একটা পোস্ট দেই?

এখন বাজে রাইত তিনটা দশ। কালকে সকালে অফিস, তাড়াতাড়ি যাইতেই হবে। অনেকগুলো খাতা দেখতে হবে, প্রশ্ন বানাতে হবে ফাইন্যালের। এসব নিয়ে খুবই মেজাজ খিচড়ানো অস্থিরতার মধ্যে আছি। ২৫শে ফেব্রুয়ারির পর থেকে আমি ব্লগের মধ্যে দিয়ে মানুষ চিনতেছি। প্রথমে চিনলাম সামহোয়ারে। সেখানে নানারকম ছাগু-কাগু থাকে, তাই কিছুটা প্রিপেয়ার্ড ছিলাম। তবুও কিছু নিকট ব্লগারের বিচারবুদ্ধির উপরে ভরসা ছিল, সেটা চলে গেছে। সেই সপ্তাহটা আমি পুরা সিসিবিতে কাটাইছি। শেষে শহীদদের লিস্টের পোস্ট-টায় যখন আর থাকতে পারি নাই, কম্পিউটার অফ করে দিছি।
তারপর আবার দুইদিন পরে লেখা শুরু করছি। না লিখলে আমার ভাল লাগে না। মন এতই বিষণ্ণ যে বুকের চাপ নামানোর জন্যেই লিখতে হয়। বেশি চিন্তার ভার নিতে পারি নাই। তাই ডায়েরিই লিখলাম দুয়েক পাতা। তারপরে একদিন কবিতার লাইন আসলো, সর্‌সর্‌ করে ময়াল সাপের মতোন, মাথার ভেতরে। লিখলাম। তারপরের কাজটা করতে গিয়ে থেমে গেলাম। সিসিবিতেও দেখি তর্ক শুরু!

এখন আমি একটু বিচার করতে বসলাম। বাংলা ব্লগে কারা লেখেন, কথা বলেন?
১. সকলেই ১৮ বছরের উর্ধ্বে। অর্থাৎ আইনত, সাবালক। অনেকের (আমার নিজেরও) মানসিক সাবালকত্ব আসে নাই, সেটা না-ই আসতে পারে। বয়সের দুষ। বয়স হইলে ( আমার দাদীর মতে, বিয়া দিলে) এসে যাবে!
২. যারা ইন্টারনেট সুবিধা পান। দেশের বাইরে তো এটা সহজলভ্য। দেশে কিছুদিন আগেও বেশ খরুচে এবং বিচ্ছিরি হ্যাপা ছিল ইন্টারনেট। এখন তো মোবাইলেই পয়সাদরে ব্যবহার করা যায়!
৩. যারা ইন্টারনেটের প্রাথমিক আকর্ষণ (যেমন- গান, ভিডিও, পর্ণ, হলিউড, বলিউড, ঢালিউড) উপভোগ করতে করতে বিরক্ত/অভ্যস্ত এবং শেষপর্যন্ত বিনোদনে যাদের অনীহা!
৪.যারা ইংরেজি ভাষার হাজারো বিস্তৃত ব্লগিংয়ে হাত পাকাইছেন (আমি সেই দলে না, এখন অনেকেই সরাসরি বাংলায় ব্লগানো শুরু করেন)!

তারমানে এই চার ধাপ(আরও ভাগ হইতে পারে, এখন মাথায় আসছে না)। মানুষ ধাপগুলো পার হয়েই কিন্তু ব্লগে আসেন। গুগল-এ বাংলা ব্লগ লিখে সার্চ দিলে চারটা/পাঁচটা নাম উপরের দিকে থাকে। তার মধ্যে সিসিবি একটা! আমি এইটারে নিজের ঘরবাড়ি মনে করি। ডায়েরির পাতা মনে করি। আমি ডায়েরিতে অকপটে সব বলতে পারি ধরে নিয়েই এখানে লিখি। এখানে যারা আমার ব্লগ পড়েন তারা আমাকে বুঝেন ( তাইফুর ভাইয়ের কাছে কৃতজ্ঞতা আমার ছাইপাশ লেখার তর্জমা করে দেয়ার জন্যে! 🙂 ), জানেন আমি ‘কিরাম’ মানুষ। এখন আমি এই ব্লগে গত এক সপ্তাহ লগ-ইন করি নাই।

এক সপ্তাহ তেমন লম্বা সময় না। যারা জিজ্ঞেস করছেন, আমি হ্যানত্যান বলে দিছি ব্যস্ততার কথা। তারাও বুঝছেন, আমিও বুঝছি যে সেইটা ভুল। আসল কথা হইলো এখানে একটা অপরিবেশ তৈরি হইছে। আমি শুধুই লিখি। যুক্তি-তর্ক যা করার, সেটা নিজের লেখা কেন্দ্রিক। বড়োজোর তার ডালপালার কোন বিষয়ে। এর বাইরে গেলে আমি ক-অক্ষর গো-মাংস হই। কেন?

