ফোল্ডার অপশন/ ভিউ/ শো হিডেন ফাইল্‌স এন্ড ফোল্ডার্‌স…!!!

শুক্রবার দুপুরবেলা। জম্পেশ খানা-দানার পর আমার রুমে সবাই মিলে গল্প করছি। আমরা মানে আমি, আদিব, শান্ত এবং অভিজিৎ। গান শোনার জন্য পিসি অন করতেই পংটা আদিব প্রশ্ন করল,
-তো মামা, তোমার পিসিতে ‘সেই রকম’ কিছু নাই??? থাকলে দেখাও না…

আমি কিছু না বলে প্রথমে ‘ভিউ হিডেন ফাইলস এন্ড ফোল্ডারস’ অপশন চালু করলাম। এরপর একটি ফোল্ডার আসার পর সবার দিকে তাকিয়ে নাটকীয়ভাবে বললাম, ‘তোদের আজ কিছু জটিল কালেকশন দেখাবো’। ফোল্ডারে শুধুই ইমেজ, হাই রেজুল্যুশন…ফাটাফাটি কোয়ালিটি…

-কিরে ব্যাটা, ফাইল হাইড কইরা রাখস ক্যান??? তোর পিসিতে অন্য কেউ হাত দেয় নাকি?
-নাহ্‌, কেউ হাত দেয় না…তারপরও হাইড কইরা রাখি…এম্নেই আর কি…!!!

প্রথম ছবিতে ক্লিক করে বড় করতেই সবার চোখ চকচক করে উঠল, শান্ত তো আস্তে করে শীষই দিয়ে উঠল। আর বরাবরের মতন সরব অভিজিৎ এর উক্তি,
– মামা, মেশিন তো সেই রকম…!!! শালা, বডি দেখছস…প্রতিটা বাঁক কি সুন্দর আইছে…কি আর কমু…পুরা মাক্‌খন…
-এই রকম একটারে একদিনের জন্য পাইলেও আমি রাজি হইতাম…
-আরো চিন্তা কর- তুই এইডারে নিয়া ভার্সিটিতে গেছস…
-আর কইস না ব্যাটা, দুঃখে বুকটা ফাইট্টা যাইব…
-আহারে…!!! সমস্বরে সবার দীর্ঘশ্বাস ঘরের মধ্যে যেন প্রতিধ্বনি তুলল।

-আচ্ছা, সব মডেলই কি আমেরিকান নাকি??
-বেশিরভাগই তাই…তবে ইউরোপিয়ানও আছে…
-ভাগ্ন্যা, আমেরিকায় যাইতে মন চায়…
-ঠিকই কইছস, বাংলাদেশী যেসব দেখা যায়…তাতে মনে হয় না কেউ…
-চুপ খারাপ কথা কইবি না…
-আব্বে খারাপ কই কইলাম…শালা তোর মনেই খোঁট…!!

যাই হোক, কিছু ছবি একই মডেলের তবে বিভিন্ন এঙ্গেল থেকে তোলা বলে দ্রুত চেঞ্জ করে সবাইকে দেখাতে লাগলাম…হঠাৎ আদিব হৈচৈ করে উঠল, ‘দাঁড়া, দাঁড়া…আগের ছবিটাতে যা…এটা নাহ…আরো আগে…হ্যাঁ এইটা…চিনতে পারছস??? আমরা সবাই মাথা নাড়তেই ও অবাক হয়ে বলল, ‘এখনো চিনস নাই? আরে কস কি? ঐ যে জেমস বন্ডের ছবিতে ছিল…’
এই কথা শোনার পর মনে পড়ল- ‘আরে তাই তো…’

অভিজিৎ বাচ্চাদের মতন আবদার করে বলল, ‘মামা, এই ছবিটারে তোমার ডেস্কটপ ব্যাকগ্রাউন্ড বানাও…সুন্দর কইরা দেখি…’ বাকি সবাই সায় দেয়ায়, ‘তোরা সব সাইকো!!’ বলে গজগজ করতে করতে ওয়ালপেপার সেট করলাম। ‘আরে, চেতস ক্যান? আমরা গেলে কোনো ফুল-পাখির ছবি রাখিস…!!’ বলে শয়তানী মার্কা হাসি দিল শান্ত।

রাগ করতে গিয়েও পারলাম না…স্ক্রিনের দিকে চোখ পড়তেই সব ভুলে সবাই মিলে তাকিয়ে রইলাম…নীল ব্যাকগ্রাউন্ডে তোলা ছবিটা আমাদেরকে যেন মন্ত্রমুগ্ধ করে ফেলেছে। নিচে মডেলেও নামটাও পরিষ্কার পড়া যাচ্ছে-
‘ওয়ালথার পিপি কে’…!!!

২,২৪৩ বার দেখা হয়েছে

৩১ টি মন্তব্য : “ফোল্ডার অপশন/ ভিউ/ শো হিডেন ফাইল্‌স এন্ড ফোল্ডার্‌স…!!!”

  1. কামরুলতপু (৯৬-০২)

    প্রথম থেকেই ভাবতেছিলাম কি হইতে পারে। জুনা ভাই বলে কথা। আমি অবশ্য পারিনাই আমি ভাবছিলাম বাইক এর কথা বলতেছেন।
    জুনা ভাই আপনার টুইস্টগুলা এখন সবাই আগেই বুঝে ফেলছে এখন বরং আপনি উলটা ট্রাই করে দেখতে পারেন। সবাই অন্য কিছু ভাবব কিন্তু পরে দেখা যাইব যেটা ভাবার কথা ছিল ঐটাই।

    জবাব দিন
  2. ক্যাডা জুনা ভাই নাকি? :grr:
    ম্যালাদিন পরে আবার আসলেন। কত দিনের ছুটিতে সিসিবিতে আসলেন?

    জুনা ভাই তো মেহমান মানুষ (কপিরাইট: কামরুল ভাই), বছরে একবার আসেন। তাই জুনাভাইর নামের পাশে অতিথি ট্যাগ লাগানোর তীব্র দাবী জানাই। :grr: :grr: :grr:

    জবাব দিন
  3. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    কেডা জিনা ভাই নাকি? অন্যদের মতো আমিও টুইস্টের জন্য রেডি ছিলাম 😀 ... তবে কি হইতে পারে তা বুঝতে পারি নাই।

    জুনা ভাই তো মেহমান মানুষ (কপিরাইট: কামরুল ভাই), বছরে একবার আসেন। তাই জুনাভাইর নামের পাশে অতিথি ট্যাগ লাগানোর তীব্র দাবী জানাই। :grr: :grr:


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  4. সানাউল্লাহ (৭৪ - ৮০)
    জুনা ভাই তো মেহমান মানুষ (কপিরাইট: কামরুল ভাই), বছরে একবার আসেন। তাই জুনাভাইর নামের পাশে অতিথি ট্যাগ লাগানোর তীব্র দাবী জানাই।

    ঐ B-)


    "মানুষে বিশ্বাস হারানো পাপ"

    জবাব দিন
  5. কামরুল হাসান (৯৪-০০)

    তোরে আগেই কইছিলাম, সিসিবির লুকজন বহুত চালাক হইয়া গ্যাছে ! 😀


    ---------------------------------------------------------------------------
    বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
    ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।