আমরা আমরাই তো !

১.
তাইফুর ভাইয়ের আসার কথা ছিল বিকাল ৫টার মধ্যে। কাইয়ুম ভাই আর আমারে তুলে নিবেন পান্থপথ থেকে, সেখান থেকে যাবো মিঃ বেকারের কেক নিতে, তারপর বেঙ্গল ক্যাফেটেরিয়া।
ঘড়ির কাটা পাঁচটা পার হয়ে যাবার পর আর থাকতে না পেরে কাইয়ুম ভাইরে ফোন দিলাম,
বস, তাইফুর ভাই কই?
মৌচাক পর্যন্ত আসছিলো, এখন আবার বাসায় ফেরত যাইতেছে
ক্যান কি হইছে?
মনটা নাকি ভুলে বৌয়ের কাছে রাইখা আসছে , নিয়া আসতে গেছে
আরে ধুর, মন থাকুক না কিছুক্ষন ভাবির কাছে, বডিটা নিয়া আসলেই হবে
খালি মন না, মন এবং মানিব্যাগ দুইটাই রাইখা আসছিলো
হায় হায়, কন কি? উনি মানিব্যাগ ছাড়া আসলে ক্যামনে হবে? ‘বেকার’এর কেকের বিল কেডা দিবে?

চিন্তায় পরে গিয়েছিলাম। শেষ পর্যন্ত অবশ্য তাইফুর ভাই মনটা ভাবির কাছে রেখে মানিব্যাগ নিয়ে আসতে পেরেছেন। বেকারের চকলেট আর ভ্যানিলা ফ্লেভারের কেক দুইটাও সেইরকম ছিলো। আফসুস, জুনিয়র পোলাপাইনের জ্বালায় মাত্র দুই পিস খাইতে পারছি।

২.
মাহমুদ ভাই মিষ্টি খাওয়াবেন কথা দিছিলেন। কিন্তু ইফতারের আগে খালি হাতে উনারে বেঙ্গল ক্যাফেটেরিয়ায় ঢুকতে দেখে ভাবলাম, আজকেও জনপ্রিয় বিজ্ঞান নিয়ে লেকচার দিয়েই কেটে পরার ধান্দা করতেছেন মনে হয়। কিন্তু ঢুকেই আমারে আর কাইয়ুম ভাইরে ডাক দিয়া চিপায় নিয়া গেলেন, তারপর মানিব্যাগ থেকে টাকা বের করে হাতে দিয়ে বললেন, কি মিষ্টি আনবো বুঝতেছিলাম না, তোমরা পছন্দ মতো নিয়া আসো, যাও।
ছয় কেজি মিষ্টি আনা হলো। আমি বলছিলাম পাঁচ কেজি নিলেই হবে, কিন্তু নতুন জামাই বললো, মাস্ফ্যু ভাইয়েরইতো এক কেজি লাগবে!

৩.

দস্যুরানী ফুলন সামিয়া দেবীর আসার কথা ছিলো। আর সামিয়া আসবে অথচ লাবলু ভাই আইসক্রীম আনবেন না এমন কি হইতে পারে! ছোটভাইদের জন্যে শুধু চা আর ছোটবোনদের জন্যে যতো ইচ্ছা আইস্ক্রীম। লাবলু ভাইয়ের পক্ষপাতিত্ব দিন দিন চরম আকার ধারণ করছে। আল্লায় বাচাইছে শেষ পর্যন্ত ইন্ডিয়া ট্যুর বাতিল করতে না পারায় সিসিবির ত্রাস, ডাকু ফুলনদেবী ইফতার মিস করছে। নইলে বাক্সভর্তি আইসক্রীমের এক চামচও পাইতাম কিনা সন্দেহ! তবে উনি না থাকলেও উনার প্রতিনিধি ঠিকই ছিলো। এট্টু পর পর নতুন জামাইরে শুধু আইসক্রীমের বাক্সের আশেপাশে ঘুরাঘুরি করতে দেখা গেছে।

