সিসিবি ভাবনা

সিসিবি কি মূলধারার ব্লগ? মূলধারা বলতে বুঝি যেখানে সকল শ্রেনীর পাঠক ও লেখকের আনাগোনা হয়। কিন্তু সিসিবিতে আমরা ক্যাডেটরা ও আমাদের সাথে সংশ্লিষ্ট কিছু মানুষরাই মূলত লেখক ও পাঠক। আমরা নিজেরাই আমাদের লেখার পাঠক ও সমালোচক। এখন প্রশ্ন হল আমরা কি চাই সিসিবিকে মূলধারার ব্লগ হিসেবে দেখতে? যদি না চাই, তবে লেখা এখানেই পড়া বন্ধ করে দিতে পারি।

আর যদি তা চাই, তবে আমাদের করণীয় কি হতে পারে? প্রথমত যেটা করতে হবে আমাদের সকল শ্রেনীর ব্লগার ও পাঠকদের সিসবিতে টেনে আনতে হবে। এটা কয়েকভাবে করা যেতে পারে। প্রথমত যেটা করতে পারি, তা হল প্রচারণার মাধ্যমে। একটি ব্লগের প্রাণ হল তার লেখা। যখনই সিসবিতে কোন লেখা ভাল লাগবে, সেটা আমরা ফেইসবুক, গ্রুপ মেইল, বিভিন্ন ফোরামে শেয়ার করতে পারি। তাতে অল্প অল্প করেও কিছু লোক সিসিবি ও সিসিবির লেখা সম্পর্কে জানবে।

প্রচারণার পর, যেটি করতে পারি অন্য ব্লগের ভাল ব্লগারদের উৎসাহিত করা সিসিবিতে লেখার জন্য। এটা আমরা কিভাবে করতে পারি? আমরা যারা সিসিবি ব্যাতীত অন্যান্য ব্লগেও বিচরণ করি বা লিখি, তাঁরা কোন ভাল লেখা পেলে সেই লেখককে লেখাটি সিসিবিতে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করতে পারি। একজন ব্লগার হয়তো, বাড়তি কিছু পাঠক পাওয়ার জন্য তার লেখাটি অন্য ব্লগে দিতে আগ্রহ দেখাতেও পারে। সিসিবির একজন সক্রিয় সদস্য হিসেবে নিজের নতুন লেখা দেওয়ার চেষ্টা করবো সিসিবির জন্য, কিন্তু সিসিবির বাহিরের সদস্যদের জন্য ভাল লেখা হলে ডুয়াল পোষ্টকেও আমি স্বাগত জানাবো। মডারেটর সিদ্ধান্ত নিবে, সেই লেখাটি প্রকাশের জন্য উপযুক্ত কিনা। একজন নুতন ব্লগার আসা মানে একজন পাঠকও বাড়া। সিসিবির বাহিরের সদস্যদের জন্য নিক নেম[অতিথি] হিসেবে একাউন্ট দেওয়া যেতে পারে। তবে গণহারে একাউন্ট না দিয়ে আমি বরং ধীরে চলার নীতিতে চলবো। অতিথি একাউন্ট দেওয়ার জন্য একজন সিসিবির সদস্যের দ্বারা উত্থাপিত হলে ভাল হয়। আমি যে ব্লগারকে অনেকদিন ধরে চিনি, এবং জানি যে তাঁর মাঝে সাম্প্রদায়িক মনোভাব নেই, সিসবির সদস্যদের সাথে তাঁর মিশতে তেমন সমস্যা হবে না, এরকম কাউকেই আমি মনোয়ন দিবো একাউন্ট দেওয়ার জন্য।

অন্যদের যেমন আমরা এখানে আসার জন্য উৎসাহিত করছি, তেমনি আমাদেরকেও আমাদের চেনা জানা পরিবেশ হতে বের হতে হবে। এক্ষেত্রে কিছু সুবিধে পাওয়া যাবে। নিজে অন্যান্য ব্লগের পরিবেশ সম্পর্কে জানবো। নিজেদের সাথে অন্যান্যদের পার্থক্য বুঝতে পারবো। ভিন্ন মত গ্রহন করার মত মানসিকতা গড়তে সাহায্য করবে এবং সাথে অন্যান্য ব্লগারদের সাথে একটি সম্পর্ক গড়ে উঠবে। এবং তখনই আরেকজন ব্লগারকে সিসিবিতে লিখতে উৎসাহিত করতে পারবো। সুতরাং নিজেদের প্রয়োজনেই আমাদের বের হতে হবে।

