরিক্ত সচিব, সচিব) কিংবা প্রতিরক্ষা মন্ত্রী তো কোন সিদ্ধান্ত নেননা!!!!!!!
ব্যস্ত ছিলাম কেন এইসব “অদেশপ্রেমিক”…দেশপ্রেমবিহীন চোর ডিফেন্স অফিসার আমাদের দেশপ্রেমিক জওয়ানদের উপরে খবরদারি করতে আসে…সে বিষয়ে খোঁজ নিতে (কারণ ডিফেন্স অফিসারেরা তো নিজেদের ইচ্ছা হলেই বিডিআর-এ চলে আসে…তাদের তো আর আন্তঃ মন্ত্রনালয় বদলীর জন্যে স্বরাস্ট্র মন্ত্রনালয়/প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয়/সংস্থাপন মন্ত্রনালয় ইত্যাদি INTER MINISTRIAL CORRESPONDENCE হয় না…)!!!

আর ব্যস্ত ছিলাম আমাদের ইমেজ ঠিক রাখতে।

তাই তো এইসব গুটিকয়েক “অদেশপ্রেমিক”…দেশপ্রেমবিহীন চোর ডিফেন্স অফিসার কিংবা তাদের পরিবারদের নিয়ে আমরা কোন কথা-ই বলিনি। তাই তো এইসব গুটিকয়েক “অদেশপ্রেমিক”…দেশপ্রেমবিহীন চোর ডিফেন্স অফিসার “মেজর জেনারেলের” পরিবর্তে সুবেদার মেজর ডিএডি (DEPUTY ASSISTANT DIRECTOR) কে আমরা সেখানে মহাপরিচালক বানিয়েছি…এবং সারাদিনে কোন কথা বলিনি!!!

কেস-২

আমি গত ৪৮ ঘন্টা কিছু-ই করিনি।
করতে পারিনি।
গত ৪৮ ঘন্টায় কোন শু**** বাচ্চারা কেন একবারের জন্যেও কোন অফিসারকে নিয়…তাদের অনুপস্থিতি নিয়ে…তাদের ফামিলিকে নিয়ে একটা কথাও বললো না!!!!!!!
কোন মিডিয়া না…কোন এম পি না… কোন মিনিস্টার না… কোন এক্স ***-ও না!!!!!!!!!!
কেন???
কেন??
আমরা কি জনগনের কোন অংশ নই?
আমরা কি দেশের কেউ নই?
বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উড়তে দেখলে…বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত শুনলে…বাংলাদেশের কেউ ভালো করেছে শুনলে…বাংলাদেশ কোন খেলায় জিতেছে শুনলে…বুকের মধ্যে কাঁপন ওঠে…এটা কি আমাদের অপরাধ!!!!!!!
কেন কোন কোন চু******* সকল দেশদরদী বিডিআর জওয়ান-দের নিয়ে কথা বলছে????
আমাদের জন্যে কি সাধারন জনতার কোন ফিলিংস-ই নেই????
কেনো কেবল আমাদের সাথে ডাইরেক্ট রিলেটেড স্বজন-রাই ভেবেছে??
কেনো সকল বুদ্ধিজীবি ******, ******, *****, *****, ******, *******, ******, ***-বাচ্চারা একবারের জন্যেও আমাদের প্রতি কোন ফিলিংস দেখায় না!!!

কেস-৩

আমি কি আর আদৌ প্রাইড নিয়ে…দেশপ্রেম নিয়ে……সাহস নিয়ে…মরাল নিয়ে চাকুরী করতে পারবো????
পরিবারের দিকে, বউ বাচ্চা , বাবা মায়ের দিকে তাকিয়ে আমার নিজের মনের সাথে কম্প্রোমাইজ করে চাকুরী করে যাবো…???
না কি আল্লাহর কথা/আদেশ না শুনে লজ্জায়…অপমানে…অস্ত্রটা নিয়ে যে কয়টা *************-কে পারি কমাবো-এই “সুইসাইডাল মিশনে” বেরিয়ে যাবো?
আল্লাহ গত আটচল্লিশ ঘন্টায় আমাদের হারিয়ে যাওয়া সকল ভাইদের…তাঁদের পরিবার-এর এবং আমাদের সবাইকে এই অবস্থা থেকে উত্তরণের পথে সহায় হোন।
আমি আর কিছু লিখতে পারছি না…সরি।

২,৪৫৩ বার দেখা হয়েছে

২০ টি মন্তব্য : “দেশপ্রেমিকের লেখা”

  1. সাকেব (মকক) (৯৩-৯৯)

    জুলহাস ভাই,
    শক্ত হোন...
    দুঃসময়ে পাশে দাঁড়ানোর অপারগতার ক্ষমাপ্রার্থী...


