ফ্লার্ট নিয়ে কথকতাঃ

ফ্লার্ট করা কি তা এই ব্লগের ইঁচড়ে পাকা জুনিয়র পোলাপাইন থেকে শুরু করে সম্মানিত বড় ভাইয়েরা-মোটামুটি সবার নখদর্পনে।আর ইয়ে মানে আমার পড়াশুনাটা যেহেতু দেশের নামকরা ডিজুস ইউনিভার্সিটি এন এস ইউতে-তাই মিলিটারি একাডেমি থেকে “ম্যায় হু না” এর মেজর রামের মত সরাসরি নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির চক্করে পড়া এই আমার ফ্লার্টিং নিয়ে অভিজ্ঞতার ঝুলিটাও একেবারে খালি না।আপনারা জানেন যে আপনাদের মাস্ফ্যু অতি ভদ্র ছেলে তাই ব্যক্তিগত জীবনে তার ক্যারিয়ারে কালো দাগ নাই বললেই চলে।কিন্তু আশে পাশের রথী-মহারথীদের কীর্তি কাহিনী এবং চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য কখনো কখনো এতই বিনোদন-উদ্দীপক ছিল যে ভাবলাম কিছু কিছু শেয়ার করি আপনাদের সাথেঃ

১)জাতীয় ভাইয়া-আমাদের কাশেম ভাই ছিলেন পুরা রোমিও টাইপ।প্রতি সেমিস্টারে ক্যাম্পাসে কোন ডিপার্টমেন্টে কোন সুন্দরী তরুনীর আগমন ঘটেছে সে ব্যাপারে উনার জ্ঞান ছিল অনেকটা কিংবদন্তী পর্যায়ের।আশ্চর্যের বিষয়-সেই সব তরুনীদের সাথে কিভাবে কিভাবে জানি উনার ভাবও হয়ে যেত।কিছুদিন উনাকে বেশ লাজুক মুখে ঘুরতে দেখা যেত ওই তরুনীর সাথে-একসাথে গ্রুপ ডিসকাশন আর এসাইনমেন্ট সল্ভিং হত লাইব্রেরিতে-এবং সবচাইতে উল্লেখযোগ্য যেটা হত-এক মাসের মধ্যে সেই মেয়ে উনাকে “ভাইয়া” বানিয়ে ফেলত।”ভাইয়া এ হচ্ছে আমার বয়ফ্রেন্ড মোকসেদ-মোকসেদ,ইনি হচ্ছেন কাশেম ভাই-আমার তো নিজের ভাই নেই তাই উনাকেই আমি সেরকম মনে করি-ইউ নো হি ইজ সোউউউউ হেল্পফুল!”

প্রতিবার কাশেম ভাই এ কথা শোনার সময় ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক হিসেবে কাঁচ ভাঙ্গার শব্দ শোনা যেত কিনা তা অবশ্য আমরা কেউ জিজ্ঞাসা করিনি।

২)লিফটম্যান প্রেজেন্টেশনের দিন বিজনেস এডমিনস্ট্রেশনের মেয়েরা শাড়ি পড়ে বেশ সেজেগুজে আসে ক্লাস করতে।এরকম দিন আবার আমাদের বাতেন ভাইয়ের জন্যে পুরা ঈদের দিন।ফাইনাল ইয়ারে উঠে প্রেজেন্টেশনের এই কোর্স গুলা বহু আগেই করে ফেলা আমাদের বাতেন ভাইও সেদিন স্যুট টাই লাগিয়ে এমন একটা ভাব করেন যেন এই দিন একসাথে উনার ৫ টা প্রেজেন্টেশন পড়েছে।প্রতি ক্লাসে ব্রেকের সময় প্রেজেন্টেশনে যোগ দিতে দলে দলে সুন্দরী লিফটে করে বিল্ডিঙ্গের বিভিন্ন তলায় যেতে থাকে-আর “লিফটম্যান” হিসেবে দেখা যায় বাতেন সাহেবকে।লিফটে ওঠানামার সময় প্রথম বা দ্বিতীয় সেমিস্টারের ভীরু হরিনীর মত নার্ভাস তরুণীদেরকে “আরে এগুলো কোন ব্যাপার না-অমুক স্যার প্রেজেন্টেশনে ভাল নম্বর দিয়ে থাকেন,এই স্যারের প্রেজেন্টেশনে হাত বেশি নাড়াতে হয়না” এসব মহামূল্য(??) টিপস বিনামূল্যে দিতে থাকেন।উনার আসল উদ্দেশ্য থাকে কোনমতে একবার সুন্দরীর মোবাইল নম্বর যোগাড় করা-দয়া দাক্ষিণ্য করে কেউ ফোন নম্বর ভুলেও যদি দিয়ে থাকে তাহলে বাতেন ভাইয়ের চেহারায় আসল ঈদের চাইতেও বেশি আনন্দের ঝলক দেখা যায়।

