টেবিল পার্টি

বরিশাল ক্যাডেট কলেজ এর একটা ট্রেডিশন ছিল যে কোনো ব্যাচ যাবার আগে টেবিল মেটদের সাথে টেবিল পার্টি দিবে। তো এই টেবিল পার্টির সময় বিভিন্ন সমস্যা হয়।আমাদের ব্যাচ এর সমস্যাগুলো আমি টেবিল হিসেবে এখানে লিখছি: B-)

১। ৪ নং টেবিল এর পার্টি হয় ৩০৪ নং রুমে। খুব ভাল ভাবে পার্টি শুরু হল,পরীক্ষার্থী নাইম তো ব্লেজার,টাই,সু পরে পার্টি তে আসলো।গান বাজনা খাওয়া দাওয়া শেষ এ আমরা টয়লেট থেকে হাল্কা ধুয়া পান করে এসে করিডরে গল্প করতেসি ঔ সময় ডিউটী মাষ্টারের হাউসে আগমন।এসে দেখে ঔ রুম থেকে জুনিয়ররা মুড়ী,মিষ্টীর প্যাকেট,চানাচুর এর প্যাকেট ঝাড়ু দিতেসে।স্যার এসে তার মোবাইল দিয়ে ছবি তুলে ফেললো।(কেউ ভাব্বেন্না যে সে n-95 নামক ৫ মেগা pixel ক্যামেরা দিয়ে ছবিটা তুলসে।তিনি তার vga ক্যামেরা দিয়ে ছবি তুলে ভাব মারতে মারতে হাউসে ঘোড়াঘোড়ি করলো ) সেদিন তাকে বিট দেয়ার কথা ছিল কিন্তু এই কারণে দেয়া হলনা।তিনি অবশ্য পরে আর তা রিপোর্ট করেন্নাই। :party:

২।শেরে বাংলা হাউসের ৭ এবং ৮ এর কিপ্টা টেবিল লিডাররা চিন্তা করল তারা ২ টেবিল এর পার্টি এক সাথে দিয়ে দিবে।যথারীতি তারা পার্টি শুরু করলো সহজ ডিউটি মাষ্টার দেখে।এক্টূ পর প্রচন্ড চিল্লাচিল্লির কারণে ডিউটি মাষ্টার চলে এল একাদশ শ্রেণীর করিডরে।অন্য হাউসের পোলাপান কোনো ভাবে পালাই চলে গেসে,ঔ হাউস এর গুলা টয়লেট-বাথরুম এ লুকাল কিন্তু সমস্যা হল হাস্পাতাল থেকে আগত জুনিয়র বান্দরটাকে নিয়ে,সে ধরা খেল ডিউটি মাষ্টার এর কাছে।ডিউটি মাষ্টার ফোন করলেন হাউস মাষ্টারকে হাউস মাষ্টার বেপারটাকে গুরুত্ত না দেয়ায় ডিউটি মাষ্টার খেপে সকালে report করে দিল। ফলাফল:টেবিল লিডারগণ=৩০০০ টাকা,ক্লাস ১২=৫০০টাকা(সবাই),টেবিল মেইটরা=৩০০ টাকা জরিমানা।
পারটীর এক্টা ছবি দিয়ে দিলাম
বি,দ্র:মুস্তাকিম কি্ছু ভুল হলে ঠিক করে দিও।কিছু বাদ থাকলেও 😐
(চলবে)…….. :frontroll:

১,৯৮৬ বার দেখা হয়েছে

২৫ টি মন্তব্য : “টেবিল পার্টি”

  1. রায়হান আবীর (৯৯-০৫)

    তোর জন্য কিছু টিপস।

    ১। বানানটা একটু চেক করে ব্লগ জমা দিবি।
    ২। তুই মনে হয় "রেফ" দিতে পারছিস না। অভ্রর টিউটরিয়ালটা দেখে রেফ দেওনের সিস্টেমটা দেখে নে।
    ৩। প্রতিটা যতিচিহ্নের পর একটা করে স্পেস দিবি।

    লেখা ভালো হইছে। চালায়া যা। 🙂

    জবাব দিন
  2. মুসতাকীম (২০০২-২০০৮)
    বি,দ্র:মুস্তাকিম কি্ছু ভুল হলে ঠিক করে দিও।কিছু বাদ থাকলেও

    আপাতত ভুল নাই।
    লেখা ভালো হচ্ছে। সাবাস। sabas sabas sabas


    "আমি খুব ভাল করে জানি, ব্যক্তিগত জীবনে আমার অহংকার করার মত কিছু নেই। কিন্তু আমার ভাষাটা নিয়ে তো আমি অহংকার করতেই পারি।"

    জবাব দিন
  3. টিটো রহমান (৯৪-০০)

    স্যাররা মোবাইলে কথা বলছেন........খোঁজ নিচ্ছেন ক্যাডেট অমুক আসলেই হাসপাতালে কিনা...ডিউটি মাস্টার হাউস বেয়ারাকে বলছে কাল রাতে যে ডিউটি মাস্টার রুমে একটা জিনিস ফালাইয়া আসছি নিয়া আস...

    এমন দৃশ্য দেখার সৌভাগ্য আমাদের হয়নি 😛 এই কালচারটা দেখতে ইচছা করছে..


    আপনারে আমি খুঁজিয়া বেড়াই

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।