রাঙ্গামাটির রঙ্গে চোখ জুড়ালো……এবং আমাদের হিরোহিতোর বিয়ে…

হিরোহিতোর বিয়ে…হিরোহিতো চাকমা…..চাকমাদের বিয়ে দেখার লোভ সামলাতে পারলামনা।..এমনিতে পোলাপাইনকে ঠেলতে লাগে দশদিন।কিন্তু যেই মাত্র তানভীর বলল, “দোস্ত, চাকমা বিয়ে দেখাও হবে, সেই সাথে চান্সে রাঙ্গামাটি-কাপ্তাই ট্যুর। ব্যাস আর পায় কে?যেই ভাবা, সেই কাজ। তাড়াতাড়ি টিকিট ম্যানেজ করো। এই গরমে এ.সি বাস ছাড়া কাজ হবেনা, হাসনাতের আবদার। করপোরেট মানুষ।আমাদের মতন ছা পোষা না। ওর কথা তো ভাবতেই হয়।তো দায়িত্ব পড়ল ফরিদের ঘাড়ে। না করতে পারেনাই। কিন্ত এই গরমে আমাকে ধরছে যে টিকিট কিনতে ওর সাথে যেতে হবে। ও আবার একা চলতে পারেনা। ডিপার্টমেন্টের এক সময়ের বড় ভাই।এখনও ক্যাম্পাসে গেলে আশেপাশে অনেক শিষ্যদের আনাগোনা দেখা যায়। শেষে না টিকিট কেনাই বাদ যায়, এই ভয়ে আমি একরকম রাজিই হয়ে গেলাম।টিকিট কেনা হলো। আর তার দুইদিন পর ই রওনা দিলাম। ওমা..একি শুনি। হাসনাত নাকি যেতে পারবেনা। অফিসে আটকে গেছে।এদিকে দেখি এ.সি বাস ও নাকি নাই।সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের কারণে বাস আসতে পারেনাই। কি কার করা। চলো ওতে। আমরা সাতজন। আমি, ফরিদ, সারওয়ার, তানভীর, শিবলী, রেজা, বদরুল। রাত দশটায় রওনা।।পৌছতে পৌছতে সকাল ৮টা………

গিয়ে উঠলাম জেলা পরিষদ রেষ্ট হাউসে। ব্যবস্থা সব হিরোহিত ই করে রেখেছিলো। সেতো দেখি এক আলিশান ব্যবস্থা। মাইক্রোবাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। কিন্তু রেষ্টহাউসে পৌছে দেখি ব্যাগগুলো গাড়ীতে তুলতে যেটুকু সময় লাগলো, সেটুকু হাঁটাতে ব্যয় করলে এর আগেই বোধহয় পৌছানো যেতো। যাইহোক, নাস্তা করেই “দে দৌড়”- ঘুরে বেড়ানো। আর ছবি তোলা। ফোন দেয়া হলো ভিজক দা কে- এই একটা লোক আমরা যে কয়েকবার রাঙ্গামাটি গিয়েছি, নিঃস্বার্থ ভাবে আমাদের সাথে ছিলো। কিন্তু শহুরে এই জীবনে যতবারই উনি এসেছেন, আমরা তাকে এতটুকু সংগ দিতে পারিনি।

দুপুরে ভোজন পর্ব কনে বাড়ী। গিয়ে হাজির। দেখি কাউকেতো চিনিনা। তাতে কি খাওয়া বড় কথা এবং খাওয়া শেষেই (নোয়াখালী) বিদায়।

রাতে বরের বাড়ীতে অনুষ্ঠান। গিয়ে দেখি এ-মা, চাকমা মেয়েরা আবার এত্তো সুন্দর হয় নাকি!! দুই একজন চান্স নেয়ার ট্রাই মারলো। কেবল আমি এক সহজ সরল ছেলে-বরাবরই ভাল ছিলাম।