৪.
মাসুম ভাই আর এহসান ভাই এক টেবিলে বসছিলেন। উনাদের দুই জনের পাশে ছিলো মাহমুদ ভাই। দূর থেইকা ধারনা করলাম, খুব গুরুগম্ভীর আলোচনা হইতেছে। সিদ্ধান্ত নিলাম ওইদিকে না যাওয়াই ভালো। একটু পর মাহমুদ ভাই উঠে যাওয়ায় চেয়ার খালি হলো। এইবার সাহস করে গিয়ে বসলাম। আস্তাগফিরুল্লাহ! এনারা প্লেবয় পত্রিকা নিয়া কথা বলতেছেন। দুইজনেই নাকি একসময় প্লেবয় পত্রিকা খুব পছন্দ করতেন। অজু ভাইঙ্গা যাওয়ার আগেই আমি সইরা আসলাম।

৫.
এহসান ভাই আর মাহমুদ ভাইয়ের প্রথম দেখার দৃশ্য। (পুরোপুরি সত্য, আমি নিজে দেখেছি)

মাহমুদ ভাইঃ আমি মাহমুদ, ৯০-৯৬ ব্যাচ, সিসিআর। (হাত বাড়িয়ে দিলেন হ্যান্ডশেকের জন্যে)
এহসান ভাইঃ আমি মিশেল ফুকো, দার্শনিক। (হ্যান্ডশেক করলেন)

৬.
ইফতারের পর আড্ডার সবচেয়ে বড় ইস্যু ছিলো আহসান ভাইয়ের বিয়ে। কবে উনি শেরওয়ানীর অর্ডার দিবেন, কবে আমরা বিয়ের পার্টিতে গিয়া তার শালীদের দিকে চোরা নজরে তাকাবো। তারপর মাহমুদ ভাই, তারপর কাইয়ুম ভাই, তারপর রবিন, তানভীর আর মেরা নাম্বার আয়েগা………………… ধুর, বহুত দেরি!
আহসান ভাই কথা দিছেন এই ডিসেম্বরের মধ্যে ঘটনা ঘটাইতে না পারলে মান-সম্মান নিয়া রিটায়ার্ড করবেন। জোরে বলেন , আমিন।

৭.
ইফতার শেষ হওয়ার প্রায় আধা ঘন্টা পরে আসলেন মোসাদ্দেক ভাই। আমরা তখন তার এক পোস্টে মিষ্টি খাওয়া কমেন্ট নিয়া ব্যাপক হাসাহাসি করতেছি। মোসাদ্দেক ভাইকে দেখে দৌড়ে কাছে গেলাম। ইফতারি কিছুই তখন আর নাই। জিজ্ঞেস করলাম, ভাইয়া কি দেব, কেক না মিষ্টি?
আবার মিষ্টির কথা শুনে উনি ভয় পেয়ে গেলেন। বললেন, না না কেকই দাও।

৮.
যারা আসবে বলেছিলেন তাদের সবাই এসেছে। প্রায় সবাই। নাম লিখতে গেলে পোস্ট ভরে যাবে। তারচেয়ে যারা আসেনি বা আসতে পারেনি তাদের কথা বলি।
টিটো, তুই একটা হারামি। এইভাবে কেউ ফাঁকি দেয়? কী এমন কাজ ছিলো যে আসা গেলো না।
রকিব, তৌফিক, তারেক আরো যারা দেশের বাইরে আছো, তোমাদের কথা বারবার ঘুরে ফিরে এসেছে। আমরা যে তোমাদের কতোটা মিস করি এখানে বললে বুঝবে না। দেশে আসো, অনেক আড্ডা হবে, এই রকম, বার বার।

দিহান, সবচেয়ে বেশিবার তোর কথাই মনে হয়েছে, আমাদের সবার। সিসিবির সবাইকে তুই মায়ার বাঁধনে জড়িয়ে ফেলেছিস। দূরে থেকেও অনেক কাছে ছিলি। (ইমোশনাল হয়ে তুই-তোকারি করে ফেললাম! মাফ কৈরা দিয়েন ভাবি।)

**********************************************************
কথা শেষ, এইবার ছবি । । আর কারো কাছে ছবি থাকলে কমেন্টে দিয়ে দিয়েন।
**********************************************************


তাইফুর ভাইকে দেখে কী ভদ্র মনে হচ্ছে না? ইফতারে যারা আসছিলো তাদের কাছ থেকে উনার কিছু কর্মকান্ড জেনে নিয়েন, ছবির সাথে মিলবে না।
এহসান ভাই আর কাইয়ুম ভাইয়ের হাসি খিয়াল কইরা!


