১০ নম্বর মহাব্লগ সংকেত!

১.
………..ইহা মূলত একটা কৃতজ্ঞতামূলক পোস্ট। যে ছেলে জীবনে কোন ধরনের ম্যাগাজিনে কোন মৌলিক লেখা দেয়নি, পরীক্ষার খাতায় একগাদা চাপাবাজি ছাড়া ভালো কিছু লিখেনি, সে যে কীভাবে একে একে ১০টা ব্লগ লিখে ফেলল, সেটা খুবই আশ্চর্যজনক। অবশ্য এতে আমি নিজে ছাড়া আর কেউ আশ্চর্য হবে, এমনটা ভাবার কোন কারণ নেই। সারাজীবন খালি কোন একটা কাজ পেলেই সেটা কিভাবে এড়ানো যায় সেই রাস্তা খুঁজেছি আর এখন ব্লগিং এর নেশায় রাতের ঘুম হারাম করে সবার লেখা পড়ি ও মাঝে মাঝে স্মৃতির ঝাঁপি খুলে নিজেও কিছু কথা শেয়ার করার চেষ্টা করি। আগেই বলেছি আমাকে দিয়ে গোবতে-কোবতে টাইপ মৌলিক রচনা জীবনেও হবেনা, বরং স্মৃতি অনুরণন করতেই আমার স্বাচ্ছন্দ্যবোধ হয়। এভাবেই কীভাবে কীভাবে যেন ১০ নাম্বার ব্লগ লিখতে বসে গেলাম, বিশাল ছুটির পর সিসিবি-তে ফিরে!

সিসিবি-তে আমার উপস্থিতির জন্য আমি বিশেষভাবে কৃতজ্ঞ আমার বন্ধু আজহার আর মাহবুবের কাছে। এই দুজনের লেখা পড়েই আমি অনুপ্রাণিত হই কিছু স্মৃতি শেয়ার করার জন্য।তাই প্রথমে ভয়ে ভয়ে ফেসবুকে একটা নোট লিখি। পরে দেখলাম সবার ভালো লাগল। আজহার, মাহবুব এবং লিমু ভাবী তিনজনই বলল সিসিবি-তে দিয়ে দিতে। সিসিবি-তে আমি মূলত জয়েন করেছিলাম মাহবুবের ব্লগে কমেন্ট করতে। আমার সদস্যপদ অ্যাপ্রুভ কবে হল টেরই পাইনি। তো তাদের উৎসাহে পোস্ট করে দিলাম আমার প্রথম ব্লগ ”সপ্তম শ্রেণীর সাতকাহন”। দেয়ার পর দেখি সিনিয়র জুনিয়ররা সবাই খুব ভাল বলল। যাই হোক, মাশরুফ ভাই, আদনান ভাই আরো অনেকে যেভাবে পিঠ চাপড়ানো সাবাশি দিলেন তাতে আমি খুবই অনুপ্রাণিত হলাম। শুরুতেই এতটা সাবাশি পাব ভাবিনি। তাই যেখানে কিছু লিখা হত না, সেখানে সুবিশাল ১০ ১০টা ব্লগ লিখে ফেলে আমার যতটুকু শান্তি, সন্তুষ্টি, সাফল্য কিংবা কৃতজ্ঞতা; তা আমি ইনাদের সবাইকে ভাগ করে দিতে চাই। মাস্ফ্যু ভাই, স্বপ্নচারী মইনুল ভাই, কাইয়ূম ভাই ”একটি অতিপ্রাকৃতিক কক্ষভোজনঃ অ্যান এপিক অ্যাডভেঞ্চার” পড়ে যে পরিমাণ উৎসাহ দিয়েছিলেন তাতে আমার সিসিবির প্রতি টান আরো বেড়ে গিয়েছিল।

তাই আমি সকলের প্রতি কৃতজ্ঞ। আশা করি ভবিষ্যতে আরো পরিশীলিত লেখা উপহার দিতে পারব।

২.
………অনেকদিন পর বাসায় বুকশেলফ গোছাতে গিয়ে ২০০৬ সালের ডায়েরী পেলাম। প্রতি বছরের ডায়েরীতেই মূলত থাকত আমার পাক্ষিক পরীক্ষা, টার্মিনাল পরীক্ষার মার্ক্স কিংবা কোন উল্লেখযোগ্য ঘটনা। তো এই ডায়েরীর শেষ দিকে আমি কয়েকটা কোটেশন পেলাম। ভাববেন না, কোটেশনগুলো কোন মনীষীদের মতামত!

