প্রিন্সিপাল এসেম্বলী!!! (সিসিবি ভার্সন)

(ডিসক্লেইমারঃ লেখাটি অনেকটাই বন্য’র ‘সিসিবি সমাবেশ’ আদলে লেখা। তাই, ও যদি কপিরাইট নিয়ে কোন ঘাপলা করতে চায়…ওয়েল…পিটিয়ে ওর পিঠের ছাল তুলে ফেলব…

ইচ্ছে ছিল সিসিবির সবাইকে নিয়ে লিখব, কিন্তু পরে দেখলাম সেটা কোনমতেই সম্ভব না…তাই, কারো নাম বাদ পড়ে গেলে আগেই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি…মূলত সাম্প্রতিকালে সক্রিয়দের নিয়েই লেখাটি রচিত হয়েছে…বা চেষ্টা করা হয়েছে…)

১।

দিন সাতেক আগের কথা।
পান্থপথ গিয়ে দেখি ‘সিসিবি তারা’দের হাট বসেছে। কাইয়ূম ভাই (৯২-৯৮), কামরুল ভাই (৯৪-০০), রায়হান আবীর (৯৯-০৫), জিহাদ (৯৯-০৫), মুহাম্মদ ((৯৯-০৫)) সহ আরো অনেকেই আছে। মাস্ফুকে (৯৭-০৩) দেখলাম একটু দূরে দাঁড়িয়ে। আমি ওর কলেজের বড় ভাই, অথচ আমাকে দেখেও ওর মধ্যে কোন ভাবান্তর হল না…ভালো করে খেয়াল করে দেখলাম ব্যাটা লুঙ্গি হাতে নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে…বুঝলাম, আবার মনে হয় কোন ঘাপলা করে পাঙ্গা খাবার প্রস্তুতি নিচ্ছে!! আমি তো হৈ হৈ করে সবার দিকে এগিয়ে গেলাম। কিন্ত্‌ কাছে গিয়ে দেখি সবার মুখ ভার হয়ে আছে! ‘কাহিনী কি? সিসিবি ডাউন হয়েছে নাকি???’

-‘কি ব্যাপার, সবার মুখ ভার কেন?’

কামরুল ভাই কোন কথা না বলে ছোট্ট একটা কাগজ আমার দিকে এগিয়ে দিলেন। হাতে নিয়ে দেখি একটা নোটিশ! খোদ প্রিন্সু স্যারের কাছ থেকে এসেছে। নোটিশের সারমর্ম এমন- প্রিন্সু মনে করছেন কিছু গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপারে আলোচনা করার জন্য অতি স্বত্বর একটি এসেম্বলী করা প্রয়োজন। এরপর অনুষ্ঠান আয়োজন করা নিয়ে বেশ কিছু নির্দেশনা দিয়ে বাই নেম কয়েকজনকে দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে। স্বস্তির সাথে লক্ষ্য করলাম, আমার নাম সেখানে নেই…যাই হোক, আমি কাগজটি কামরুল ভাইকে ফেরৎ দিয়ে বললাম,
-আরে বাহ, এসেম্বলী। মানে, আবার একটা গেট-টু-গ্যাদার!!!

কাইয়ূম ভাই মুখ ঝামটা দিয়ে বললেন,
-বিলাডি জুনা, তোর বডিতে সিভিল পানি জমছে। ব্যাটা, কলেজের প্রিন্সু এসেম্বলী’র কথা ভুইল্যা গেছস??? মনে নাই, কত পেইন ছিল?
-কিন্তু সিসিবির এসেম্বলীও কি ঐরকম হবে???
-অত শত বুঝি না, এসেম্বলী মানেই পেইন, ব্যস!