ভাবিবৃন্দ । ব্যস্ততার কারনে আপনাদের ঠিকমতো আপ্যায়ন করতে পারিনি। নিজগুনে ক্ষমা করে দিয়েন।


মাসুম ভাই আর লাবলু ভাই।
বেদ্দপ জামাইরে দেখেন। কোথায় গিয়া খাড়াইছে। সারাক্ষন সিনিয়দের তেল দেয়ার তালে ঘুরে।


এটা কি ভালোবাসা ?


ইয়ে মানে, আইসক্রীম গুলি যা ছিলো না! মাইরি বলছি ।


উই লাভ সিসিবি


জন্মদিন ছিলো টুম্পার। একটা কেক তাই তার কাঁটতে হয়েছে। সিসিবির সবার হয়ে অন্য কেকটা কাটছে জিহাদ। আইসক্রীমের বাক্সগুলি দেখা যায় তো, নাকি?


নতুন জামাইয়ের টি-শার্ট খিয়াল কইরা। বুকের মধ্যে কিন্তু ‘বাউনিয়া কিং’ লেখা।


হাঁসের ছানা (সবুজ গেঞ্জি) নাকি এখন বহুত টাকা পয়সার মালিক, কিন্তু মুখ এতো বিষন্ন কেনো ?


হাসির নমুনা দেখেন !


জনপ্রিয় জ্ঞান আর মিশেল ফুকো বিষয়ক আলোচনা। লাবলু ভাইয়ের সঙ্গের লোকটাকে কি চিনিয়ে দিতে হবে?



সবচেয়ে মজার অংশ ছিলো এই সময়টা। আড্ডা। ছবি দেখে বুঝা যায় না?

** ** **

পুনশ্চঃ
এহসান ভাইকে আলাদা করে ধন্যবাদ না দিলে বিশাল ভুল হবে। থ্যাঙ্কস এহসান ভাই। আল্লাহ আপনাকে আরো সিল খাওয়ার তৌফিক দান করুন, আমিন।

পুনঃপুনশ্চঃ
আড্ডায় আগত সবার জন্যে কুইজ- (মন্তব্যে উত্তর জানিয়ে দিলেই হবে)
১. সবচেয়ে বেশি খাওয়া দাওয়া করেছে কে?
২. আড্ডায় সবচেয়ে বেশি কথা বলেছে কে?
৩. সবচেয়ে চুপচাপ ছিলো কে?
৪. কাকে দেখতে সবচেয়ে বেশি সুন্দর লাগছিলো ?
৫. কে সবচেয়ে বেশি টিজ খেয়েছে?

২০৬ টি মন্তব্য : “আমরা আমরাই তো !”

  1. জিহাদ (৯৯-০৫)
    দিহান, সবচেয়ে বেশিবার তোর কথাই মনে হয়েছে, আমাদের সবার। সিসিবির সবাইকে তুই মায়ার বাঁধনে জড়িয়ে ফেলেছিস। দূরে থেকেও অনেক কাছে ছিলি। (ইমোশনাল হয়ে তুই-তোকারি করে ফেললাম! মাফ কৈরা দিয়েন ভাবি।)

    :khekz: :khekz:


    সাতেও নাই, পাঁচেও নাই

    জবাব দিন
  2. রকিব (০১-০৭)

    আর কয়টা মাস, আমি আইতাছিইইইইইইইইইইইইইইইই। :hug: :hug:
    বিশাল একখান পাট্টি হইবো, স্পন্সর সাব্বির ভাই আর রবিন ভাই (দুজনই প্রস্তাব দিছে স্পন্সরশীপের ব্যাপারে 😀 )
    অফটপিকঃ আসতে না পেরে মন খারাপ হচ্ছিলো, কিন্তু পোষ্ট পড়ে কিছুটা দূর হলো।


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  3. কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)

