আমার এই পোষ্টাতে সবাই থু দিয়ে যান।।

ঘুমাইছিলাম, স্বপ্নে দেখলাম আমি ইয়াহিয়ারে থু দিতাছি। ঘুম ভাঙ্গার পর মনে হইল সব গুলারে যদি থু দিতে পারতাম! নেট ঘাইট্যা খুজলাম সব শু***গুলারে, তারপর আমি ইচ্ছামতন মনে মনে থু দিলাম, আপনারাও দেন, জামাতে।

সবার আগে এই শু***গুলারে
তারপর এই শু***গুলারে

সবচেয়ে বেশি এইটারে
সবচেয়ে বেশি এইটারে

আর এইটারে
টিক্কা খান।

তারপর… এই মহান প্রফেসর গোলাম আজম।
খুন করতে মঞ্চায়
এইটা দেখেন
!!

এই বেজন্মাটারে…বেজন্মা

এই পশুটারে…
সাকা একটি পশুর নাম

অখন্ডতারে থু…থু

চেনেন এইটারে??
হারামজাদা মইর‌্যা গেছে।

এই রকম একটা পোস্টারের বড় প্রয়োজন আজ থু দেওয়ার জন্য…
এই রকম একটা পোস্টারের বড় প্রয়োজন আজ থু দেওয়ার জন্য

অনেকের ছবি পাইলাম না, নামের লিষ্টেই থু মারি।।
1
2
3
4
5
6

এইরকম আরো শত শত বাংলাদেশি-পাকিস্থানী রাজাকার, আলবদর, আল শামস… মোট কথা যারা আমাদের জন্ম হোক, তা চায়নি, তাদের প্রতি রইল আমার তীব্র ঘৃণা- যার প্রতিক স্বরুপ আমার এই থু দেওয়ার পোষ্ট।।

২,৪১৬ বার দেখা হয়েছে

২৮ টি মন্তব্য : “আমার এই পোষ্টাতে সবাই থু দিয়ে যান।।”

  1. নূপুর কান্তি দাশ (৮৪-৯০)

    থু তে কাজ হবেনা।
    থু-র অবমাননা হবে।
    যারা বেঁচে আছে তাদের গুলি করে মারতে পারলে কাজ হতো।
    অন্তত একটা মারা পড়লে বাকীদের ঘুম হারাম হয়ে যেতো নির্ঘাত।
    justice তো বহু আগেই delayed হয়ে denied শুধু না, dead হয়ে ভুত হয়ে গেছে।

    জবাব দিন
    • কিবরিয়া (২০০৩-২০০৯)
      justice তো বহু আগেই delayed হয়ে denied শুধু না, dead হয়ে ভুত হয়ে গেছে।

      :thumbup: ::salute::


      যেমন রক্তের মধ্যে জন্ম নেয় সোনালি অসুখ-তারপর ফুটে ওঠে ত্বকে মাংসে বীভৎস ক্ষরতা।
      জাতির শরীরে আজ তেম্নি দ্যাখো দুরারোগ্য ব্যাধি - ধর্মান্ধ পিশাচ আর পরকাল ব্যবসায়ি রূপে
      - রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ

      জবাব দিন
    • কিবরিয়া (২০০৩-২০০৯)

      নুপুর ভাই, মাঝে মাঝে খুব আসহায় লাগে, কেমন যেন এক রাগে মাথায় বিস্ফোরন ঘটে এই ভেবে যে, আমরা এইসবগুলোরে বিচারের মুখোমুখি করতে পারলাম না আজো। তাদের অনেকেই মারা গেছে বাকিগুলাও যাবে কয়েক বছর পরে, কিন্ত তারা সবাই এই স্বাধীন দেশটার হাওয়া-বাতাসে স্বাধীনভাবে ( অনেকেই রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি' সহকারে) জীবন কাটায় গেল আর আমরা শুধু চেয়ে চেয়ে দেখলাম। এক ব্যার্থ প্রজন্মের একজন হয়ে নিজের কাছেই ছোট হয়ে যাই বর্তমান অবস্থা দেখে। কতদিন আর স্বপ্নে দেখবে একটা সম্পূর্ন জাতি ??

      আমার বাসার পাশে একজন মুক্তিযোদ্ধা ভ্যান চালায় আর আমার ওই এলাকার (গাইবান্ধা-১ সুন্দরগঞ্জ) সাংসদ (গতবারের) একজন রাজাকারের লিডার, নাম মাওলানা আব্দুল আজিজ ( মুক্তিযুদ্ধের সময় সে মুক্তিযোদ্ধা মনে করে একটা ঘোড়া গুলি করে মেরে ফেলেছিল, তারপর থেকে তার নাম "ঘোড়ামারা আজিজ")। আমি যখন মাঝে মাঝে মুক্তিযোদ্ধাটার সামনে দিয়ে যাই এমনেতেই আমার মাথাটা নিচু হয়ে যায়- আর তার ভাবলেশহীন চাহনিতে আমাদের জন্য যে অবজ্ঞা থাকে তা আমাকে ছোট করে দেয়।

      সরকার আসে, সরকার যায়- আর আমরা স্বপ্ন দেখি বারেবারে। এইবার স্বপ্ন ভাঙ্গুক- আর কয়েক বছর পর যখন রাজাকার-আল বদরেরা সবাই ওইপারে বেহেস্তে থাকবে তখন আমরা হয়তোবা হাত কামড়াব। বাংগালীরা কি সঠিক সময় কখোনই বেছে নিতে শিখবে না!?


