আমিনের প্রশ্নের উত্তরে “জীবনের অর্থ” নিয়ে আমার ভাবনা

আমি একবার আমিন (১৯৯৬-২০০০) এর একটা মন্তব্যের বিরোধিতা করেছিলাম যে “জীবনের সবচেয়ে বড় অর্থ তার নিরর্থকতায়”। সে জানতে চাইল কেন? সেটাই বলছি এখন। –

একটু ভালো করে লক্ষ্য করলেই দেখা যাবে যে, এই অনুমানটা একটা স্ববিরোধী ভিত্তির উপর দাঁড়িয়ে। এখানে জীবনকে যে দুটো বিশেষণে সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে- অর্থ এবং নিরর্থ- এরা পরস্পরের বিপরিত। একটার অনুপস্থিতি আরেকটার উপস্থিতির পূর্বশর্ত। অর্থ না থাকলেই কেবল নিরর্থ সম্ভব, তেমনি নিরর্থের বিনাশেই অর্থের আগমন। তাহলে নিরর্থকতায় অর্থ আসে কিভাবে?

কিছু বাস্তব উদাহরণ দেই, ক্যাডেটডদের দিয়েই-

উপরের অনুমানটা সঠিক হলে আমরা সম্ভাব্য আরো যেসব অনুমান সঠিক বলে ধরে নিতে পারি সেগুলো হলো-

– ক্যাডেট না হওয়ার মাঝেই ক্যাডেট হওয়ার সার্থকতা,
– সিসিবি’তে না আসার মাঝেই সিসিবি’র আড্ডাবাজির ব্যাপক মজা পাওয়া (কাজে কাজেই সার্থকতা)।
– গাছ না হয়েও গাছের মহিমায় মহিমান্বিত হওয়া (কাজে কাজেই সার্থকতা)।

তবে এটা ঠিক যে, জীবনকে অনেক সময় নিরর্থক মনে হতেই পারে, হয়ই। বেশির ভাগ মানুষের (পড়ুন বাঙ্গালি) জীবনেই আসে এমন সময়। তখন “অর্থ খুঁজতে যাওয়া”র বিষয়টাই নিরর্থক হয়ে পড়ে, জীবন নয়।

এটারও বাস্তব কিছু উদাহরণ দেই, উপরের গুলোর সাথে মিলিয়ে-

– ক্যাডেট কলেজে আজাইরা নানান কাজের ব্যাস্ততা আর লাগাতার পাঙ্গা+ঝাড়ির চোটে মেজাজ বিলা হইলে মনে হতে পারে যে ক্যাডেট কলেজে আসাটা অর্থহীন, কিন্তু তা’তে ক্যাডেট কলেজ অর্থহীন হয়না।

– সিসিবি’তে সানা ভাইয়ের পাঙ্গা, মাসুম বাচ্চা’র বড়দের পুষ্ট, আন্দালিবের কবিতা/গদ্য আর ছোট ছোট ঝোপঝাড়ের কাঁটার গুতো অসহ্য মনে হলে সিসিবি’তে আসাটা সময়ের অপচয়, তথা নিরর্থক মনে হতে পারে। কিন্তু তা’তে সিসিবি নিরর্থক হয়ে যায়না।

– আর গাছদের মাহাত্ব নিয়ে নতুন করে কি বলবো? দুয়েকবার ছিঁচকে-চোরাকাঁটা পায়ে বিঁধে রক্তক্ষরণ হলেই তো আর দেশের আপামর গাছ, বিশেষ করে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের বড় বড় গাছগুলোর মাহাত্ব মিথ্যে ((কাজে কাজেই নিরর্থক) হয়ে যায়না। 😛

অতএব, বাছা, জীবনের অর্থ নিরর্থকতায় নয়। আমার ক্যাডেটীয় সম্প্রদায়িকতার পরিমন্ডলে জীবন অর্থময় হয়ে ওঠে পূর্ণতায়, যা আসে কেবল ক্যাডেট+সিসিবি’র আড্ডাবাজ+গাছ(অন্ততঃপক্ষে গাছেদের মতো উদার-সহনশীল-পরোপকারি) হওয়ায় মধ্য দিয়ে।