    ১. দারুন একটা মাহফিল হলো। সিসিবির একেকটা মাহফিল আগেরটাকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে, কি দারুণ একটা পরিবারের সাথে বেড়ে উঠছি আমরা।
    ২. মাহমুদ ভাই আর এহসান ভাইয়ের পরিচয় পর্বের আমিও স্বাক্ষী 😀 তবে এইখানে অতিরিক্ত আরো কিছু কথা ছিলো।
    ৩. তাইফু মাম্মা সেরকম দুইটা কেক নিয়া আইছিলো, দেখতে হবেনা কার দোস্ত :hug:
    ৪. ডিসেম্বরের ডেড লাইন শুইন্যা আহসান ভাইয়ের উপ্রে থেইকা ব্যান টা সাময়িক ভাবে স্থগিত করা হইছে
    ৫. মোসাদ্দেক ভাইয়ের সাথে পরিচয় হইয়া খুব ভালো লাগছে। বস্‌ অনেক কষ্ট করে হলেও শেষ মুহূর্তে এসেও মাহফিলে যোগ দেয়ায় অনেক কৃতজ্ঞতা।
    ৬. আসলেই সবচে বেশি মিস্‌ করছি আমার ভইনডি দিহানরে
    ৭. অল্পের জন্য পেলামনা তৌফিককে, বেচারার পাসপোর্টের ঝামেলা মিটলো কিনা কে জানে!
    ৮. কতকথা লিখতে ইচ্ছে করছে। কামরুল এক লেখাতেই প্রায় সব তুলে এনেছে। ইশ কত সুন্দর একটা আবেগময় লেখা লিখলো ছেলেটা, কত্তদিন পর।


    সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

    জবাব দিন
  4. ফাহাদ (২০০২-২০০৮)

    কুইজের উত্তর -
    ১- মাস্ফু ভাই :khekz: :clap: :clap: :clap:
    ২- তাইফুর ভাই :boss: :boss: :boss: :clap: :clap: :clap:
    ৩- আমরা ০২-০৮ ব্যাচের ৮ জন 😐 😐 😐
    ৪- তাইফুর ভাই ;;) 😉 :dreamy:
    ৫- মাস্ফু ভাই :khekz: :goragori: :clap:

    জবাব দিন
  5. এহসান (৮৯-৯৫)

    ধন্যবাদ এডু মডুদের সত্যি সত্যি গেট টুগেদারটা করে ফেলার জন্য। আমি ভেবেছিলাম অনেক বেশী প্ল্যান কইরা এইটা একটু পিছায়া যাইবো; কিন্তু ব্যাপারটা তা না। আমি সত্যি খুব খুশী হয়েছি বেশ কিছু প্রিয় ব্লগারের সাথে দেখা করতে পেরে।

    ইফতার পার্টিতে আসলে স্পন্সর হিসাবে আমার নাম বইলা আমারে ফাসানোর চেষ্টা করা হইলেও আসলে বেশ কিছু নীরব ডোনার ছিলো। এইসব প্রচার বিমুখ ছেলেগুলো বিশেষ করে একজন অনেক বেশী পরিমানে কন্ট্রিবিউট করেছে। বেশ বিব্রত হলেও বুঝতে পারলাম ছেলেটা সিসিবি কে আমার চেয়ে অনেক বেশী ভালোবাসে। :boss:

    জবাব দিন
  6. এহসান (৮৯-৯৫)

    ১. সবচেয়ে বেশি খাওয়া দাওয়া করেছে কে?
    মনে হয় মাস্ফ্যু। আমি নিজে খেয়াল করসি সবাই যখন গনহারে বিড়ি ফুকতে গেসিলো তখন চুপি চুপি কেক সাটাইতাসে।
    ২. আড্ডায় সবচেয়ে বেশি কথা বলেছে কে?
    তাইফুর
    ৩. সবচেয়ে চুপচাপ ছিলো কে?
    ড্যারেন স্যামী... রায়হান আবীর...
    ৪. কাকে দেখতে সবচেয়ে বেশি সুন্দর লাগছিলো ?
    পোলাদের আমার সুন্দর লাগে না, পরের বউ ভাবীদের দিকে আমি তাকাই নাই; তাই জানি না।
    ৫. কে সবচেয়ে বেশি টিজ খেয়েছে?
    ফ্ল্যাশব্যাক কইরা মনে করতে পারতেসি না