      যেমন রক্তের মধ্যে জন্ম নেয় সোনালি অসুখ-তারপর ফুটে ওঠে ত্বকে মাংসে বীভৎস ক্ষরতা।
      জাতির শরীরে আজ তেম্নি দ্যাখো দুরারোগ্য ব্যাধি - ধর্মান্ধ পিশাচ আর পরকাল ব্যবসায়ি রূপে
      - রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ

      জবাব দিন
  2. সাবিহা জিতু (১৯৯৩-১৯৯৯)

    সবাইরেই থু থু। কিন্তু কোন দেশের পতাকাকে এভাবে অসম্মান করাটা (সে যে দেশেরই হোক না কেন) কোন স্বাধীন সর্বভৌম সভ্য দেশের সচেতন নাগরিকদের জন্য কতটুকু যুক্তিযুক্ত এটা নিয়ে কিছুটা সন্দিহান আছি।


    You cannot hangout with negative people and expect a positive life.

    জবাব দিন
  3. আয়েশা ( মগকক) আয়েশা

    দেশ থেকে একটা পতাকা বানিয়ে এনেছিলাম, খুব যত্ন করে রাখা হয় সেটা, সেটা ছুয়ে দিলে গোটা বাংলাদেশকে যেন অনুভব করতে পারি. নিজের পতাকাকে এত্ত বেশি ভালবাসি যে অপরের পতাকাকে কখনো ঘৃনা করতে পারবনা.
    বলাবাহুল্য-
    ঘৃণিত অত্যাচারী ও রাজাকারদের জন্য শুধু "থু"-ই যথেষ্ঠ নয়.

    জবাব দিন
  4. আহসান আকাশ (৯৬-০২)
    থু তে কাজ হবেনা।
    থু-র অবমাননা হবে।
    যারা বেঁচে আছে তাদের গুলি করে মারতে পারলে কাজ হতো।
    অন্তত একটা মারা পড়লে বাকীদের ঘুম হারাম হয়ে যেতো নির্ঘাত।
    justice তো বহু আগেই delayed হয়ে denied শুধু না, dead হয়ে ভুত হয়ে গেছে।

    :thumbup: :thumbup:


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  5. ফয়েজ (৮৭-৯৩)

    আমার ধারনা পতাকাটাকে সরিয়ে ফেলা উচিৎ। পাকিস্থানেও অনেকেই আছেন যারা ৭১ এর গনহত্যা নিয়ে সোচ্চার, বাংলাদেশের কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা চেয়েছেন, এবং এর বিচার চান, এই সংখ্যাটা কিভাবে বাড়ানো যায় তা নিয়েও কাজ হচ্ছে।

    যে নিজের পতাকাকে সম্মান করে, সে অন্যের পতাকাকে, আর যাই হোক অসম্মান করতে পারে না।


    পালটে দেবার স্বপ্ন আমার এখনও গেল না

    জবাব দিন
  6. মইনুল (১৯৯২-১৯৯৮)

    ব্যাক্তিগতভাবে আমি এই লোকগুলোর মৃত্যুদন্ডের পক্ষপাতি নই। আমার উইস লিস্টে আছে, এদের একটা চিড়িয়াখানা টাইপের জায়গাতে নিয়ে রাখা হোক। প্রতি বিকেলে টিকিট কেটে লোকজন এদের দেখতে যাবে। সেখানে ন্যায্যমূল্যে বিভিন্ন কাঁচা বাজারের বাতিল করা সবজি কিনতে পাওয়া যাবে। সেগুলো দিয়ে সবাই একটু টার্গেট প্র্যাক্টিস খেলবে। একটু উচ্চমুল্যে ভি আই পি টিকিটের ব্যবস্থা রাখা যেতে পারে। এই টিকিট কিনলে পছন্দসই কাউকে দুটো চটকানা মেরে আসা যাবে। :dreamy: :dreamy: :dreamy: আমার বিশ্বাস সরকারের জন্যে এই প্রজেক্ট বেশ লাভজনক হবে।

    তবে দুঃখজনক হলেও সত্য, এরা বেচে থাকা মানেই সমস্যা তৈরী করার সুযোগ রাখা। তাই আর কি করা ---- রাজাকারদের মৃত্যুদন্ড চাই।

    জবাব দিন
    • কিবরিয়া (২০০৩-২০০৯)
      ছয়মাস পরে

      কঙ্কি?? 😮

      আপ্নে ছয়মাস সি সি বি ছাড়া থাকলেন কেমনে?!


      যেমন রক্তের মধ্যে জন্ম নেয় সোনালি অসুখ-তারপর ফুটে ওঠে ত্বকে মাংসে বীভৎস ক্ষরতা।
      জাতির শরীরে আজ তেম্নি দ্যাখো দুরারোগ্য ব্যাধি - ধর্মান্ধ পিশাচ আর পরকাল ব্যবসায়ি রূপে
      - রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ

      জবাব দিন
  7. তাইফুর (৯২-৯৮)

    ধুর ...
    থু দিতে গিয়া নিজের ল্যাপটপের মনিটরেই একদলা থুতু ফেললাম ...
    এরামই হয় ...
    এদের কিছুই হয় না ...
    আমার মনিটর নষ্ট হয় ...


    পথ ভাবে 'আমি দেব', রথ ভাবে 'আমি',
    মূর্তি ভাবে 'আমি দেব', হাসে অন্তর্যামী॥

    জবাব দিন
  8. aapnara golam ajam namak kuttaka kano eeto din bachiya khaiya daiya rajar hala rakachan. eeder khapa kukur jamon marta hoi tamni martay hobay, eekdin bangladesh television e golam ajam namak ek buro kuttar interview hocchilo, takhon aami bhab chilam kon sahasay tar interview newa hocchay, eeder gola tipay mukhay bish diya marta hoi

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।