আমার প্রথম প্রেম

আমরা সেভেন-এ জয়েন করার কিছুদিন পর এক ম্যাডাম জয়েন করলেন। দেখতে শুনতে আল-হামদুলিল্লাহ। আমি কিছু বুঝে না বুঝেই তার প্রেমে পরে গেলাম। সেই রকম প্রেম, রাতে ঘুম হয় না টাইপ, আমার প্রথম প্রেম। তখনকার টুয়েল্ভ-এর এক ভাইয়ের বড় ভাই যিনি নিজেও আমাদের কলেজেরই এক্স-ক্যাডেট, উনার সাথে পরে তিনার বিয়ে হয়ে যায়। দুঃখ পাইলেও কষ্ট পাইনাই এই ভেবে যে ‘যাক, ফ্যামিলিতেই তো রইল’।(এই ম্যাডামকে লইয়া আমার অনেক অম্ল মধুর গল্প আছে। পরে কখনো চান্স পাইলে বলব।) আজকের গল্প টা ভিন্ন।

চাকুরী জীবনে এক সিনিয়র সহকর্মী যখন শুনলেন আমি মির্জাপুরের তখন তিনি নানান ধুন ফুন প্রশ্ন করে আমাকে আস্তে আস্তে ক্যানালাইজ করে ওই ম্যাডামের গল্পের দিকে নিয়ে গেলেন। ‘তোমাদের সময় কোন কোন ম্যাডাম ছিলেন?’ ‘দেখতে শুনতে ভাল ছিল কে কে?’ ‘তোমাদের-ই এক এক্স ক্যাডেট-এর সাথে বিয়ে’ ইত্যাদি, ইত্যাদি। আমি এক পর্যায়ে তাকে প্রশ্নও করলাম তিনি ক্যাডেট কিনা, উত্তরে তিনি না বলার পর আমি বিসমিল্লাহ বইলা শুরু করলাম।
ম্যাডাম সম্পর্কিত যাবতীয় গল্প, দাড়ী, কমা, সেমিকোলন সহ। তিনি পুরা গল্প অতীব উৎসাহ নিয়া শুনলেন এবং কখনো টেবিলে থাপ্পড় দিতে দিতে হাসলেন, কখনওবা তালি বাজিয়ে আমাকে উৎসাহ দিতে লাগলেন। উৎসাহের আতিসাহ্যে উনার ক্লাসে পোলাপানের ডেস্ক ঠেলা দিয়া বইসা থাকা পর্যন্তও বলে ফেললাম। গল্প শেষে অরিন্দম কহিলেন ওই ম্যাডাম উনার ভাবি, তিন ভাইয়ের দুই ভাই মির্জাপুর ক্যাডেট-এ পড়ছে আর উনি আমার সাথে মজাক করবেন বলেই বোধহয় …… ক্যাডেট-এ চান্স পান নাই। ‘সত্যি প্রতিপক্ষ, কি বিচিত্র এই সেলুকাস’।

(মডারেটর মনে হয় লেখাটা পাস করে দিতে পার। আমার ইজ্জত তো একবার গেছে-ই। সংশ্লিষ্ট যারা জানার তারা এতদিনে জেনে যাবার-ই কথা। আমার আর ভয় কি?)

২,৫১৭ বার দেখা হয়েছে

২১ টি মন্তব্য : “আমার প্রথম প্রেম”

  1. তৌফিক (৯৬-০২)

    তাইফুর ভাই, সালাম। ভালো আছেন?

    ম্যাডামের লম্বা চুল কিন্তু এখনো আছে।

    আমি ম্যাডামরে সবার আগে অংক দেখাইতে যাইতাম, সবার পরে ফিরতাম। 😀

    আপনার সিনিয়ার সহকর্মী আমাদের এক্স ক্যাডেট বড় ভাইকে :salute: , অসাধারণ সেন্স অব হিউমারের জন্য।

    জবাব দিন
    • তাইফুর (৯২-৯৮)
      আপনার সিনিয়ার সহকর্মী আমাদের এক্স ক্যাডেট বড় ভাইকে

      তৌফিক মনে হয় বুঝতে ভুল করছিস। আমার সিনিয়ার সহকর্মী কোন কলেজেরই এক্স ক্যাডেট না। উনার বাকি দুই ভাই মির্জাপুরের। ম্যাডাম উনার ভাবি B-)


