বড় কঠিন কাজ

লেখালেখি ব্যাপারটা কোনোদিন ও আমাকে দিয়ে হযনি । তবে একবার কোন এক অখ্যাত (আমার জন্য বিখ্যাত) লেখক এর বই এর মেষ পাতা থেকে একটা  কবিতা কপি করে কলেজ বার্ষিকিতে ছাপিয়েছিলাম।  আমি লেখা জমা দিতে হয় তাই জমা দিয়েছিলাম । ছাপা হয়ে যাবে তা ভাবিনি । বাংলার এক স্যার ডেকে আমাকে বলেছিলেন কবিতাটা খুব ভাল হয়েছে এবং তিনি ভবিষ্যতে আমাকে আরও সুন্দর কবিতা উপহার দিতে বলেছিলেন । আমিও তাকে এমনভাবে আশ্বস্ত করেছিলাম যে পরবর্তী কোন ম্যাগাজিন বের হলে আমার লিখা সবার আগে বের হবে । তারপর থেকে শুরু হলো লুকোচুরি । আমি ভুলেও আর তার সামনে পড়িনি । লজ্জা এবং ভয় দুটোই কাজ করত সেখানে । এরপর মাফ চেয়েছিলাম । জীবনেও আর লেখা  জমা দেয়ার দুঃসাহস করিনি ।

১,১৮২ বার দেখা হয়েছে

১০ টি মন্তব্য : “বড় কঠিন কাজ”

  1. সাব্বির (৯৫-০১)

    লজ্জা এবং ভয়ের কি আছে?? ৯৯% ক্যাডেট এই কাজ করছে কলেজে থাকতে। আমিও যে ২/৩ বার করি নাই তা না। তবে কুন বারই ছাপা হয় নাই 😀 । so, লজ্জা,ভয় কুনডাই লাগে নাই :shy:

    জবাব দিন
  2. আহ্সান (৮৮-৯৪)

    মুহিব,
    আর যাইহোক, তোমার এই এক প্যারা লেখা অন্তত আমার কাছে যথেষ্ট গোছানো মনে হয়েছে। কে বলেছে তুমি পারবেনা? তুমি তো ক্যাডেট রে ভাই...। ক্যাডেটরা পারেনা এমন কিছু নাই। রাস্তায় মলম বিক্রি করতে দিলে ঐটাতেও দেখবা ক্যাডেট হিট হয়ে যাবে। শুধু একটা কাজ তোমাকে করতে হবে, আর তা হলো, "লজ্জার খোলস ছেড়ে বের হয়ে আসতে হবে"।

    লেখা শুরু করো একবার...দেখবে কি দুর্দান্ত সব লেখা তোমার চিন্তাধারা থেকে বেড়িয়ে এসে আঙ্গুল থেকে ঝড়ে ঝড়ে কি-বোর্ডের সাথে সখ্যতা করে মনিটরে জ্বলজ্বল করে ফুটে উঠবে যার আল্টিমেট ডেস্টিনেশন হবে সিসিবি'র পাতায় পাতায়। হয়তোবা কোন একদিন সিসিবি'র গন্ডি পেড়িয়ে আরো কোথাও...।

    অপেক্ষায় থাকলাম তোমার লেখার।

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।