একটি ব্লগের পরিচয় হল ব্লগের লেখা ও লেখকের মানসিকতা। যখন কোন পাঠক একটি লেখা পড়ে ভাল বা মন্দ সমালোচনা করলো, সে মন্তব্য স্বাভাবিক ভাবে গ্রহন করার মানসিকতা থাকতে হবে। লেখার সমালোচনাকে ব্যক্তিগত ভাবে নেওয়া যাবে না। আমাদের সিসিবির সার্বিক মান উন্নয়নের জন্য আরো চেষ্টা করতে হবে। যখন ভাল লেখা আসবে তখন ভাল পাঠকও আসবে। কিছু পেতে হলে কিছু ত্যাগ করতে হবে। আমাদের ত্যাগ করতে হবে আড্ডাবাজী। ব্লগকে যদি শুধু আড্ডা বা চ্যাটরুম বানিয়ে ফেলি তবে সেখানে অন্যরা নিজেদের অনাহুত ভাববে, কারণ সে সেই আড্ডার সাথী হতে পারে না। ত্যাগ করতে নিজেদের ভিন্ন ভাবার মানসিকতা। বাহিরের পৃথিবীতে আমরা আর দশটি সাধারণ মানুষের মতই।

অন্যান্য ব্লগ থেকে এগিয়ে থাকতে হলে, নিজেদের ভিন্ন কিছু করার চেষ্টা থাকতে হবে। এই যেমন আমরা একটি ইংরেজী ব্লগ খুলতে পারি (এটা যদিও কিছু ব্লগে আছে)। সেখানে কেউ চাইলে তাঁর লেখাগুলো ইংরেজীতে অনুবাদ করে দিতে পারে। আবার আমরা আমাদের অনেক সিনিয়র ভাইদেরকেও পেতে পারি। অনেক সিনিয়র ভাই থাকতে পারেন, যিনি বাংলায় টাইপ হয়তো স্বচ্ছন্দবোধ করেননা, কিন্তু ইংরেজী হলে হয়তো লিখতে পারেন। তারপর, ই-বুক এর প্রকল্পও কিছু দিন পর পর ভিন্ন ভিন্ন বিষয়ের উপর হাতে নিতে পারি। এতে লেখককেরা উতসাহিত হবেন ভাল একটি লেখা দিতে। দেশে যারা আছেন, সিসিবির পক্ষ থেকে (ছয় মাসে বা ত্রৈমাসিক) বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডে অংশ নিতে পারি, যেমন নিয়মিত রক্ত দান। আমরা সিসিবি এর একটি ফান্ড করতে পারি, যেখান থেকে নিয়মিত ভাবে কোন গরীব মেধাবীকে বৃত্তি দিতে পারি বা কোন অসুস্থ শিক্ষার্থীকে এককালীন কিছু টাকা দিয়ে সাহায্য করতে পারি। এভাবে নিত্য নতুন চিন্তা নিয়ে অন্যদের থেকে এগিয়ে যেতে হবে। তখন সবাই এমনিতেই সিসিবিকে প্রথম হিসেবে বেছে নিবে লেখার জন্য এবং পড়ার জন্য।

৬০ টি মন্তব্য : “সিসিবি ভাবনা”

  1. মোস্তফা (১৯৮৮-১৯৯৪)

    একটি কথা জানার ছিল, কেউ জানলে জানিও। ব্লগে কি সবার লেখাই মডারেশন পার হয়ে আসতে হয়? নাকি এটি নতুন ব্লগারের জন্য প্রযোজ্য? যদিও খুবই স্বল্প সময়ের মাঝেই লেখা প্রকাশিত হয়, তারপরেও সরাসরি পোষ্ট করতে পারলে ভাল লাগতো।

    জবাব দিন
  2. জুবায়ের অর্ণব (৯৮-০৪)

    ইংরেজী ব্লগের ব্যাপারে যেটা বললেন সেটা ভালো লাগলো। আমি যতদুর জানি ২০০৪ সালে নিয়ম হয়েছিলো ক্যাডেট কলেজগুলো ইংরেজী কারিকুলাম অনুসরণ করবে। সেটা হয়ে থাকলে আমাদের ইংরেজীর জন্য একটা আলাদা বিভাগ থাকা দরকার বলে মনে করি। এমনকি কলেজের ম্যাগাজিনগুলোতেও একটা ইংরেজী ভাগ থাকতো। ইংরেজীতে সিসিবি প্রকাশ শুরু করলে আমরা ক্যাডেট, জাতীয়তা ছাড়িয়ে আন্তর্জাতিক গন্ডীর অন্তর্ভুক্ত হয়ে পড়বো। এটা অবশ্যই ভালো একটা ব্যাপার হবে।

