এক জনমের পূর্নতা

মোহমুক্তির পরে একদিন
তুমি যে চলে যাবে,
সে আমি জানতাম।
তোমার সেই চলে যাওয়াটা যে
বেদনাবিধুর হবে,
সেটাও জানতাম।
আর তাই একদিন ঘটতে যাওয়া
তোমার বিদায় দিনটাকে
মানিয়ে নিতে কি কি বলবো,
কি কি ভাবে বলবো –
তার সব নিয়ে একখানা মুসাবিদাও
করে রেখেছিলাম মনে মনে।

বুঝতেই পারছো, আমাদের যে সম্পর্কটা
হয়েছিলই ভাঙ্গার জন্য, তাকে, আমি অন্তত
খুব গভীর কিছু ভাবতে চাই নাই।
হেসেখেলেই তা এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলাম
যখন তা যেমন চলে, সেইভাবে,
কিন্তু যা জানতাম না, তা হলো –
আমারই ভিতরে আমারই অগোচরে
কি গভীর রেখাপাতই না, করে যাচ্ছিল তা?

আর তা জানলাম, যখন কিচ্ছুটি না বলে,
অকস্মাৎ উধাও হয়ে গেলে তুমি।
একরাশ সংশয় ঘিরে ধরলো –
এমন অদ্ভুত ব্যাখ্যাতিত আচরন পেয়ে।
আরও বুঝলাম, যে সম্পর্কটাকে আমি
হালকা কিছু ভেবে অবহেলা করে যাচ্ছিলাম,
তা আসলে ডালপালা শিকড়সহ গেঁথে গেছে
মনের অনেক, অ-নে-ক গভীরে।

তোমার যেই নিঃশব্দ প্রস্থান
একদা আমায় বিহ্বল করেছিলো –
আজ ভাবি, অন্তর্গত ভালবাসার সাথে
পরিচয় ঘটিয়ে সে বরং আমায়
পূর্নতাই এনে দিয়েছিল –

এক জনমের বিশিষ্ট এক পূর্নতা………

২,০৯৪ বার দেখা হয়েছে

৯ টি মন্তব্য : “এক জনমের পূর্নতা”

  1. সাবিনা চৌধুরী (৮৩-৮৮)

    :clap: :clap: :clap: :clap:

    তোমার প্রেম এবং বিরহপীড়িত লেখাগুলোর কি কোন যোগসূত্র আছেগো, ভাইয়া? আমার কিন্তু দারুণ লাগছে পড়তে। বিকেলের হেলে পড়া রোদ্দুরের মত বেশ মিঠে একটা আমেজ আছে তোমার লেখায়।

    আশাকরি ভাল আছো তুমি। বহুদিন দেখা নেই যে!

    জবাব দিন
    • পারভেজ (৭৮-৮৪)

      কোন যোগসূত্র ছাড়া কি আর ভাবনা চিন্তাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়?

      চলার পথে কত কত অভিজ্ঞতারই না মুখোমুখি হতে হয়।
      আমার লিখালিখি-পূর্ব জীবনে (প্রি-সিসিবি জীবনও বলা যায়) শিখে নিয়েছিলাম, কিভাবে তা একসময়ে বিস্মৃতির অতলে কবর দিতে হয়।
      এখন আর তা করি না।
      এই পোস্ট-সিসিবি জীবনে, সেসব অভিজ্ঞতায় রং চড়িয়ে কিছু একটা দাড় করিয়ে দেই এমনভাবে যা পড়ে কারো না কারো যেন ভাবনার কিছু খোরাক যোগাতে পারে তা।
      এক অর্থে ভেন্টিলেশনও হয় তাতে কিন্তু সেটাই মূল উদ্দেশ্য না।
      মূল উদ্দেশ্য থাকে অভিজ্ঞতাগুলো ভাগাভাগি করে নেয়ার।

      আমি জানি আরও কেউ কেউও এমন এমন অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হবে।
      তারা নাহয় আগের থেকেই থাকুক আরেকটু বেশি প্রস্তুত তা মোকাবেলায়......

      বাই দ্যা ওয়ে, কত দিন ধরে তুমি নাই, আর দেখেছো কেমন ঝুলে পড়েছে এই প্রানের মেলাটা?
      খুব ভাল লাগছে তোমার ফিরে আসাটা দেখে।

      চলো আবারো আড্ডা জমাই সিসিবির পাতায় পাতায়.........


      Do not argue with an idiot they drag you down to their level and beat you with experience.

      জবাব দিন
  2. খায়রুল আহসান (৬৭-৭৩)

    খুব সুন্দর হয়েছে কবিতা। ভাসা ভাসা আবেগ পাঠককেও ভাসিয়ে নিয়ে যায়। ভালো লেগেছেঃ
    আরও বুঝলাম, যে সম্পর্কটাকে আমি
    হালকা কিছু ভেবে অবহেলা করে যাচ্ছিলাম,
    তা আসলে ডালপালা শিকড়সহ গেঁথে গেছে
    মনের অনেক, অ-নে-ক গভীরে।

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।