কল স্ক্রিনিং!!

আত্মীয়তার সম্পর্ক থাকা স্বত্ত্বেও আমরা ছিলাম বন্ধুর মতন। না! বন্ধু না, তার চেয়েও বেশি। নিজেদের মাঝে সব কিছু শেয়ার করতাম। ক্লাস, পরীক্ষা, বন্ধুদের সাথে ঝগড়া বা আড্ডা, পছন্দ-অপছন্দ…সব কিছু। এমনকি, একে অন্যের বন্ধুদের নিকনেম পর্যন্ত জানতাম। আমার জন্য সবচেয়ে কষ্টকর ছিল যখন কোন মুভি দেখে তার গল্প বলত। কারন, ‘ওর’ স্বভাব ছিল এক্কেবারে খুঁটি-নাটি সব শোনানো। হয়ত অনেকেই হাসবেন, তবুও বলি- এমনকি, মুভির গানের অংশে গান গেয়েও শোনাতো!! যদিও কষ্টকর বলেছি, কিন্তু সত্যি কথা বলতে কি-’ওর’ গল্প শুনতে আমার খুবই ভাল লাগত। আমাদের আলাপের সময় আমি বেশি কথা বলতাম না, আসলে বলার সুযোগই পেতাম না! সবচেয়ে মজার যে ব্যাপারটি ছিল, তা হল- ‘ও’ একটু পরপরই আমাকে বলত ‘আচ্ছা, আমি কি খুব বেশি কথা বলছি???’

ভালোই চলছিল সবকিছু। দিনগুলো যেন ফাস্ট ফরোয়ার্ড হয়ে পার হয়ে যাচ্ছিল। এইরকম পরিস্থিতিতে আমি প্রথম ভুলটি করলাম-আমি ওকে ভালোবেসে ফেললাম!! এমন নয় যে, ঘড়ি ধরে সকাল ৯ টা ৫৬ মিনিটের সময় ভালোবাসলাম! আসলে অনেক আগে থেকেই বাসতাম, কিন্তু টের পেলাম হঠাৎ করেই…যেদিন ও আমাকে অন্য আরেকজনকে ভালোবাসার কথা জানালো!!! ব্যাপারটা এমন হল যে, আমি পাবার আগেই ও’কে হারালাম!!!

মানুষ হিসেবে আমি মোটামুটি খুবই সাধারণ স্তরের। আমার মন এত বড় নয় যে, আমি যাকে ভালোবাসি তাকে অন্য কারো সাথে ‘কোন প্রকার বিচলিত না হয়ে’ দেখব। এই পর্যায়ে যে কোন সাধারণ (কিংবা আরো নিম্ন স্তরের!) মানুষ যা করত, আমিও তাই করলাম- আমি দূরে সরে যেতে থাকলাম। কিন্তু, ব্যাপারটি সহজ ছিল না, আমার জন্য তো না-ই…’ওর’ জন্যও না…একদিন অবধারিতভাবে আমাকে ছাই দিয়ে চেপে ধরল। সেদিন আমি দ্বিতীয় ভুলটি করলাম- আমি জানিয়ে দিলাম, কেন আমার এই হঠাৎ পরিবর্তন। আমার কথা শুনে সেদিন ‘ও’ একটা কথাও না বলে চলে গেল, ‘ওর’ সেদিনের মুখভংগী আমার আজো মনে আছে-কোন প্রকার ভাবের প্রকাশ ছিল না…যেন পাথরের মূর্তি হয়ে গিয়েছিল…!!!

এরপর অনেক দিন কেটে গেল। মাঝে মাঝে আমাদের কথা হত…অবশ্য খুব কম…আর আমরা কথা বলতাম এমনভাবে মনে হত যেন কোন অফিসিয়াল আলোচনা করছি…অর্থাৎ খুবই ফরমাল!!

এরপর দ্রুত অনেকগুলো ঘটনা ঘটে গেল। কোন এক কারনে ‘ওর’ সম্পর্কটা টিকলো না, আর এতে ‘ও’ মানসিকভাবে অনেক ভেঙ্গে পড়ল। দৃশ্যপটে আমি আবার হাজির হলাম। সম্ভাব্য সব রকম উপায়ে চেষ্টা করতে লাগলাম ওকে সংগ দেবার, যাতে আগের মতন স্বাভাবিক হতে পারে। সেই সময়ের কথা মনে পড়লে আমার আজো অবাক লাগে, কি অদ্ভূত সময়ই না পার করেছি। আমি প্রাণপণ চেষ্টা করে যাচ্ছি ওকে ভালো না বাসতে, আর ‘ও’ চেষ্টা করে যাচ্ছে আমাকে ভালোবাসতে…কিন্ত…!! কবি-সাহিত্যিকরা ঠিকই বলেছেন ‘কিছু সম্পর্কের কোন নাম হয় না!’