শানে নূযূল হচ্ছে, ক্লাস টুয়েলভে কোন এক শুক্রবার রেস্ট টাইমে আমাদের কাসিম হাউস ১২ নং রুমের বাসিন্দাদের মনে হল, আমাদের রুমলীডার মুনতাসিরকে একটু পচালে কেমন হয়! তো যেই ভাবা সেই কাজ, একেকজন মহামনীষী ভাব ধারণ করলাম। রুমে ৫ জন ছিলাম। মুনতাসির ছাড়া বাকি আমরা ৪ জন একেকটা কোটেশন দেয়া শুরু করলাম আর নামগুলোও বিকৃত করলাম বিশেষভাবে। কিছু কিছু ক্যাডেট ও স্যারের টীজনাম অনুযায়ী। তো আমার চেষ্টা থাকবে কোটেশনগুলোর একটু ব্যাখ্যা করে দেয়ার। কেউ না বুঝলে আমাকে তিরস্কার করবেন, আমি কিছু মনে করব না। কিন্তু ডায়েরীতে যা যেরকম লিপিবদ্ধ করেছিলাম, সে রকমই এখানে কাট-পেস্ট করলাম…………

১) ব্যাখ্যাঃ
আমাদের মুনতাসিরকে পচানোর জন্য আমরা ৪ জন- শফি, রাফি, আমি আর মাহমুদ মিলে এমন কিছু কোটেশন মারলাম যা ক্যাডেটরাই খালি বুঝবে, অন্য কেউ হলে ভাববে এদের তার ছিঁড়া। সামান্য রুমলীডারশিপ নিয়ে যে কী পচানো যায় তা এসব না পড়লে বুঝবেন না। এখানে ব্যবহৃত সকল নাম কল্পনাপ্রসূত। ইহকালের কোন ব্যক্তি আমাদের এই পাগলামীর সাথে জড়িত নন। তাই নাম-কাম যে কোনটাই কারো সাথে মিলে গেলে তা কাকতালীয় বা কোকিলতালীয় ছাড়া আর কিছুই না, আগেই বলে রাখলাম। আমি ‘নির্দুষ’| নমুনা নিম্নরূপঃ

(১) ”জার্মানীর হিটলার,রোমের নিরো আর রুম নং ১২-এর মুন্তাসির!!” –বিখ্যাত সমাজবিজ্ঞানী CATTLE

(২) ”যাদের নামের ১ম অক্ষর ‘ম’ ও শেষ অক্ষর ‘র’,তারাই সমাজের কীট!” –গ্রীক প্রবাদ

(৩) ”পাবনা অঞ্চলের লোকজন প্রকৃতিগতভাবেই পাগল!!” –স্থানীয় প্রবাদ

(৪) ”যারা হঠাৎ হঠাৎ ক্ষেপে যায়,তারা আল-জাদীদের বংশধর।” –এম.এ.কাল্পেশ (নৃতত্ত্ববিদ)

(৫) ”রুমলীডারের ভিত্তি হচ্ছে রুমের ক্যাডেটদের সম্মতি, পাশবিক শক্তি নয়।” –জ্যাক পিটার (নোবেল বিজয়ী মানবাধিকার বিজ্ঞানী)

(৬) ”মানুষের সকল মৌল অর্থনৈতিক সমস্যার অন্যতম কারণ হল সমাজের কিছু মানুষের নেতিবাচক মন মানসিকতা।” –অর্থনীতিবিদ আলফ্রেড মার্শাল

(৭) ”কিছু কিছু স্বৈরাচারী ব্যক্তি শুধু জন্মগ্রহণ করে রুমলিডার হয়ে অত্যাচার করার জন্য।” –বিখ্যাত স্বৈরাচারী রুম লিডার চতুর্দশ লুই ফ্রোম

(৮) “নেতৃত্ব আর স্বৈরাচারের মোহে যারা দিশেহারা হয়ে যায় তারা আর মানুষের পর্যায়ে থাকে না।“ –চীনা দার্শনিক চোঙ্গা মাং