-‘আরো, কাহিনী আছে। প্রিন্সু কইছে এসেম্বলী করতে হবে বড় কোন জায়গায় এবং সেটা যেন তাঁর অফিসের কাছাকাছি হয়।‘ কামরুল ভাইএর মুখে হাসি দেখে বুঝলাম অলরেডি এই দায়িত্ব কোন বিলাডির ঘাড়ে চাপানো হয়ে গেছে…

-সম্ভাব্য জায়গা ছিল বসুন্ধরা সিটি, হোটেল লা ভিঞ্চি, হোটেল সোঁনারগা, বিয়াম মিলনায়তন…রায়হান আবীর ওরফে সামি আবীর কথা শুরু করতেই বুঝে গেলাম, ও-ই সেই বিলাডি…ও তখনো বলে চলেছে,
-পলিটিক্যাল কারনে বসুন্ধরা সিটি, টেকনিক্যাল কারনে লা ভিঞ্চি এবং ফিনান্সিয়াল কারনে সোনারগাঁ বাদ। বাকি থাকল শুধু বিয়াম মিলনায়তন। কিন্তু ওরাও স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি টাকা চাচ্ছে…

এ পর্যায়ে ‘আমার কন্ট্রিবুশন রাখা উচিৎ’ ভেবে ওকে বললাম,
-ব্যাটা, মিষ্টি কথায় লাভ হবে না…ওদের চাপ দিয়ে কাজ আদায় করে নিতে হবে…তোর পরিচিত এক সন্ত্রাসী আছে না? ওর রেফারেন্স দিয়ে ট্রাই করে দেখিস না কেন????
এ কথা শুনেই কেন জানি ওর মুখ উজ্জ্বল হয়ে গেল। সমস্যা সমাধানের পথ দেখতে পেয়ে, নাকি কারো কথা মনে করে- ঠিক বুঝতে পারলাম না…;)

টপিকে ফিরে আসি। নানা আলোচনা-সমালোচনা করে শেষ পর্যন্ত ঠিক হল, বিয়াম মিলনায়তনেই হবে আমাদের ‘প্রিন্সিপ্যাল এসেম্বলী’। জিহাদ একটা বুদ্ধি দিল, বিয়ামের গেটে সবার পাস চেক করে ঢুকানো হবে, এতে করে অনাহূতদের আগমন রোধ করা সম্ভব হবে। সবার কন্ঠভোটে প্রস্তাবটা পাশ হয়ে গেল। অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপারসমূহ- যেমন ব্যানার বানানো, মঞ্চ তৈরি, খাবারের ব্যবস্থা…ইত্যাদি ইত্যাদি কাজগুলো বিভিন্নজনকে ভাগ করে দেয়া হল। ‘নোটিশে আমার নাম নেই’ বলেও বাঁচতে পারলাম না, অবশ্য অনেক গাঁইগুইঁ করার কারনে বেশি ঝামেলার কিছু দেয়া হল না। আমার দায়িত্ব হল, মঞ্চ বানাবার কাজে কাইয়ূম ভাইকে সহযোগিতা করা। কি কুক্ষণেই না আজ পান্থপথ এসেছিলাম!- ভাবতে লাগলাম।

খুঁটি-নাটি আলোচনার পর, সেদিনের মতন আমরা মিলন মেলা ভংগ করে, যার যার বাসার উদ্দেশ্যে রওনা হলাম।

২।

অনুষ্ঠান আয়োজনের কাজ বেশ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। ঠিক কলেজের মতনই সবাই ইনিশিয়াল শক কাটিয়ে যার যার কাজে ঝাঁপিয়ে পড়েছে। চার্লস ব্যানারম্যান, কাইয়ূম ভাই দেখি বিশাল এক ব্যানার তৈরি করেছেন। তাঁকে ‘ভাই, সেইরকম হইছে!’ বলতেই স্বভাবসুলভ বিনয় দেখিয়ে বললেন, ‘ডিজাইনটা আসলে হাসনাইন (৯৯-০৫) আর সামিয়া (৯৯-০৫) করছে…টান্টু আহমেদ (৯৯-০৫) ও ব্যাপক ভূমিকা রেখেছে…’ জুনিয়র বলে ওনাকে সেই ‘বিশেষ’ বিশেষণটা বলতে পারলাম না। এসব ব্যাপারে এক্সপার্ট কালা-কুর্তা তাইফুর মামা (৯২-৯৮) কে বিষয়টা ফোন করে বলতেই উনি আবেগে ইমোশনাল হয়ে গেলেন এবং কথা দিলেন এসেম্বলীর দিন ব্যাপারটা দেখবেন।

ব্যানারের ব্যাপারে দু একটি কথা না বললেই নয়। সত্যি বলতে কি, এত বড় ব্যানার আমি জীবনেও দেখিনি…তাছাড়া কাপড় দিয়ে নয়, অনেকটা বিল-বোর্ড টাইপ করে বানানো হয়েছে। এর মাজেজা কি, জিজ্ঞাসা করতেই কামরুল ভাই বললেন- ‘অনুষ্ঠানের দিন জবাব পেয়ে যাবি’!