    জবাব দিন
  3. রকিব (০১-০৭)
    একটি ব্লগের প্রাণ হল তার লেখা। যখনই সিসবিতে কোন লেখা ভাল লাগবে, সেটা আমরা ফেইসবুক, গ্রুপ মেইল, বিভিন্ন ফোরামে শেয়ার করতে পারি। তাতে অল্প অল্প করেও কিছু লোক সিসিবি ও সিসিবির লেখা সম্পর্কে জানবে।

    মোক্ষম একটা দিক তুলে ধরেছেন ভাইয়া, আমার ফেসবুক বন্ধু-বান্ধবদের অনেকেই শেয়ার করা পোষ্ট পড়ে সিসিবির প্রতি আগ্রহী হয়েছেন। গত পরশুদিন আমার এক বন্ধু মেসেঞ্জারে আমাকে জিজ্ঞেস করছিলো সে কী সিসিবির সদস্য হতে পারবে কিনা? বা বলায় একটু মনক্ষূণ্ন হলেও পরে বুঝিয়ে বলায় সন্তুষ্ট হয়েছে। তবে সে এখনো আশাবাদী একদিন তাদেরও সিসিবিতে লেখক হিসেবে অবস্থান হবে। সবচেয়ে অবাক হয়েছি যখন আবিষ্কার করেছি আমার বাবাও মাঝে মাঝে সিসিবিতে ঢু দেন। 😮 (আজকাল এইজন্য একটু সাবধান আছি 😕 )

    সিসিবির একটা ইংরেজি বিভাগ থাকলে মন্দ হয় না, আন্তর্জাতিক প্রসারের ব্যাপারেও বেশ সহায়ক হবে।
    বাহিরের পৃথিবীতে আমরা আর দশটি সাধারণ মানুষের মতই। - এই ব্যাপারটা আমাদের অবশ্যই উপলব্ধি করা প্রয়োজন। আমার বিশ্বাস অধিকাংশ ক্যাডেটই অন্তরে ক্যাডেটস্বত্তাটুকু বয়ে নিয়ে বেড়ালেও; বাইরের বন্ধু- সুহৃদ-পরিচিতজনদের সাথেও আন্তরিকই থাকে। আফটার অল, বন্ধুত্বের যে অপূর্ব সংগা আমরা শিখেছি, তা কিন্তু শুধু তিন অক্ষরের ক্যাডেট নামটুকুর মাঝেই আটকে রাখা যায় না।
    এই যে বিভিন্ন ব্লগিং কমিউনিটিতে আমাদের যেসব ক্যাডেটরা রয়েছেন, সেখানে নন-ক্যাডেটদের মাঝে তাদের গ্রহণযোগ্যতা ঈর্ষণীয়।

    পুরো পোষ্টাতেই ভাবনার খোরাক রয়েছে। একবারে হয়তো সবকিছু সম্ভব হবে না; কিন্তু আলোচনা করে এব্যাপারগুলোকে বাস্তবে রূপ দিতে পারলে চমৎকার একটা পরিণতি আমরা দেখতে পাবো। মোস্তফা ভাইয়ের ভাষাতেই বলিঃ

    তখন সবাই এমনিতেই সিসিবিকে প্রথম হিসেবে বেছে নিবে লেখার জন্য এবং পড়ার জন্য।


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  4. সাদিক (২০০০-২০০৬)

    অনেক সিনিয়র ভাই থাকতে পারেন, যিনি বাংলায় টাইপ হয়তো স্বচ্ছন্দবোধ করেননা, কিন্তু ইংরেজী হলে হয়তো লিখতে পারেন।

    ভাইয়া ইচ্ছা থাকলে উপায় হই

    জবাব দিন
  5. টিটো রহমান (৯৪-০০)

    ভাইয়া দুখিত আপনার পুরো লেখার সাথে একমত হতে পারছি না।
    কারণ আমি বোধহয় আদৌ খোলা মনের অধিকারী নই। তাই আপনার লেখার পুরোটা পড়ে

    খন প্রশ্ন হল আমরা কি চাই সিসিবিকে মূলধারার ব্লগ হিসেবে দেখতে? যদি না চাই, তবে লেখা এখানেই পড়া বন্ধ করে দিতে পারি।

