ফড়িঙের ডানা এবং দুই মিনিটের কবিতা

দরোজা ধরে দাঁড়ায় বিষাদ
তুমি ও নিষাদ,তুমি ও নিষাদ
কূপের থেকে কে জানতে চায়
একটি খুনের দৈব উপায়
রাত বিরহে নেই কোন পাপ
এই বালকের গোপন স্বভাব
সন্ধ্যা হতেই চন্দন কাঠ
আগুন পোড়ায় শবের পাঠ
মানুষ পোড়া ধূসর ছাই
লোকটা যে তালপাতার সেপাই
মরার পরে তার বিধবা স্ত্রী
প্রেমিক পেল এক মিস্তিরি
রাত বাড়তেই অন্ধকারে
দরজা টোকার অভিসারে

দরোজা ধরে দাঁড়ায় বিষাদ
তুমি ও নিষাদ,তুমি ও নিষাদ

সে ভিখু আর সেই পাঁচী
বললো থুথু-বিচ্ছিরি ছি

[মূল লেখাটার ছায়া]

৭৭৪ বার দেখা হয়েছে

৫ টি মন্তব্য : “ফড়িঙের ডানা এবং দুই মিনিটের কবিতা”

  1. নাফিজ (০৩-০৯)

    বুঝলা ভাইয়া, গার্লফ্রেণ্ড হইলো ফার্মগেটের বিকল্প পরিবহনের মত। একটা যায়, আরেকটা পিছে দিয়ে আসে। কপাল ভালো থাকলে বাসে ফাঁকা সীট ফাঁকা পেতে পারো; কপাল খারাপ থাকলে বাসটা তোমাকে চাপা দিয়ে চলে যেতে পারে। এইগুলা নিয়ে মন খারাপ করো না। কত কিছু আরো দেখার বাকি আছে এই দুনিয়ায়।

    প্রচন্ড আবেগের মধ্যে আছো বলে মনে হচ্ছে, তারপরও একটা কথা বলি।নিজের ইমোশনের উপর কন্ট্রোল রেখো। সত্যিকারের ভালোবাসা এইভাবে আসেনা- বিশেষত তোমাকে ছেড়ে কেউ চলে গেলে তার জন্য বিনা পয়সার চোখের পানি ফেলাটাও আসলে সিস্টেম লস। কে জানে, সামনে হয়তো আরো অনেক অনেক সুন্দর কোন ভালবাসা অপেক্ষা করছে তোমার জন্য। এখনই ছেড়ে দেয়া কেন ? মাত্র তো জীবনের তিনভাগের একভাগ গেলো-দেখা বাকি আরো দুইভাগ। হুমায়ূন আহমেদ স্টাইলে - জীবন তার মঙ্গলময় বাহু দিয়ে জড়িয়ে ধরবে হয়তো তোমাকে।

    মাত্র এক বছরের জুনিয়র, তারপরও বলি- বড় হও, বুঝলা ? ভেঙে পড়োনা।


    আলোর দিকে তাকাও, ভোগ করো এর রূপ। চক্ষু বোজো এবং আবার দ্যাখো। প্রথমেই তুমি যা দেখেছিলে তা আর নেই,এর পর তুমি যা দেখবে, তা এখনও হয়ে ওঠেনি।

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।