এরকম লিফটম্যানগিরি করে বাতেন ভাইয়ের খারাপ চলছিল না শুধু একদিন বাদে।সেদিন লিফটে “দোস্তানার” প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার চাইতে অল্প একটু শালীনতর ভঙ্গিতে লো কাট শাড়ি পরা এক তরুনী্র সাথে বাতেন ভাই সেদিন পুরো জমিয়ে ফেলেছেন-লিফট গন্তব্যে পৌঁছবার অল্প একটু আগে যথারীতি ফোন নম্বরও চেয়ে বসলেন।তরুনী এতক্ষণ খুব বেশি কিছু বলেন নি,বাতেন ভাই কোন কোন কোর্স নিয়েছেন তা-ই শুধু জানতে চেয়েছেন।ফোন নম্বর চাইতেই মৃদু হেসে তিনি তাঁর হাতের বান্ডিল থেকে একটা কাগজ ধরিয়ে দিয়ে বললেন-“থ্যাঙ্কস ফর ইয়োর কাইন্ড টিপস এবাউট দা প্রেজেন্টেশন বাট আই থিঙ্ক ইউ হ্যাভ বার্কড এট দা রঙ ট্রি।আই এম মিসেস আরজেএফ- এন্ড আই এ্যাম গোইং টু টেক ইয়োর বিজনেস কমিউনিকেশন ক্লাস।হিয়ার ইজ মাই কোর্স আউটলাইন হোয়্যার ইউ উইল গেট মাই অফিস এক্সটেনশান নাম্বার।আই উইল বি ওয়েটিং ফর ইয়োর প্রেজেন্টেশন”

সেই বিজনেস কমিউনিকেশন কোর্সে বাতেন ভাই কি গ্রেড পেয়েছিলেন তা শত চেষ্টাতেও উনার মুখ থেকে আমরা বের করতে পারিনি।

এইবার একেবারে জীবন থেকে নেয়া একটা ঘটনা বলি।ফেসবুকে আমার সাথে আমার প্রিয় বান্ধবী ভোটকীর খুব সুন্দর কিছু ছবি আছে।আমার সমবয়েসি সেই বান্ধবী সব বিয়েতে সিন্ডেরেলা টাইপের সাদা একটা খ্রিষ্ঠান বিয়ের গাউনের মত স্কার্টজাতীয় পোশাক পড়ে।এত বড় বয়েসেও বাচ্চাদের মত পোশাক কেন পড়ে এটা নিয়ে প্রায়ই ছবির কমেন্টে তাকে আমি পচানোর চেষ্টা করি।কিন্তু চেষ্টা করলে কি হবে-এই ব্লগের একজন নিয়মিত আমার সেই বান্ধবীকে সাপোর্ট দিয়ে যান-“নাহ,মিস “*** ” চমৎকার পোশাক এটা-মাস্ফ্যু জানেনা,ওর রুচি নাইক্কা ইত্যাদি ইত্যাদি…” ~x( ~x(

উনি যে দেখতে শুনতে বেশ সুন্দরী আমার এই বান্ধবীটার সাথে “ফেলার্ট” করার অপচেষ্টা করছেন তা আমি বিলক্ষণ জানি এবং এইটা নিয়ে নিয়মিত উনাকে পচাই।আমার সেই বান্ধবীও এইটা টের পেয়ে “গরররররররর” টাইপ একটা শব্দ করে তার রাগ প্রকাশ করতেই উনি সুবোধ ছেলেটার মত লিখে দিয়েছিলেন-“ওহ,ছরি” :-B

অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী,আমার সবচাইতে প্রিয় বান্ধবীটার সাথে ফ্লার্টের অপচেষ্টাকারী এই লোকটাকে আমি খুব পছন্দ করি-ফ্লার্ট করতে গিয়ে ধড়া পড়ে উনার কাঁচুমাচু মুখ মনে পড়লেও অনাবিল আনন্দে আমার মন ভরে ওঠে।

যেই লোকের কথা বলছি তিনি হলেন সাব্বির ভাই(৯৫-০১),আর আজ উনার জন্মদিন।অস্ট্রেলিয় ললনাদের সাথে ফ্লার্টিংএ উনি দুর্দান্ত ছক্কা পিটিয়ে সেঞ্চুরি করুন,এইডস জাতীয় ভয়ংকর রোগ থেকেও নিজেকে বাঁচিয়ে রাখুন-জন্মদিনে আসুন সবাই এই কামনা করি।

শুভ জন্মদিন,সাব্বির ভাই!!! :party: :party: :party:

৫,৫৮০ বার দেখা হয়েছে

৭৩ টি মন্তব্য : “ফ্লার্ট নিয়ে কথকতাঃ”

  1. কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)

    হ্যাপি বার্থডে সাব্বির, যা গিয়া অপেরা হাউজের সাথে লঙ্গাপ হয়ে থাক এখন :grr: :grr:

    জামাই, লেখা ভাল হইছে। সো বুঝতেইতো পারতেছোস :grr: বেঙ্গল ক্যাফের ওয়ালের লগে :grr: :grr:


    সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

    জবাব দিন
  2. রকিব (০১-০৭)

    ভাবতাছি সাব্বির ভাইয়ের কাছে একটা শর্ট কোর্স করমু।
    শুভ জন্মদিন সাব্বির ভাই। :awesome: :guitar: :goragori:


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  3. নাজমুল (০২-০৮)

    হেপি বাড্ডে সাব্বির ভাই :awesome: :awesome:
    আজকে আমার কলেজ ভাই এর জন্মদিন :guitar:
    আনি সুদূর অষ্ট্রেলিয়া থেকে আমার জন্য আই পড পাঠিয়েছিলেন যার ক্ল্যাণে আজ আমি বাসে গান শুন্তে পারি :goragori:
    সাব্বির ভাই বস হেপি বার্থ ডে :goragori: :party:

    জবাব দিন
  4. সাব্বির (৯৫-০১)

    ম্যাস্ফু এইটা তুই কি করলি :bash: :bash:
    এত দিন ধইরা তিলতিল করে গোরে তোলা আমার ফুলের মত চরিত্র টা ধুলায় মিশাইয়া দিলি।
    সবাই তো ঘটনা সত্য মনে করবে। কাইয়ুম ভাই ছুটি দিলে আমার কাছে আসবি। তোর বডির সিভিল পানিতে ঢাকা শহরে বন্যা বানাইয়া দিমু 😡 😡
    অ ট আমার বাড্ডে নিয়া পোষ্ট দিছস তাই ১ মিনিট পাঙ্গা মাফ

    জবাব দিন
  5. দিহান আহসান

    হেপি বাড্ডে সাব্বির ভাইয়া :party: :party:
    বালা হইয়া যাও, :-B

    যাইজ্ঞা একটা গান শুইনা যাও
    হেপী বাড্ডে টু ইউ, হেপী বাড্ডে টু ইউ,
    হেপী বাড্ডে , হেপী বাড্ডে ....
    হেপী বাড্ডে টু ইউ ......... :guitar: :guitar:

    এইবার ডান্স দাও একটা ম্যাশ পটেটো'র সাথে। :awesome: :awesome: :tuski: :tuski:

    জবাব দিন
  6. কামরুল হাসান (৯৪-০০)

    সাব্বির শুভ জন্মদিন।
    জামাইরে নিয়া তিন প্রহরের বিল দেইখা আয়। :grr:

    জামাই
    এখনো লঙ্গাপ হস নাই? :grr:


    ---------------------------------------------------------------------------
    বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
    ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

    জবাব দিন
  7. রাহাত (২০০০-২০০৬)

    প্রথমত, Happy Birthday সাব্বির ভাই।

    তাই মিলিটারি একাডেমি থেকে “ম্যায় হু না” এর মেজর রামের মত সরাসরি নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির চক্করে পড়া

    আমার অবস্থা এই রকমই। আমি Flirt এর আসল মিনিং শিখছি গত ২২ আগস্ট দিবাগত রাতে। 🙁 🙁 🙁
    মাসরুফ ভাই, লেখাটা অসাধারণ হইছে। :thumbup:

    ফোন নম্বর চাইতেই মৃদু হেসে তিনি তাঁর হাতের বান্ডিল থেকে একটা কাগজ ধরিয়ে দিয়ে বললেন-”থ্যাঙ্কস ফর ইয়োর কাইন্ড টিপস এবাউট দা প্রেজেন্টেশন বাট আই থিঙ্ক ইউ হ্যাভ বার্কড এট দা রঙ ট্রি।আই এম মিসেস আরজেএফ- এন্ড আই এ্যাম গোইং টু টেক ইয়োর বিজনেস কমিউনিকেশন ক্লাস।হিয়ার ইজ মাই কোর্স আউটলাইন হোয়্যার ইউ উইল গেট মাই অফিস এক্সটেনশান নাম্বার।আই উইল বি ওয়েটিং ফর ইয়োর প্রেজেন্টেশন”

    সেই বিজনেস কমিউনিকেশন কোর্সে বাতেন ভাই কি গ্রেড পেয়েছিলেন তা শত চেষ্টাতেও উনার মুখ থেকে আমরা বের করতে পারিনি।

    :pira: :pira: :khekz: :khekz:

    জবাব দিন
  8. সানাউল্লাহ (৭৪ - ৮০)

    শুভ জন্মদিন সাব্বির। ফুলের মতো তোমার চরিত্র সারাজীবন পবিত্র থাকুক এই কামনা করি। আমিন। সুম্মা আমিন!!! :grr: :grr: :grr:


    "মানুষে বিশ্বাস হারানো পাপ"

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।