    জবাব দিন
  7. দিহান আহসান

    আমি কি একবার টেরাই নিবো? দেখি বিসমিল্লাহ করে, ;))

    ১. সবচেয়ে বেশি খাওয়া দাওয়া করেছে কে?
    এইটা কি উত্তর দেওন লাগে নাকি??? ম্যাশ পটেটো আর কে? B-)

    ২. আড্ডায় সবচেয়ে বেশি কথা বলেছে কে?
    ছবি দেখে তো মনে হইলো আমাদের ভাইজান থুক্কু প্রিসিপাল স্যার 😀
    ৩. সবচেয়ে চুপচাপ ছিলো কে?
    কাইয়ূম ভাইডি 🙂
    ৪. কাকে দেখতে সবচেয়ে বেশি সুন্দর লাগছিলো ?
    আবারো ছবির উপর'ই ভরসা কইরা কই, মাসুম ভাইয়া :ahem:
    (ক্যান যে মাইয়ারা উনারে আংকেল ডাকে? ~x( )
    ৫. কে সবচেয়ে বেশি টিজ খেয়েছে?
    আমাদের আদরের নয়া জামাই কি? ;;; ;;)

    কি বলেন কাইয়ূম ভাই? :grr: :grr: :grr:

    জবাব দিন
  8. মেহেদী হাসান সুমন (৯৫-০১)

    ভাইসব, আমি টিকেট কিনে ফেলছি, ১৯ তারিখ দেশে আসছি। ঈদের পরে একদিন একটা ছোট খাটো ঈদ পূনর্মিলনী আয়োজন করেন। টাকা পয়সা যা লাগে দিব গৌরি সেন আংকেল। ওনার সাথে কথা হইছে। কামরুল ভাই, আপনার নাম্বার টা দেন, তাহলে দিন তারিখ ঠিক করে ফেলা যাবে ...

    জবাব দিন
  9. চ্রম একটা লেখা লিখছেন।

    ****

    আড্ডা চমৎকার জমছিল। একটাই দুঃখ, এহসান ভাইয়ের সাথে আর্সেনাল কেন ভুয়া দল এইটা নিয়া আলোচনা করার ইচ্ছে ছিল। কিন্তু প্লে- বয় আলোচনায় বস এতোই ব্যস্ত ছিলেন যে, আমার মতো নাদান পাবলিককে বেশি সময় দিতে পারেন নাই।

    ****

    দিহান ভাবী, সিসিবির অন্যতম জনপ্রিয় ব্যক্তি। সবাই খালি দিহান, দিহান। ভাবী শুধু ব্লগে না ব্যক্তিগত মেইলেও অনেকের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ করেন। ফোন করেন। আড্ডার যাবার আগ পর্যন্ত আমি অবশ্য ভাবছিলাম এই প্রিভিলেজ টা শুধু আমিই পাচ্ছি 😀

    ****

    তাইফুর ভাইয়ের মতো ফানি মানুষ আমি খুবই কম দেখছি। পুরা আড্ডা উনি এক মুখ দিয়ে জমায় রাখছিলেন। তয় সবচেয়ে মজা ছিল বসের ড্রাইভিং করার পার্টটা। ক্যামনে যে উনি গাড়ি চালান- আল্লাগু!!!

    ****

    মারাত্মক ফ্লপের উপরে ছিলেন আবদুল্লাহ ভাই। তার প্রতি সমবেদনা। 😀

    ****

    চা' ওয়ালা পোলাডা, তৌফিক ভাই সহ সকল প্রবাসী ব্লগারদের অনুপস্থিতি নিয়ে মাঝে মাঝে নাকি কান্না কেঁদেছি আমরা।

    ****

    আর নাম না জানা মানুষটি খুব সম্ভবত কামরুল ভাই। কামরুল ভাই আর কাইয়ূম ভাই এইদুজন মানুষ সিসিবিকে কী পরিমাণ ভালোবাসেন এইটা টাইপ করে বলার দরকার নেই। সবাই জানে।

