মোহ, ভালবাসা নয়…

যখন থেকে বুঝলাম
ওসব তোমার প্রেম নয় –
মোহাক্রান্ত কালের উচ্ছ্বাস ছিল,
আমার কাছে তুমি আর
প্রেমিকা নয়, ধীরে ধীরে
এক “যেকোনো নারী” হয়ে উঠতে থাকলে।

নারী আর প্রেমিকা এক নয়,
জান তা নিশ্চয়?
পুরুষের অত্যুৎসাহে
নারী বিরক্ত হয়,
প্রেমিকের অত্যুৎসাহে
প্রেমিকা উদ্বেলিত হয়।
বিরক্ত? কখনো নয়…

মোহাক্রান্ত কালে
যেসব অত্যুৎসাহে তুমি
উদ্বেলিত হয়ে উঠতে,
মোহভঙ্গের পর,
সেই সবেই তোমার –
বিরক্তি ধরে গেল?

আর আজ তাই
আমি জানলেম, তোমার
ঐসব আকর্ষণ,
ঐসব ভাললাগা,
ঐসব মায়াময়তা –
তার কোন কিছুই কখনো
আসল ছিল না।
ভালবাসায় সিক্ত ছিল না
বুকের গহীনে প্রোথিত ছিল না।

সবই ছিল ভার্চুয়াল,
সবই ছিল ঘোরে পাওয়া,
সবই ছিল অন্তর্গত এক
ভুতে পাওয়া, মোহাক্রান্ত
পরাক্রান্ত ভুল। যে ভুল
মুহুর্তে ভেঙ্গে পড়ে
মোহভঙ্গের সাথে সাথেই………

তবে জেনো, আমি কিন্তু ভালবেসে ছিলাম –
সত্যিই খুব খুব খু-উ-ব ই ভালবাসিয়া ছিলাম
তোমার সেই ঘোরে পাওয়া
মোহাচ্ছন্নতাকে – মুগ্ধতা ভেবে,
তার প্রকাশগুলোকে – ভালবাসা ভেবে,
এসব কিছুকেই – হৃদয় নিংড়ানো
গভীর ভালবাসা জ্ঞান করে,
আমি তোমাকে ভালবাসিয়া ছিলাম………

আমাদের অন্তর্গত ভিন্নতার জন্য হোক
অথবা সংস্কার ও সংস্কৃতিগত
বিচ্যুতির জন্যেই হোক –
আজ আমি জেনে গেছি,
আমার সেইসব নিরেট ভালবাসাগুলো
কখনোই সেই অর্থ বহন করে নাই, তোমার কাছে।
হয়তো তাই, তোমার বিরক্তি
ধামাচাপা দিতেই অমন নির্বিকারে
আমাকে নিয়ে বলতে পেরেছিলে,
যাকে যা খুশি – তাই……

মোহ থেকে বেরিয়ে আসা, এই তুমি,
হাসি মুখে ঘুরছো ফিরছো পৃথিবীর বুকে।
আর নিভৃতে বসে ভালবাসার দায় মেটাচ্ছি,
একা আমি, নিজ গৃহকোনে।
আমাদের দুজনের পার্থক্য এখন
এসে দাড়িয়েছে এইখানটায়। বোঝো???

৩,০২১ বার দেখা হয়েছে

৮ টি মন্তব্য : “মোহ, ভালবাসা নয়…”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।