এমন না যে আমি কম বুঝি। এমন না যে আমি উল্টা যুক্তি জানি না। কিন্তু আমি কইলাম, তাতে কয়জন মানলো, আর কয়জন মানলো না, তাতে আমার চর্বি বাড়বে। এমনও হইতে পারে আমি যেটা বলতেছি সেটা যুক্তির চেয়ে বেশি কুযুক্তি। তখন উল্টাপাশের জন পল্টি খাইলো আর আমি খুব বাহবা পাইলাম! সাবাশ!

সবার মাঝে যে সমস্যাটা বুঝতেছি সেটা ডুয়াল কোর সমস্যা। আমরা ক্যাডেট ছিলাম, আছি, থাকবো। এই সিসিবি জায়গাটা কত দারুণ সেটা বুঝে উঠার জন্যে বেশি কিছু না, এক সপ্তাহ এই ব্লগে না ঢুকে কেউ চেষ্টা করে দেখতে পারেন। কিন্তু আমরা ক্যাডেট কলেজে আর নাই। ঐ খানে কিছু ভাল না লাগলে, ব্লা*, *াকেন শী* বইলা গালি দিলাম। জুনিয়রের কথা না শুনলে থাবড়াইয়া ভর্তা বানাইতাম, আবার কোন কোন চামার সিনিয়রের হাতে বিনা কারণে মাইর খাইছি কত হিসাব নাই। সেগুলো গায়ে লাগে নাই। এখন আমার চামড়া মোটা হইলো না চিকন তা কিছুতেই বুঝতেছি না।

আমি ২৫ ফেব্রুয়ারির পরে কয়েকটা লেখা লিখছি। কবিতার মতো আপাত-রদ্দি জঞ্জাল। আমার কাছে ছাড়া ঐগুলার কোন মূল্য নাই কারো কাছে তেমন। অন্য যে দু’টা পাতা আছে আমার ওখানে রাখছি, অনেকে এসে কমেন্ট করছে ভাল-খারাপ বলছে। কিন্তু আমার মন ভরে নাই (কী করবো? পেটুক মানুষ!)।

আমি তানভীর ভাইয়ের কমেন্ট পাই নাই: আন্দালিব, তোমার লেখা পড়ে বারবার মুগ্ধ হই।
আমি তাইফুর ভাইয়ের কমেন্ট পাই নাই: আন্দা, তোর লেখা পইড়া আরেকটা উচ্চ নম্বরের সিঁড়ি লিখতে হইবো।
আমি কবীর ভাইয়ের কমেন্ট পাই নাই: ঐ :-B
আমি কাইয়ূম ভাইয়ের কমেন্ট পাই নাই: তোমার সাথে আমি পুরো সহমত।
আমি সায়েদ ভাইয়ের, টিটো ভাইয়ের, কামরুল ভাইয়ের কমেন্ট মিস করি।
মাসরুফ আমার ছোট ভাই, গাছরা সবসময়ে গাছদের একটু বেশি ভালা পায়: আমি ওরেও মিস করি।
আদনানকে কত বললাম সিসিবিতে আসতে, ও ব্লগানো শুরু করলো, আর আমি অফ হয়ে গেলাম!
আদনান ভাই আমার ব্লগের লাস্ট কমেন্ট করছেন: আমি আপনাকেও মিস করছি।

আমি খুবই তুচ্ছ মানুষ। ব্লগ জগতে এসে রাজাকার ইস্যু, স্বাধীনতা ইস্যু, ধর্ম ইস্যুতে আমি কোন কথা বলি না, কারণ ব্লগিঙ করতে যারা আসছেন আমি তাদের সবার মতামতের প্রতি ভয়াবহ শ্রদ্ধাশীল। এইটা তর্ক করার সময়ে টাইপ করা ‘শ্রদ্ধাশীল’ না। আমি সত্যিই ধরে নেই যে তাদের সবার নিজ নিজ অবস্থানের সাথে আমি নিজে পাশাপাশি অবস্থান করতে পারব। তাতে কারও কোনই ক্ষতি হবে না। এবং আমি হাজারটা কথা বললেও এই “পঠিত মাধ্যমে”র জোরে আমি কারও ধ্যান-ধারণা বদলাইতে পারবো না, বদলাইলেও আমার কোন সিদ্ধিলাভ হবে না। তার মানে এই গুলা জেনে শুনে আমি যা-ই বলবো, তা হবে চূড়ান্ত আবালীয় আচরণ (এই শব্দটা আমি ব্যবহার করতে চাই না। কারো আপত্তি হলে বলবেন আমি এডিট করে দিব)।