চাকমা বিয়ের রীতি হলো- যেদিন বিয়ে সেদিন কনে নাকি আলাদা রুমে থাকবে বান্ধবীদের সাথে, আর বর তার বন্ধুদের সাথে। একি নিয়মরে বাবা!!! পরদিন সকালে বর-কনে মন্দিরে যাবে পূঁজা পালনে। অতঃপর বর মহাশয় যাবেন কনেকে নিয়ে কনের বাড়ী। সেখানে রাত্রীবাস। যদি অনুমতি মেলেতো সেখানে বাসর। আর দুর্ভাগা হলে পরে যখন আবার বর কনেকে নিয়ে নিজের বাড়ী ফেরৎ যাবেন, তখন………….। আমরা অবশ্য জানতে পারিনি আমাদের বন্ধু সেই সৌভাগ্যবানদের দলে, নাকি দূর্ভাগাদের দলে ছিলো। এতো সময় কই? আমাদের মন তখন টানছে মায়াবী শুভলং ঝর্ণা আর কাপ্তাই। যথারীতি আবারও হাজির ভিজক দা। এবং উনার দয়ায় আমাদের যাত্রা শুরু।

শুভলং ঝর্ণা- বর্ষাতে এ যেনো আরও মায়াবী। মন চায় যেনো এখানে ডুবে মরি। শুরু হলো ঝর্ণা গোছল। এত্তো মজা বোধহয় মাঁধবকুন্ডতেও অনুভব করিনি। অতঃপর বিদায় জানিয়ে কাপ্তাই গমন। সেই ট্রলারে। অসাধারণ এক কথায়।

কাপ্তাই গিয়ে অবশ্য কোন টেনশনে থাকতে হয়নাই। ছিলাম আর্মি রেস্ট হাউসে। “কর্ণফুলি রিসর্ট-২, জীবতলী আর্মি ক্যাম্প, কাপ্তাই”। লেকের ঠিক পাড়েই রিসর্ট। রিসর্ট দেখেতো ফরিদ ঠিকই করে ফেললো ও বিয়ের পর এইখানেই মধুচন্দ্রিমা করবে। একে একে সবাই ই সিরিয়াল দেয়া শুরু করলো। আর আনন্দ যেনো শেষই হয়না। তার উপর হঠাৎ রংধনুর আবির্ভাব। তাও একটা না, দুই দুইটা।

অতঃপর সবশেষ করে আবারও সেই নগর জীবনে ফেরা। কিন্তু মহান সৃষ্টিকর্তা যে অসীম সৌন্দর্যে এ দেশকে রাঙ্গিয়েছেন, তাকে দু-চোখ ভরে দেখেও যেনো মন ভরেনা।

সবার সুবিধার জন্য কিছু স্মৃতি ছবি আকারে শেয়ার করলাম…….

১,৭২০ বার দেখা হয়েছে

২১ টি মন্তব্য : “রাঙ্গামাটির রঙ্গে চোখ জুড়ালো……এবং আমাদের হিরোহিতোর বিয়ে…”

  1. শাওন (৯৫-০১)

    ব্যাপার না...আবার যাবো ইনশাল্লাহ....


    ধন্যবাদান্তে,
    মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান শাওন
    প্রাক্তন ক্যাডেট , সিলেট ক্যাডেট কলেজ, ১৯৯৫-২০০১

    ["যে আমারে দেখিবারে পায় অসীম ক্ষমায় ভালো মন্দ মিলায়ে সকলি"]

    জবাব দিন
  2. শাওন (৯৫-০১)

    @ মাস্ফু,
    তয় তোর মত বস কয়জন আছে? 😀 শুনলাম এন.এস.ইউ গেলেই নাকি সবাই তোর নাম বলে। একদিন যাইতে হয় তাইলে... 😀 যামু বস?? 😀


    ধন্যবাদান্তে,
    মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান শাওন
    প্রাক্তন ক্যাডেট , সিলেট ক্যাডেট কলেজ, ১৯৯৫-২০০১

    ["যে আমারে দেখিবারে পায় অসীম ক্ষমায় ভালো মন্দ মিলায়ে সকলি"]

    জবাব দিন
  3. রবিন (৯৪-০০/ককক)
    চাকমা মেয়েরা আবার এত্তো সুন্দর হয় নাকি!! দুই একজন চান্স নেয়ার ট্রাই মারলো। কেবল আমি এক সহজ সরল ছেলে-বরাবরই ভাল ছিলাম।

    তুই তো দেখি আমার মতো ভালো ছেলে।

    জবাব দিন
  4. শাওন (৯৫-০১)

