রিভিউ পাড় হওয়া বুঝি হোলনা আমার

১।
ধুপীতে কাপড় দেয়ার কি চমৎকার সিস্টেম ছিল কলেজে আহারে। ধুপীতে আন্ডি গেঞ্জি ধুইতে দিয়া ক্লাস সেভেন-এর এক ক্যাডেট বেদম প্রহার খাইলো। ক্লাস এইট-এর রুম লিডার প্রহারের ফাকে জিজ্ঞাসা করলো ‘ধুপী’র চিট-এ কোথাও তো আন্ডি আইটেম টা নাই, তাও তুমি দিলা ক্যান ?’ ক্লাস সেভেন-এর উত্তর ‘নতুন সিরিয়াল নম্বর দিয়া হাতে লিখা দিছিলাম আন্ডারওয়্যার এ্যান্ড স্যান্ডোগেঞ্জি’।

২।
কেমিস্ট্রি ক্লাসে ম্যানা মিন মিন করে কি যে বলতো, ক্লাসের শেষ মাথায় বসে তা শোনার কোন উপায় ছিল না। তাই ব্যাকবেঞ্চাররা নিমগ্ন চিত্তে নিজের মত করে গ্যাজানোতে ব্যাস্ত হয়ে পরতো ক্লাস শুরুর আগেই। অনেকদিন ফলো করার পর ‘দন্য দন্য অও বলি তারে’ লালন গান ক্ষ্যাত ম্যানা একদিন ডায়াস থেকে নেমে এসে ওই ক্যাডেটদের কাছে এসে বলল, ‘বুঝলা, কিছু কিছু মানুশ আছে যাদের কে দেখলে শয়তানেও সালাম দেয়’। সাথে সাথে এক ক্যাডেট বড় করে পুরা সালাম (ফৌজিয়ানের লিখা ‘আবজাব’ দ্রষ্টব্য) দিয়ে বলল, ‘এই জন্যে আমরা সবাই আপনারে দেখলেই সালাম দেই স্যার’।

৩।
কলেজ লাইব্রেরীর সর্বাধীক পঠিত বই গুলির একটা পড়ে আমি যে চার প্রকার নারীর বর্ণনা পেয়েছিলাম (পদ্মীনি, শংখীনি, হস্তীনি এবং কামীনি) তাতে ক্ষুরবাণু যে হস্তীনি দলভুক্ত সেব্যাপারে আমার কোন অন্তর্দন্দ ছিল না। ষ্টিফেন হকিংস এর ‘বিগ ব্যাং এন্ড ব্ল্যাকহোল’ কিংবা লেডি ডায়ানা আর দোদি ফায়েদের মৃত্যুস্থান সেই ব্ল্যাক টানেল আমাকে ঘুরেফিরে ক্ষুরবাণু’র কথা মনে করিয়ে দেয়। কেন??

সে প্রশ্নের উত্তর আমি দিতে পারব না। দিলে আর রিভিউ পাড় হতে পারবো না।

১,৬১৪ বার দেখা হয়েছে

১৩ টি মন্তব্য : “রিভিউ পাড় হওয়া বুঝি হোলনা আমার”

  1. তাইফুর ভাই পুরা অলক কাপালির মতো ফর্মে আছেন দেখি। একের পর এক গুল্লি ছাড়তেছেন। :gulli2: :goragori:
    সাব্বাস। :boss:

    অফটপিকঃ ভাইয়া আরেকটা লেখা, যেটা pending আছে, কিছু সময় পরেই দিয়ে দিচ্ছি।

    জবাব দিন
    • তাইফুর (৯২-৯৮)

      তোমরা কষ্ট করতেছ ...... ফল খাচ্ছি বাকিরা। রাতে ঘুম হয় নারে ভাই, নষ্টালজিয়া আমার আগেও ছিল, নতুন করে চাংগা হইছে। এই ব্লগের সাথে সম্পৃক্ত সবাইকে সশস্ত্র সালাম


      পথ ভাবে 'আমি দেব', রথ ভাবে 'আমি',
      মূর্তি ভাবে 'আমি দেব', হাসে অন্তর্যামী॥

      জবাব দিন
  2. সায়েদ (১৯৯২-১৯৯৮)
    ‘বুঝলা, কিছু কিছু মানুশ আছে যাদের কে দেখলে শয়তানেও সালাম দেয়’। সাথে সাথে এক ক্যাডেট বড় করে পুরা সালাম (ফৌজিয়ানের লিখা ‘আবজাব’ দ্রষ্টব্য) দিয়ে বলল, ‘এই জন্যে আমরা সবাই আপনারে দেখলেই সালাম দেই স্যার’।

    :)) :)) =)) :khekz: :khekz:


    Life is Mad.

    জবাব দিন
  3. কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)
    সে প্রশ্নের উত্তর আমি দিতে পারব না। দিলে আর রিভিউ পাড় হতে পারবো না।

    =)) =)) দোস্ত দিয়া দে। তোর লেখার একটা আলাদা ভাব আছে। ব্যাপক মজা পাইবো সবতে :clap: :clap:


    সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।