মঞ্চের একেবারে পেছনে কিছুটা জায়গা রেখে ব্যানারটা টাঙ্গানো হল। এবার একেবারে মাঝে করা হল অতিথিদের বসার জন্য সু-ব্যবস্থা। একেবারে মাঝে প্রিন্সু স্যারের চেয়ার রেখে দুই পাশে সারি করে চেয়ার বসানো হল। ভাইস-প্রিন্সু’র চেয়ার অন্যদের চেয়ে একটূ উঁচু দেখে কাইয়ূম ভাইকে এর কারন জিজ্ঞাসা করলাম। উনি বললেন, ‘ভাইস প্রিন্সু এতবার ‘সর্বোচ্চ মন্তব্যকারী’ হয়েছেন যে-তাঁকে সন্মান জানিয়ে চেয়ারটা একটূ উঁচু করা হয়েছে। এতে করে এসেম্বলীর দিনও উনি সর্বোচ্চ মন্তব্যকারী হবার স্বাদ পাবেন…!!!!’
এসেম্বলীতে নতুনত্ব আনার জন্য বিশাল ডিজিটাল ডিসপ্লে বসানো হয়েছে। এই ডিসপ্লেতে ঐদিন কে কে এসেছে, কারা কারা এখনো আসতে চেয়েও আসতে পারে নি…এসব রিয়াল টাইম ইনফর্মেশন ছাড়াও অনবরত সিসিবির উপর বিভিন্ন তথ্য, উপাত্ত দেখাতে থাকবে…এক্কেবারে ডিজিটাল ব্যাপার স্যাপার…!!!

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী এসেম্বলীতে দুই শতাধিক সিসিবিয়ান আসার কথা। মোটকথা, এই এসেম্বলীই হতে যাচ্ছে সিসিবি’র এ যাবৎ কালের সবচেয়ে বড় মিলন মেলা…

৩।

বিয়াম মিলনায়তনের সামনে দাঁড়িয়ে এই প্রথম উপলব্ধি করলাম, কি বড় মহাযজ্ঞই না হতে যাচ্ছে!!! বিশাল বিশাল ব্যানার, পোস্টার, ফেস্টুন…সবচেয়ে বড় কথা পুরো অনুষ্ঠানটি ‘সিসিটিভি’ সরাসরি সম্প্রচার করবে!! যারা যারা অনুষ্ঠানে আসতে পারবেন না, তাদের কথা ভেবে এই প্রথমবারের মতন এরকম ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। যাই হোক, এরই মধ্যে সিসিবিয়ানদের আনাগোনা শুরু হয়ে গেছে…আগে থেকেই ঠিক করা ছিল জুনিয়র থেকে সিনিয়র- এই ধারায় সবাই মিলনায়তনের মধ্যে প্রবেশ করবে। সেই অনুযায়ী প্রথমেই ২০০০-২০০৮ এর ব্যাচের পোলা-মাইয়াদের এক এক করে ভিতরে যেতে বলা হল। ব্লগের সর্বকনিষ্ঠ সদস্য লুবজানা (২০০৫-২০১১) (কপিরাইটঃ ব্লগ সদস্য ডিরেক্টরী) থেকে শুরু করে ০৪-১০ ব্যাচের শাহরিয়ার, শোভন…২০০২-০৮ এর নাজমুল, ফাহাদ, মুস্তাকিম, অরপিয়া…২০০১-০৭ এর তারিক, টি বয় রকিব, ফারহানা…২০০০-০৬ এর জামান, রাহাত, শোভন…আরো অনেকেই…

