আঁতেল মন্তব্য সংকলন

অন লাইনে লেখালেখিতে পাঠকের মন্তব্যের একটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। নেতিবাচক মন্তব্য আপনার লেখালেখিতে খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে। আবার সেটা উতরে গেলে পেতে পারেন ব্যাপক বিনোদন। বিষয়টা নির্ভর করে মন্তব্যের ধার এবং আপনার মানসিক শক্তির ওপর। এ রকম কিছু মন্তব্য এবং সংশ্লিষ্ট পোস্ট এখানে উল্লেখ করছি-

ফেসবুক

এশিয়া কাপ এবং টিটুয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে  লিখেছিলাম ক্রিকেট স্বপ্ন। তার কিছু কিছু ফেসবুকে দিচ্ছিলাম।নেপালের সাথে খেলার আগে স্ট্যাটাস দিলাম-

শেরপা শ্রেষ্ঠা নেপালী
ভোঁতা হবে ভোজালী
চামড়া বড্ড শক্ত আছে
খাই না তো ঘাস বিচালী।
পেয়েছে মোর বড্ড ক্ষিদে
বাঁচতে চাইলে হিমালয়ে
ওঠগে দৌড়ে সিধে।

হঠাৎ এক বন্ধু মন্তব্য করলেন-

মামা কিছু মনে করনা, তোমার দেশে যখন প্রতিদিন লাশের মিছিল শুধু বেড়েই যাচ্ছে, এখানে সেখানে মানুষের লাশ ভেসে উঠছে যখন তখন, সেই দেশে বসে ক্রিকেট নিয়ে উতসব, কবিতা আসে কিভাবে?

খুব মেজাজ খারাপ হয়েছিল। জুনাইদ এগিয়ে আসায় বিষয়টি থামে।

অলপোয়েট্রি

বেশ খেটেখুটে একটা হাইকু প্রকাশ করলাম Kicked ass by a dame. প্রথম মন্তব্যেই মাথা খারাপ। Title/ intro is: Not so cool ; Something to work on is:  Everything poet is not that easy. মন্তব্য করেছে জেনিথজিমার, নতুন সদস্য। উদার প্রতিউত্তর- true, poetry is really difficult. thanks for comment.  এবার তার অনুরোধ-Read and rate some of my poetry please. এবার তাকে ব্যক্তিগত বার্তা পাঠালাম- আশা করি কবিতায় মন্তব্য করা শিখে নেবে।

কবিতাটি অলপোয়েট্রিতে আমার লেখা কবিতার মধ্যে শ্রেষ্ঠ- রেটিং ৫ ( এখানে একটা লজ্জ্বার ইমো হবে) এবং একটি প্রতিযোগিতায় রুপা জিতেছে।

টেকটিউনস

ঝড়ের বেগে ফাইল শেয়ার করুন শেয়ারইট দিয়ে। এটি আমার টিউনগুলোর মধ্যে সর্বাধিক পঠিত। প্রথম দুই দিনেই দুইহাজারবার পড়া হয়েছে। কিন্তু মন্তব্যগুলো দেখে প্রথমে খারাপ লেগেছিল। এখন কৌতুক অনুভব করি। তাই শেয়ার করলাম।

হান্নান আকাশঃ “ভাই আপনি কি এনড্রয়েডে নতুন????
SHAREit কি বাংলাদেশে কাজ করে???
মোবাইলে আস্ত SHAREit ডুকাতে কত টাকা/দিন লাগে??
কি করব বলেন, আপনাকে প্রশ্ন করার মত কোন প্রশ্ন আমার কাছে ছিলনা।”

এনামুল হকঃ “বড় ভাই এটা অনেক অনেক পুড়ানো। অনেক আগে থেকেই এ্যানড্রয়ড ব্যাবহারকারীরা এটা ব্যাবহার করছে। নতুন করে বলার কিছু নেই।”

reyad019: ” SHAREit নিয়ে আর কত টিউন হবে আল্লাহ ই জানে !!”

mahmudkoli: ” ওনার মত সিনিয়র পারসনরা সংসার ও কর্ম নিয়েই ব্যস্ত থাকবে এটাই সাভাবিক, ওনার সমবয়সি লোকরা যেখানে ভালোভাবে মোবাইল ব্যবহার করতে পারেনা সেখানে ওনি টিটিতে টিউন করেন কীভাবে বুঝি না

ক্যনো যেন মনে হয় ওনার ছবি ব্যবহার করে কেউ এসব করতেছে।”

আরিফঃ ” হা হা হা……শেয়ারইট টেকনোলজিস কোম্পানী লিমিটেড…কাকা এটা লেনোভো এর প্রডাক্ত…টিউন করার আগে একটু স্টাডি করে নিবেন… “

সব মন্তব্যের স্ক্রিনশট নিয়ে রেখেছি। জবাব ঠিক করে রাখছিলাম। কিন্তু রুচিতে বাধছে।

১,৭৫৯ বার দেখা হয়েছে

১৭ টি মন্তব্য : “আঁতেল মন্তব্য সংকলন”

  1. মুজিব (১৯৮৬-৯২)

    কোন কমেন্ট করবো না, পাছে 'বেতাল কমেন্টস' নামে আগামী কোন ব্লগে সেটা তুলে দেন!.. 😀 (এগুলো আমার দাঁত না, মুখের জিপার)


    গৌড় দেশে জন্ম মোর – নিখাঁদ বাঙ্গাল, তত্ত্ব আর অর্থশাস্ত্রের আজন্ম কাঙ্গাল। জাত-বংশ নাহি মানি – অন্তরে-প্রকাশে, সদাই নিজেতে খুঁজি, না খুঁজি আকাশে।

    জবাব দিন
  2. জুনায়েদ কবীর (৯৫-০১)

    ভাই,
    অন লাইনে কেউ কারো চেহারা দেখে না বলে বেশিরভাগ মানুষ চিন্তা-ভাবনা না করেই কমেন্ট করে।
    কথায় অন্য কোন মানুষ হার্ট হচ্ছে কি না, সেটা নিয়ে কেউ ভাবে না...

    একই কথা কত ভাবে বলা যায়, অথচ প্রায়শই আমরা কর্কশতম শব্দগুচ্ছই বেছে নিই।
    এসব ইগ্নোর করাই স্বাস্থ্য এবং মনের জন্য ভাল। 😀


    ঐ দেখা যায় তালগাছ, তালগাছটি কিন্তু আমার...হুঁ

    জবাব দিন
  3. টিটো মোস্তাফিজ

    টেকটিউনস থেকে অনেক কিছু শিখেছি কিন্তু টিউনারদের ভাষাগত সমস্যা ব্যাপক। টিউন পড়ে কাজে লাগানো খুব সহজ ব্যাপার নয়। তারা মনে করে সব পাঠকরা হয়তো তাদের কাছাকাছি স্তরের। সাধারণ পাঠকের জন্য সহজবোধ্য করে প্রযুক্তি বিষয়ে নিজের জানাটা শেয়ার করার জন্যই সদস্য হই এবং লেখা শুরু করি ( এ বিষয়ে সিসিবিতে লেখে সাড়া পাওয়া যায় না)। যাই হোক শেয়ারইট বিষয়ক টিউনে বাজে কমেন্ট দেখে মনে করেছিলাম নিজেরই একখান ওয়েবসাইট খুলব। কিন্তু তাতে কী লাভ ? বনের মোষ তো আর কম তাড়াচ্ছি না ।
    তুমি ঠিকই বলেছ। মন খারাপ করে নিজের ক্ষতি করা যাবে না।


    পুরাদস্তুর বাঙ্গাল

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।