কলেজ লাইফ-ক্লাস এইট

কলেজ লাইফ-ক্লাস সেভেন
ক্লাস এইটে অফিসিয়ালি উঠলেও আমরা কিন্তু এক হিসেবে ক্লাস সেভেনেই ছিলাম যেহুতু আমাদের জুনিয়র আসেনাই তখনও। ~x( কেন্টীন এ যাওয়া, হাউজ ডিউটী ক্যাডেট এর দায়িত্ব পালন করা, আরো অনেক ব্যাপার। এর মাঝে আবার মিশন একাডেমী করতে গিয়ে ধরা খাওয়া। কিছুদিন পর আমাদের জুনিয়ররা চলে আসলো শুধু আসলো যে তা না আসার কিছুদিন আগে থেকে আমাদের ঘুম হারাম করে দিল। ওদের লকার গোছানো থেকে শুরু করে কত কাজ কত প্লান। আমার ফলোয়ার এর সাথে আমার আব্বা আম্মাও আসছিলো। অডিটরিয়ামে পরিচয় হয়। আমার ফলোয়ার শাহরুখ খানের মত লম্বা চুল, হাতে ঘড়ি, এবং এক টিন বিস্কুট নিয়ে হাউজে ঢুকলো। এবং দুঃখজনক হলেও সত্য যে সে আমার চাইতে অনেক লম্বা ছিল। রাতে ডাইনিং হলে গিয়ে দেখলাম ব্যাটা আবার আমার টেবিল ফলোয়ার হিসেবেও পরসে। কী আর করা প্রথম কিছুদিন ভালো ব্যবহার তারপর ঝাড়ি এবং শেষে চরম পাঙ্গা। না পাঙ্গাইলে কী আর বেচারা ভালো ভাবে কলেজ এ থাকতে পারতো???? গাইড হিসেবে এটা আমার দায়িত্ব। জুনিয়র আসার কিছুদিন পর আমাদের ইনাম কলেজ থেকে চলে যায়। আমরা সংখায় ৪৮ জন হয়ে যাই। এরপর কিছুদিন পর পর হাউজ অফিস এ পুরা ক্লাসের ডাক পড়তো। কে কে জুনিয়র কে পাঙ্গায়, কে কে তাদের দিয়া কেন্টীন থেকে খাবার আনায়। এই সময়টা রুম ক্রীকেট এর জন্যও খুব ভালো সময় আর একি সাথে গল্পের বই পড়ার ও। তখন রুমমেইট ছিল মুস্তাকীম এবং আজীম পরে আজীম এর পরিবর্তে মাহমুদ আসে। নতুন জুনিয়র এর সাথে পার্ট মেরে কথা বলতে পারিনা তাই আমার রুমমেইট আজীম ইয়াদনান ভাই এর কাছ থেকে প্রাপ্ত জে.পি এর এপুলেড খানা আমাকে পড়তে বললো তাইলে নাকি শরীরে এমনেই পার্ট চলে আসে। আমিও পড়লাম এবং আজীম এর কথাই সত্য হলো। শরীর এ যেন কী হলো বুঝলাম না কিন্তু খালি পার্ট আর পার্ট। হেভি ঝাড়ি দিলাম সেদিন কোনো কারণ ছাড়া। পরে আজীম সত্যিই ২য় কল জে.পি হয়।আস্তে আস্তে আমাদের ক্লাস সেভেন এর মতো ক্লাস এইট ও শেষ হয় এবং কাঁধে আরেকটা দাগ বাড়ে।
(চলবে)…………

১,৪৩১ বার দেখা হয়েছে

২২ টি মন্তব্য : “কলেজ লাইফ-ক্লাস এইট”

  1. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    কিরে... কলেজ লাইফ তো পুরা ২০/২০ ম্যাচ বানায় ফেলছ...


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  2. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    আরে এইটা তো দেখি বরিশালের ২৫০ নং পোস্ট... :clap: :clap:

    :party: :party: :party: :party: :party:


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  3. তাইলে নাকি শরীরে এমনেই পার্ট চলে আসে। আমিও পড়লাম এবং আজীম এর কথাই সত্য হলো। শরীর এ যেন কী হলো বুঝলাম না কিন্তু খালি পার্ট আর পার্ট।

    😀 😀 😀 😀

    কিছু কইলাম্না।

    ক্লাস্নাইনে কি করছিলি তার অপেক্ষায় রইলাম।

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।