    ****

    গেট টূগেদারে আটান্ন জন উপস্থিত ছিল। চমৎকার। অসাম অভিজ্ঞতা।

    জবাব দিন
  10. দিহান আহসান

    আবারো সুন্দর করে ফুটিয়ে তুলে মন ছুঁয়ে যাওয়া একটা লেখা লিখেছো, কাইয়ূম ভাইয়ের মত পুরা ইমোশনাল হইয়া গেলাম। ভাইয়াআআআআ, ভ্যাআআআআআআআ :(( :(( :((

    ইচ্ছে ছিলো আমার প্রিয় দুইটা বিখ্যাত ব্যক্তি'র সাথে কথা বলার, উপায় থাকলে অটোগ্রাফও নিয়া নিতাম। 😀 ( কমেন্টশিল্পী মাম্মা আর জুনা )

    তাইফ মাম্মা'র সাথে কথা বলে উনার লিখার মত'ই সেরম লাগসে, পুরা ফাটাফাটি :boss:

    জুনায়েদ কবির ভাইয়া সেটি হচ্ছেনা, ভাব রাইখা আমারে লাইনে আগে রাখতে হইবো অটোগ্রাফের জন্য 😛

    নয়া জামাইয়ের সাথে মিস করলাম, ফোনটা কেটে গেলো । পরের বার একসাথে দুইজনের সাথেই নাহয় কথা বলে নিবোনে ;;;

    মুহম্মদ তার লেখার মতই গুরু গম্ভীর, গলা শুনেই মনে হইসিলো এইটা মুহম্মদ না হয়ে যায়না।

    জিহাদ মিয়া দুষ্টু, আছো। :-B

    হাসুঁ ছবির জন্য ধইন্যাপাতা 😀

    সবার শেষে আমার ভাইয়াটার কথা না বললেই নয়, তোরে আমিও খুব মিস করসিরে। 🙁

    জবাব দিন
  11. সানাউল্লাহ (৭৪ - ৮০)
    জনপ্রিয় জ্ঞান আর মিশেল ফুকো বিষয়ক আলোচনা। লাবলু ভাইয়ের সঙ্গের লোকটাকে কি চিনিয়ে দিতে হবে?

    টেবিলে মাহমুদ নিজের পরিচয় দিয়ে আমাকে কি বলেছিল জানো, "ভাই আমি মাহমুদ। ওই যে বেশি তর্ক করি।"

    আর আমার জবাব ছিল, "এইডা কোনো ব্যাপার না। মাস্টাররা একটু বেশি তর্ক করেই!"

    :chup: :chup: :chup:


    "মানুষে বিশ্বাস হারানো পাপ"

    জবাব দিন
  12. সানাউল্লাহ (৭৪ - ৮০)
    ছোটভাইদের জন্যে শুধু চা আর ছোটবোনদের জন্যে যতো ইচ্ছা আইস্ক্রীম। লাবলু ভাইয়ের পক্ষপাতিত্ব দিন দিন চরম আকার ধারণ করছে।

    এটাকে কি ঈর্ষা নাকি প্রশংসা হিসাবে নিব?? আমাদের চার ভাইয়ের এক বোনের মধ্যে মেয়ের প্রতিও বাবার স্পষ্ট পক্ষপাত ছিল!! আমি ওই বাবারই পোলা কিনা!!!

    :grr: :grr: :grr:


    "মানুষে বিশ্বাস হারানো পাপ"

    জবাব দিন
  13. সানাউল্লাহ (৭৪ - ৮০)

    ওই ব্যাডা, ইফতার পার্টিতে বোন ছিল কয়ডা?? ছয় লিটার আইসক্রিম মাত্র চাইরটা বোন শ্যাষ করছে!! 😡 😡 😡 বাকি বায়ান্নডা কি আঙুল চুষছে!! মাস্ফ্যুর প্লেটটা দেখ!!! :duel: :duel: :duel:


    "মানুষে বিশ্বাস হারানো পাপ"

    জবাব দিন
  14. তাইফুর (৯২-৯৮)