(৯) “সার্থক রুমলীডার হবার পথে অন্তরায় হল আত্মস্তম্ভিরতা, দাম্ভিকতা ও নির্লিপ্ততা।” –বিখ্যাত হাউসবিজ্ঞানী ক্লাইভ ক্লুখোন

(১০) “যখন ক্ষমতা কিছু ক্ষ্যাপাটে লোকের হাতে কেন্দ্রীভূত হয় তখন জনগণের স্বাধীনতা লুপ্ত হয়।” – রবার্ট মন্টেস্কু (অস্কার বিজয়ী পরিচালক ও অধিকার বিজ্ঞানী)

(১১) “যারা ব্যংগ করে কিন্তু তাকে ব্যংগ করলে ক্ষেপে যায়,তারা জাহান্নামে পতিত হবে।” –আরবি প্রবাদ

(১২) “অধিকার রুম বহির্ভূত বা রুম নিরপেক্ষ নয়,অধিকার রুমভিত্তিক।” –G.A. Lasky (রুমভিত্তিক)

(১৩) “অধিকার হচ্ছে একজন মানুষের সে সকল নিজস্ব বিষয় যা রুম লীডার কখনো খর্ব করতে পারে না।” –নোবেল বিজয়ী রুমবিজ্ঞানী ডঃ আলীম বাট

(১৪) “রুমলীডারের কাজ এমন হওয়া উচিত যা দ্বারা অন্যের স্বাধীনতা ভোগে বাঁধার সৃষ্টি না হয়।” –বিখ্যাত দলনেতা হার্বার্ট স্পেনসার

(১৫) “রুমলীডারশিপ হচ্ছে চরম,অবিভাজ্য এবং হস্তান্তরবিহীন।” –বিখ্যাত রুম গবেষক মুতা চ্যাং

(১৬) “ব্যঙ্গ করতে কার্পণ্য করা উচিত নয়।কার্পণ্য করলে তা সম্পর্কের বাঁধে মরিচা ধরায়।” –ঢাকাইয়া প্রবাদ

(১৭) রুম লীডার সম্পর্কে সবচেয়ে ভালো তথ্য দেন A.G. মেজর জেনারেল মতিউর রহমান।তিনি বলেন – “রুম লীডার হচ্ছে রুমের কল্যাণের জন্য রুমের ক্যাডেট দ্বারা পরিচালিত রুম প্রতিনিধিত্বমূলক শাসনব্যবস্থা”।

২) ব্যাখ্যাঃ বাকি কয়েকটা এক স্যারের প্রেপে টয়লেটে যেতে না দেয়া নিয়ে উক্তঃ

(১৮) “পাগল বলতে সে সব মহাজাগতিক অবস্থাকে বুঝায় যা তার নিজের কারণে সৃষ্টি হয়।” – বিখ্যাত পাগল গবেষক, আন্তর্জাতিক পুরষ্কার (একুশে পদক প্রাপ্ত) পাগল বিজ্ঞানী পল্টু

(১৯) “আমাকে একটি প্রেপ দাও,আমি তোমাদের টয়লেটে যাওয়া বন্ধ করব।” – পল্টু

(২০) “কোন দেশের অর্থনৈতিক অনুন্নয়নের প্রধান কারণ হল কিছু সংখ্যক সন্দেহপ্রবণ মানুষ।” –বিখ্যাত সওদাগর ও অর্থনৈতিক অনুন্নয়ন তত্ত্বের জনক মিশা মার্চেন্ট

শেষ কথাঃ
স্মৃতিচারণ সবারই ভালো লাগে। এগুলো একটু ব্যতিক্রম বলে দিয়ে দিলাম। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে খেয়াল করছি ব্লগ একটু ঝিমানো, নতুন পোস্ট যেমন আসে না, পোস্টে কমেন্টও পড়ে না তেমন! আর অনেক শ্রদ্ধাভাজন সিনিয়র আর এ্যাক্টিভ জুনিয়রের অনুপস্থিতি অনুভব করছি। সবার হলটা কি? চা ওয়ালা আজকাল চা-তে ভেজাল দিচ্ছে মনে হয়, দিহান ভাবীও দাওয়াত দেয় না, কি যে দিনকাল আসল! মাশ্রুম ভাই, মাল্কবি ভাই, টুশকির বাপ, কালাকুর্তা ভাই, ঝুনাকভ বাই, কাইয়ুম ভাই, মেহেদী ভাই-আঁধার বসাফাআআআআ জোড়ি, আপনারা কুথায়িইইইইইইইইইইই, আবার এসে সিসিবি মাতিয়ে তুলুন, আপনাদের নিকট পিন্টু ও তার ছুট্টুবুন্ধুদের বিনীত আর্জি! সিসিবি আবার মেতে উঠুক পুরোনো আড্ডাবাজিতে, রকিব্যাআআআ চাআআ দে এ এ এ………

৮,৭৯৭ বার দেখা হয়েছে

১১৯ টি মন্তব্য : “১০ নম্বর মহাব্লগ সংকেত!”

