আপনারে আমি খুঁজিয়া বেড়াই- ৪

১.
অলস বিকেলে টিভির সামনে বসে বসে চ্যানেল বদলাচ্ছিলাম, বিটিভেতে এসে থেমে গেলাম হঠাৎ। একেবারে বাধ্য না হলে বিটিভি দেখি না সাধারনত, দেখার রুচি হয় না আসলে। কিন্তু আজ থেমে কিছুক্ষণ দেখলাম কারণ সংসদের বাজেট অধিবেশন দেখাচ্ছে অথচ আলোচনা হচ্ছে বাংলাদেশ-আয়ারল্যান্ড খেলা নিয়ে। ভাবলাম দেখি আমাদের মাননীয় সাংসদরা কি ভাবছেন এহেন লজ্জাজনক পরাজয় নিয়ে।

বিরোধী দল, ম্যাডাম খালেদার বিএনপি সংসদে নেই, প্রথম সারিতে দাবি মোতাবেক আসন না পেয়ে সংসদ বর্জন করে আছেন। এই ফাঁকে সরকারী দলের সাংসদরা ক্রিকেট নিয়ে নিজেদের জ্ঞান জাহির করছেন বেশ সরবে। কে একজন যেন জিজ্ঞেস করলেন, এরকম লজ্জাজনক পরাজয়ের পর ক্রীড়ামন্ত্রী পদত্যাগ করবেন কিনা? হেসে উড়িয়ে দিলেন মাননীয় ক্রীড়ামন্ত্রী। তার হয়ে জবাব দিলেন অন্য এক সাংসদ, নাম মনে নেই, সম্ভবত চুয়াডাঙ্গা-২ থেকে নির্বাচিত। উনি বেশ রসিয়ে রসিয়ে একটা গল্প বললেন। শুনে আমার খুব হাসি পেল। ‘পরীক্ষায় ফেল করে বাসায় আসার পর এক ছেলেকে তার বাবা জিজ্ঞেস করছে, তুই ফেল করলি কেন? ছেলে একটুও লজ্জা না পেয়ে বললো, খালি আমি না হেডমাস্টারের ছেলেও ফেল মারছে। ‘ চুয়াডাঙ্গা-২ ‘র মাননীয় সাংসদের গল্পের মূলকথা হচ্ছে, শুধু বাংলাদেশ না, ক্রিকেটের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াও ফেল মারছে। এতো লজ্জা পাবার কিচ্ছু নাই।
হাসি আসবে না কেন বলুন!

তবে সবচেয়ে মজা পেয়েছি মাননীয় স্পীকার আব্দুল হামিদ সাহেবের রসবোধ দেখে। সংরক্ষিত আসন থেকে নির্বাচিত এক মহিলা সাংসদ, বসেন একেবারে পিছনের দিকে কিন্তু স্পীকারের একদম সোজাসোজি, অনেক্ষন ধরে ফ্লোর চাচ্ছিলেন কিছু বলার জন্যে। শেষের দিকে স্পীকার তাকে কথা বলার সুযোগ দিলেন। সেই মহিলা সাংসদ দাঁড়িয়ে বললেন, ‘মাননীয় স্পীকার, ভেবেছিলাম আপনার সোজাসোজি বসি, সবার আগেই আপনার নজরে পড়বো, কিন্তু আপনি নজর দিলেন এতো পরে।’ আব্দুল হামিদ সাহেব জবাবে বললেন, ‘নজরে পড়েছেন অনেক আগেই, কিন্তু কেউ যাতে সেটা ‘কু-নজর’ না ভাবে সেজন্যে পরে ফ্লোর দিলাম। আপনি আবার বেশ সুন্দরী কি না।’

সংসদে ভালোই মজা-টজা হয় দেখি !

২.
লোডশেডিংটা ইদানিং আবার বেশ বেড়েছে। মাঝখানে কিছুদিন একটু কম ছিলো সেই ফাঁকে চুটিয়ে কিছু সিনেমা দেখেছি। কিছু একেবারে নতুন ছবি, কিছু আগে অনেকবার দেখা ছবি। ভালো লেগেছে কোয়েন ব্রাদার্সের fargo, আবার দেখলাম হিচককের Strangers On A Train । আর আমি বারবার দেখি এমন একটা সিনেমা হচ্ছে সত্যজিতের ‘অরন্যের দিন রাত্রি’। সুনীলের চমৎকার গল্প আর কি দারুণ মেকিং। এ ছবিতে শর্মিলা ঠাকুরকে দেখলে বুকের কাঁপন বেড়ে যায়। যতোবার দেখি শুধু ইচ্ছে করে সিনেমার চার বন্ধু’র মতো পালামৌ’র জঙ্গলে বেড়িয়ে পড়তে, মহুয়ার মদ খেয়ে মাতলামি করতে আর সাঁওতালী মেয়েদের সরু কোমর ধরে নাঁচতে। কিন্তু আফসোস, যে জীবন ফড়িংয়ের দোয়েলের, মানুষের সাথে তার হয়নাকো দেখা ।

