ফিক্সড! ক্যাশ এন্ড করাপশন ইন ক্রিকেট (২য় পর্ব)

বাজির সকল কর্মকাণ্ড অত্যন্ত গোপনীয় এবং জটিল নেটওয়ার্কের সমন্বয়ে গঠিত। উদাহরণ হিসেবে তাদের কর্মস্থলের কথা বলা যায়। পুলিশের চোখে ধুলো দেয়ার জন্য ভারতীয় বুকিরা সব সময় চরম বিলাসবহুল এবং ব্যতিক্রমধর্মী স্থান নির্ধারণ করে। কেউ প্রত্যন্ত গ্রামীণ পরিবেশে স্যাটেলাইট ফোনের মাধ্যমে ব্যবসা পরিচালনা করে, আবার কেউ পুলিশকে ঘুষ দিয়ে ম্যানেজ করে একেবারে স্টেডিয়ামের পাশেই অফিস খুলে বসে। আবার অনেকে আছে যারা বিলাসবহুল ফাইভ স্টার হোটেলের টপ ফ্লোরে বসে কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে,

বিস্তারিত»

ফিক্সড! ক্যাশ এন্ড করাপশন ইন ক্রিকেট

ক্রিকেট ছিল আমার প্রথম প্রেম। ক্রিকেটের কারণে যত সময়, মেধা ও শ্রম নষ্ট করেছি সেসব অর্থনীতি বিষয়ে ব্যয় করলে এত দিনে আমি হয়ত দু’টো নোবেল প্রাইজ জিততে পারতাম। কিন্তু ইদানিং সেই প্রেমে ভাটা পড়েছে। আসলে কিছুই নেই। এর প্রথম ও প্রধান কারণ আমাদের অযোগ্য ও দুর্নীতিপরায়ন ক্রিকেট বোর্ড। এ রকম সুইসাইডাল বোর্ড ওয়েস্ট ইন্ডিজ ছাড়া পৃথিবীর কোথাও দেখতে পাওয়া যাবে না। তথাকথিত এই অভিভাবকের কারণে দেশের ক্রিকেট নিয়ে আমি ভীত ও শঙ্কিত।

বিস্তারিত»

যে প্রজেক্টটি বদলে দিয়েছিল আধুনিক তুরস্কের শিক্ষা ব্যাবস্থার মোড়

Köy Enstitüsü (Village Institute), যে প্রজেক্টকে আজকের উন্নত তুর্কী শিক্ষা ব্যাবস্থার মেরুদন্ড বলে অভিহিত করেন অনেক শিক্ষাবিদ্গণেরা। 

সালটা ১৯২৬, তুর্কী প্রজাতন্ত্র গঠনের কেবল মাত্র তিন বছর হয়েছে, তখনই এক যুগান্তকারী উদ্যোগ গ্রহণ করে আধুনিক তুরস্কের জনক মুস্তাফা কামাল আতাতুর্ক এর গঠিত সরকারের শিক্ষা মন্ত্রনালয়। প্রথমে এটি ছিলো কেবলই গ্রামাঞ্চলের শিক্ষকদের ট্রেনিং দেওয়ার একটি প্রজেক্ট; পরে এটি বৃহদাকার ধারণ করে। এই প্রজেক্টটি মূলত মার্কিন দার্শনিক তথা শিক্ষাবিদ জন ডিউই এর “উপযোগবাদী শিক্ষা দর্শন” এর উপর ভিত্তি করে সাজানো।

বিস্তারিত»

পিলখানা বিডিআর সদর দপ্তর-সর্বশেষ বধ্যভূমি।

বধ্যভূমির শব্দটির উচ্চারণ কেউ করলে প্রথমেই মাথায় চলে আসে রায়েরবাজার বদ্ধ ভূমির কথা। কিন্তু স্বাধীনতা অর্জন করার পরেও স্বাধীন বাংলাদেশের মাটিতে আরেকটি বদ্ধভূমি হবে তা কি কল্পনা করেছে কেউ? তাও আবার বিডিআর এর পিলখানা সদর দপ্তরে? ইউনিফর্ম পরিহিত নিরস্ত্র সামরিক কর্মকর্তাদের নিশংসভাবে হত্যার মাধ্যমে? একাত্তরের স্বাধীনতার পর রায়বাজারের বদ্ধভূমিতে আমরা পেয়েছিলাম অসামরিক বুদ্ধিজীবীদের লাশ আর স্বাধীনতার পরে আমাদেরকে পিলখানার বধ্যভূমিতে পেতে হলো সামরিক পোশাক পরিহিত সামরিক কর্মকর্তাদের লাশ।

বিস্তারিত»