একসময় স্বাভাবিক নিয়মে বাসা থেকে ‘ওর’ বিয়ের জন্য কথা-বার্তা শুরু হল। অতীতের তিক্ত অভিজ্ঞতার কারনে কোন প্রকার সম্পর্কে জড়ানো ‘ওর’ জন্য সহজ ছিল না। একজন শুভাকাংখী হিসাবে আমি যথাসম্ভব চেষ্টা করতাম পুরো ব্যাপারটিতে সর্বাত্মক সহযোগিতা করার। আমার মোটিভ ছিল একটু আঁতেল টাইপ- ‘যাকে ভালোবাসি, তার ভালোর জন্য এটুকু যদি না করি…!!!’ ভেবেছিলাম, ‘ওর’ সুখই আমার সুখ-আর এটাই ছিল আমার তৃতীয় এবং শেষ ভুল। কেননা, আজ অনেক বছর হল ‘ওর’ বিয়ে হয়ে গেছে…কিন্তু আমি আজো ওকে ভুলতে পারি নি…

________________________________

-দোস্ত তুই কি আজো ভুলতে পারিস নি??

আমি শুভর প্রশ্নের জবাব দেবার আগে একটু ভাবলাম।

-সত্যি কথা বলতে কি, আমি ভুলতে পারি না-নাকি ভুলতে চাই না…এটাই শিওর না!!
-কিন্তু এভাবে আর কতদিন? I mean, you should move on…
-বেশি বুঝিস না…I am just fine!!
-আমার কি? It’s your life…আচ্ছা, তোর সাথে কি কন্টাক্ট হয়?
-নাহ্‌…আমি কখনো কল করি না…
-আর ও?
-মাঝে মাঝে করে, কিন্তু আমি রিসিভ করি না…!
-সে কি রে! কেম্নে পারিস?
-আমি ‘ওর’ নম্বর স্ক্রিনিং করে রেখেছি, কেননা আমার এত মানসিক জোর নেই যে-ও কল করবে আর আমি রিসিভ না করে থাকব!
-কল স্ক্রিনিং, সেটা কি?
-মোবাইল ফোনের একটা অপশন। এতে ঐ নির্দিষ্ট নম্বর থেকে কল আসলে রিং বাজে না, আর এসএমএস করলেও রেগুলার ইনবক্সে না থেকে অন্য একটা ফোল্ডারে চলে যায়।
-এত কষ্ট না করে কল ব্লক করলেই তো পারিস কিংবা সিম চেঞ্জ!

আমি জবাব না দিয়ে চুপ করে থাকলাম। কি জবাব দেব? শুভকে আমি কি করে বোঝাবো কয়েকদিন পরপর মোবাইলে হঠাৎ যখন দেখি ‘ওর’ নম্বর থেকে আসা কল মিসড হয়ে আছে, আমার মধ্যে কষ্টের প্রলেপে মুড়ে থাকা এক অনাবিল আনন্দের অনুভূতি বয়ে যায়…আমি কি করে বলি, গত কয়েক বছর ধরে আমি প্রতিদিন মোবাইলের ঐ বিশেষ ফোল্ডার চেক করি যেখানে স্ক্রিনিং নম্বর থেকে পাঠানো এসএমএস জমা হয়!!!

৮,৭০০ বার দেখা হয়েছে

৯০ টি মন্তব্য : “কল স্ক্রিনিং!!”

  1. জিহাদ (৯৯-০৫)

    কল স্ক্রীনিং অপশনটা দেখেই আসছি এতদিন। কিন্তু সেইটা দিয়ে কি হয় আজকে প্রথম জানা হইলো।

    আর লেখা নিয়ে কি বলবো। লাইফটা মাঝে মাঝে সত্যিই রক্করেনা 🙁
    অনেকদিন আগে লেখা একটা হাবিজাবি শুনেন:

    বুকের ভেতর ঘুমিয়ে থাকা একলা আকাশ
    তারার মতোন জ্বলতে থাকা তোমার স্মৃতি
    বাড়িয়ে দু হাত দাঁড়িয়ে থাকা ক্লান্ত আমায়
    ছাড়িয়ে গিয়েও হারিয়ে তুমি যাওনি, তিথি ।
    স্বপ্নগুলো মগ্ন যে নেই অতীত শোকে
    সেই কবে শেষ তাকিয়ে ছিলাম
    তোমার চোখে
    ভুলতে বসা ওই চুলে ঘ্রাণ, নিপাট সিঁথি
    হারায়না সুখ, হারায়না শোক, তোমার স্মৃতি


