বুকের মধ্যে অনেক ফাটল

রাত বাড়তেই ক্রমশ আমি মানুষ হয়ে উঠি
লোভ-কাম-ক্রোধ-পাপচিন্তা বাড়িয়ে হাতের মুঠি
সব টেনে নেই বুকে
বুকের ভেতর লক্ষ ফাটল,তার কোনটায় ঢুকে
নষ্ট মাথার চিন্তাগুলি,খায় খুটে খায় মড়ার খুলি
সেই মৃত কি আমি?
আয়নাতে মুখ দেখতে গিয়েও থামি
ভরসন্ধ্যায় শ্মশানঘাটে বসে
এসব যত চিন্তা ভেবে ঘামি!

সুজাতাকে প্রেমের কথা বলে
নিয়ে গেছি বৈতরণী নদীর কাছে-হাত দিয়ে সেই জলে
পালিয়ে গেলাম মানুষ ছেড়ে অচেনা জঙ্গলে
সুজাতা কি একা সেদিন ফিরতে পেরেছিল?
আমার মুখোশ পরা সাদা মুখের ভন্ডামী সে
বুঝতে পেরেছিল?
ঠিক জানি না আমি!
এগুলো কি বালক মনের নিতান্ত পাগলামী?
ভরসন্ধ্যায় গোরস্থানে বসে
এসব যত স্মৃতি ভেবে ঘামি!

১,০৮৪ বার দেখা হয়েছে

১৬ টি মন্তব্য : “বুকের মধ্যে অনেক ফাটল”

  1. আন্দালিব (৯৬-০২)

    এই কবিতায় একটা গল্প আছে। সেটা কিছুটা এসেছে, কিছুটা আসেনি। পড়তে পড়তে মনে হচ্ছে একটু আসলো, কেন পুরো এলো না। আবার একটুও আসার দরকার ছিলো না, না বলা হলেই ভালো হতো। এই দুটা চিন্তাই আসলো।

    লেখা চালিয়ে যাও!

    জবাব দিন
    • অসীম (১৯৯০-১৯৯৬)

      আন্দালিব, কবিরা বেশি ভাগ সময়েই তাদের বলতে চাওয়া কথাগুলোর ওপর কুয়াশা পছন্দ করে। কবি মাত্রই জানে যে কবিতা শুধুই শব্দের খেলা নয়। আড়ালে একটা গল্প থাকে। দেখার বা শোনার গভীরে আরো অন্য কিছু সন্ধান করা যাদের ধরণ শুধু তারাই কবিতা প্রেমিক। সেজন্য কবিতার পাঠক কম। শুনেছি বিখ্যাত কবিতা পাগল বুদ্ধদেব বসু কোন কবিতার সুমিষ্ট একটি লাইনের জন্য বারবার সে কবিতা পড়তেন। তোমার কমেন্ট দেখে মনে হচ্ছে শাহরিয়ার স্বার্থক।
      চালিয়ে যাও-------------------- :thumbup:

      জবাব দিন
  2. আহমদ (৮৮-৯৪)
    এই কবিতায় একটা গল্প আছে। সেটা কিছুটা এসেছে, কিছুটা আসেনি। পড়তে পড়তে মনে হচ্ছে একটু আসলো, কেন পুরো এলো না। আবার একটুও আসার দরকার ছিলো না, না বলা হলেই ভালো হতো। এই দুটা চিন্তাই আসলো

    আমার একটা এন্টেনা, থুক্কু ডিজিটাল বেল্ট লাগবে 🙁


    চ্যারিটি বিগিনস এট হোম

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।