স্বাগতম পর্যন্ত পইড়া ফেলছি… :-)

পড়া শুরু করছিলাম রাত তিনটায়, এখন বাজে ৬ টা ৪০ (সকাল), একটানে ব্লগের সবগুলান লেখা পইড়া ফেললাম। প্রবাস জীবনের যেদিন শুরু হইছে এর পর থাইকা মনে হয় এত অল্প সময়ে এতবেশি হাসি নাই।

ধন্যবাদ ব্লগের উদ্যোক্তাদের এবং লেখকদের আমাকে এত সুন্দর একটা সময় উপহার দেয়ার জন্য। ভবিয্যতে লিখব, এখন ঘুমাতে যাই, খালি হাই উঠছে।

-নন্দঘোষ

১,৬৫৬ বার দেখা হয়েছে

১৯ টি মন্তব্য : “স্বাগতম পর্যন্ত পইড়া ফেলছি… :-)”

  1. আশিক (১৯৯৬-২০০২)

    ঘুম থেকে উইঠাই ব্লগ লেখবি...।কিছু লাগবে না... 😉 খালি তুই তোর ক্যাডেট লাইফে এক্সিডেন্টালি ওযু করতে গিয়া বেসিন, না দেইখা পাড়ায়ে কলেজের নতুন কেনা গীটার আর যেই যেই সব জিনিস ভাঙসিস...ওগুলির ফিরিস্তি দেয়া শুরু করলেই সেইরকম বিশাল ব্লগ হয়ে যাবে 😀 ! তোর কাহিনীর কোন শেষ নাই! :))

    জবাব দিন
  2. তৌফিক (৯৬-০২)

    @বাহলুল ভাই,

    একদিন টাইম নিয়া বইসা পড়েন, সময় কোনদিক দিয়া যাইব টেরও পাইবেন না।

    @রায়হান আবীর ভাই,

    আমার মতো বুভুক্ষু থাকলে তুমিও পারতা। শুনছি, তুমিও নাকি উদ্যোক্তাদের একজন, আবারো ধন্যবাদ তোমাদের সবার জন্য।

    জবাব দিন
  3. মাসরুফ (১৯৯৭-২০০৩)

    আরে এইডা ২০০১ আইসিসিএলএম(পাবনা) এর এমসিসি এর বাংলা কবিতার(তোমাকে পাবার জন্যে হে স্বাধীনতা) ইয়া লম্বা তৌফিক ভাই না??আমারে চিনছেন??আমিও আপ্নার কাছাকাছি সাইজের ছিলাম দেইখা বেশ কথা বার্তা হইছিল…আমার আইটেম ছিলো ইংলিশ এক্সটেমপোর…ক্লাস ১১(জেসিসি) এর ছিলাম তখন… 😀 😀 😀
    (repost)

    জবাব দিন
  4. মাসরুফ (১৯৯৭-২০০৩)

    আশিক ভাই এইডা কি কন?তৌফিক বড়ভাই তো অনেক শান্ত শিষ্ঠ ছিলেন পাবনা তে...আমার প্রথম আইসিসি ত তাই খুঁটিনাটি মনে রাখসি...একটু কোঁকড়া চুল ছিল না উনার??
    সেই আইসিসিতে এই ক্যামেরা নিয়া কি কাণ্ড!কে নাকি এমজিসিসির ফোটো তুলতে গিয়া ধরা খাইসে ডিএএজি(ফ্রেঞ্চকাট,মেজর সিদ্দিকি) এর কাসে...মনে আসে তৌফিক ভাই??

    জবাব দিন
  5. তৌফিক (৯৬-০২)

    ধুরো মিয়া, মাসরুফ। আমার বোন তখন এক বছর হয় ক্যাডেট কলেজ থাইকা বাইর হইছে। হবু বৌ 😛 তখনও পড়ে, এমন কাম করলে বাসা পর্যন্ত খবর হয়া যাইত। আর ঘটনা আমার কিছু কিছু মনে আছে। লাড্ডু গুড্ডু হয়া মন খুব খারাপ ছিল =(( , আইসিসির পরের পার্ট আর এনজয় করতে পারি নাই। 😕

    @আশিক

    তুই একটা কাম করলি? x-( ক্যাডেট কলেজে ৬ বছর আর আই ইউ টিতে ৪ বছর, মোটমাট দশ বছরের একসাথে থাকছি। তারপরও দিলি হাটে হাড়ি ভাইঙা!!!!! মাসরুফ চিইনা ফেলার পর থাইকাই একটু আতংকে ছিলাম, আধা ঘন্টাও গেল না, তুইই দিলি সব ফাস কইরা। এই দুঃখু আমি কুতায় রাখি? :(( :((

    জবাব দিন
    • মাসরুফ (১৯৯৭-২০০৩)

      তৌফিক ভাই,আপনেরে দেইখা তো ভিজা বিলাই এর মত নিরীহ লাগসিলো এখন দেখি আপনি ছুপা রুস্তম!আমারে কত অনুপ্রেরণা দিছিলেন মামু পিসিসির টয়লেটের বাইরে খাড়ায়া...(পুলাপাইন অন্য কিছু ভাবিস নাহ)

      তখন তো বুঝি নাই আপনের এতো কাহিনি...আশিক ভাই আস্তে আস্তে কইরা ছাড়েন একে একে... 😀

      জবাব দিন
  6. মাসরুফ (১৯৯৭-২০০৩)

    ছুডো পোস্টটা পইড়া সেই পরথম দিকের কাহিনী মনে পইড়া গেল।তৌফিক ভাই,আইজো কিন্তু আপনের ভাঙ্গা জিনিসগুলার ফিরিস্তি নিয়া ব্লগটা দ্যান নাই।

    পুলাপাইন, তৌফিক ভাইয়ের দ্বিতীয় ব্লগ "ব্রোকব্যাক মাউন্টেনের আইডিয়া যেইভাবে নাজিল হইছিল" কিন্তু সিসিবির আকাশে পরথম ব্লকবাস্টার হিট!

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।