    এই অংশেই ফিরে এসেছি।
    আমি জানি না বাকীরা কি বলে তবে আমার কখনোই মনে হয়নি সিসিবিকে মূল ধারার ব্লগ হতে হবে। মূল ধারার ব্লগ অনেক আছে বরং সিসিবির যে কেউ সেখানে ব্লগিং করতে পারে এবং করছেও। আমি চাই না বাইরের লোকজন এসে এই ব্লগটাকে নষ্ট করুক। আমি জানি মূলধারার ব্লগগুলোতে কি চলে......
    এখানকার এই চমৎকার পরিবেশ্ই বা পাই কোথা?
    সবচেয়ে বড় কথা ক্যাডেটিয় এই পরিবেশে বাইরের ব্লগাররাই বা কতটা খাপ খাওয়াতে পারবেন? আমরা তো তাদের এনে বিপদে ফলেতে পারি না(আমরাও বিপদে পড়তে চাই না)

    তবে পড়ার ব্যাপাের তো কোনো সমস্যা নেই ....সবাই পড়তে পারছে
    তাই আমরা বরং এটা নিয়ে ভাবতে পারি কিভাবে আরো বাইরের পাঠক বাড়ানো যায়(লেখক নয়). এখানে বাইরে বলতে ক্যাডেট পরিবারকে বোঝানো হয়নি অন্যান্য মূলধারার ব্লগারদের বোঝাতে চেয়েছি।
    যাইহোক ভাইয়া আপনার ইংরেজী ব্লগের আইডিয়াটা ভালো লেগেছে


    আপনারে আমি খুঁজিয়া বেড়াই

    জবাব দিন
  6. রেজওয়ান (৯৯-০৫)

    এইখানে কিন্তু বেশ কয়েকদিন আগে অতিথি ব্লগার ছিল, যিনি এখন লাপাত্তা হয়ে গেছেন......যাই হোক , আপনার অনেক কিছুই মনে ধরেছে......কিছু মত হয়ত একটু পরিবর্তন করলে আসলেই ভাল হবে.........এখন দৌড়ের উপর আছি, বাকিটা রাত্রে বলব 😀

    জবাব দিন
  7. মাসরুফ (১৯৯৭-২০০৩)

    সানা ভাইয়ের মত আমারো স্বপ্ন(মনে হয় আমাদের সবারই) যে সিসিবি অচিরেই বাংলা ব্লগিং জগতে একটা নেতৃস্থানীয় ব্লগের মর্যাদা পাবে।মোস্তফা ভাই,আপনার আইডিয়াগুলো ভাল লেগেছে,বিশেষ করে ইংরেজি ব্লগের আইডিয়াটা।তবে সদস্যপদের ব্যাপারে অতিথি লেখক পর্যন্ত হলেই মনে হয় চলে কেননা বাকি ক্ষেত্রে টিটো ভাইয়ের আশঙ্কা সত্যি হতে পারে বলেই আমার ধারণা।আমি আশা করি সিসিবি ক্যাডেটদের একটি কমিউনিটি ব্লগ হবে যার আবেদন শুধু কমিউনিটিতে নয় বরং বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়বে।আরো আশা করি যে গুরুত্বপূর্ন বিষয়গুলোতে মানুষ সবার আগে সিসিবিতে হানা দেবে নির্ভরযোগ্য তথ্যের জন্যে-বিডিয়ার বা নির্বাচনের সময় যেটা আমরা দেখেছি।

    সিসিবির জয় হোক।

    জবাব দিন
  8. রেজওয়ান (৯৯-০৫)

    আরেকটা কথা আপাতত বইলা যাই,

    শুধু মাত্র যারা এক্স ক্যাডেট কেবল মাত্র তারাই এই ব্লগের সদস্য হতে পারবেন

    রেড বুকের এই লাইনটা একটু এডিট করা দরকার বলে মনে হল......

    কি বলেন দিহান ভাবী ???? ;;;

    জবাব দিন
  9. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    পরীক্ষা শেষ করে আসলাম।

    মূলধারার ব্লগ বলতে আমাদের সামনে যে উধাহরনগুলো আছে সিসিবি সেটা হয়ে উঠুক সেটা আমি কখনোই চাইনা।কালে ভদ্রে আমার অন্য ব্লগে যাওয়া হয়, ভয়াবহ অবস্থা। শুধু সচলে নিয়মিত চোখ রাখি, তবে তারা মনে হয় নিজেদের ঠিক ব্লগ বলে মানতে নারাজ। সার্বিকভাবে সিসিবি'র মান বেশ উপরে এবং আমরাই অন্যান্য ব্লগের জন্য উধাহরন হয়ে উঠতে পারি।

    সিসিবির প্রচারনার ব্যাপারে সম্পূর্ণ একমত, বিভিন্ন মাধ্যমে এর লেখাগুলো আমরা শেয়ার করতে পারি। তবে সব শ্রেনীর ব্লগারদের সিসিবিতে আমন্ত্রন জানানোর পক্ষে আমি নই, আমাদের মানে ক্যাডেটদের মানসিকতার সাথে না মিলতে পারলে শুধু শুধু সিসিবির অসাধারন পরিবেশটাই নষ্ঠ হবে।

