অতঃপর বিচ্ছেদ…!!

মন ভাল করার কোন ট্যাবলেট থাকলে মন্দ হত না। ডাক্তারের কাছে গিয়ে বলতাম, ‘স্যার, আমার মন খুব খারাপ…কি ঔষধ খাব?’ উনি গম্ভীরভাবে সব কিছু শুনে আমাকে প্রেসকাইব করতেন, ‘তোমাকে দুইটা ট্যাবলেট দিলাম- আনন্দসিটামল আর মজাটল। তিন বেলা খাওয়ার পর এক একটা করে তিন দিন খাবে, আর প্রচুর পানি খাবে…’ চতুর্থদিন ফোন করে তাঁকে জানাতাম, ‘ডাক্তার স্যার, কি দিলেন,মামা??? আমার মন তো ভাল হয়ে গেছে…!!’

কিন্তু হায়! বাস্তবে এমন কিছু নেই…সেই কারনেই তো গত এক সপ্তাহ ধরে আমার মন কিছুতেই ভাল হচ্ছে না। খাবার খেতে ভাল লাগে না, গান শুনতে ভাল লাগে না, টিভি দেখতে ভাল লাগে না, নেটে থাকতেও ভাল লাগে না…সব কিছু কেমন জানি পানসে পানসে লাগছে…!!

ঘটনা খুলেই বলি- আমার একটা রিলেশনশীপ ছিল। কিন্তু সেদিন এক চিঠির মাধ্যমে জানলাম- সব শেষ! ছোট্ট একটা চিঠি, কয়েকটা মাত্র লাইন- এসব দিয়ে এতদিনের সম্পর্ক চট করে কি শেষ করে দেয়া যায়??? আমি কিছুতেই মানতে পারছি না…বারবার ভুলতে চাইলেও পারছি কই?? কত শত স্মৃতি, আনন্দ-বেদনা, হাসি-কান্না, নির্ভার পথচলা- এসব কি আর এক ঝটকায় ভুলে যাওয়া সম্ভব??? বিচ্ছেদের যন্ত্রণা আমাকে প্রতি নিয়ত কুরে কুরে খাচ্ছে…

বাসার সবার সাথে আমি মোটামুটি সবকিছুই শেয়ার করি। তাই এই ঘটনার কথা তাদেরও অজানা নেই। মুখে মুখে তারা আমাকে স্বান্ত্বনা দেবার চেষ্টা করলেও, আমি জানি- ভেতরে ভেতরে সবাই খুব খুশি…কারন, কেউ কিছু না জানালেও…আমি বুঝতাম তারা আমার ব্যাপারে মোটেও সন্তুষ্ট ছিলেন না…আমি ছিলাম…দাঁড়ান, ‘Eagles’ ভাইদের মতন বলি ‘I was standing all alone against the world outside…’ (Love will keep us alive- Eagles)

আম্মু যথেষ্ট আন্তরিকতার সাথে আমাকে এভাবে স্বান্ত্বনা দিলেন,
-‘এত ভেঙ্গে পড়ছিস কেন??? শক্ত হবার চেষ্টা কর…এখন এ রকম করলে জীবনে কিছু করবি কেমন করে…আর মনে রাখিস, আল্লাহ্‌ যা করেন ভালোর জন্যেই করেন…’ আমি কিছু না বলে শুধু চুপচাপ শুনে যাই…
বাবা বলেছেন,
-‘দেখো, তোমার ঐ ব্যাপারটা আমার কখনোই ভাল লাগত না…তবুও আমি কিছু বলিনি, ভেবেছিলাম তুমি নিজেই বুঝতে পারবে…ছেলেমেয়ে বড় হয়ে গেলে তাদের নিজেদের ভাল-মন্দ নিজেদেরই বোঝা উচিৎ…আমরা আর কয়দিন???’
ভাইয়া ঢাকায় নেই,চিটাগাং…ও ফোন করেছিল।
-‘কিরে দাদা? শেষ পর্যন্ত তুই ও…শাব্বাস!!! নো হার্ড ফিলিংস…’ব্যাপারস না’ বলে সব ভুলে এগিয়ে যা…’
আমি শুধু ‘হুম’ বলে ফোন রেখে দেই…
ভাবীও দেখি একটু পরপর আমার রুমে উঁকি দিয়ে দেখে যায়, আর যাবার সময় ফ্রি হিসাবে একটা গা জ্বালানো হাসি দিয়ে যায়…
এমনকি চার বছরের ভাতীজা, সে পর্যন্ত আমাকে ছাড়ে না…
-‘চাচা, তোমার মন খারাপ কেন?’
– ‘তুই বুঝবি না…’
– ‘কেন বুঝব না???’
– ‘এসব বড়দের ব্যাপার, আগে বড় হ…তারপর বুঝবি!’
-‘আমি তো অনেক বড় হয়ে গেছি, আমি এখন লিফ্‌ট এ ৯ চাপতে পারি…!!!’
এই পর্যায়ে এই ‘বড় হয়ে যাবার আপ্রাণচেষ্টাকারীকে’ আমি ‘যা ভাগ’ বলে রুম থেকে বের করে দিই…!!!