    ১। ভ্যেনু সিলেকশান ও রেডি করা, কেকের অর্ডার দেয়া, সব কো-অর্ডিনেশান করে প্রোগ্রামটা সুন্দরভাবে শেষ করে আবার চমৎকার একটা ব্লগ দিয়ে সবার সাথে শেয়ার করা ... নামটা নাই বললাম ... (কাইয়ুম এর একটা চান্স থাকল ...)
    ২। ৯২-৯৮ ব্যাচের ... আমি কথায় আর কাইয়ুম কাজে ...
    ৩। লাবলু ভাই, মাসুম ভাই, এহসান ভাই, মাহমুদ ভাই ... যাদের উপস্থিতিই আমাদের জন্য অনেক বড় পাওয়া ... (সিল দেয়ার পর বহুৎ পাম দিছি ... এহসান ভাইরে আর পাম নাইবা দিলাম)
    ৪। আফসোস, হাস্না'র দিকে খুব একটা মনোযোগ দিতে পারি নাই, "আমি হাসনাইন" বইলা পোলা সেই যে ভাগল ... আর খুইজা পাইলাম না
    ৫। রসিক ফুয়াদ কি খানিকটা নিস্প্রভ ছিল ?? কেন ??
    ৬। জিহাদ-রায়হান 'দের একটা সিরিয়াস প্রশ্ন করছিলাম 'ওদের বাড়িঘরে অন্যদের বাড়াবাড়ি রকম উপস্থিতি ওদের ক্যামন লাগে ?? সিরিয়াস কমেন্ট এর মত সিরিয়াস প্রশ্নেরও বেইল নাই ...
    ৭।ছানাপোনা'র ছুরি খাওয়া নিয়া রসিকতা যে করলাম, যারা ছুরি মারল তাদের সাথে তো এখনও রসিকতা করা হইল না
    ৮। মুহাম্মদ ... বড় বড় কমেন্ট কইরা স্টক ফুরায়া ফেলছে মনে হয় ... কথা কম বলে ... অন্তত আমার চেয়ে তো অবশ্যই কম
    ৯।।অ-নে-ক দিনের স্বপ্ন পুরণ ... জুনা'রে এইবার আসর জমানোর চান্স দেই নাই ... মু হা হা ...
    ১০। আর যারা ছোট বড় ... যারা না আসলে মাহফিল কে মাহফিল মনে হইত না ...

    পরিশেষে অ চো ... আহসান স্যার তো অল্রেডি থ্রেট মারছেই ... লাগাম ছাড়া ফান করতে গিয়া কাউরে আবার কষ্ট দেই নাই তো ...

    মাস্ফ্যু ... ভাগিনা ... আয় বুখে আয় ...


    পথ ভাবে 'আমি দেব', রথ ভাবে 'আমি',
    মূর্তি ভাবে 'আমি দেব', হাসে অন্তর্যামী॥

    জবাব দিন
  15. টুম্পা (অতিথি)

    ইশশ আমি তো অফিস থেকে একটা ছবি ও দেখতে পাচ্ছিনা! 🙁 ফেসবুকে দেখছি অবশ্য..
    গেট টুগেদার এ এসে খুব্বি ভাল্লাগসে। আমি লাস্ট মনে হয় ৪ বছর বয়সে এতো লোকের সামনে কেক কাটছিলাম!! সিসিবি'র সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।
    অনেকের সাথে ভালো করে পরিচয় করতে পারিনি, দুঃখিত সেজন্য। ইনশাল্লাহ নেক্সট টাইম।

    জবাব দিন
  16. আমিন (১৯৯৬-২০০২)