    আর ক্যাডেট, ক্যাডেট পরিবার বা এমন কেউ যে ক্যাডেটদের খুব কাছ থেকে দেখেছে, তাদের সাথে মানিয়ে নিতে পেরেছে এর বাইরের কারো লেখা ছাপানোর বিষয়টার সাথে একমত হতে পারলাম না। এতে ব্লগের পরিবেশটাই বদলে যেতে পারে। আর আমার মনে হয় ক্যাডেটদের মাঝেই সব ধরনের লেখকই ছড়িয়ে আছে, আরো বেশি বেশি ক্যাডেটকে সিসিবিতে লিখতে উৎসাহিত করতে পারলেই আমাদের মূল উদ্দেশ্য মনে হয় অর্জন হবে।

    তবে পড়া এবং কমেন্টের ব্যাপারে আমরা বাইরের ব্লগারদের উৎসাহিত করতে পারি।

    লেখার মান এবং তার সমালোচনা নিয়ে এহসান ভাই কিছুদিন আগে একটা পোস্ট দিয়েছিলেন। তার ফলাফল আমরা প্রায় সাথে সাথেই পেয়েছিলাম, ঐ পোস্টের বিষয়গুলি অনুসরন করলে অনেক এগিয়ে যাওয়া যাবে বলে আমার মনে হয়।

    শেষ কথা হলো আমি সব সময়ই সিসিবিকে সেরা অবস্থানে দেখতে চাই, তবে সেটা আমাদের স্বকিয়তা বজায় রেখে, ন্যদের সাথে তাল মিলিয়ে তাদের স্রোতে মিশে না গিয়ে আমাদের বর্তমানে প্রচলিত স্বকীয় ধারা বজায় রেখেই শীর্ষে পৈছানো সম্ভব বলেই আমার বিশ্বাষ।

    সিসিবি নিয়ে এরকম একটা পোস্ট দেবার জন্য মোস্তফা ভাইকে ধন্যবাদ... সিসিবির জয় হোক 🙂


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  10. রাশেদ (৯৯-০৫)

    সিসিবি কি মূলধারার ব্লগ? বাংলা ব্লগে আমার স্বল্প ঘোরাঘুরির অভিজ্ঞতা থেকে আমার মনে হয় এর উত্তর হবে না। তাই আমিও আপনার মত আশাবাদী আগামীতে একদিন নিশ্চয় সিসিবি অন্যতম মূলধারার ব্লগে পরিণত হবে। তাই লেখা শেয়ার, বন্ধুদের মাঝে প্রচারণা চালান এই ব্যাপার গুলোয় একমত। কারণ ধীরে ধীরে হলেও এটা সিসিবির পাঠক ও লেখক সংখ্যা বাড়াতে সাহায্য করবে। তবে এই ব্যাপারে আমাদের প্রধান নজর দেওয়া উচির লেখার মানের উপর। কারণ ব্লগে যত ভাল লেখার সংখ্যা বাড়বে তা সমানুপাতিক হারে ততই পাঠক আকৃষ্ট করেব। সেই ভাল লেখাটা যে শুধু গুরুগম্ভীর কোন বিষয়ে আর শক্ত কোন আলোচনা বা কোন রাজনৈতিক প্রবন্ধ হতে হবে তার কোন মানে নেই। সেই ভাল লেখাটা হতে পারে দূর্দান্ত কোন ব্লগর ব্লগর, দারুণ কোন গল্প, ভ্রমণ কাহিনী, নিতান্তই কোন মজার লেখা এমনকি সিসিবিয়ান্সদের দূর্দান্ত কোন আড্ডাবাজির খবর বিষয়ক পোস্ট। তাই আমাদের প্রধান লক্ষ্য হওয়া উচিত যে কোন বিষয়ে হোক না কেন ভাল লেখার সংখ্যা আর বাড়ান।