চিঠিটা আবার হাতে নিয়ে উল্টে-পাল্টে দেখতে লাগলাম। ভাবটা এমন যেন সব নষ্টের গোঁড়া এই চিঠিটি। শততমবারের মতন পড়া শুরু করলাম, সাইজে ছোট হলেও কি রষ-কষহীন আর তীব্র সেই চিঠির ভাষা…

জনাব…
………………………………………………………………………………
আগামী …তারিখের মধ্যে আপনাকে কর্মস্থলে যোগদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করা হচ্ছে!!!

আর এই ছোট্ট চিঠিটার মাধ্যমেই আমার সাথে আমার বেকার জীবনের বিচ্ছেদ হয়ে গেল!!!!!!

৬,৫৫১ বার দেখা হয়েছে

৫৫ টি মন্তব্য : “অতঃপর বিচ্ছেদ…!!”

  1. জুনায়েদ কবীর (৯৫-০১)

    উপরের ঘটনা সম্পূর্ণ কাল্পনিক... 😉
    আমি আজো একজন গর্বিত বেকার... :(( :((
    সুতরাং, 'রস' এর মিষ্টি চাই বা মিষ্টির রস চাই- বলে কেউ দয়া করে তাগাদা দেবেন না... 😛

    --কর্তৃপক্ষ এবং অপাদানপক্ষ!!! B-)


    ঐ দেখা যায় তালগাছ, তালগাছটি কিন্তু আমার...হুঁ

    জবাব দিন
  2. ফয়েজ (৮৭-৯৩)

    কনগ্রাট জুনায়েদ।

    এইবার বুঝবা কত ধানে কত আটা। এরপর বিয়া কইরা বুঝবা সয়াবিনের কেজি কত।

    আর আমরা পেট দুলায় দুলায় হাসুম। :khekz: :khekz:

    কি চাকুরী, পোষ্টিং কই?


    পালটে দেবার স্বপ্ন আমার এখনও গেল না

    জবাব দিন
  3. তাইফুর (৯২-৯৮)

    চরম লেখা দিছিস ব্যাটা ... প্রথমে ছেকু কাহিণি ভাবছিলাম, আবার যেহেতু তোর লেখা ... তাই মনের কোণে অন্য ভাবনাও উকি দিচ্ছিল, মোচড় একটা থাকবেই। হতাশ করিস নাই ... গল্পের ঘটনা সত্য নাকি নীচে তোর মন্তব্যের মাধ্যমে ডিসক্লেইমার ??

    (প্রচন্ড অফটপিকঃ আগামীকাল ইনশাল্লাহ দেশে ফিরছি ... সিসিবি'তে কিছুদিন হয়তো অনিয়মিত থাকব। অনেক মিস করব।)


    পথ ভাবে 'আমি দেব', রথ ভাবে 'আমি',
    মূর্তি ভাবে 'আমি দেব', হাসে অন্তর্যামী॥

    জবাব দিন
  4. সাকেব (মকক) (৯৩-৯৯)

    জুনা,
    তুমি আসলেই মানুষ না x-( x-( x-(

    প্রথম ভাগ পড়তে পড়তে ভাবতেসিলাম যে কি বলে সান্ত্বনা দেওয়া যায়...শেষভাগে আইসা চমক খাইলেও কনগ্র্যাচুলেট করার প্রস্তুতি নিতেসিলাম...কিন্তু ডিস্ক্লেইমার পইড়া পুরা স্তব্ধ হয়া গেসি...