টি বয় দেখেই কামরুল ভাই ঝাড়ি দিয়ে বললেন,
-‘বিলাডি টি বয়, তুই এত লেট কেন??? যা মঞ্চের ব্যানারের সাথে লং আপ হয়ে থাক…:grrr’

এতক্ষণে ব্যানারের রহস্য কিলিয়ার হইল। পংটা পোলাপাইনরে যাতে লং আপ করানো যায়, এই জন্যই ঐ টারে এত শক্ত করে বানানো হয়েছে…কামরুল ভাই আসলেই গুরু মানুষ- আবারো মানতেই হল…

আপনারা নিশ্চয়ই জানেন- সিসিবিতে দুইটা ব্যাচের সংখ্যাগরিষ্ঠতা বাড়াবাড়ি রকমের বেশি, ‘৯৯ ব্যাচ এবং ‘৯৪ ব্যাচ। মাইকে ‘৯৯ এর কথা বলতেই ব্যাপক হৈ চৈ শুরু হয়ে গেল। একে একে যেতে লাগল বন্য, হাসনাইন, হাঁসের ছানা, রেজওয়ান, শার্লী, মহিব, হোসেন, মামুন, ইসলাম, আদনান সহ আরো কয়েক হাজার…থুক্কু…আরো অনেকে…বন্য তো হহল রুমে ঢুকেই এটা ওটা ধরে ঝোলাঝুলি শুরু করে দিল। হাসনাইনকে দেখলাম কাইয়ূম ভাই এর কাছ থেকে শাল্টিং খাচ্ছে…

-তোর এত্ত বড় সাহস, আমারে না বইলা ব্যানারের ডিজাইন চেঞ্জ করছস!!! তুই যা, ব্যানারের চারপাশে চক্কর দিতে থাক…
-কাইয়ূম ভাই, কয় চক্কর দেবো? আড়াই নাকি তিন????
-হোয়াট!!! তুই কেয়ামতের এক ঘণ্টা আগ পর্যন্ত চক্কর দিতে থাক…!!!

হাঁসের ছানাকে অবশ্য চুপচাপ থাকতে দেখা গেল। বিজয় দিবসে পতাকা টাঙ্গানো নিয়া ঘাপলা করে পাবলিকের কাছে ব্যাপক ঝাড়িপট্টি খাইছিল, এখনো মন খারাপ ভাব কাটে নাই। তবে একটু পরপর পকেট থেকে কার জানি ছবি বের করে দেখছে…দূর থেকে ঠিক বোঝা গেল না, তবে অনেকটা বাংলাদেশী এক ফ্লপ মডেলের মতন মনে হল…পোলাডার দেখি রুচি নাইক্ক্যা…

মুহাম্মদ আর হোসেন কি নিয়ে জানি আলাপ করতে করতে আমার পাশ দিয়ে গেল, অথচ আমি কিছুই শুনলাম না…!! পরে উপরে তাকিয়ে দেখলাম ওদের কথা আমার মাথার অনেক উপর দিয়ে যাচ্ছে…’হুম, এই জন্যই কিছু শুনি নাই…!’

শার্লী, মহিব আর রেজওয়ান ব্যাপক কথা বলতে বলতে গেল। রেজওয়ান শুধু ইংরেজিতেই কথা বলছিল…কি যে হইছে ওর-কে জানে???

যাইহোক, ‘৯৯ ব্যাচ তো চলে গেল। এবার অন্যান্য ব্যাচের পালা। আমি একটু রিলাক্স করার জন্য সবার থেকে আলাদা হয়ে আয়েশ করে একটা সিগারেট ধরালাম।

( ধাক্কা দিলে চলবে…!)