    আপনার অন্য ব্লগের ভাল লেখকদের আমন্ত্রণের প্রস্তাবে বলতে পারি যদি সেই ভাল লেখকেরা ক্যাডেট হন তাইলে সেটাতে আমার কোন দ্বিমত নেই কিন্তু ব্যাপারটা যদি নন-ক্যাডেট কার ক্ষেত্রে হয় তাইলে আমি আপনার সাথে ভিন্নমত পোষণ করি। এর কারণ টা একটা উদাহারণ দিয়ে পরিষ্কার করলেই ভাল হবে। ধরুন এক্স নটেরডিয়ানরা একটা বাংলা ব্লগ খুলল এবং ভাল লেখক হিসেবে এক সময় আপনাকে তারা সেইখানে লেখালেখির জন্য আমন্ত্রণও জানাল আর আপনি সেই আমন্ত্রণও গ্রহণও করলেন। কিন্তু আপনি কি সেই ব্লগে লেখালেখি করতে ঠিক স্বাচ্ছন্দ বোধ করবেন? আমার মনে হয় না। কারণ যেহেতু সেইটা একটা কমিউনিটি ব্লগ তাই সেখানে কারণে অকারণে নানা ভাবে তারা তাদের কলেজের কথা বলবে, কলেজের স্মৃতি নিয়ে পোস্ট দিবে এবং সেইটাই স্বাভাবিক। আর স্বভাবতই আপনি সেই আলোচনা গুলো বা পোস্ট গুলোতে আলোচনায় ঠিক ভাবে অংশগ্রহন করতে পারবেন না। আর এই ব্যাপারটা আপনার মধ্যে ব্লগের অন্যদের থেকে দূরত্ব সৃষ্টি করবে। আর ব্লগ মানে খালি লেখালেখির জায়গা নয়, সাথে সাথে এটা লেখক ও পাঠকদের একটা ইন্টার‌্যাকশেনের জায়গাও বটে। আর কমিউনিটি ব্লগে ঠিক এই কারণে আমার মতে কমিউনিটির বাইরের কেউ এসে স্বাচ্ছন্দ বোধ করবেন না। তাই এই ব্যাপারে আমার মত হল সদস্যদের নিবন্ধনের নীতিমালা যা আছে তাই থাকুক আপাতত।

    আপনার ইংরেজী ব্লগের বিষয়ে আমি তীব্র ভাবে দ্বিমত করছি। নেটে ইংরেজী লেখার জায়গার প্রকৃ্তপক্ষে ভাল জায়গার কোন অভাব নেই তাই যদি কার ইংরেজী ব্লগীং করার ইচ্ছে থেকে থাকে তাইলে উনি সে জায়গায় চাইলেই সহজে ব্লগীং করতে পারেন। সিসিবি এখন একটি বাংলা ব্লগ এবং ভবিষ্যতেও সেটা পূর্ণাঙগ বাংলা ব্লগ থাকলে স্বাচ্ছন্দ বোধ করব। আপনি বললেন অনেকে হয়ত বাংলায় টাইপিং করতে স্বাচ্ছন্দ বোধ করেন না কিন্তু এই অভ্রের যুগে আমার কাছে তা নিতান্তই অমূলক মনে হল। এইখানে আসল ব্যাপার হল ইচ্ছে আর ভাষার প্রতি ভালবাসা। কার যদি সত্যিকারে লেখালেখির ইচ্ছে থাকে আর তাইলে অভ্রের যুগে বাংলায় লেখালেখি করা কোন ব্যাপার নয়। আর আমাদের ব্লগের পাঠক গোষ্ঠী কারা? নিশ্চয় বাংলা ভাষাভাষী মানুষজন। তাইলে আমার মতে ইংরেজীর জন্য আলাদা একটা অংশ করা আমাদের সম্পরকে একটা পুরাতন অপপ্রচারকে উস্কে দিবে। কারণ অনেকের কাছে ক্যাডেট মানে নিজেকে এলিট ভাবা একটা গোষ্ঠী। আর তাই যখন এখানে আমরা মাতৃভাষা বাদ দিয়ে বাংলা টাইপিং এ স্বাচ্ছন্দ নই এই হাস্যকর অযুহাতে ইংরেজী অংশ চালু করব সেটা সেই পুরাতন মিথ্যা অপপ্রচারকেই পক্ষান্তরে সমর্থন যোগাবে।

    নতুন নতুন ই-বুক করার ক্ষেত্রে আপনার প্রস্তাবের সাথে আমি একমত ভাইয়া। কারণ আমার মতে আমরা যদি ব্লগের ভাল ভাল লেখা গুলো কে বাছাই করে বিভিন্ন বিষয়ের উপর নিয়মিত ই-বুক বের করতে পারি তাইলে তা ব্লগের লেখকদের আর ভাল ভাল লেখা সিসিবিতে দেয়ার উৎসাহ যোগাবে।

    আমারও পরীক্ষা চলছে তার পরেও অনেক কথা বলে ফেললাম, তাই আজকে আর থাক 😀


    মানুষ তার স্বপ্নের সমান বড়

    জবাব দিন
  11. আব্দুল্লাহ্‌ আল ইমরান (৯৩-৯৯)
    সবচেয়ে অবাক হয়েছি যখন আবিষ্কার করেছি আমার বাবাও মাঝে মাঝে সিসিবিতে ঢু দেন