    "আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
    আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস"

    জবাব দিন
  2. আশিক (১৯৯৬-২০০২)

    ভাইয়া, আমরা আছি......
    এখনও অপেক্ষা করে যাচ্ছি নিখোঁজদের পাওয়ার আশায়......
    হয়ত যদি কোন কোণে লুকিয়ে থাকে......হয়ত আটকে পড়া......হয়ত জখমে দূর্বল, সাড়া দিতে পাড়ছে না......
    কিন্তু খুঁজে পাওয়া যাবে এই আশায় আমরা এখনও আছি সাথে...

    জবাব দিন
  3. জুনায়েদ কবীর (৯৫-০১)

    আমরা হারিয়েছি ভাই, বন্ধু, বাবা...তাই আমাদের চোখে অশ্রু, কন্ঠে বিচারের দাবী...
    যারা কোন স্বজন হারান নি, তারা 'আমার কেউ তো আর মরে নি!' বলে পরিতৃপ্তির ঢেঁকুর তুলে বিডিআর জ্ওয়ানদের দাবী, অধিকার, আর্মি অফিসারদের দোষ নিয়ে ফেনা তুলে যাচ্ছেন...
    কিচ্ছু হারায় নি ভেবে যে আপনারা খুশি হচ্ছেন, হিসেব করে দেখুন- আপনারাও হারিয়েছেন...মনুষ্যত্ব...বিবেক...


    ঐ দেখা যায় তালগাছ, তালগাছটি কিন্তু আমার...হুঁ

    জবাব দিন
  4. আমিন (১৯৯৬-২০০২)

    গত ৪৮ ঘণ্টা ধরেই দেখে যাচ্ছি। আর কি বলব। আর এক্স ক্যাডেট বলে দেশপ্রেমিকদের উপহাসের পাত্র হয়েছি। কোন কিছুই এখন গায়ে লাগছে না। যারা জীবিট আছেন তাদের ফিরে পাওয়ার আশায় বুক বাঁধি আর যারা চলে গেলেন তাদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি আর তাদের জন্য অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে শ্রদ্ধা।

    জবাব দিন
  5. আদনান (১৯৯৪-২০০০)

    আমি কিছু লিখতে পারছিনা । আল্লাহর রহমত আমার এখানে বাংলা টিভি নাই । এই সব হিজড়া বুদ্ধিজীবদের কথা শুনতে হচ্ছেনা । বিচার চাই । সমস্ত অফিসার মৃত্যুর বিচার চাই । কেউ যেন আমাদের ভাইদের আত্মত্যাগ না ভুলে যাই, উনাদের আত্মার শান্তির জন্যই অপরাধীদে শাস্তি দিতে হবে ।

    জবাব দিন
  6. সায়েদ (১৯৯২-১৯৯৮)
    আমি কি আর আদৌ প্রাইড নিয়ে…দেশপ্রেম নিয়ে……সাহস নিয়ে…মরাল নিয়ে চাকুরী করতে পারবো????
    পরিবারের দিকে, বউ বাচ্চা , বাবা মায়ের দিকে তাকিয়ে আমার নিজের মনের সাথে কম্প্রোমাইজ করে চাকুরী করে যাবো…???

    এই কথাটা মনের ভিতর কেবলই ঘুরপাক খাচ্ছে...............।


    Life is Mad.