৩,৭৬৪ বার দেখা হয়েছে

৬৭ টি মন্তব্য : “প্রিন্সিপাল এসেম্বলী!!! (সিসিবি ভার্সন)”

  1. রকিব (০১-০৭)

    আমার নামের আগে যেই একখান টাইটেল লাইগা আছে 😐 😐
    জুনাদা ধাক্কা দিলে চলবে ক্যান!!! আপনে কি দুই নম্বর ইঞ্জিনের ট্রাক ??
    লেখা সিরাম; নেন ধাক্কা দিলাম; পরের পর্ব দেন। :goragori: :goragori:


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  2. সামিয়া (৯৯-০৫)

    ধাক্কা মানে...আমি আপনারে ধাক্কা দিয়া প্রক্সিমা সেঞ্চুরীতে নিয়া ফালায়ে ওইখানে কিক দিয়া দুইখান কম্পুও পাঠায়া দিলাম...এখন আরামসে বসে ব্লগ লিখেন।
    নেক্সট টাইম ধাক্কা লাগলে বইলেন, বিজ্ঞানীগো দিয়া নতুন নক্ষত্র আবিষ্কার করায়া আপনারে ধাক্কায়া সেইখানে নিয়া ফালাবো।
    লিখা চ্রম হয়েছে, জুনা ভাই টাইপোলজীয় হয়েছে।

    জবাব দিন
  3. কামরুলতপু (৯৬-০২)

    বিয়াপক ষড়যন্ত্রের গন্ধ পাচ্ছি। সিসিবির অন্যতম তারকা ব্যাচ ৯৬-০২ ব্যাচের নাম একবার ও আসেনাই। বিশাল আন্দোলনের ডাক দিলাম।
    জুনা ভাই বুইঝেন কিন্তু।

    জবাব দিন
  4. বন্য (৯৯-০৫)

    জুনাভাই,আমারে পচাইয়েন্না 🙁 ...তাইলে কিন্তু আমি আরেকখান ব্লগে আপনারে পচাইয়া পুতিশুদ নিমু :grr:

    ধাক্কার ব্যাপারে স্বপ্নচারী ভাইর সাথে সহমত 😀
    ড্রেসের ব্যাপারে তানভীর ভাইর সাথে সহমত 😀

    জবাব দিন
    • টিটো রহমান (৯৪-০০)

      ধাক্কার ব্যাপারে স্বপ্নচারী ভাইর সাথে সহমত 😀
      ড্রেসের ব্যাপারে তানভীরের সাথে সহমত 😀
      পঁচানোর ব্যাপারে জুনার সাথে সহমত 😀
      পুতিশুদ এর ব্যাপারে বন্যর সাথে সহমত 😀
      হেইও র ব্যাপারে সবার সাথে সহমত 😀


      আপনারে আমি খুঁজিয়া বেড়াই

      জবাব দিন
      • মিশেল (৯৪-০০)

        ধাক্কার ব্যাপারে স্বপ্নচারী ভাইর সাথে সহমত 😀
        ড্রেসের ব্যাপারে তানভীরের সাথে সহমত 😀
        পঁচানোর ব্যাপারে জুনার সাথে সহমত 😀
        পুতিশুদ এর ব্যাপারে বন্যর সাথে সহমত 😀
        হেইও র ব্যাপারে সবার সাথে সহমত 😀
        সহমত হওয়ার ব্যাপারে টিটোর সাথে সহমত 😀

        জবাব দিন
  5. রুচি দিয়া কি করুম ভাই? আমার তো দরকার... :grr: :grr: :grr:
    জুনা ভাই, ফ্লপ হোক আর হিট হোক, প্রভা আর মিলি এই দুইটারে আইনা দ্যান ... :dreamy: :dreamy: :dreamy:

    জুনা ভাই যখন ঘুইরা ঘুইরা সবার অবস্থা দেখতেছিলেন, হঠাৎ কইরা কাইয়ুম ভাইয়ের সামনে পইড়া যাওনে কাইয়ুম ভাই হুঙ্কার দিয়া কয়,
    বিলাডি, অ্যাডজুট্যান্ট স্যাররে খবর দিছস? এডু স্যার ছাড়া কেমনে অ্যাসেম্বলি হইবো... জুনাভাই তখন, দৌড়াইয়া ব্যানের লগে লং আপ হওয়া রকিব রে কইলো,
    বিলাডি, অ্যাডজুট্যান্ট স্যাররে খবর দিছস? এডু স্যার ছাড়া কেমনে অ্যাসেম্বলি হইবো...
    বেচারা রকিব মিন মিন কইরা কয়, ইয়ে মানে আমার কাম চা বানানো...
    -- (বাঁজখাই কণ্ঠে) বিলাডি.. সিনিয়রের মুখে মুখে কতা....
    চাওয়ালা এডু স্যারকে অফিসে না পাইয়া গেল ফেসবুক অঞ্চলে। সেইখানেও নাই... শেষে কি আর করা, সেইখানে স্যারের বাড়ির দেয়ালে আলকাতরা দিয়া বড় বড় কইরা লিখা দিয়া আসল।
    এডু স্যার আইসা এইটা দেইখা চাওয়ালারে কেমনে ভর্তা বানাইবো, সেইটা ভাবতাছি... দেখা যাক।