    সাবধান থাকিস।আংকেল তর উপর আর ভরসা করতে পারছেনা।আঙ্কেল না ঢু মারলেই কিন্তু নিশ্চন্ত হওয়ার কারন নাই।পাপারাজ্জিও লাগাতে পারেন। x-(

    জবাব দিন
  12. কামরুলতপু (৯৬-০২)

    ভাইয়া আপনার প্রস্তাব এবং আলোচনা শুরু করা এই পোস্টের জন্য ধন্যবাদ। আপনার মতামতে সম্পূর্ণ শ্রদ্ধা রেখেই বলছি আমার একটু ভিন্নমত ছিল।
    ১।
    অন্তর্জালে বাংলা ভাষার প্রচার শুরু হয়েছে খুব বেশিদিন হয়নি। ইংরেজি লেখার তো অনেক উপায় আছে এখানে নাহয় আমরা শুধু বাংলাতেই থাকি। আমি ব্যক্তিগত ভাবে ব্লগে এসেছি বাংলা লেখা দেখার জন্য বাংলা পড়ার জন্য।
    ২।
    ব্লগের নামই যেহেতু ক্যাডেটকলেজব্লগ সেহেতু বুঝাই যাচ্ছে একটা কমিউনিটি ব্লগ এইটি। তবে কাউকে নিরুৎসাহিত করে নয় বরং এই নিয়মের মধ্যে থেকেও যদি কেউ কেউ অতিথি হিসেবে লেখতে রাজি হয় তাহলে তো অনেক ভাল। সিনিয়র জুনিয়র সম্পর্ক আমরা যেভাবে বজায় রাখতে পারি তখন সেইরকম পারব কিনা আমি সন্দিহান। তখন সবাই সবাইকে সম্মান দেখানোর জন্য আলগা মুখোশি আপনি আপনি করতে হবে , নিজের মনে হবে না সবাইকে।

    জবাব দিন
  13. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    আমি বিশাল একটা কমেন্ট দিয়েছিলাম... কই গেল (আমার জীবনের সবচেয়ে বড় :(( )

    আমার মূলভাব যেটা ছিল, আমরা অবশ্যই সিসিবিকে সেরা ব্লগ হিসেবে দেখতে চাই, তবে সেটা সিসিবির যে স্বকিয়তা আছে সেটা বজায় রেখেই... মূলধারার ব্লগ হতে গিয়ে নিজেদের ধারাটাকে বদলে নয়।

    ( আগের কমেন্টটা কোথায় যে হারিয়ে গেল 🙁 )


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  14. তৌফিক (৯৬-০২)

    ইংরেজি ব্লগের ব্যাপারে দ্বিমত আছে। নেটে ইংরেজি ব্লগের অভাব নাই কোন। রাজনীতির কথা জানি না, টেকি ব্লগ আর স্পোর্টস ব্লগ আমি ৫-৬ টা পড়ি নিয়মিত। সিসিবি শুধু বাংলাতেই থাকুক।

    সদস্যপদ সার্বজনীন করে দিলে বিভিন্ন সমস্যা হবে বলে আমার ধারণা।

    জবাব দিন
  15. মোস্তফা (১৯৮৮-১৯৯৪)

    সবাইকে আলোচনায় অংশগ্রহনের জন্য ধন্যবাদ।
    ইংরেজী ব্লগের ব্যাপারে কেউ কেউ দ্বিমত পোষন করেছে। কিন্তু একটু চিন্তা করে দেখ, আমার থেকেও বিশ বা পনের বছরের অনেক সিনিয়র ভাই আছেন যাদের কাছে অভ্র হয়তো অনেক ভয়ের ব্যাপার। আমার বা তোমার কাছে তা নয়। তাছাড়া, উনার কর্মজীবন পুরোই হয়তো কেটেছে ইংরেজী ভাষা ব্যবহার করে, বিশেষ করে আর্মিতে। বাংলার প্রতি উনাদের ভালবাসা নেই, তা নয়। উনাদেরকে আমরা আনতে পারি। আর বাংলা ব্লগ তো থাকছেই। যার ইচ্ছে বাংলায় লিখবে, যার ইচ্ছে ইংরেজীতে লিখবে।