৩.
মাঝে মাঝে এমন হয় আমার। মাথার মধ্যে কোন গান ঢুকে যায় আর মৌমাছির মতো সারাক্ষণ গুনগুন করতে থাকে। সেই গুনগুন আমার গলা দিয়ে ভ্যা ভ্যা হয়ে বেরিয়ে আসে। আশেপাশের সবাই বিরক্ত হয়। এখন যেমন গুন গুন করছে সৈয়দ আব্দুল হাদী’র ‘চোখের নজর এমনি কইরা একদিন ক্ষইয়া যাবে…… ‘ আমি সারাদিন ফাটা গলায় এই গান গাই। রুম্মান বিরক্ত হয়ে বলে, ‘তোর গলায় এই গান শুনলে হাদী ভাই লজ্জায় গান গাওয়া ছাইড়া দিবে, আল্লার দোহাই লাগে উনার প্রতি দয়া কর আর আমাদেরকেও মাফ কর।

আমি পাত্তা দেই না। নিন্দুকেরা নানান কথা বলবেই, তাই বলে সংগীত সাধনা বন্ধ রাখা যাবে না। সঙ্গীত হলো ইবাদত।

৪.
আরো একটা বিয়ের দাওয়াত। বন্ধু ফয়সালের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা সামনে। বিয়ের দাওয়াতে যেতে হবে ভাবলে মেজাজ বাসি তরকারির মতো হয়ে যায়। সামাজিক অনুষ্ঠান আমি খুব সম্ভব এড়িয়ে চলি, নিতান্তই বাধ্য না হলে যাই না। বন্ধু বান্ধবদের বিয়েতে বাধ্য হয়ে যেতে হয়। সবাই মিলে দল বেঁধে যাই, আয়েশ করে হাত ডুবিয়ে পোলাও, খাসির রেজালা খাই, এই বয়সেও কাবাব নিয়ে ভাবিদের সামনে কাড়াকাড়ি করি আর বন্ধু বরের কচি শ্যালিকাদের দিকে লোলুপ দৃষ্টিতে তাকাই। অনুষ্ঠান শেষ করে বেনসন টানতে টানতে বাসায় ফিরে আসি আর মনে মনে ভাবি ‘নাদের আলি একদিন আমারও………’

অস্কার ওয়াইল্ড সাহেব যথার্থই বলেছেন, বিবাহে অনেক জ্বালা কিন্তু চিরকৌমার্যে কোন সুখ নেই। তবে কিনা মাঝে মাঝে কবিগুরু রবি ঠাকুরের কথা মনে হলে একটু ভয় লাগে। গুরু বলেছেন, বিবাহ জিনিসটা মিষ্টান্ন দিয়াই শুরু হয়, কিন্তু সকল সময় মধুরেণ সমাপয়েৎ হয় না। তাই একটু ভেবে চিন্তে নিচ্ছি আর কি ! আর তাছাড়া যাযাবর মশাই বলেছেন, বিবাহ স্বামীর বাড়ায় কাম, স্ত্রীর বাড়ায় দাম। আমার এমনিতেই যথেষ্ট ‘কাম’, আপাতত আরো বাড়িয়ে লাভ নেই, সামলাতে পারবো না।

খুব সম্ভবত ফ্রান্সিস বেকন বলেছেন, ‘বুদ্ধিমানরা বিয়ে করে অল্পবয়সে আর জ্ঞানীরা বিয়ে করে বেশি বয়সে।’

লাবলু ভাই, ফয়েজ ভাই, এহসান ভাই, আমার বন্ধু তারেক কিংবা ছোটভাই তৌফিক সবাই বুদ্ধিমান তাতে আমার কোন সন্দেহ নাই, কিন্তু আমাদের জ্ঞানী হতে দোষ কি !

কি বলেন কাইয়ূম ভাই?