    আমি বরাবরই লেট। (এডু স্যার আবার পাঙ্গায়েন না)।
    ভার্চুয়াল কমিউনিটির লোকদের সাথে দেখা করতে আমি বিব্রত বোধ করি।
    এর কারণ ভার্চুয়াল জগতে কথা বলার সময় যে ধরণের একটা ইম্প্রেশন থাকে সেটা নষ্ট হয়।
    যেমন আমি মাহমুদ ভাইরে ভাবছিলাম বয়সের চেয়ে বেশি বয়সী একজন রাশভারী লোক।স সামনা সামনি দেখে মনে হয় আয় হায় উনারে দেখতে তো পিচ্চি পিচ্চি লাগে। সেটা ওনারে কওয়াতে আমি ভাবছিলাম চেইতা যাবেন। সেটাও চেতলেন না।
    সানাউল্লাহ ভাইরে ভাবছিলাম মাথায় টাক থাকবো ( প্রিন্সিপাল আর টাক আমার কাছে প্রতিশব্দ রইসুদ্দিনের কল্যানে)।
    কামরুল ভাইরে লম্বা ভাবছিলাম তা আর কাইয়ুম ভাইরে শুকনা। কোনটাই মিললো না।
    তানভীর ভাইরে আর রবিন ভাইরে যেমন ভাবছিলাম উনারা তার চেয়ে গম্ভীর।
    তাইফুর ভাইরে আগেই চিনতাম। রায়হানরে আগে চিনতাম তবে রায়হান হিসাবে না। মুহাম্মদ আমার কলেজের হলেও ওর চেহারা ভুলে গেছিলাম। জিহাদরে আমি চিনতে না পারার জন্য তো জিহাদ মনে হয় মাইন্ডই খাইলো। তারপরে অবশ্য সাবধান হয়ে গেছি। নাম শুনে তারপর কথা বলি।
    জুনা ভাইয়ের সাথে কথা কয়া খুব ভালো লাগছে। ক্যামেরা দেইখা হাঁসের ছানা লোকেট করছি। মোসাদ্ডেক ভাইরে জটিল লাগছে। টানা কথা বলে যাওয়া লোকটার মাঝেকার সারল্যের ছাপটুকু ব্লগে অল্পই পড়ে।
    রাশেদ মহিবের লেখা আমি ভালা ভাই। কিন্তু লেখক গুলোরে লেখার তুলনায় পিচ্চি পিচ্চি লাগছে।
    আহসান আর রাশেদের সাথে রিকশায় আসায় ওদের সাথে টাইম করে আড্ডা দেয়া হলো।
    আর হ্যা একজনরে দেইখ্যাই বুঝছি সে কে?
    সে হইতেসে জামাই মাস্ফ্যু।
    আমার কমেন্টের প্রথম অংশের কথাটা অন্যান্য ভার্চুয়াল কমিউনিটির জন্য সত্য হইলেও সিসিবির জন্য কারণ ....... কারণ সিসিবি আমার ঘরের মত। আর পরিচয় হমু না কেন??
    আমরা আমরাই তো।

    জবাব দিন
  17. রাশেদ (৯৯-০৫)

    সিসিবির ইফতারে দারুন মজা পাইছি, আমি বেশী কথা বলি না তাই অন্যদের প্রাণখোলা আড্ড দারুন উপভোগ করছি। অনেককেই প্রথমবারের মত দেখেছি, অনেকের লেখা পড়ে একরকম ভাবছিলাম কিন্তু দেখি না ব্যাপার আসলে অন্যরকম। বিশেষ করে তাইফুর ভাইয়ের গল্পে দারুন মজা পাইছি। আর অনেক কথাই লিখতে চাইছিলাম কিন্তু তাইলে সেইটাই একটা আলাদা পোস্ট হয়ে যাবে তাই আজকে থাক।


    মানুষ তার স্বপ্নের সমান বড়

    জবাব দিন
  18. আহ্সান (৮৮-৯৪)

    সিসিবির প্রতিটি সদস্যই যেন সিসিবির একেকটা আলাদা আলাদা প্রাণ...
    নিজেদেরকে যারা নিবেদিত করে সিসিবিকে একটি কঠিনতম ভালোবাসার জালে আষ্ঠে পৃষ্ঠে বেঁধে রেখেছে, তাদের প্রতি শ্রদ্ধাবনত আমার এই সত্ত্বা...
    অনেকবার বলেছি, তাও বারবার বলতে ইচ্ছে করে... "এমন অকৃত্রিম ভালোবাসা পৃথিবীর আর কোথায় পাওয়া যাবে?????"

    জবাব দিন
  19. সামি হক (৯০-৯৬)

    ছবিগুলা দেখে ভালো লাগছে কিন্তু ইফতারির প্লেট দেখে বড়ই কষ্ট পাইছি, আহারে আমার বেগুনী 🙁 🙁 ।

    পোলাপানের লেখা পড়ে যতো বড় বড় লাগে এখন তো দেখি সবাই বাচ্চা কাচ্চা। কামরুলের টুপিটা পছন্দ হয়েছে।

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।