  1. রকিব (০১-০৭)

    একটু মেটাল জুক্স করিঃ
    "রকিব্যাআআআ চাআআ দে এ এ এ"
    বিশ্বাস করেন, আমি চান্দে যাই নাই। 😕

    এইবার আছিব ভাইয়ের মতো আমিও বলিঃ
    জাগো বাহে!!! কোনঠে সবাইইইইইইইইইইইইইইইইইইইইই!!!

    অফটপিকঃ আপনারে কম কইরে হইলেও দুইটা মেসেজ-দেয়াল লিখন দিছি; জবাব দেন্না ক্যান!!!!!!


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  2. ওয়াহিদা নূর আফজা (৮৫-৯১)

    :)) :)) :))
    অনেকদিন পর হাসতে হাসতে :pira:
    আশা করি মোন্তাসির কিছু মনে করবে না। দ্বাদশ শ্রেনীতেও রুমলিডারএর যন্ত্রনা পোহাতে হতো!


    “Happiness is when what you think, what you say, and what you do are in harmony.”
    ― Mahatma Gandhi

    জবাব দিন
    • আছিব (২০০০-২০০৬)

      নাহ আপু,মুন্তাসিরকে আমরা হুদাই জ্বালাইছি,কলেজ অথরিটি টাইট ছিল তো,তাই রুম লীডারদের প্রেসার দিত,আমাদের টাইট রাখার জন্য।কিন্তু আমার ব্যাচের ছেলে কি আর আমাদের টাইট রাখতে পারে বলেন?এই জন্যই যখনই ভাব মারতে আসত,আমরাও শুরু করে দিতাম :grr: :grr:

      জবাব দিন
  3. রেজওয়ান (১৯৯৪-২০০০)

    রুম লীডার সম্পর্কে সবচেয়ে ভালো তথ্য দেন A.G. মেজর জেনারেল মতিউর রহমান।তিনি বলেন – “রুম লীডার হচ্ছে রুমের কল্যাণের জন্য রুমের ক্যাডেট দ্বারা পরিচালিত রুম প্রতিনিধিত্বমূলক শাসনব্যবস্থা”।

    এই টা কালজয়ী। 😀

    জবাব দিন
    • আছিব (২০০০-২০০৬)

      ইয়ে ভাই,মতিউর রহমান বলে আদৌ কোন এজি-বেজি ছিলেন কিনা জানিনা।দুইজন মতিউরকে চিনি,একজন বীরশ্রেষ্ঠ আরেকজন পেরথম আলুর সম্পাদক 😕 😕 :no:

      আর ভাই, উক্তি ২ খালি মুন্তাসির এর জন্য বানানো,এর মধ্যে বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর অন্তর্ভুক্ত নন :bash: :chup:

      জবাব দিন
  4. মইনুল (১৯৯২-১৯৯৮)

    =)) =)) =)) =))
    আসলে ব্লগ ঝিমিয়ে গিয়েছে। তবে আমার ধারনা এই ঝিমানো ভাবটা ব্লগবৈশাখী আসার আগের লক্ষন। সামনে বিশ্বকাপ উপলক্ষে আশা করা যায় নরম গরম পোস্টে আবার ভরপুর হয়ে যাবে।

    জবাব দিন
  5. আছিব (২০০০-২০০৬)

    আরেকটা কথা,মেহেদী ভাই আর আন্ধার বসাফা ধুম-ধাম কইরা বিয়ের পিঁড়িতে ঠাসাঠাসি কইরা বইসা পড়ল,কুনু খবরই পাইলাম না!মাস্ফ্যু ভাই এর ফেসবুকে ট্যাগ করা ছবি দেখে বুঝলাম,ইনাদের প্রণয় আজ পরিণয়ে পরিণত!কিন্তু উনারা কি ''চান্দের নিচে মধু'' খেতে গিয়ে আমাদের কথা ভুলে গেলেন?? :(( :(( =((