৫,৫০৫ বার দেখা হয়েছে

৭৭ টি মন্তব্য : “আপনারে আমি খুঁজিয়া বেড়াই- ৪”

  1. রকিব (০১-০৭)

    নিজে তো ঠিকই বিয়ের জন্য তিন পায়ে খাড়া। কিন্তু এইদিকে আমার বুদ্ধিমান হবার কোন অবকাশই মিলছে না। যাও ভাঙ্গা ঘরের চালে একখান চাদ উকি দিয়েছিলো; জন্মদিনের মোম গলাইয়া ঐটাও আটকায়ে দিলেন। :thumbdown: এইবার আমি কুন কূলে যামু :(( :((
    অনটপিকঃ লেখা ভালো লাগছে; এইটারেই মনে হয় যথার্থ ব্লগর ব্লগর বলে। :thumbup: :thumbup:


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  2. আদনান (১৯৯৪-২০০০)

    লেখা নিয়ে কোন কথা নাই । তুই বুদ্ধিমান হইতে চাইলে কইতে পারি কে তোর আরো কাম বাড়াইতে পারবে :grr: । ‘অরন্যের দিন রাত্রি’ প্রিয় উপন্যাসের একটা । কিন্তু মুভিটা দেখে কিছুটা হতাশ হইসি । আশা মনে হয় বেশি করে ফেলছিলাম ।

    জবাব দিন
  3. কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)
    লাবলু ভাই, ফয়েজ ভাই, এহসান ভাই, আমার বন্ধু তারেক কিংবা ছোটভাই তৌফিক সবাই বুদ্ধিমান তাতে আমার কোন সন্দেহ নাই, কিন্তু আমাদের জ্ঞানী হতে দোষ কি !

    :pira: :pira:


    সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

    জবাব দিন
  4. সামি হক (৯০-৯৬)

    কামরুল মেয়ে দেখা শুরু করি কি বলো? আফসুস আমার শালিকা নাই নাহলে তোমারে জ্ঞানী হবার সুযোগ দিতাম না। 😀

    সাংসদের জোকসটা একদম পুরাই সিরকম। এদের দিয়েই আমাদের দিনবদল আসবে। 😀

    জবাব দিন
  5. ফয়েজ (৮৭-৯৩)

    তিন নম্বরটায় চাপা পিটাইছো মনে হচ্ছে আমার। কনফু নাকি তানভীর (কুমিল্লা গ্রুপ) কই যেন একবার কইছিল তোমার গানে গলা সুন্দর।

    আর একটা ব্যাপার, তুমি কিছু হইলেই রুম্মানের উপরে চালাও ক্যান? রুম্মান কি ব্লগে আসে না নাকি?

    যাউজ্ঞা, জ্ঞানী হইতে মানা করি না, তয় ব্যাপার কি, শিয়াল মশাই তো বলেই দিয়েছেন, আংগুর ফল টক।


    পালটে দেবার স্বপ্ন আমার এখনও গেল না

    জবাব দিন
    • তিন নম্বরটায় চাপা পিটাইছো মনে হচ্ছে আমার। কনফু নাকি তানভীর (কুমিল্লা গ্রুপ) কই যেন একবার কইছিল তোমার গানে গলা সুন্দর।

      এইডা আসলেই চাপা। কাম্রুল্ভাই ভালো গান্গায় :guitar:

      জবাব দিন
    • কামরুল হাসান (৯৪-০০)

      তারেক চাপা মারছিলো। আচ্ছা আমি একদিন আপনারে ফোনে গান শুনামু নে 😀 , নিজেই যাচাই কইরা নিয়েন 😀

      রুম্মান পড়ে নিয়মিত, লেখতে বললে হাসে 🙁

      আঙ্গুর খুব মিষ্টি 😉


      ---------------------------------------------------------------------------
      বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
      ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

      জবাব দিন
  6. তানভীর (৯৪-০০)

    কেমস....কি মামা? উদাস নাকি?
    পোলাপাইনের বিয়া খাইতে খাইতে, আর গিফটের টাকা দিতে দিতে জীবন শেষ রে!! 🙁 🙁

    কিন্তু আফসোস, যে জীবন ফড়িংয়ের দোয়েলের, মানুষের সাথে তার হয়নাকো দেখা ।

    হুম.... 🙁 🙁
    লেখা জব্বর হইছে। :thumbup: :thumbup:

    জবাব দিন
  7. তারেক (৯৪ - ০০)