    ভাই, আমি এইবার কনফিউসড 😀 :))


    ধন্যবাদান্তে,
    মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান শাওন
    প্রাক্তন ক্যাডেট , সিলেট ক্যাডেট কলেজ, ১৯৯৫-২০০১

    ["যে আমারে দেখিবারে পায় অসীম ক্ষমায় ভালো মন্দ মিলায়ে সকলি"]

    জবাব দিন
  5. শাওন (৯৫-০১)

    @ তানভীর,
    তোরে আমি......... :grr: :grr:

    যাইহোক... প্রতিবার আমি কম খেয়েও বেশী খাওয়ার দোষ পড়ে। এই প্রথম খাওয়ার ব্যাপারে পোলাপাইনের চত্রান্ত ব্যর্থ হইছে। 😉 আর শিবলী ধামাকা নিয়ে লিখতে গেলে ওকে নিয়েই আলাদা করে লিখতে হবে :))


    ধন্যবাদান্তে,
    মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান শাওন
    প্রাক্তন ক্যাডেট , সিলেট ক্যাডেট কলেজ, ১৯৯৫-২০০১

    ["যে আমারে দেখিবারে পায় অসীম ক্ষমায় ভালো মন্দ মিলায়ে সকলি"]

    জবাব দিন
    • শাওন (৯৫-০১)

      @ ফরিদ,

      আমার সাথে ছবি?? আমিতো ভয়ে কোন ছবি ই তুলতে চাই নাই। 😀 তোর আবার উনাকে :just: ফ্রেন্ড বানানোর শখ কিনা? 😀


      ধন্যবাদান্তে,
      মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান শাওন
      প্রাক্তন ক্যাডেট , সিলেট ক্যাডেট কলেজ, ১৯৯৫-২০০১

      ["যে আমারে দেখিবারে পায় অসীম ক্ষমায় ভালো মন্দ মিলায়ে সকলি"]

      জবাব দিন
    • শাওন (৯৫-০১)

      @ তানভীর ভাই,
      :no: :no: ছবিগুলা দেখেন....সবখানে আমার সহজ সরল মূর্তির প্রতিচ্ছবি। 😉

      তাছাড়া স্ব্য়ং লাভলু ভাই আমারে সার্টিফিকেট দিবে। জিজ্ঞাসা করেন.... :clap:


      ধন্যবাদান্তে,
      মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান শাওন
      প্রাক্তন ক্যাডেট , সিলেট ক্যাডেট কলেজ, ১৯৯৫-২০০১

      ["যে আমারে দেখিবারে পায় অসীম ক্ষমায় ভালো মন্দ মিলায়ে সকলি"]

      জবাব দিন
  6. কামরুল হাসান (৯৪-০০)

    হিরোহিতো আর বৌদিকে অভিনন্দন।
    ক্লাস নাইনে হিরোহিতো আমার ডাইনিং টেবিলমেট ছিল। চা দিয়া কলা খাইতো 😛


    ---------------------------------------------------------------------------
    বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
    ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

    জবাব দিন
  7. কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)

    পাহাড়ী বিয়াতে বিরাট আকর্ষণ হইলো রাইতের বেলায় চুয়ানির আসর।
    এইরকম এক বিয়া থেইকা কিছু পানাসক্ত পোলাপাইনের জন্য কয়েক বোতল ঘাড়ে কইরা নিয়া আসা লাগছিলো। আমি অবশ্য খাইনা এসব, শাওনের মতোন ভালো ছেলে কিনা :guitar:


    সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

    জবাব দিন
  8. শাওন (৯৫-০১)

    @ কাইয়ুম ভাই,
    আমি কি করলাম বস।
    যাইহোক..."ভালো এবং সহজ সরল"..... 😀 আমি কিন্তু ভাই আসলেই খুউউব ভালো এবং সহজ সরল একটা ছেলে


    ধন্যবাদান্তে,
    মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান শাওন
    প্রাক্তন ক্যাডেট , সিলেট ক্যাডেট কলেজ, ১৯৯৫-২০০১

    ["যে আমারে দেখিবারে পায় অসীম ক্ষমায় ভালো মন্দ মিলায়ে সকলি"]

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।