আরো একটা বিলম্বিত সুসংবাদ…(উইথ ভিডিও লিঙ্ক)

ইয়ে,কামরুল ভাই আমাদের হিট সায়েন্টিস্ট রায়হান আবীরের সাফল্যের সুখবর ছবিসুদ্দা দিয়া পার্ট নিতেছেন দেইখা আমার একটু হিংসা হইছে।তাই আমি ঠিক করছি কিছুটা বিলম্বিত হইলেও(এবং কারো কারো খবরটা জানা হইলেও) সুসংবাদটা সবাইকে জানাই।

সারা বিশ্বের প্রায় আড়াই লাখ প্রতিযোগীকে পিছনে ফেলে ইএসপিএন-স্টার স্পোর্টস ফ্যান্টাসি ফুটবল লীগে এবছর চ্যাম্পিয়ন হইছেন সিসিবি এবং বাংলাদেশের গর্ব আমাদের হাসান ভাই(এফসিসি,১৯৯৬-২০০২ ব্যাচ)। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুবাদে তিনি কিছুদিন আগে সিঙ্গাপুর ঘুরে এসেছেন এবং প্রাইজমানি হিসেবে ২৫০০ ডলার পেয়েছেন।সবচাইতে বড় কথা, ফুটবলে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার পতাকা নিয়ে লাফালাফি করা বাংলাদেশীদেরকে তিনি এই প্রথম আমাদের নিজেদের পতাকা নিয়ে ফুটবলমঞ্চে লাফালাফি করার সুযোগ করে দিয়েছেন।

ছবিসহ কালের কন্ঠের পুরো রিপোর্ট পাবেন এখানে
বড় কামরুল ভাই যেমন রিপোর্ট থেকে কিছুটা তুলে দিয়েছেন,আমিও উনাকে নকল করে হাসান ভাই সম্পর্কে ফিচারে কি বলা হয়েছে তা একটু তুলে ধরিঃ

হাসান এখন
ফৌজদারহাট ক্যাডেট কলেজ থেকে মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক আর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগ থেকে স্নাতকোত্তর পাস করে কামরুল হাসান এখন সিনিয়র সাব এডিটর হিসেবে কাজ করছেন ইংরেজি দৈনিক দ্য ডেইলি সানে। ক’দিন আগেও কামরুল হাসানের দুঃখ ছিল কোথাও কখনো প্রথম হতে পারেননি বলে। এখন আর তা নেই। কেন, জানতে চাইলে মুচকি হেসে হাসানের পাল্টা প্রশ্ন, ‘আন্তর্জাতিক অঙ্গনে চ্যাম্পিয়ন হয়ে লাল-সবুজের ওই পতাকা ওড়ানোর মতো গর্বের আর কিছু কি হতে পারে?’ উত্তরটা বোধ করি পাঠকদের বলে দিতে হবে না।

শুধু তাই না,সারাজীবনে একরার ক্যামেরায় ভালোভাবে খোমা দেখাইতে না পারা এই আমার কষ্ট হাসান ভাই(ওরফে ছোট কামরুল ভাই 😀 ) দূর করছেন এই টিভি সাক্ষাতকারে-আমি পারিনাই তো কি হইছে,আমার ইমিডিয়েট সিনিয়র একজন তো পারছেন 😀 প্রিয় পাঠক-পাঠিকা,দেখেন নায়কসাব কি সোন্দর সাক্ষাৎকার দিছেন…নাহ,হাসান ভাই আসলেই ছেলিব্রিটি হয়া গেছেন… :boss:

আজকে বাংলাদেশের সবচাইতে বড় দুইটা জাতীয় দৈনিক “প্রথম আলো” আর “কালের কন্ঠ” সিসিবির দুইজন ব্লগারের সাফল্য উপলক্ষে ফিচার দিয়েছে-এই কারণে গর্বের চোটে আমি খেয়াল করলাম আমার মাথা উঁচু হইতে হইতে ছাদে গিয়া ঠেকছে B-)