    মানুষ অবাক হইলে 'থ' হইয়া যায়...আমি পুরা 'ৎ' হয়ে গেসি 😮


    "আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
    আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস"

    জবাব দিন
    • রহমান (৯২-৯৮)

      আর আমার জন্য হইছে ক্যাকটাস টাইপের :-B

      প্রথমে জুনার ছ্যাকা খাওয়ার ব্যথায় আমিও ব্যাথিত 🙁 , শেষে চাকুরী হয়েছে ভেবে খুশি হয়ে পরে আবার ডিসক্লেইমার দেখে আবারো ব্যথিত 🙁 🙁

      এভাবে বারবার ব্যথা দিলে লেখাটা কি ক্যাকটাস টাইপের না???

      জবাব দিন
  5. জুনার লেখা বলেই এবং ব্যাক্তিগত ভাবে ওকে চিনি বলে শুরু থেকেই ভেবে নিয়েছিলাম শেষে একটা ব্লাফ দিবে সবাইকে। শেষ পর্যন্ত তাই হয়েছে। 😀

    বানানো হইলেও লেখা মজা হইছে। মারাত্মক। :khekz: :khekz: তবে সত্যি হইলে আরো বেশি খুশি হইতাম। 😀

    জবাব দিন
  6. ইটি কি প্রিইলিন ভিই? ইতি বিড়ি ধিক্কি খিলিম। 😕 😕 😕
    তয় আশা করছিলাম এই রকমেরই কিছু। x-( x-( x-(

    অফটপিত: এত স্লো নেট, কি যে করি। একটা কমেন্ট দিতে াছার ঘায়ে কুত্তা পাগল অবস্থা। :(( :(( :((

    জবাব দিন
  7. কামরুলতপু (৯৬-০২)

    আমিও সাকেব ভাইর মত প্রথমে খুব আফসোস করতেছিলাম আহারে জুনা ভাইর মত হাসিখুশি ছেলেটাকে কে কষ্ট দিল। এরপর চাকরির কথা শুইনা প্রথমে টাশকি খাইছি লাস্টে ডিস্ক্লেমার পড়ে মনে হইল জুনা ভাই বইলাই এইগুলা সম্ভব। চরম বস। এই ঘটনা সত্য হওয়ার আশায়।

    জবাব দিন
  8. রায়হান আবীর (৯৯-০৫)

    বুঝছিলাম, prem potro na, kintu ei vabe dom diben bujhi nai. :khekz: :khekz:

    -’আমি তো অনেক বড় হয়ে গেছি, আমি এখন লিফ্‌ট এ ৯ চাপতে পারি…!!!’

    :thumbup: :thumbup: :gulli2: :gulli2: :goragori: :goragori: :khekz: :khekz:

    (sala linux bangla likhte pari na :duel: )

    জবাব দিন
  9. তানভীর (৯৪-০০)

    জুনা, তোর লেখায় লাস্টে একটা টুইস্ট থাকে। কিন্তু এইবার যে এরকম টুইস্ট দিবি বুঝিনাই!
    দারুন মজা পাইলাম। 😀 😀

    বেকারত্বের সাথে তোর খুব শিঘ্রই বিচ্ছেদ হোক, এই শুভকামনা রইল।

    জবাব দিন
  10. সৌমত্রি (ঝকক ৩৫ ইনটকে)

    জুনা‍‍‍য়দে‍ ভাই, মন ভা‍লো করার ওষুধ কিন্তু আ‍‍‍ছে। এই ধরণরে ওষুধক েবল েantidepressant; যমেন : Amitriptyline, Fluoxetine ইত্যাদি (বাজার েএগুলো বভিিন্ন brand name-এ পাওয়া যায়)। রেজস্টিার্ড ‍চকিিৎসকরে পরামর্শ ছাড়া এগুলো খাওয়া ঠিক না। আর মন ভালো করা ছাড়াও এসব ওষুধ আরো অনকে ক্ষেেত্র ব্যবহৃত হয়। উইকপিডিয়িাত েআরো তথ্য পাবনে।

    আপনার ‍লখোটা ব-েশ-িজো-স হইছ,ে চালায়া যান...

    ‍ব.িদ্র: আমার পণ্ডতি িফলানো ‍দখে েমাইন্ড কইরনে না, চ্ছুরী

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।