    জবাব দিন
  7. ওবায়দুল্লাহ (১৯৮৮-১৯৯৪)

    জুলহাস,
    দোস্ত ভাল লিখছিস। কিন্তু আর কোন কিছুই আর মেনে নিতে পারছি না।

    ক'দিন আগে ইউসুফ স্যারের পোস্টে মন্তব্য করেছিলাম। আগামী দিনের স্বপ্নের কথা বলছিলাম।

    এখন নিজের উপর খুব ঘেন্না হচ্ছে।


    সৈয়দ সাফী

    জবাব দিন
  8. ব্লগ অ্যাডজুট্যান্ট…এডু এবং মডু…
    বুক ফাটা কান্নার একটা ইমো চাই।
    অবশ্যই আর একটা ইমো চাই দৃপ্ত অঙ্গীকারের।
    আর যেন অবশ্যই থাকে শহীদ-এর ইমো।
    এবারের মত শেষ রিকোয়েস্ট…
    “কুত্তা-র বাচ্চা”র একটা ইমো যেন কোনমতেই বাদ না য

    জবাব দিন
  9. জাহিদ (১৯৮৯-৯৫)

    আর্মির অবদান ছোট করে দেখার কোনই অবকাশ নাই। তবে আমার মনে হয় কিছু জিনিষ চিন্তায় আনা উচিত।

    (যত কিছুই হোক কাউকে মেরে ফেলার যুক্তিতে আমি বিশ্বাসী না। তাদের, তাদের পরিবারের এমনকি দেশের প্রতি এটা অন্যায়।)

    আমাদের রাজনীতিক দলের লোকেরাই আর্মিকে সবচেয়ে বেশী ব্যবহার করেছে। চুরি চামারি বন্ধ করতে সবখানে-ই আর্মি বসিয়েছে। ডেসা, বিটিআরসি এরকম সবজায়গার উপরের অবস্থানে তাদের বসানোকে আমি অন্তত ভালো চোখে দেখি না। প্রথমত এরা এতই দুর্নীতিগ্রস্থ যে ফেরেশতা বসালেও লাভ নাই, আর দ্বিতীয়ত তাদেরকে (আর্মিকে) প্রশ্নবিদ্ধ করে। নতুন কালচার, রিটায়ার করে এমপি। দলীয় নেতারা ক্ষুব্ধ হয়। জনগন থেকে আলাদা থাকা একজনকে নেতা বানালে আমাদেরও ক্ষতি। (আমি জোর গলায় কিছু বলতে পারছি না, অন্যনেতারাও ত চোরের সর্দার!)। তবে, যেকেউ অপছন্দ করবে যখন সারাজীবন এক প্রতিষ্ঠানে কাজ করে উপরের লেভেলে আরেক জায়গার একজন এসে বসে থাকতে দেখবে, তা সে যেকোন অফিসে/কর্মক্ষেত্রেই হোক। সাধারন কিছু ক্ষেত্রে, স্বীকার করি আর না করি, আমরা অনেকেই কিন্তু ক্ষমতা খাটাই। আমার বন্ধুদের আমি, লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি/মোটরসাইকেল চালাতে দেখেছি বছরের পর বছর। ট্রাফিক সিগন্যাল মানেনি অনেক আর্মির গাড়ি তত্বাবধায়ক সরকারের আমলে আমার চোখের সামনে। অথচ ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় এইটা করা আমাদের জন্যে অসম্ভব। এরকম আরো অনেক উদাহরন আছে। এই সময়ে এটা প্রাসঙ্গিক না, তার পরেও উল্লেখ করছি ভবিষ্যতের জন্যে।

    যাইহোক, খুনিদের বিচার হোক। প্রশাসন, সিভিল ও সামরিক, তাদের কাজের গন্ডির একটা সাম্যাবস্থা (balance) করুক এই কামনা করি। আমাদের ক্ষমতাবানরা, সিভিল/সামরিক অন্ধ হয়ে পরেন। 'আমি এই, দেখি তুই আমার কি করবি' টাইপের আচরন আমাদের মজ্জায়!

    রাজনীতিক নেতাগুলিরেও টাইট দেয়া দরকার। খালি নিজের ঢোল পিটায়। বিবিসিকে দেয়া শেখ ওয়াজ়েদের ইন্টারভিউ পারলে শুনেন।

    একদিন উনারাই আমাদের দেশের মাথা হবেন।
    so isolated, so imaginative and so typical!

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।