    এমনই হয়!কেউ কথা রাখেনি 🙁 =((

    জবাব দিন
    • মেহেদী হাসান (১৯৯৬-২০০২)

      আসলে ধুম-ধাম হয়নিরে। গুজামিল দিয়ে মিলিয়ে দিয়েছে। তারপরও ফুল মার্ক্স পেয়েছে। হতাশ হোসনে, ইনশাল্লাহ আগামী ফেব্রুয়ারি/মার্চ মাসে ধুম-ধাম করে অনুষ্ঠান হবে। তখন সবাই মিছিল করে চলে আছিস।

      আর হ্যাঁ, কয়েকদিন বেশ ঝামেলায় ছিলাম। সিসিবিতে ঢু মারা হয়নি।

      অন্যদিকে, তোদের আঁধার আপা তো এখন আর সিসিবিতে কমেন্ট করতে পারে না (অতিথিদের কমেন্টানোর অপশন বন্ধ থাকায়) তাই সে রাগ করে সিসিবিতে আসে না।

      জবাব দিন
  6. মেহবুবা (৯৯-০৫)

    ওই পিচগি,খুবি মজা পাইলাম। :)) :)) :))
    এমন অসাধারন বাণীও শুধু ক্যাডেটদের মাথা থেকেই মনে হয় বের হয়।
    দ্বাদশ শ্রেণী দেখে হয়ত ভাষা মার্জিত... 😀
    তোরে অনেক গুলা :clap: :clap: :clap:

    জবাব দিন
    • আছিব (২০০০-২০০৬)

      এইভাবে একটা ''বাবা হৈতে পারে'' টাইপ ছেলেকে পিচগি বলিয়া আপনে নিজেকে দাদী-নানী সমান উচ্চতায় তুলে নিয়ে গেলেন।আশা করি আমার অনুজরা এখন থেকে মেহবুবা আপাকে নানী বলে সম্বোধন করবে। কি রে জুনিওররা,কি কস তরা??? :grr: B-)

      নানী গো নানী,তর মতলব জানি,তরে লইয়া যাইবাম নি মুই খাইট্টান্নির বাড়ি......... 😛 :guitar: :khekz: :goragori:

      জবাব দিন
      • কিবরিয়া (২০০৩-২০০৯)

        ইয়ে আছিব ভাই,
        আপ্নে পিচগি হুইলে, মেহবুবা আপায় কেম্নে নানী হয়, বুঝবার পাইলাম না। :-/
        বেশি হইলে আন্টি হইবার পারে। 😛 😛


        যেমন রক্তের মধ্যে জন্ম নেয় সোনালি অসুখ-তারপর ফুটে ওঠে ত্বকে মাংসে বীভৎস ক্ষরতা।
        জাতির শরীরে আজ তেম্নি দ্যাখো দুরারোগ্য ব্যাধি - ধর্মান্ধ পিশাচ আর পরকাল ব্যবসায়ি রূপে
        - রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ

        জবাব দিন
        • আছিব (২০০০-২০০৬)

          x-( আমি পিচগি হইলে বুইজা ল তুই কি?অবশ্য সেটা বুজার বয়সও ত তর হয়নাই,এহনও প্যান্টে হিসু করস আর বইসা বইসা ফার্টিং থুক্কু ফ্লপিং মারস।আন্ডা বাচ্চা কুনহাঙ্কার।নানী ডাকবার কইছি ডাকবি,এত্ত কুশ্চেন করস ক্যালা x-(

          জবাব দিন
            • কিবরিয়া (২০০৩-২০০৯)

              মেহবুবা আন্টি কাম নানী কাম বড় আম্মা কাম আপু্‌,
              আপনার প্রফাইল পিকচারে দুইটা টিয়া পক্ষি দেখা যায়, অইগুলার কুন্টা আপ্নে আর কুন্টা আমাদের বড় আব্বা/নানা/দুলাভাই/আংকেল যানবার মঞ্চায়।
              আর মইরা যাওয়ার আগে তার কি নাম ছিলো অই জানুম.........


