আবারও কিছু লিখলাম

আমার পাশের সিটটা এখনও ফাঁকা আছে, মনে আছে কষ্ট, কিন্তু কেন যেন কোনও খেদ নেই এই ছোট্ট জীবনে। মানুষ এই পৃথিবীতে সব কিছু পেতে পারে না, তাই যা পাওয়া যায় তা নিয়ে সন্তুষ্ট থেকে সর্বক্ষণ চেষ্টা চালিয়ে যাওয়াটাই মানবধর্ম হওয়া উচিত। আমার নিজস্ব জীবনদর্শন হলো, “সবচাইতে ভালো কিছু চাও, মন প্রাণ দিয়ে চাও, চেষ্টা করো তা অধিকার করতে, কিন্তু সবচেয়ে খারাপ কিছুর জন্য সর্বদা প্রস্তুত থাক”।

আমি আমার এই নাতিদীর্ঘ জীবনে যে কজন মানুষ দেখেছি তাদের মধ্যে সবচেয়ে সৌভাগ্যবান্‌ আমি মানুষটা হলাম আমি নিজে। কারণ হিসেবে কিছু উদাহরণ দেব
১. বন্ধুদের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ পরীক্ষা দিয়ে ক্যাডেট কলেজে চান্স পাওয়া,
২. এস.এস.সি. পরীক্ষার ফলাফল পেয়ে মানসিকভাবে বিধ্বস্ত আমি দেখলাম যে এই বিচ্ছিরি ফলাফল(এ-৪.১৩) করে আমি রাজশাহী বোর্ডে সরকারী বৃত্তি পেয়েছি,
৩. এইচ.এস.সি পরীক্ষার সময় বিজ্ঞানের ছেলেদের যন্ত্রণা করে, পরীক্ষার আগের রাত ২.৩০ পর্যন্ত ক্রিকেট খেলে, সারাদিন ঘুমিয়ে ভালো একটা রেজাল্ট(এ+-৫) পাই।
৪. এখন আমার থেকে অনেক বেশি পড়াশুনা করা ছাত্রদের মত অথবা তার চেয়েও ভালো রেজাল্ট করা।

উপরোক্ত বিভিন্নভাবে আমি প্রচন্ড সৌভাগ্যের অধিকারি হয়েছি জীবনের বিভিন্ন সময়ে। আবারও একবার এমন সৌভাগ্যের দেখা পেয়েছি। আমার পূর্ববর্তী একটি পোস্টে লিখেছিলাম আমার BVC-র জন্য আবেদন করার কথা। আমার রেজাল্ট দিয়েছে ৩রা মার্চ, প্রায় ১ সপ্তাহ হয়ে গেল, তারপরও এতদিন পোস্ট দেয়ার সময় বা মন কোনটা হয় নি। এখন মনে হচ্ছে সবাইকে জানিয়ে দেই, নিজেরা নিজেরাই তো।

প্রায় ২৫৫০০ আবেদনকারী হতে ২০০০ জন অফার পেয়েছে বিভিন্ন ইন্সটিটিউশন থেকে। আমি ওই ২০০০ জন সৌভাগ্যবানদের মধ্যে একজন। আমি অফার পেয়েছি দ্য সিটি ল স্কুল থেকে। এই ইন্সটিটিউশনটি BVC-র জন্য সবচেয়ে ভালো বলে বিবেচিত(যতদূর আমি জানি)। আবার আমার ভাগ্য হল সুপ্রসন্ন। কিন্তু কথায় আছে না, “ভালো-খারাপ ভাই ভাই, ভালো গেলে আগে খারাপ বলে আমিও পিছে যাই”। এখন আমার জন্য একটা বড় বাঁধা অপেক্ষা করছে সামনে। আমার ভর্তি কনফার্ম করতে হলে IELTS-এ ৭.৫ পেতে হবে সকল সেকশনে। রিডিং, লিসেনিং-এ কোন সমস্যা নেই, কিন্তু রাইটিং আর স্পিকিং-এ ৭.৫ পাওয়া খুবই কঠিন হবে। চেষ্টা করে যাচ্ছি, দেখি পারা যায় কিনা। আবার আমার অনার্স ফাইনাল পরীক্ষা শুরু মে মাসের ১২ তারিখ থেকে। এজন্য হয়তো আমি অনেকটা অনিয়মিত হয়ে যাবো। আমার জন্য দোয়া করবেন সবাই।

৩,৪০৪ বার দেখা হয়েছে

৪৩ টি মন্তব্য : “আবারও কিছু লিখলাম”

  1. জিহাদ (৯৯-০৫)

    ব্যাপারনাহ দোস্ত। অভিনন্দন!!

    স্পীকিং নিয়া টেনশন করিসনা। কোথাও আটকায় গেলে পিরা ভাষায় বাংলা শুরু করবি। জাজরা ভাববে এইটাই বুঝি মডার্ন ইংলিশ ;;;


    সাতেও নাই, পাঁচেও নাই

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।