সিসিবির সদস্যরা এঁদের মত করেই একের পর এক এই অভাগা দেশটার মুখ উজ্জ্বল করে চলুক এই কামনা করছি।সেলাম আপনাদের! :salute:

৩,৪৫৯ বার দেখা হয়েছে

৭৮ টি মন্তব্য : “আরো একটা বিলম্বিত সুসংবাদ…(উইথ ভিডিও লিঙ্ক)”

  1. কামরুল হাসান (৯৪-০০)

    ধুর, খেলুম না।
    ছোট ভাই সব বিখ্যাত হইয়া যাইতেছে আর আমি যেই লাউ সেই কদুই রইয়া গেলাম।
    কামরুল হারামিটারে কইষা মাইনাচ। বড়সড় মাইনাচ।


    ---------------------------------------------------------------------------
    বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
    ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

    জবাব দিন
  2. মাহমুদ (১৯৯০-৯৬)

    অভিনন্দন, কামরুল হাসান। অনেক অনেক অনেক।

    - সিসিবি ত সেলিব্রিটিতে ভইরা যাইতাছে B-)


    There is no royal road to science, and only those who do not dread the fatiguing climb of its steep paths have a chance of gaining its luminous summits.- Karl Marx

    জবাব দিন
  3. সাবিহা জিতু (১৯৯৩-১৯৯৯)

    বাংলাভিশনের প্রগ্রামটা একটুর জন্য মিস করলাম সেদিন। পরে ভিডিও ফুটেজটা দেখার পর যারপরানই আনন্দিত হইলাম।আমার মেয়ে বলে উঠলো, "এই মামাটা আমাদের বাসায় আসছিলো"। রাজন, তোর জন্য অনেক অনেক শুভকামনা।


    You cannot hangout with negative people and expect a positive life.

    জবাব দিন
  4. ফয়েজ (৮৭-৯৩)

    হাসান শুধু বলে জাহিদ ভাইয়ের টিপস কাজে লাগাইছি, জাহিদ ভাইয়ের টিপস কাজে লাগাইছি, কিন্তু জাহিদ ভাই তারে কি টিপস এইটা আর কয় না।

    হাসানরে মাইনাস :thumbdown:

    কামরুলঃ জাহিদ রে কও পোস্ট দিতে, মেলা মেলা টিপস দিয়া, লাড্ডু-গুড্ডু হইতে আর ভালো লাগে না।


    পালটে দেবার স্বপ্ন আমার এখনও গেল না

    জবাব দিন
  5. রুম্মান (১৯৯৩-৯৯)

    :hatsoff: :hatsoff: :hatsoff:


    আমার কি সমস্ত কিছুই হলো ভুল
    ভুল কথা, ভুল সম্মোধন
    ভুল পথ, ভুল বাড়ি, ভুল ঘোরাফেরা
    সারাটা জীবন ভুল চিঠি লেখা হলো শুধু,
    ভুল দরজায় হলো ব্যর্থ করাঘাত
    আমার কেবল হলো সমস্ত জীবন শুধু ভুল বই পড়া ।

    জবাব দিন
  6. কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)

    ছবি খবর সবই আগে জানতাম, দেখসি 🙂
    দেখতে দেখতে পুলাটা বড় হইয়া গেলো
    কলেজের সেই পুচকা হাসান, আর এই সেলিব্রিটি হাসান 😀 লায়ন্স লায়ন্স আপ আপ :thumbup: :thumbup:


    সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

    জবাব দিন
  7. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    প্রথম দিন বাংলাভিশনে তোর প্রগ্রাম দেখতে গিয়ে দেখি তোর বদলে ম্যাডাম জিয়াকে দেখাচ্ছে 😛 পরে আর দেখা হয়নি, ফেসবুকে দেখে নিয়েছি

    ৯৬-০২ রক্করে 😀


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।