১,৯৮৩ বার দেখা হয়েছে

২৫ টি মন্তব্য : “আমিনের প্রশ্নের উত্তরে “জীবনের অর্থ” নিয়ে আমার ভাবনা”

  1. রকিব (০১-০৭)
    জীবনের অর্থ নিরর্থকতায় নয়। আমার ক্যাডেটীয় সম্প্রদায়িকতার পরিমন্ডলে জীবন অর্থময় হয়ে ওঠে পূর্ণতায় যা আসে কেবল ক্যাডেট+সিসিবি’র আড্ডাবাজ+গাছ(অন্ততঃপক্ষে গাছেদের মতো উদার-সহনশীল-পরোপকারি) হওয়ায় মধ্য দিয়ে।

    সহমত, সহমত এবং সহমত।

    অফটপিক ১ঃ লেখায় খালি গাছ আর গাছ 😀 😀 । জেসিসিরেও ত্যাগ করা উচিত ছিল।
    অফটপিক ২ঃ আমাদের ব্যাচের পোলাপাইন সিসিআর-কে কমলা সুন্দরী কইতো 😛 😛


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  2. মাহমুদ (১৯৯০-৯৬)

    :)) :)) :))

    কি করুম কও। আদর্শ হিসেবে গাছের থেকে ভালো আর কিছু ত খুঁজে পাইতাছি না :(( :((


    There is no royal road to science, and only those who do not dread the fatiguing climb of its steep paths have a chance of gaining its luminous summits.- Karl Marx

    জবাব দিন
  3. মাহমুদ (১৯৯০-৯৬)

    আরে আমিন যে! আমি তো তোমারই অপেক্ষায়।

    এটা অবশ্যই সিরিয়াস পোষ্ট, তবে পরিবেশনাটা ফান, মানে আমি ইচ্ছে করেই এভাবে লিখাছি যাতে অন্যরাও মজা পায়। আফটার অল, এটা ত ফানেরই জায়গা, তাই না? 😛

    তোমার মতামতও এভাবেই জানিয়ে ফেল। সিসিবি'রে ভাব-গম্ভির দেখতে ভাল লাগেনা আমার।

    তাছাড়া, গম্ভিরতা ছাড়া কি সিরিয়াস আলোচনা হয়না?
    আসো, আমরাই না হয় সেটা শুরু করি, এই সিসিবি থেকেই।


    There is no royal road to science, and only those who do not dread the fatiguing climb of its steep paths have a chance of gaining its luminous summits.- Karl Marx

    জবাব দিন
  4. ইউসুফ (১৯৮৩-৮৯)
    আর গাছদের মাহাত্ব নিয়ে নতুন করে কি বলবো? দুয়েকবার ছিঁচকে-চোরাকাঁটা পায়ে বিঁধে রক্তক্ষরণ হলেই তো আর দেশের আপামর গাছ, বিশেষ করে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের বড় বড় গাছগুলোর মাহাত্ব মিথ্যে ((কাজে কাজেই নিরর্থক) হয়ে যায়না।

    অনটপিক: :clap: 😀 :boss:
    অফটপিক: x-( :gulli: :chup:

    জবাব দিন
  5. সাকেব (মকক) (৯৩-৯৯)

    কয়েকদিনের গ্যাপে সিসিবিতে ঢুইকা কোন ভাও পাইতেসিনা... 😕
    বস,
    এইটা কি 'জনপ্রিয় বিজ্ঞান', নাকি দর্শন, নাকি উদ্ভিদবিজ্ঞান? ~x(


    "আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
    আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস"

    জবাব দিন
  6. আমিন (১৯৯৬-২০০২)

    অর্থ আর নিরর্থ পাশাপাশি এর সবচেয়ে ভালো উদাহরণ আমাগো অর্থ মন্ত্রীরা। সাইফুর রহমান আর আবুল মাল আব্দুল মুহিতরে দেখেন। এদের মত নিরর্থ মানুষ কয়টা আছে?

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।