    সংসদের জোক্স পড়ে মজা লাগলো। আমাদের সাংসদরা দেখি ভালই স্মার্ট হয়ে গেছে!
    *
    অরণ্যের দিনরাত্রি আমারও খুব প্রিয় সিনেমা। অবশ্য শর্মিলা না, আমি পাগল হইছিলাম সিমি গারেওয়ালরে দেইখা! কত বিনিদ্র রজনী যে... ইত্যাদি ইত্যাদি।
    *
    জ্ঞানী তো হবিই। কত কত ডাক্তার ইঞ্জিনিয়াররে দুনিয়াতে আনার বন্দোবস্ত আটকাইয়া রাখছস, ওদের জ্ঞান বগলদাবা কইরা বসে থাকলে চলবো? 😛


    www.tareqnurulhasan.com
    www.boidweep.com

    জবাব দিন
  8. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    স্পিকার আব্দুল হামিদ সুযোগ পাইলেই মহিলা সংসদদের বিষয়ে রস করে... আমিও দ'তিন বার শুনেছি...


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  9. জাহিদ (১৯৯৭-২০০৩)
    সংসদে ভালোই মজা-টজা হয় দেখি !

    ...আমগো সংসদে কামের কথা খুব কম ই হয়...খালি একজন আরেকজন রে :chup: :chup: :chup: আর :gulli: :gulli: :gulli: :gulli: :duel: :duel: :duel: :duel:
    এইডা হইল আমাদের স্ট্যান্ডার্ড... :khekz: :khekz: :khekz:

    জবাব দিন
  10. এহসান (৮৯-৯৫)
    সিনেমার চার বন্ধু’র মতো পালামৌ’র জঙ্গলে বেড়িয়ে পড়তে, মহুয়ার মদ খেয়ে মাতলামি করতে আর সাঁওতালী মেয়েদের সরু কোমর ধরে নাঁচতে। কিন্তু আফসোস, যে জীবন ফড়িংয়ের দোয়েলের, মানুষের সাথে তার হয়নাকো দেখা ।

    :thumbup:

    মিথুন রাশির মানুষদের দেরীতে বিয়ে করাই ভালো।

    জবাব দিন
    • কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)

      কামরুল যে বিয়া করার লাইগা এতটা উতলা হয়া পিড়বো এইটা ভাবিনাই।
      জ্ঞানী না ব্যাটা, আহসান ভাই মাহমুদ ভাইরা লাইনে আছেন দেইখা একান্ত বাধ্যগত জুনিয়র হয়া :just: ফলইন কইরা আছি 😡
      আর সার্টিফিকেটের কী আর দাম আছে ক এই ডিজিটাল দুইন্যায় :grr: :grr: অইটা ছাড়াই শুনছি আজকাল চাকরি হয় :gulti: সো নো চিন্তা :thumbup: :thumbup:


      সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

      জবাব দিন
    • কামরুল হাসান (৯৪-০০)

      থ্যাঙ্কু। 😀
      তোমাকে অনেক আগে বলেছিলাম, সিসিবিতে আমার প্রিয় লেখকদের তুমিও একজন। আবারো বলতে হবে না নিশ্চয়ই...... বেশি বেশি লিখো 🙂


      ---------------------------------------------------------------------------
      বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
      ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

      জবাব দিন
  11. মুহাম্মদ (৯৯-০৫)

    সাংসদদের কাহিনী পড়ে ব্যাপক মজা পেলাম।
    আপনার কাছ থেকে আনা "strangers on a train" ক্যামনে জানি ডিলিট হয়ে গেছে। আবার আসতাছি। "ওয়ান্স আপোন আ টাইম ইন দ্য ওয়েস্ট" দেখে মুগ্ধ হইছি। এখন এটাই আমার জীবনে দেখা সেরা ওয়েস্টার্ন সিনেমা।

    জবাব দিন
    • কামরুল হাসান (৯৪-০০)
      “ওয়ান্স আপোন আ টাইম ইন দ্য ওয়েস্ট” দেখে মুগ্ধ হইছি। এখন এটাই আমার জীবনে দেখা সেরা ওয়েস্টার্ন সিনেমা।

      'দ্যা গুড, দ্যা বেড এন্ড দ্যা আগলি' কে মনে রেখে বলছিস?


      ---------------------------------------------------------------------------
      বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
      ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

      জবাব দিন
    • কামরুল হাসান (৯৪-০০)

      এ জন্মদিনে এটা আমার পাওয়া সেরা শুভেচ্ছা।
      কেমন আছিস মামা?

      ( বাকি সবার জন্যে,
      অয়োময়, আমার সবচেয়ে প্রিয় বন্ধু মইনের আড়াই বছরের ছেলে, ওর নামটা আমি রেখেছিলাম 😀 )


      ---------------------------------------------------------------------------
      বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
      ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

      জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।