আমি ব্যক্তিগতভাবে চাই সিসিবি’র পুরোনো পরিবেশটা ফিরে আসুক। তবে ‘জোকার’কে মনে পড়ছে। ও বলেছিল কোন কিছুই পুরোনো অবস্থানে ফেরৎ যায় না। “য়্যু চেইঞ্জ থিংস… ফরেভার।”

আমি শুধু চাই পরিবর্তিত পরিবেশটা যেন আমাদের সকলের সহযোগিতায় একটা সহিষ্ণু আবহাওয়ায় গড়ে ওঠে।

[চল্লিশ মিনিট লাগলো টাইপ করতে। আমার টাইপিং স্পীড খুবই কম।]
[আমিন, দোস্ত তোর প্রশ্নটার জবাব কি পাইছিস?]

৪,৭১০ বার দেখা হয়েছে

২১৯ টি মন্তব্য : “একটা পোস্ট দেই?”

  1. জিহাদ (৯৯-০৫)

    ভাইজান, একট কথা কই। আর যাই হোন হতাশ হয়েন না। পরিস্থিতি গরম হয় হুট করে । কিন্তু ঠান্ডা হয় একটু ধীরে ধীরে। কিন্তু একসময় ঠান্ডা হবেই।

    খেয়াল করসেন কীনা জানিনা, সিসিবি তে একটা অঘোষিত ট্রেন্ড আছে। যখন যেইটার হুজুগ উঠে কয়েক সপ্তাহ সেটা নিয়েই চলে। প্রথমে একবার আসলো হরর সপ্তাহ। সবাই খায়া না খায়া হরর পোস্ট দিলো, একই ধারাবাহিকতার আসলো গান সপ্তাহ, বাংলা সিনেমা সপ্তাহ, কবিতা সপ্তাহ, এইরকম আর কি। তো এখন চলতেসে ধর্ম সপ্তাহ। 😀

    তো আশা করতেসি শিগগিরি নতুন কোন আইটেমের সপ্তাহ হাজির হবে। টিল দেন স্টে টিউনড ;;;


    সাতেও নাই, পাঁচেও নাই

    জবাব দিন
  2. কামরুল হাসান (৯৪-০০)

    বিশ্বাস করবা কিনা আন্দালিব জানিনা, গত কয়দিন ধরে এইরকম একটা পোস্টের জন্যে মনটা হাসফাঁস করছিলো। কি যে ভালো লাগছে এখন।

    আমার কাছে মনে হচ্ছিলো কেউ দম বন্ধ করে রেখেছে আমার। তুমি এসে বাঁচিয়ে দিলে।

    পরেরবার দেখা হইলে যা খাইতে চাও খাওয়াবো। এটা কামরুল ভাইয়ের প্রমিজ।


    ---------------------------------------------------------------------------
    বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
    ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

    জবাব দিন
  3. মাহমুদ (১৯৯০-৯৬)

    আন্দালিব,

    আমি নূপুর ভাইয়ের কবিতা পড়তে পড়তে এহন কবিতা পড়া (মাঝে অনুকবিতা লিখাও) শিখছি। 😀

    আশা করি, এখন থেকে তোমার কবিতাও পড়তে পারুম। কবিতার জগতে এই নালায়েক বড়ভাইয়ের জইন্য দুয়া রাইখো। :))


    There is no royal road to science, and only those who do not dread the fatiguing climb of its steep paths have a chance of gaining its luminous summits.- Karl Marx

    জবাব দিন
  4. আদনান (১৯৯৪-২০০০)

    বাহ আন্দা তুই তো মনে হয় গরম আবহাওয়া তে এসি ছেড়ে দিলি । লিখতে দে সবাইকে, ভাল না লাগলে দূর থেকে দেখ । তবে মডারেটরদের দায়িত্ব মনে হয় বেড়ে গেল । অনেকেরই পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধটা কম, পার্সোনাল এ্যাটাক করে কথা হচ্ছে । আমার মনে হয় সবারি একটু খিয়াল কইরা :-B ।
    অ.ট. জুনা কে ধইরা নিয়া আয়তো । 😡

    জবাব দিন
  5. কামরুলতপু (৯৬-০২)

    দুইদিন ধরে ভাবছিলাম তোর কথা। অনেকদিন কিছু লেখস না। আজ প্রথম মনে হয় তোর কোন লেখা সরাসরি মাথায় ঢুকল। হাহাহা। সেই হিসেবে তোর লেখা এইটা খুব খারাপ হইছে। আমি আমার এন্টেনা দিয়াই ধরতে পারছি।