    সাতেও নাই, পাঁচেও নাই

    জবাব দিন
  2. সামিয়া (৯৯-০৫)

    স্বভাবসুলভ জুনা ভাই একটা ধাক্কা দিলেন, কারণ আমি টুইস্ট খাওয়ার জন্য রেডী হয়ে ছিলাম, ধরেই নিসলাম 'ও'টা মোবাইল বা অন্য কিছু, শেষে আইসা দেখি...যাই হোক, ধাক্কা তো খাইলাম 🙁

    জবাব দিন
  3. ভাইয়া, এত ভালোবাসা কুতায় পান ? একজন গেছে তাই এই দশা ? গল্প উপন্যাস লেখা স্টার্ট করে দিলেন ? দাড়িও রাখছেন নাকি ? ভাইয়া একটা জিনিস মনে রাখবেন । একেকটা ছেলে হচ্ছে একেকটা বাস স্টেশন আর একেকটা মেয়ে হচ্ছে একেকটা বাস । সো একটার পর একটা আসতেই থাকবে যদি কুনু জ্যাম না থাকে । বাট বাসে চরতে গিয়ে ট্রাকে উঠে পড়লে কিন্তুক সমস্যা আছে । আবার ভুল বাসে উঠলেও কিন্তু জীবনে নিজ গন্তব্যে পৌছতে পারবেন না বরং আবারও ছ্যাকা খাবার সমূহ সম্ভাবনা থাকবে ।

    জবাব দিন
    • জুনায়েদ কবীর (৯৫-০১)

      ভাইজান, আপনি যেই হোন না কেন...সামান্য একটা গল্প পড়ে এত ক্ষোভ কেন দেখালেন কেন বুঝলাম না!!! লেখকের চুল দাঁড়ি শুদ্ধা টান দিলেন???

      আর ভাল কথা, আপনার আইডিওলোজির সাথে আমারটার মিল নাই...(থ্যাংক গড!)।


      ঐ দেখা যায় তালগাছ, তালগাছটি কিন্তু আমার...হুঁ

      জবাব দিন
  4. সানাউল্লাহ (৭৪ - ৮০)

    ঝুনা দ্য গ্রেট!

    তাইলে এই গল্প থেকে আমরা কি শিক্ষা পেলাম...............
    এক. কিভাবে কলস্ক্রিনিং করা যায়! এবং
    দুই. কিভাবে দুঃখবিলাসী হওয়া যায়!

    :grr: :grr: :grr:


    "মানুষে বিশ্বাস হারানো পাপ"

    জবাব দিন
  5. ওয়াহিদা নূর আফজা (৮৫-৯১)

    রন্ধনে সব কিছুই পরিমাপ মতো লাগছে।
    এক গ্লাস রোমান্টিকতা
    এক মুঠো দুঃখ
    এক চিমটি শিক্ষা

    জুনা ড়ক্করে।


    “Happiness is when what you think, what you say, and what you do are in harmony.”
    ― Mahatma Gandhi

    জবাব দিন
  6. মোরালঃ কল স্ক্রীনিং কি সেটা শিখলাম আমরা। 😀
    জুনা ভাই, ট্যাগে, গল্পে গল্পে মুবাইল শিক্ষা অ্যাড কইরা দ্যান। :grr:

    অফটপিকঃ
    একটা দীর্ঘশ্বাস বাইর হয়া গেল, আর কইলাম, আহারে.... 🙁 🙁 :(( :((
    ভাই, প্রেম্পিরিতির্বেইল্নাইক্কা........ কইষা মাইনাস।
    পুরান ম্যালা ঘটনা মনে পইড়া গেল। =(( =(( =((

    আমার প্রিয় পোস্টের সংখ্যা আরেকটা বাড়ল। :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff:

    জবাব দিন
  7. এই পৃথিবীর বিরাট খাতায় পাঠ্য যে সব পাতায় পাতায়। আমরা ছেলেরা বোকা মেয়েদের ভাল না বাসলেই পারি। কিন্তু ভালবাসি, তবুও ওরা আমাদের কখনো বোঝে না অথবা বোঝার চেষ্টাও করে না।
    এটা গল্প হলেই ভাল হয়।

    জবাব দিন
  8. আসিফ মাহমুদ

    ...পৃথিবী বড়ই রহস্যময়,কিভাবে যেন ঘটনাগুলো একই স্রোতে ঘুরপাক খায়.... 🙁


    ...একদিন সবকিছু মুছে যায় হিমেল হাওয়ায়, স্মৃতিমাত্র লিখে নাম...সেইখানে আমিও ছিলাম...

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।