বাস্তব আমি বনাম ভার্চুয়াল আমি!

বাস্তব জীবনে আমি প্রচণ্ড অসামাজিক। আত্মীয়তা বা সামাজিকতা রক্ষার ধারে-কাছেও যাই না আমি। আমার বন্ধু-বান্ধব, আত্মীয়-স্বজন সকলের অন্যতম অভিযোগ আমি ফোন করি না কেন!

অসামাজিক হবার পাশাপাশি আমি মোটামুটি রগচটা, একগুঁয়েও আছি। হঠাৎ করে রেগে উঠি এবং খুব দ্রত বন্ধুদের সাথে তর্কে জড়িয়ে পড়ি। আমার বন্ধুর সংখ্যাও অনেক কম, ক্যাডেট কলেজের বন্ধুরা ছাড়া ভার্সিটির গুটিগুতকের সাথে বন্ধুত্ব হয়েছে। চাকুরি জীবনেও বন্ধু বেড়েছে খুব কম। বন্ধু বানানোয় আমি অনেকটাই ব্যর্থ বা খুঁতখুঁতে।

অথচ ভার্চুয়াল আমি অনেকটাই এর বিপরীত। ঠাণ্ডা মাথায় সময়ে নিয়ে যুক্তি, পালটা যুক্তি দেখাই, বেশিরভাগ সময়ে গুগল করে উদাহরণ দিই বলে ভুল-ত্রুটিও কম হয়, অন লাইনে মানুষের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ থাকে, ‘বন্ধু’র সংখ্যাও দিন দিন বেড়ে চলেছে!

বাস্তব জীবনে আমি প্রায়ই হুট-হাট করে লাইফ অল্টারিং সিদ্ধান্ত নিই। যেমন- হুট করে চাকুরি ছেড়েছি, কয়েকদিনের নোটিশে ঢাকা ছেড়েছি, এখন আবার খুলনা ছেড়ে চট্টগ্রামে এসেছি!

অথচ, অনলাইনে সামান্য একটি কমেন্ট করার আগেও আমি অনেক চিন্তা-ভাবনা করে করি। আমার লেখা পড়ে কে কি ভাবতে পারে- তা আগে থেকেই বোঝার চেষ্টা করি। কেউ আমাকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করেও কথা বললেও পালটা আক্রমণ যতক্ষণ পর্যন্ত না করে থাকা যায় তার চেষ্টা করি!

কিছুদিন আগে ফেসবুকে দেখেছিলাম একজন একটি মেমে শেয়ার দিয়েছিলেন, ‘আপনি যদি আপনার সাথে পরিচিত হতেন, নিজেকে কি পছন্দ করতেন?’

চিন্তা করে দেখলাম, আমি আমার ‘ভার্চুয়াল আমি’কে মেরে-কেটে পছন্দ করলেও বাস্তব আমিকে হয়ত সহ্যই করতে পারতাম না। (যারা করছেন, তাদের কাছে আমি কৃতজ্ঞ!)

আমার ‘ভার্চুয়াল আমি’ ‘বাস্তব আমি’র চেয়ে শ্রেয়তর ব্যক্তিত্ব!!

২,০৭৯ বার দেখা হয়েছে

২৬ টি মন্তব্য : “বাস্তব আমি বনাম ভার্চুয়াল আমি!”

  1. মোস্তফা (১৯৮০-১৯৮৬)

    যাক কিছু মিল পেলাম। এতদিন ভাবতাম,

    সকল লোকের মাঝে বসে
    আমার নিজের মুদ্রাদোষে
    আমি একা হতেছি আলাদা?
    আমার চোখেই শুধু ধাঁধা?
    আমার পথেই শুধু বাধা?


    দেখেছি সবুজ পাতা অঘ্রানের অন্ধকারে হতেছে হলুদ

    জবাব দিন
  2. সাইদুল (৭৬-৮২)

    আপনি যদি আপনার সাথে পরিচিত হতেন, নিজেকে কি পছন্দ করতেন?’

    দারুণ প্রশ্নতো।

    আমার কাছে অবশ্য ভার্চুয়াল জীবন অনেকটা এরকমঃ
    ভার্চুয়াল প্রেম ছায়াবাজি শুধু
    লাইকে শেয়ারে ছাওয়া
    নেটের ওধারে দুহাত বাড়ালে
    চোখের নিমেষে হাওয়া


    যে কথা কখনও বাজেনা হৃদয়ে গান হয়ে কোন, সে কথা ব্যর্থ , ম্লান

    জবাব দিন
  3. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    জুনাদা বাকী কথা পরে হবে, আপাতত বলেন চট্টগ্রাম কই আছেন? একদিন ইফতারে চলে আসেন 🙂


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
    • জুনায়েদ কবীর (৯৫-০১)

      তোরে বলে তো লাভ নাই। তুই তো আসবি না! খোঁজও নিবি না... :thumbdown:
      কই থাকবো আর? আমি যেখানে থাকতে পারি...
      আমি আছি ঈশা খাঁ, বড় ভাই জুলহাস (জেসিসি, ৮৮-৯৪) এর বাসায়!


      ঐ দেখা যায় তালগাছ, তালগাছটি কিন্তু আমার...হুঁ

      জবাব দিন
      • আহসান আকাশ (৯৬-০২)

        আবারো কয়েকটা ফ্রন্টরোল দিয়ে নেই 🙁

        :frontroll: :frontroll: :frontroll:

        আমার নতুন ব্যাগেজ নিয়ে তো এখন যাওয়ার সুযোগ নাই, আপনিই একদিন হালিশহর চলে আসেন। আগের ফল্টের জন্য না হয় সামনা সামনি দু একটা ফ্রন্টরোল দিয়ে দিবোনে 😛


        আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
        আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

        জবাব দিন
  4. রকিব (০১-০৭)

    স্ট্যাটাস থেকে কপি পেষ্ট পোষ্ট, নাকী উল্টাটা? 😛

    যাউজ্ঞা, বাকী কথা পরে হবে, আপাতত বলেন চট্টগ্রাম কই আছেন? একদিন ইফতারে চলে আসবো 🙂


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  5. কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)

    ফেসবুক থেকে কপি পেষ্ট পোষ্ট, নাকী উল্টাটা? 😛

    যাউজ্ঞা,পরে হবে বাকী কথা , চট্টগ্রাম কই আছোস আপাতত বল ? একদিন ইফতারে চলে আসবো 🙂


    সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

    জবাব দিন
  6. খায়রুল আহসান (৬৭-৭৩)

    "আপনি যদি আপনার সাথে পরিচিত হতেন, নিজেকে কি পছন্দ করতেন?"
    ভেবে দেখলাম, করতাম। তবে এমন একটা প্রশ্নের সম্মুখীন হতে বেশ লাগলো।
    বেশ একটা আনইউজুয়াল বিষয় নিয়ে লেখাটা পড়তে চমৎকার লাগলো।

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।