জনসচেতনতামূলক পোস্ট!!

১।
পদ্ধতি একঃ কাকরাইল মসজিদ বা শাহবাগের মোড় থেকে মৎসভবন চৌরাস্তা পাড় হয়ে দুই থেকে আড়াইশো গজ সামনে এগিয়ে যান। এবার ডাইনে তাকান। ভাল কথা, আপনি যেখানে দাঁড়িয়েছেন এখানে গাড়ি থামানোর নিয়ম নেই, সুতরাং সবচেয়ে ভাল হয় আরেকটু সামনে গিয়ে ফোয়ারা থেকে ইউ টার্ন নিয়ে রাস্তার অপরপাশে চলে আসুন। এবার বামে তাকান।

পদ্ধতি দুইঃ পল্টন থেকে তোপখানা রোড ধরে সোজা আসতে থাকুন। প্রেসক্লাবের সামনের জ্যামটা পার হয়ে ফোয়ারা থেকে ডানে মোড় নিয়ে একটু সামনে এগিয়ে যান। দেখতে পাবেন ‘পদ্ধতি এক’ ব্যবহার করা যে কেউ হাঁ করে বাম দিকে তাকিয়ে আছে। আপনিও কোন প্রশ্ন না করে তাকিয়ে থাকুন।

পদ্ধতি তিনঃ জিরো পয়েন্ট থেকে ওসমানী হলের সামনের রাস্তাটা ধরে কার্জন হলের দিকে এগোতে থাকুন। এমন হতে পারে ফজলুল হক হলের সামনের রাস্তা দিয়ে আসা কারো সাথে আপনার দেখা হয়ে যেতে পারে। সবাই মিলে শিক্ষা ভবনের সামনে দিয়ে সোজা যেতে থাকুন। দেখবেন বাম পাশে ছোটখাটো একটা জটলা দেখা যাচ্ছে। ভয় পাবেন না, কোন বিপদের কিছু নেই। ওদের সাথে মিশে যান এবং বামে থাকান।

পদ্ধতি চারঃ টিএসসি, ঢাকা মেডিকেল কিংবা চাঙ্খারপুল থেকে আগত ভাই বোনেরা দোয়েল চত্ত্বর থেকে শিশু একাডেমীর সামনে দিয়ে আগান। এবার বামে মোড় নিয়ে কিছুদূর এগোলে দেখতে পাবেন মোটামুটি বেশ বড় একটি মানুষের জটলা দেখা যাচ্ছে। সবাই বামে তাকিয়ে আছে, কিন্তু কেউই নিশ্চিৎ নয় ঠিক কি দেখতে হবে বা কিসের জন্য অপেক্ষা করতে হবে!
আপনাদের সবার জ্ঞাতার্থে জানাচ্ছি এই মাত্র আপনারা হাইকোর্ট দর্শন করলেন। যারা আগে থেকে জানতেন না, তারা জানলেন কিভাবে হাইকোর্টে যেতে হয়। হাইকোর্ট আর আপনার কাছে অচেনা রইল না!

২।
আমরা ইতিহাসের অন্যতম ভয়াবহ এক ‘পুলিশি সপ্তাহ’ পার করে ফেললাম। অনেক মন্ত্রীই এখন আপনাদেরকে হাইকোর্ট চেনাবার চেষ্টা করবে, চিরন্তন উইড ইটেন স্পিচ দেবে। তবে আপনি আর এই ফাঁদে পা দেবেন না। কেননা আপনি তো এখন হাইকোর্ট চিনেই ফেলেছেন…!!
সরকারের শেষ এক-দেড় বছর আপনাকে অনেকেই হাইকোর্ট চেনাতে চাইবে। এরমধ্যে সরকারি দলের মন্ত্রী-এমপি যেমন থাকবে, তেমনি বিরোধী দলের অনেক ত্যাগী-ভগি-যোগী নেতাও থাকবে। কিন্তু লাভ নেই গোলাম হোসেন! আপনাকে কেউ বোকা বানাতে পারবে না। আপনি হাইকোর্ট চিনে ফেলেছেন…

আমাকে আর হাইকোর্ট চেনাতে আসবেন না!


আপনাদের সুবিধার্থে হাইকোর্টের আশপাশের এলাকাসহ একটি ছবি লেখার সাথে সেঁটে দিলাম।
-জনস্বার্থে ক্র্যাক।

১,৩৮৪ বার দেখা হয়েছে

১৩ টি মন্তব্য : “জনসচেতনতামূলক পোস্ট!!”

  1. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    এ দেশের জনগন আপনার এই নিঃস্বার্থ অবদান চিরদিন মনে রাখবে :-B


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।