“ফেইসবুক জ্বর”- the fever

ফেইসবুক। আমাদের মত কিছু অকর্মার ঢেকিদের কাছে বিশাল উপাদেয় একটা বস্তু এইটা। Specially আল্ট্রা-বোরিং ক্লাসগুলোতে একেবারে পেছনের লাইনে আজাইরা বসে না থেকে এই book-e ঘুতাঘুতি কইরাও শান্তি। ক্লাস ৪-৫ এর পিচ্চিরাও আজকাল facebook ইউজ করে (লোকমুখে শুনছি, দেখি নাই)। সেই দিন আর দূরে নাই, যখন আমাদের দাদা-দাদী, নানা নানীরাও fb-fever এ আক্রান্ত হয়ে যাবে , নিশ্চিত। মোটা ফ্রেমের চশমা ভেদিয়া তেনারা মোবাইলের স্ক্রীনে fb-এর স্বর্গীয় সুখ পাইতে ব্যস্ত থাকবে। তলায় তার-এ একটা ছোট্ট fore-picture:

লোকেশানঃ KG স্কুলের সামনের গাছতলা।
অবজেক্টঃ mothers and vabis of the KG School children
সাবজেক্টঃ (ইনাদের গল্পের কোনও Specific সাবজেক্ট থাকে না, খালি হুদাই প্যাচাল )
আজকের টপিকঃ Facebook
নকল করা হইছেঃ টিভি অ্যাড- “কাপড় কাচার সেরা সাবান হুইল…হুইল।”
১ম ভাবি > জানেন ভাবি…! আজকাল বাচ্চারা এত্ত facebook (fb) ইউজ করে না!!! :frontroll:
আরেক ভাবি > হুমম… বড়রাও কম করে না!
আরেক ভাবি > চিন্তা কী, p6 আছে না…?
আরেক ভাবি > আপনি দেখি আমার মা’র মত কথা বললেন। মা p6 আর fb ছাড়া কিচ্ছু বোঝে না
আরেক ভাবি> আরে হ্যা, fb-তে স্ট্যাটাস দিয়ে আরাম, মজা প্রচুর……!!
আরেক ভাবি> হ্যা হ্যা, আর এক ক্লিক-এ কতজনের সাথে টাঙ্কি মারা যায়, দ্যাকেন, দ্যাকেন…?
শেষের ভাবি> fb ছাড়া আমাদের একদিনও কি চলে? Fb তো আমার সংসারের-ই একটা অংশ…… হাহাহাহাহাহা (ভাবিদের খিলখিলানি হাসি) :khekz: :khekz:

২,৫৯৮ বার দেখা হয়েছে

২৮ টি মন্তব্য : ““ফেইসবুক জ্বর”- the fever”

  1. অরপিয়া (২০০২-২০০৮)

    'আঁধার দেখেছি, তবু আছে অন্য বড়ো অন্ধকার,
    মৃ্ত্যু জেনেছি, তবু অন্য সম্মুখীন মৃত্যু আছে;
    পেছনের আগাগোড়া ইতিহাস রয়ে গেছে, তবু
    যেই মহা ইতিহাস এখনো আসে নি তার কাছে
    কাহিনীর অন্য অর্থ, সমুদ্রের অন্য সুর, অন্য আলোড়ন
    হৃদয় ও বিষয়ের; মন এক অন্য দীপ্ত মন।"

    এইটা জীবনানন্দ দাশ এর কোন কবিতা থেকে নেয়া হয়েছে কেউ জানেন? (সম্পাদিত) (সম্পাদিত)

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।