              যেমন রক্তের মধ্যে জন্ম নেয় সোনালি অসুখ-তারপর ফুটে ওঠে ত্বকে মাংসে বীভৎস ক্ষরতা।
              জাতির শরীরে আজ তেম্নি দ্যাখো দুরারোগ্য ব্যাধি - ধর্মান্ধ পিশাচ আর পরকাল ব্যবসায়ি রূপে
              - রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ

              জবাব দিন
              • আছিব (২০০০-২০০৬)

                কিবরিয়া থাব্রিয়া তর এদিক্কার চাপা ওদিক নাড়ায় দিমু, কি দরকার খালি খালি জিগানোর,যে গ্যাছে সে গ্যাছে,আরও আসবে,জীবন কি থাইম্মা গ্যাছে রে? নালায়েক,এসব জিগাবি না কুনুদিন,খালি উইশ কর...আমাদের নানী যেন সুখে থাকে O:-)

                জবাব দিন
                • কিবরিয়া (২০০৩-২০০৯)

                  ব্যাপার কি আছিব ভাই?? 😮 😮
                  টান্ট আপ্নের ভালোইছে, কাহিনীক্কি??? :-/ :-/
                  আপ্নের ছুট্টু বন্ধুদের জানামুক্কি??? :grr:
                  নানঈ আপনঈ ভালউ থাইকএন গও...... যারা গেছে তারা তো গেছে বাট কিন্ত যারা আসবে তাদের যত্ন নিয়েন, আকালে যেন না হারায় :no: :no:


                  যেমন রক্তের মধ্যে জন্ম নেয় সোনালি অসুখ-তারপর ফুটে ওঠে ত্বকে মাংসে বীভৎস ক্ষরতা।
                  জাতির শরীরে আজ তেম্নি দ্যাখো দুরারোগ্য ব্যাধি - ধর্মান্ধ পিশাচ আর পরকাল ব্যবসায়ি রূপে
                  - রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ

                  জবাব দিন
  7. মশিউর (২০০২-২০০৮)
    ”যাদের নামের ১ম অক্ষর ‘ম’ ও শেষ অক্ষর ‘র’,তারাই সমাজের কীট!” -গ্রীক প্রবাদ

    😡 x-(
    শুধু তাই না আরো দেখেন..

    আছে আছে মশিউর,মোতাব্বির……… :goragori:

    বাপ মায়ে দুই দুইটা খাসি জবাই কইরা নাম রাখছিলো । :bash:

    জবাব দিন
  8. মেহেদী হাসান (১৯৯৬-২০০২)

    আছিব, অনেক মিজা পাইলাম তো পোষ্টখানা পড়ে। হাসতে হাসতে পিরা মিরা গেলাম মনে হয়। নিয়মিত থাকতে পারলে ভাল লাগে, কিন্তু সব সময় সেটা সম্ভব হয় না।

    সবগুলো কোটেশন অসাধারন হয়েছে। :hatsoff:

    জবাব দিন
    • আছিব (২০০০-২০০৬)

      ছি ভাই,কি বলেন এসব!!!!!!!!!! :no: :shy:
      এই ব্লগের ''বিগ ব্যাং টু দিস মডার্ণ এজ'' এ যেসব পাইওনিয়ার ব্লগারকে স্মরণ করা হয় এবং হবে,তার মধ্যে আপনি একজন!! প্রথম প্রথম এসে দেখতে ইচ্ছা করত,একদম শুরুর দিকে যেসব পোস্ট আসত,সেগুলো ক্যামন ছিল!এবং আমি দেখলাম যে আপনি একাই প্রায় ব্লগ জমায় দিচ্ছেন!!এত এত লিখছেন!!আমি ভাই পারিনা.........আপনি বসসসস............আমি ১০টাই লিখতে পারব,আপনার মত বসরাই ১০০ করতে পারবে......চালিয়ে যান ভাই......ব্লগের ১ম ১৫০ আপনার হোক :thumbup:

      জবাব দিন
  9. পিন্টুরে কি দিলিরে!!হাসতে হাসতে তো শেষ হয়ে গেলাম =)) =)) =)) =)) =)) =)) পুরাই :pira:

    “যারা ব্যংগ করে কিন্তু তাকে ব্যংগ করলে ক্ষেপে যায়,তারা জাহান্নামে পতিত হবে।” –আরবি প্রবাদ

    :just: :pira:

    তয় একটু দুক্ষ পাইসি,ক্যান পাইসি বলবো না!!!!

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।