      পথ ভাবে 'আমি দেব', রথ ভাবে 'আমি',
      মূর্তি ভাবে 'আমি দেব', হাসে অন্তর্যামী॥

      জবাব দিন
  2. জিহাদ (৯৯-০৫)

    '০৩ এর রি ইউনিয়নে রিজিয়া পারভীন যখন মনিকা, ও মাই ডার্লিং গাইতেসিল কে জানি তখন আমার পাশে দাঁড়ায়া দাঁড়ায়া রিজিয়া,ও মাই ডার্লিং বৈলা চিল্লায়া চিল্লায়া ডাকতেসিল।

    বস, আমি কিন্তু আপনারে নিয়া কিসু কৈনাই। 😛


    সাতেও নাই, পাঁচেও নাই

    জবাব দিন
      • পয়লা মিস, ক্লাস টুয়েল্ভ তো এক্স-ক্যাডেটই হইব, তো কথাটা তুমি দুইবার ক্যান কইলা? রহস্য কি?

        সেকেন্ড মিস, গ্রাজুয়েট করা ম্যাডাম কি লাই জুনিয়রের প্রেমে পড়ল?

        থার্ড মিস আহরে, আমিও তো টুয়েল্ভই ছিলাম, আমার ক্যান এইরকম কিছু হইল না?

        একটু বুঝাই দিবা! 🙁

        জবাব দিন
        • তাইফুর (৯২-৯৮)

          তিন ভাই,
          বড় ভাই এক্স ক্যাডেট হইছে ম্যালা আগে ......
          মাইঝ্যা ভাই ক্যাডেট না ... আমার সিনিয়র সহকর্মী
          ছোডো ভাইডারে আমরা টুয়েল্ভ হিসাবে পাইছি, আমরা যখন সেভেন তখন।

          ম্যাডামরে বিয়ে করছে বড় ভাই ......

          আসলে এই কনফুশন এর জন্য আমি-ই দায়ী। আরেকটু পরিষ্কার করে লিখা উচিৎ ছিল। ...... সরি বস।


          পথ ভাবে 'আমি দেব', রথ ভাবে 'আমি',
          মূর্তি ভাবে 'আমি দেব', হাসে অন্তর্যামী॥

          জবাব দিন
        • তাইফুর (৯২-৯৮)
          তখনকার টুয়েল্ভ-এর এক ভাইয়ের বড় ভাই

          আলফা, ব্রাভো, চার্লি তিন ভাই

          টুয়েল্ভ-এর 'চার্লি' নামক ভাইয়ের বড় ভাই 'আলফা'
          সিনিয়র সহকর্মী হইল মেঝ ভাই 'ব্রাভো'


          পথ ভাবে 'আমি দেব', রথ ভাবে 'আমি',
          মূর্তি ভাবে 'আমি দেব', হাসে অন্তর্যামী॥

          জবাব দিন
  3. টিটো রহমান (৯৪-০০)

    :goragori: :khekz: ওরে নারে ভাই :khekz:

    তিন ভাইয়ের দুই ভাই মির্জাপুর ক্যাডেট-এ পড়ছে আর উনি আমার সাথে মজাক করবেন বলেই বোধহয় …… ক্যাডেট-এ চান্স পান নাই।


    আপনারে আমি খুঁজিয়া বেড়াই

    জবাব দিন
  4. সায়েদ (১৯৯২-১৯৯৮)

    ম্যাডাম সম্পর্কিত যাবতীয় গল্প, দাড়ী, কমা, সেমিকোলন সহ। তিনি পুরা গল্প অতীব

    উৎসাহ নিয়া শুনলেন এবং কখনো টেবিলে থাপ্পড় দিতে দিতে হাসলেন, কখনওবা তালি বাজিয়ে আমাকে উৎসাহ দিতে লাগলেন। উৎসাহের আতিসাহ্যে উনার ক্লাসে পোলাপানের ডেস্ক ঠেলা দিয়া বইসা থাকা পর্যন্তও বলে ফেললাম। গল্প শেষে অরিন্দম কহিলেন ওই ম্যাডাম উনার ভাবি, তিন ভাইয়ের দুই ভাই মির্জাপুর ক্যাডেট-এ পড়ছে আর উনি আমার সাথে মজাক করবেন বলেই বোধহয় …… ক্যাডেট-এ চান্স পান নাই।

    এই গল্প শুইনা ভাবীর সাথে কি মস্করাটাই না জানি ইনি করছেন.... 😛 😛 । আল্লাহ মালুম।
    সেইরকম মামা... =)) =)) ।


    Life is Mad.

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।