উপজিলা নির্বাচন নিয়ে কিছু কথা……….

উপজিলা নির্বাচন নিয়ে কিছু কথা………...
কিচুদিন আগে উপজিল নির্বাচন হয়ে গেল। মোটামুটি ৯০% সফল হলেও কিছু কিছু ঘটনার কারনে সংশয় থেকেই যায়। কিছু ঘটনা বলতে আসলে আমি নির্বাচনে মন্ত্রী এবং এম.পিদের দৌড়ঝাপের কথা বলছি। এখন কথা হল এমন ঘটনাগুলো কি না করলেই হতনা ?!!! এখন অবস্থা যা আর সংসদ নির্বাচনের কথা বিবেচনায় আনলে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রাথীর বিজয় একরকম সুনিশ্চিত ই বলা যেতো। এখন তারপর ও এত হাঙ্গামার অর্থ সত্যি কথা বলতে এই আমরা যারা সত্যিকার অর্থেই দিনবদলে বিশ্বাস করতাম বা এখনও করি তাদের সত্যিকারের দিন বদলের আশাকে একটু হলেও সংশয়ে পরিপূর্ণ করা। কাজটা কতটা যুক্তিযুক্ত তা বোধকরি সংশ্লিষ্ট কেউ ই ভেবে দেখেন্নি। যাই হোক তাও ভালো লাগলো নির্বাচন কমিশনের সৎ সাহস দেখে। নির্বাচন হয়ে গেছে বেশ কয়েকদিন ই হয়ে গেল। কিন্তু এক্তু দেরি করার কারণ এই যে আমি আসলে নির্বাচন কমিশনের কিছু প্রতিক্রিয়ার জন্য অপেক্ষা করছিলাম। যাই হোক আশা করি দিন বদলের স্বপ্ন কিছুটা হোচট খেলেও বৃথা হবেনা। আমি বা আমরা এখনো আশাবাদি। তবে দিন বদলাতে গেলে আগে আসলে সরকারী দল্কেই আগে বদলাতে হবে। ঐযে বলেনা “যতই বলো বদলাতে হবে বদলাতে হবে, আসলে কিছুই বদলাবেনা যদি না নিজে আগে বদলায়”। তাই সরকারকে বদলাতে হবে তাদের অভ্যাস।

আমার খুউউব ই ইচ্ছে ছিলো এবারের উপজিলা নির্বাচনে ভোট দিবো। কিন্তু আফসোস যে সিটি কর্পোরেশন এলাকার ভোটার হওয়াতে তা আর সম্ভব হয়নি। তবুও ভালো লাগলো এই ভেবে যে অন্ততঃ দ্বৈত ভোটার হতে হয়নি কাউকে।

৭১২ বার দেখা হয়েছে

৬ টি মন্তব্য : “উপজিলা নির্বাচন নিয়ে কিছু কথা……….”

  1. টিটো রহমান (৯৪-০০)

    আমার মতন পাব্লিকও বুইঝা গ্যাছে যেই লাউ সেই কদু
    গত শুক্রবার টিএসসি গিয়া দেখলাম আম্লিগের পোলাপান সেখানরকার সবরুম দখলে নিছে x-( x-( x-(


    আপনারে আমি খুঁজিয়া বেড়াই

    জবাব দিন
  2. সানাউল্লাহ (৭৪ - ৮০)

    উপজেলা নির্বাচন নিয়ে আমি ভীষণ হতাশ। আর এই স্থানীয় সরকার ব্যবস্থাটা নিয়ে মহাজোট সরকার যেভাবে মশকরা করার পরিকল্পনা আটছে তাতে রীতিমতো আতংকিত!! সাংসদদের ঢোকানোর পর তাদের অফিস ঢোকানো হবে। এরপর কি? নাহ্‌, ভোটটা দিয়ে বোধহয় ভুলই করে ফেলেছি!!!


    "মানুষে বিশ্বাস হারানো পাপ"

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।