    নন-ক্যাডেট ব্লগারদের ব্যাপারে বলতে পারি, কেউ যদি আমাদের নিয়মের মাঝে থেকে, মডারেশনের মাঝে থেকে লিখতে চায়, তবে আমাদের সমস্যা কি? মডারেটরদের কাজ বেড়ে যাবে, কিন্তু আমাদের পরিবেশতো বজায় থাকবে। কিন্তু আমরা যদি একেবারেই অন্যদের আসতে নিরুৎসাহিত করি, তবে কিভাবে আশা করবো একদিন সবাই আমাদের এখানেই আসবে লিখার জন্য ও পড়ার জন্য।

    জবাব দিন
    • আহসান আকাশ (৯৬-০২)

      ইংরেজি ব্লগের ব্যাপারে আমারো আপত্তি আছে। এটাকে পুরোপুরি বাংলা ব্লগ হিসেবেই দেখতে চাই। যারা অনেক দিন ধরে বাংলা থেকে দূরে আছেন আমার তো মনে তারা আর বেশি আকর্ষিত হবে বাংলার প্রতি।

      আর সবাই এখানে এসে লিখবে এই আশাটাই করছি না, যদি আমাদের লেখা অন্যদের আকর্ষন করতে পারে তাহলে যারা তাহলে পাঠক এমনিতেই আসবে ( নির্বাচন এবং বিডিআর ঘটনার সময় এর প্রমান মিলেছে)


      আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
      আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

      জবাব দিন
  16. আমিন (১৯৯৬-২০০২)

    মূলধারার ব্লগ শব্দটা আমার কাছে পরিষ্কার হলো হলো না। আমার নিজের বিচরণ সামুতে। সামু যদি মূলধারার ব্লগ হয় তেমন ব্লগ হিসাবে আমি সিসিবিকে দেখতে চাই না। সচলকে আমি মূলধারার ব্লগ বলতে রাজি নই। কারন সমমনা না হলে তারা সদস্য পদ দেয় না। অতিথি হিসাবে লেখতে হয় , তেমন সুযোগ আমাদের সিসিবিতেও আছে। আর এই ব্লগে কমেন্ট করার সুযোগ সকলের আছে সো ইন্টার একটিভন্যাস তো থাকছেই। কিন্তু নন ক্যাডেট অথবা ক্যাডেটদের সাথে মিশে অভ্যস্ত না এমন কাউকে ব্লগে পোস্ট করার সরাসরি সুযোগ দেয়ার আমি বিপক্ষে। কারণ এটা ক্যাডেট কলেজ ব্লগ। সেটা সবার জন্য উম্মুক্ত করলে ক্যাডেট কলেজ ব্লগ নামটি রাখার প্রয়োজনীয়তা থাকেনা।
    ইংরেজি ব্লগের ব্যাপারে আমার হ্যা না কিছুই নাই কারণ ইংরেজি ভাষায় আমার দুর্বলতা সেই আগে থেকেই। ইংরেজিতে ক্রিকইনফো কিংবা ইএসপিএন এর কিংবা গোল ডট কম এর খবর গুলো পড়া হয় খেলার প্রতি টান থেকে। এর বাইরে ইংরেজি কিছুই তেমন পড়া হয় না।
    অন্যান্য ব্যাপারগুলোতে মোটামুটি একমত।
    পরিশেষে মোস্তফা ভাইকে ধন্যবাদ এমন সুন্দর বিষয়ের অবতারণা করার জন্য।

    জবাব দিন
  17. মোস্তফা ভাই
    আমি একজন নন ক্যাডেট সিসিবির নিয়মিত পাঠক।
    আপনার সিসিবিকে মূলধারা ব্লগ বানানোর মতের সাথে একমত হতে পারছিনা মূলধারা ব্লগ এর পরিবেশ দেখে।
    সিসিবি কে মূলধারার ব্লগ বানানোর চাইতে বা ইংরেজী বানানোর চাইতে আপনারা যদি আরেকটা মূল ধারা প্ল্যাটফর্ম গড়ে তোলেন বাংলাতেই এই সিসিবির অভিজ্ঞতার আলোকে এবং এখানের লেখার মান এবং পরিবেশ ধরে রেখে তাহলে অনেক বেশী উপকার হবে।
    যেখানে ক্যাডেট এবং তাদের নন ক্যাডেট বন্ধুদেরকে লিখতে একসেস দেয়া যেতে পারে এবং কেউ english এ লিখতে চাইলে সেটাও সে লিখতে পারে।
    সিসিবি থাকুক না তার নিজস্ব স্বকীয়তা নিয়ে।
    সিসিবি সদস্যদেরকে বার্তা পাঠানোর অপশন থাকলে সেই পথেই আপনাকে জানাতাম নেই বিধায় মন্তব্য করতে হলো।

    @মডারেটর
    মোস্তফা ভাই এর দেখে হলে মন্তব্যটা মুছে দিলে খুশি হবো

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।