পিচ্চির চোখে সিসিবি

অনেকদিন থেকেই ব্লগে আছি। আছি কিন্তু ব্লগ লেখি না, খালি কমেন্ট করি। ইদানিং তাও করি না। আসলে কিছুই ভাল লাগে না। কেমন যেন অদ্ভূত লাগে সবকিছু। তবে ব্লগ লেখি না তার খুবই গুরুত্বপূর্ণ কার্যকারণ আছে। লিখতে পারি না তাই লেখি না। আমার জীবনে কলেজ ম্যাগাজিন তো অনেক পরের কথা, কোনদিন মনে হয় মাসিক যে একটা পত্রিকা বের হত তাতেও মনে হয় লেখা প্রকাশ হয় নাই। আর একমাত্র একটা বিষয়ে সামান্য ধারণা আছে এবং তাও সিসিবিতে খুব জনপ্রিয় না। কেননা বাকিদের কথা কি বলব টেকি পোস্টগুলার চেয়ে আমার নিজেরই তো বাকিগুলা অনেক বেশী পছন্দ।

সাধারণত আমি কোন জিটুজি মিস করি না, তা যে ধরনেরই হোক না কেন। তবে সাধারণত আমার বয়সের সীমার বাইরে সবই এড়িয়ে চলি। কেননা এগুলো আমার কাছে বুড়োদের স্মৃতি-রোমন্থন ছাড়া আর কিছুই না। ঠিক এই কারণে আমার পরিবারের সবাই আমাকে অসামাজিক মনে করে। কিন্তু কি মনে করে যেন সিসিবিরটায় চলে আসলাম। চিন্তায় যে পড়ি নাই এইটা অস্বীকার করব না। তবে আসলে যতদিন থেকে এই ব্লগে আছি এই ব্লগের সবার আন্তরিকতাটা কখনও চোখ এড়ায়নি। তাই খানিকটা আশা, খানিকটা ভীতি নিয়ে অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার জন্য নিজের নাম নিশ্চিত করি। তবে এই অনুষ্ঠানকে বাকি সব অনুষ্ঠানের মত মনে না করে যে একটা ভাল সিদ্ধান্ত নিয়েছি তা এখন বুঝতে পারছি। কেননা আমি এখন নিশ্চিত সম্ভবপর হলে আমি মনে হয় না আর কোনদিনই সিসিবির কোন জিটুজি মিস করব।

আমি সিসিবি ছাড়া আরও কিছু ব্লগের সদস্য এবং সিসিবির মত ওগুলোতেও অত্যন্ত রকমের নিষ্ক্রিয়। তবে অন্যগুলো নিয়ে আক্ষেপ না হলেও সিসিবিতে নিষ্ক্রিয় থাকা নিয়ে এখন কিছুটা আক্ষেপ হচ্ছে। আমার বন্ধু মহলে আমি সব সময়ই সিসিবি নিয়ে গর্ব করি। কেননা সিসিবির পরিবেশ অন্য যে কোন ব্লগের চেয়ে অনেক ভাল। ঠিক এই কারণেই সিসিবিতে আমার নিষ্ক্রিয়তাটা না লেখাতেই সীমাবদ্ধ।

উপরে আমি লিখেছি যে লিখতে পারি না তাই লেখি না। কথাটা আসলে পুরোপুরি সত্য না। কেননা লিখতে পারি না এটা মাথায় নিয়েও লিখতে চেয়েছিলাম, কিন্তু বাকিদের লেখা দেখে আর সাহস হয়নি নিজের লেখা জমা দেয়ার, কেননা নিজের লেখার মান নিয়ে আমি প্রচন্ড রকমের হীনমন্যতায় ভুগছিলাম এবং এখনও ভুগি। তারপরও সকলের দেয়া ভরসায় শেষ পর্যন্ত লিখেই ফেললাম। এখন দেখা যাক এটা প্রকাশ পাবার যোগ্যতা অর্জন করতে পারে কিনা।

BTW অনেকদিন পরে পিচ্চি ডাক শুনে ভালই লাগল ;)) ;)) ;)) । বুয়েটে ৩য় বর্ষে অধ্যয়নরত কাউকে তো কেউ আর সহজে পিচ্চি বলে ডাক দেয় না, তবে ডাকটা খারাপ না। আর এতো সুন্দর একটা জিটুজির জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। আর বিশেষ ধন্যবাদ জুনাদার জন্য, কেননা উনি না থাকলে এই লেখা লিখার জন্য আমাকে হেটে বাসায় আসা লাগত এই বিষয়ে প্রায় নিশ্চিত 😀 😀 ।

১,৫৪৩ বার দেখা হয়েছে

২১ টি মন্তব্য : “পিচ্চির চোখে সিসিবি”

  1. কামরুলতপু (৯৬-০২)

    আরে আমার কলেজের দেখি। তবে আমাকে চিনে কিনা কে যানে। ব্যাচ দেইখা মনে হইল যেই বছর আমরা বের হইছি ঐ বছর ওরা ঢুকছে তার মানে ১ মাস দেখা হইছে। আমার কাছে তো এ খালি পিচ্চি না মহা পিচ্চি।
    কোন হাউসের তুমি ভাইয়া?

    জবাব দিন
  2. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    ভাল লিখেছ পিচ্চি, ওপেনিং যখন হয়ে গেছে এখন নিয়মিত লিখতে থাক :thumbup:


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  3. সানাউল্লাহ (৭৪ - ৮০)

    জিটুজিতে তো এত্তো এত্তোগুলা বড় ভাই-বোনদের সামনে কিছুই বলতে পারেনি। রাফি ধন্যবাদ লেখাটির জন্য।

    কিন্তু বিশালদেহি আরেক পিচ্চি 'রায়েদ'-এর খবর কি? ওর লেখা কই?? x-(


    "মানুষে বিশ্বাস হারানো পাপ"

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।