ভালোবাসা

ভালোবাসা ।
মো ও খা ও ৷

কি অমলিন রূপের আভা
কাঞ্চনজঙ্ঘার চূড়ায় বিচ্ছুরিত
সোনালি কোমল দ্যোতনায়
আমি তো দেখেছি তোমাতেই
কপোলে ছড়ানো উদ্ভাসিত ছটায়
নিভৃত সুখের উদ্বেল ভাষায়
মুক বধির চেতনায় বোধহীন
ভালোবেসে শুধু তোমায় ৷

বর্ষার ঘনকালো মেঘ গম্ভীর
নিশ্চুপ নিরব আকাশ ভেলায়
নিকষ কালো যে আমাবশ্যায়
আমি তো দেখেছি তোমাতেই
বুকের কোটরে উদ্বেল দখিনায়
খোপা খোলা এলোকেশী মায়ায়
বিহব্বল চঞ্চল ব্যাথায় মুর্ছিত
ভালোবেসে শুধু তোমায় ৷

যে উচ্ছল ফেনিল ঊর্মি রাশি
সাত সাগরের বুকে টেউ তুলে দোলে
কৃষ্ণচূড়ার লাল আগুন বাসনায়

আমি তো দেখেছি তোমাতেই
শুভ্র শাড়ীর ভাজে মহিমায়
ফাগুনে উদাসী মদির বায়
দিশেহারা প্রান বোবাকান্নায
ভালোবেসে শুধু তোমায়।

বিস্তারিত»

ফাগুন মনে

ফাগুন মনে।
মো ও খা ও

পলাশ ডালে বহ্নিলালে সেজেছে দিন
আজ যে ফাগুন বনে
শিমুল শাখা আগুন মাখা রঙ অমলিন
বসন্ত বহিছে যে মনে ৷
কোকিল ভোরে কুহু সুরে উদাস বাউল
পরাণ পাগল প্রায়
শালিক চিলে নভোনীলে মনটা আউল
জোয়ার হৃদয় যমুনায় ।

হলদে শাড়ী পরনে নারী দয়িত বাসনা
উন্মনা স্বপ্ন ভাবনায়
খোপায় ফুল কানের দুল বক্ষে দ্যোতনা
হিয়া কাঁপল যাতনায়।

বিস্তারিত»

২১ (বিশ্ব মাতৃভাষা দিবস)

২১ (বিশ্ব মাতৃভাষা দিবস)
শিল্পী: বাপ্পী খান, মেহেদী, অংশু, তরুণ, দূরে ও সুমন।
কথা: বাপ্পী খান
সুর: নিয়াজ আহমেদ অংশু
সঙ্গীত: বাপ্পী খান-নিয়াজ আহমেদ অংশু-টিটো
লেবেল: সাউন্ডটেক

গর্বে আমার হৃদয় হাসে,
সুখের জোয়ার অশ্রুজলে।
বাংলা আমার মায়ের ভাষা,
বিশ্বজনীন মাতৃভাষা।
উল্লাসে আজ আকাশ কাঁপে,
দোয়েল পাখির গানে।
আমরি বাংলা ভাষা,
চেনে বিশ্বের সবখানে।

বিস্তারিত»

শিক্ষকের ডায়রিঃ পর্ব-১০

আমি আগে বলতাম, “The world is full of emotional fools, and teachers are on the frontline.” তবে গত কয়েকদিনের অভিজ্ঞতায় মনে হচ্ছে শুধু শিক্ষকেরাই নয়, তাদের প্রিয় মুখগুলোও ওই ফ্রন্টলাইনের কম্পিটিশনে আছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কনভোকেশন আয়োজনের এই দিনগুলোতে গত কয়েকদিন ধরে অনেক দিন পরে দেখা হলো এমন কিছু প্রিয় মুখের যেসব কাণ্ডকীর্তি দেখলাম, তার সামান্য কিছু নমুনা এখানে দিলাম। এই লেখাটা সোশাল মিডিয়াতেও দিয়েছি,

বিস্তারিত»

ছোটগল্প: আলো অন্ধকারে যাই

[এই গল্পটি মাস তিনেক লিখেছিলাম ব্লগ সূত্রে পরিচয় হওয়া (সিসিবি না) এক বন্ধুর প্রয়ান দিবসে। সেটাকে একপাশে সরিয়ে আলাদা গল্প হিসাবেও এটাকে পড়া যায়। সত্যিকার অর্থে গল্পটা লিখার জন্য আরও সময় আর মনযোগ দাবি করে। অনেককাল ধরে কিছু লিখি না বলে সবটুকু দেয়া গেল কিনা বলা মুশকিল। ভাবলাম গল্পটি আমার সিসিবির পাতায়ও থাক। সময় পেলে আবার এডিট কোরা যাবে। গল্পটিতে সময়ক্রম ইচ্ছা করেই ডিসরিগার্ড করা হয়েছে।]

বরফের কৃষ্ণচূড়া

আরেকটু উঠলেই চূড়ায় পৌঁছে যাব আমরা।

বিস্তারিত»

