সিসিবি জিটুজিঃচুয়াডাঙ্গা চ্যাপ্টার(মালসিংহীয় পোস্ট)

চাকুরিতে ঢুকার পরে সিসিবি জিটুজিতে আর যাইতে পারিনা।২০১১ এর আগে যখন নিজেরা জিটুজি করার সময় লাইভ ব্লগ, ফটোব্লগ ইত্যাদি দিয়া প্রবাসী এবং উপস্থিত হইতে না পারা সবার কাটা ঘায়ে নুনের ছিটা দিতাম-এখন আমি নিজেই তার শিকার।আমারে ফাঁকি দিয়া জিতুপি ইচ্ছা মত জিটুজি করে,আমি খালি তাকায় তাকায় দেখি।

কিন্তু আপনাদের মাস্ফ্যু কি আর বইসা থাকার পাত্র? আপনারা জিটুজি করবেন আর আমি খালি ছুপারুস্তমের মত বিরাট কইরা “দেগ-ঘ-শাঁস” ফেলুম সেইটা হইতে পারেনা।কাজেই,দুইদিন আগে ফরিদ ভাই(সিকক,৯৫-০১) যখন চুয়াডাঙ্গা আসার ঘোষণা দিলেন-আমিও ঝোপ বুইঝা কোপ মেরে দিলুম ;;;

ফরিদ ভাইয়ের কেরু মদ কোম্পানি পরিদর্শন(সম্ভবত আকন্ঠ পান,আমি শিউর না-উনি মাতাল হইলেও খুব ভদ্র মাতাল মনে হয়-আমার সামনে মাতলামি করেন নাই),দর্শনার বিখ্যাত “আল্লাহর দান” হোটেলের ভাজা মাংস-ভাত ভক্ষন এবং সবশেষে থানা পরিদর্শন।

হোটেলে উনাকে যখন বললাম, “খাওয়া হইলে আপনেকে আর আপনার বন্ধুকে থানায় নিয়া যামু”-উনি আমার দিকে মোটামুটি “এই-কেঁদে-ফেললাম-কিন্তু” মার্কা একটা “লুক”(Look) দিলেন। “না রে,আইজকা থাক-আরেকদিন যামুনে”-বইলা যতই উনি চাপাচাপি করেন না কেন,থানায় উনাকে যাইতেই হইছিলো,তাও পুলিশের গাড়িতে চইড়াই।ইচ্ছা ছিলো হাজতেও ঘন্টাখানেক রাখার,কিন্তু বাস ধরতে পারবেননা এই কথা বইলা পার পায়া গেছেন।

সিসিবি চুয়াডাঙ্গা চ্যাপ্টারের জিটুজি স্পটঃ দামুড়হুদা মডেল থানা

দর্শনা কেরু কোম্পানি ওয়াইন ডিস্টিলারির ঠিক বাইরে...আমি আর ফরিদ ভাই!

সব মিলায়ে,চুয়া্ডাঙ্গায় সিসিবির জিটুজিটা খারাপ হয়নাই।এট লিস্ট,আপনারা সবাই পার্ট নিয়া কইতে পারবেন-আমরা থানার মত জায়গাতেও জিটুজি করি! :gulli2: :gulli2: :duel:

২,৩৫৮ বার দেখা হয়েছে

২৫ টি মন্তব্য : “সিসিবি জিটুজিঃচুয়াডাঙ্গা চ্যাপ্টার(মালসিংহীয় পোস্ট)”

  1. নাজমুল (০২-০৮)

    আমরাও সেদিন করলাম 🙂
    তবে সিসিবির নিয়ম অনুযায়ী ২/৩ জন মিলে যে গেদারিঙ হয় তাকে তাকে জিটুজি বলা হয়না এবং হবেনা।
    কমপক্ষে ৪ জন কিংবা এর অধিক লোক প্রয়োজন।
    ধন্যবাদ।

    জবাব দিন
  2. আমিন (১৯৯৬-২০০২)

    দুইজনে কোন জিটুজি হইলো নাকি। তাইলে তো আমরা (আমি আর তারকা দম্পতি) প্রতি সপ্তাহেই জিটুজি করি। 🙂

    পোস্ট ভালো পাইলাম মাস্ফ্যু। সব পুরানরা আইয়া পড়তাসে আবার। ভালো লাগতাসে।

    জবাব দিন
  3. ফরিদ (৯৫-০১)

    এইটা শুধু G2G ই ছিল না। 🙂
    ভাই ও বোনেরা আমার, এইটা ছিল ২ টা আলাদা এলাকায় বসবাসরত, ভিন্ন ভিন্ন পেশা’র, আলাদা আলাদা বয়সী, দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে অবস্থিত , ভিন্ন সময়ে স্থাপিত ক্যাডেট কলেজের সাবেক শিক্ষার্থীদের জন্য এক অনুকরণীয় মিলন মেলা। 😀
    (সম্পাদিত)

    জবাব দিন
  4. মনজুর (৮৯-৯৫)

    ইক্কেরে মালসিংহীয় জিটুজি.. 🙂
    চুয়াডাঙ্গার ১০ কিমি পেরিফেরির মধ্যে কোনও ক্যাডেটের পদার্পন ঘটামাত্র এইরাম জিটুজি তে অংশগ্রহণ ক্যাডেটদের সাংবিধানিক দায়িত্বের মধ্যেই পড়ে। 😛

    জবাব দিন
  5. রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

    যামু একদিন তোর থানায় জি২জি করতে। আমার দুই মাইয়ারেও সাথে নিমু।


    এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।