    জবাব দিন
  6. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    ৯৬-০২ ব্যাচকে বাদ দিয়ে যে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে তার বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি... :duel: :duel: :duel:


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  7. জুনায়েদ কবীর (৯৫-০১)

    আজব ব্যাপার...

    আগে থেকেই ঠিক করা ছিল জুনিয়র থেকে সিনিয়র- এই ধারায় সবাই মিলনায়তনের মধ্যে প্রবেশ করবে

    এই লাইন দেখি অনেকেই পড়ে নাই...

    নেক্সট পর্বে (যদি থাকে...)আসবে '৯৭ এবং তার পূর্ববর্তী ব্যাচ সমূহ...


    ঐ দেখা যায় তালগাছ, তালগাছটি কিন্তু আমার...হুঁ

    জবাব দিন
  8. পরথমে ভাব্লাম যে সিসিবি'র সবচেয়ে বড় ইভেন্ট টা এম্নে মিস করলাম, পরে দেখি ভাইজান আবার আমার নামটাও লেখার মধ্যে ঢুকাইছেন আর কমেন্ট পড়ে বুঝলাম যে নাহ মিস টিস কিছু হয় নাই!
    হলেও অবাক হবার কিছু নাই, ঢাকার বাইরে ছিলাম বেশ কয়েক দিন,মানে বাসায় আর কি? শরীর মহাশয় একই সাথে একশ একটা অসুখ বাধিয়েছেন, আসতাম না, কিন্তু বলা নেই কওয়া নেই, গত পরশু দিন এক্টেল থেকে কল, রিটেন টেস্ট এর জন্যে।
    একই কাহিনী বরাবরের মতই, ছেলে বুড়ো সবাই হাজির টেস্টে। আর প্রশ্নটাই বা কেমন? আমি কম্পুটারের ছেলে হয়ে কেম্নে জানব যে, বিটিএস কেম্নে ইন্সটল করে, তাও আবার ফ্রেশ! পাওয়ার ট্রান্সমিশন কেম্নে হয়? হবে না,কিচ্ছু হবে না!

    যাই হোক, নিজের নাম দেখে খুব মজা পাইলাম কারণ এত্ত পুরনো সদস্য হয়ে আমার লেখা বোধ হয় সবচেয়ে কম। জুনুদাকে অজস্র ধন্যবাদ........... :boss: :boss:

    জবাব দিন
  9. মুসতাকীম (২০০২-২০০৮)
    …২০০২-০৮ এর নাজমুল, ফাহাদ, মুস্তাকিম, অরপিয়া

    😀 😀 😀


    "আমি খুব ভাল করে জানি, ব্যক্তিগত জীবনে আমার অহংকার করার মত কিছু নেই। কিন্তু আমার ভাষাটা নিয়ে তো আমি অহংকার করতেই পারি।"

    জবাব দিন
  10. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    জুনা ভাই, যথেষ্ঠ ধাক্কা কি হয় নাই? তাড়াতাড়ি পরের পর্ব ছাড়েন।


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  11. কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)

    জুনায়েদ বেলাডি, আমি কি খালি পাংগাই?? আর লংআপ করাই ? x-( x-(
    কত্ত বড় সাহস, ডাউট দেয় সিনিয়ররে, যা গিয়া এইটার সেকেন্ড পার্টের সাথে গিয়া লংআপ হয়া থাক :grr: :grr: থার্ড পার্ট না আসা পর্যন্ত পাংগা কন্টিনিউ :gulli2:


    সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।