শিক্ষকের ডায়রিঃ পর্ব-৯

[এই লেখাটার জন্ম বেশ কিছুদিন আগেই। ব্লগের পেইজের কোন একটা সমস্যার কারনে লগ ইন করতে সমস্যা হচ্ছিল। আজ হঠাৎ ব্লগটা ওপেন করতে পারার সাথে সাথেই লেখাটা এখানে দিয়ে দিলাম।]

১৫ জানুয়ারি ২০২৩, সন্ধ্যা ৬টা ৫৫ মিঃ

ভার্সিটি থেকে কিছুক্ষণ আগে বাসায় ফিরে মোবাইল হাতে নিয়েই সোশাল মিডিয়ার একটা নোটিফিকেশন পেলাম। ওপেন করতেই দেখি কোন এক পাবলিক পেইজে “Best Teacher You’ll Never Forget”

বিস্তারিত»

বিয়ে আর ভালবাসা

পুরুষ আর স্ত্রীলিঙ্গ প্রভেদ সকল প্রাণীতেই আছে,
দুয়ের মাঝে বিয়ে-বন্ধন হয় শুধু মানব-মানবীতে।
অন্য প্রাণীদের মাঝে নেই বিয়ের প্রচলন,
তাদের মাঝে আছে শুধু ভালবাসার অদৃশ্য বন্ধন।

একটি বিয়ে ব্যর্থ হলে দুটো হৃদয় পোড়ে,
প্রেমহীন শুষ্ক হৃদয় শুধু শূন্যবৃত্তে ঘোরে।
দ্বিপাক্ষিক, নিরন্তর ভালবাসায় বিয়ে পয়মন্ত হয়,
এমন দম্পতি থেকে সৃষ্ট পরিবারে সুখ বহমান রয়।

ঢাকা
২৮ জানুয়ারী ২০২৩

বিস্তারিত»

কথা হলো না

কথা হলো না।

তোমাকে-যে “ভালবাসি” বলা হলো না,
রাগ আর অনুরাগ বোঝা গেল না।
মান আর অভিমান শেষ হলো না,
আজ আর আমাদের কথা হলো না।

মেঘগুলি বুকে জমে হলো দূরাশা,
আশা গুলো রয়ে গেল হয়ে নিরাশা।
পথহারা পথিকের নেই-আজ-ঠিকানা,
আজ আর আমাদের কথা হলো না।

প্রখর রোদের দিনে হলে নাতো ছায়া,
মমতায় এলোমেলো প্রেমের মায়া।

বিস্তারিত»

ভালবাসার সিক্ততাঃ দিনলিপিতে আত্মকথন

৮ জানুয়ারি ২০২৩

১। ৪৭ পার করলাম, ৪৮ শুরু হলো। মানুষ স্বাভাবিক নিয়মে কতদিন বাঁচে? সেই হিসেবে জীবনের পিক স্টেজটা তো পার হয়েই গেল। এখন প্রায়ই মনে হয়, কিছুই তো করা হলো না। শরীরের বয়স বেড়েই চলেছে; অনেক চেষ্টায়, বলা চলে কিছুটা জোর করেই, মনের বয়সটাকে টিন এইজেই ধরে রাখার চেষ্টা করছি। যাই করি, ভালবেসে করি; আর তাতেই মেলে জীবন। তবে শিক্ষকতায় থেকে একটাই ঝামেলা,

বিস্তারিত»

স্বাগতম 2023

স্বাগতম 2023
——————-
নতুন আসবে।
আসুক।
তাকে আসতে দাও।
আসতে দিতেই হবে।
নতুবা তুমি নিজেই পুরানো হয়ে যাবে।
পিছিয়ে থাকবে অতীতের আস্তাকুঁড়ে।
তাই বলে পুরানোকে ফেলে দেয়া যায় না।
ফেলে দেয়া ঠিক না।
অতীতের ভালো থেকে দীক্ষা নিতে হয়।
মন্দ থেকে নিতে হয় শিক্ষা।
সুখ থেকে নিতে হয় দুঃখের সম্ভাব্যতার পাঠ।
দুঃখ থেকে পেতে হয় আশু আনন্দের মন্ত্রনা।

বিস্তারিত»

তখনও জানতে বাকি

তখনও জানতে বাকি

কথাঃ বাপ্পী খান

সুর-সংগীতঃ আইয়ুব বাচ্চু

শিল্পীঃ আইয়ুব বাচ্চু

এবি কিচেন স্টুডিও ভার্শন

 

তখনও জানতে বাকি, তুমি আর আমি,

কার চেয়ে কে বেশী, কাকে ভালবাসি?

এখন আর তখনের জীবনসীমায়,

তোমার ছলনাগুলো এখনো কাঁদায়।।

তখনও জানতে বাকি, তুমি আর আমি,

কার চেয়ে কে বেশী,

বিস্তারিত»