    জবাব দিন
  6. কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)

    এই ভোর বেলায় অফিসে ঢুইকাই মন মেজাজ যাও একটু খারাপ ছিলো সেইটা কাইটা গ্যালো 😀 আন্দালিবরে বহুদ্দিন বাদে দেখলাম, খবর কি তোর? 🙂
    আর জুনারে মনে হয় পার্সোনালি এটাক করার টাইম আইছে এখন x-(


    সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

    জবাব দিন
    • আন্দালিব (৯৬-০২)

      হ, আমারও তাই মনে হয়। এখন বলেন: কবীর ভাইকে কোন দিক দিয়া অ্যাটাক করমু? ;;; ঐদিক দিয়া করা যায় নাকি তাতে আবার আমারেও :frontroll: দিতে হইবো? :-/

      নাকি জুনাভাইকে বগলে(কাছাকাছি অর্থে :-B ) নিয়া অ্যাটাক করুম!! :dreamy:

      আমি আসলেই চিন্তা করতেছি। আপনাকে অনেকদিন পর যেমন একমত পাইলাম, সেই ভাবে জুনাভাইয়ের না পাইলে আর হচ্ছে না! 😡

      জবাব দিন
  7. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    হায় হায়, রাইতে কিছুক্ষন ব্লগে লোকজিনের আনাগোনা কম দেইখা ঘুমাইতে গেলাম, আর তার পরেই এত্তো কাহিনি!!!

    তবে নিজেরে আমারে কেমন জ্ঞানী জ্ঞানী মনে হচ্ছে... আন্দালিবের পুরা একটা পোস্ট একবারে বুইঝা ফেলছি... :awesome: :awesome:


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  8. রবিন (৯৪-০০/ককক)
    তবে নিজেরে আমারে কেমন জ্ঞানী জ্ঞানী মনে হচ্ছে… আন্দালিবের পুরা একটা পোস্ট একবারে বুইঝা ফেলছি…

    ওরে আন্দালিব আসলেই অনেক দিন পর লিখলি। আর তোর লেখা এই প্রথম একবারে বুঝলাম। শা... রাতে কয়েক ঘন্টা ঘুমাইতে গেলাম আর তোর পোষ্ট দেখি চরম হিট।
    তপুর সাথে একমত। ভালো মানুষের ভাত নাই। আমার গল্পের দেখি তোর পোষ্টের পাশে বেইল নাই।
    অফ টপিকঃ তুই কোন ভার্সিটিতে ডজ মারোস?

    জবাব দিন
  9. রেজওয়ান (৯৯-০৫)

    কি মজা , কি মজা... :awesome:
    ১ম কারন - গত দুই সপ্তাহ নেট এ ছিলাম না B-) অসুস্থ পরিবেশ দ্যাখতে হয় নাই 😀
    ২য় কারন - :awesome: :awesome: আমি আন্দালিব ভাইয়ের পোস্ট এক পরায় বুইঝা গেসি :awesome: :awesome:
    আপনি ভস :salute:

    জবাব দিন
  10. আদনান (১৯৯৭-২০০৩)
    আদনানকে কত বললাম সিসিবিতে আসতে, ও ব্লগানো শুরু করলো, আর আমি অফ হয়ে গেলাম!

    আন্দালিব ভাই, অন্‌ হয়ে যান... হেড্‌স আপ! আমার মত লুক-ডাউন হয়া থাইকেন না! (মনে আছে?? 😉 )

    জবাব দিন
  11. মাহমুদ (১৯৯০-৯৬)
    নার্ভাস ৯০, এখোন আউট হইয়েন না…..

    😮 😮

    আমি ত কিছুই বুঝলাম না। :grr:

    কিন্তু কথা গুলা শুইনা মনে হইতাছে ক্রিকেটের মতো...... 🙁


    There is no royal road to science, and only those who do not dread the fatiguing climb of its steep paths have a chance of gaining its luminous summits.- Karl Marx

    জবাব দিন
  12. আন্দালিব (৯৬-০২)

    আমি জীবনে এত কমেন্ট কোনদিন পাই নাই। অন্যব্লগে অন্যব্লগারদের পাইতেই দেখছি।
    গতকাল পোস্টটা যখন দেই, তখন মনের মাঝে একটা কষ্ট দানা বেঁধে ছিল সবার জন্যেই। আমি এই মুহূর্তে সেটা খুব কম অনুভব করছি। সবাইকে কী কিছু বলে ধন্যবাদ দেয়া লাগবে? 😉

    আসেন ভাইরা, আমরা এইটারে আরো একটু ঠেলি! :awesome:

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।