ছন্দময় চাবিগুচ্ছ

স্পর্শকাতর পর্দার মুঠোফোন। কাজ করার ক্ষমতা প্রায় কম্পিউটারের মত কিন্তু বাংলা লেখা যায় না। তাড়াহুড়ায় হয়ে গেলেন মুরাদ টাকলা। কষ্ট, তাই না ? বাংলাদেশে থাকলে ভোক্তা অধিকার আইন নিয়ে ভাবা যেত। বিদেশে থাকায় তা ও করতে পারছেন না। হুম…। অ্যাণ্ড্রয়েড মুঠোফোন ব্যবহারকারীদের এই মুশকিল আসান করেছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শামীম হাসনাত। তার উদ্ভাবিত রিডমিক কিবোর্ড অ্যাণ্ড্রয়েড মুঠোফোনে বাংলা লেখার দুর্দান্ত অ্যাপ। বিজ্ঞাপনের ঝামেলা ছাড়াই সকল সুযোগ সুবিধাসহ বিনামূল্যে প্রায় পাঁচ মেগাবাইট আকারের এই অ্যাপটি পাওয়া যায় গুগল প্লে স্টোরে। এ প্রসঙ্গে শামীম হাসনাতের মন্তব্য- “টাকা আয়ের জন্য আমি আমার ভাষাকে কখনোই বেছে নিবো না।”

গুগল প্লে স্টোর লিংকঃ রিডমিক কিবোর্ড

রিডমিক কিবোর্ড ইন্সটল শেষে ডিভাইসের সেটিংস থেকে যান Language & keyboard settings এ।এখান থেকে রিডমিক কিবোর্ডের পাশের চেকবক্সটিতে টিক দিন। আপনার ডিভাইসে রিডমিক কিবোর্ড অ্যাক্টিভেট হয়ে গেল। রিডমিক কিবোর্ডে রয়েছে তিন ধরনের কিবোর্ড লেআউট। ডিফল্ট ইংরেজি, ফোনেটিক বাংলা ও ইউনিজয়। এগুলোর মধ্যে পরিবর্তন করতে হলে স্পেস বার ছুঁয়ে ডানদিকে বা বামদিকে টান দিন। তাহলেই আপনি আপনার পছন্দের কিবোর্ড লেআউটটি বেছে নিতে পারবেন।

কিবোর্ডের সেটিংসে রয়েছে কিবোর্ডের বিভিন্ন থিম পছন্দ করার সুবিধা, ওয়ার্ড সাজেশন ও অটোকমপ্লিট সেটিংস, ক্যাপিটালাইজেশন, ভলিউম কার্সর ও ভাইব্রেশন সেটিংস ইত্যাদি। ওয়ার্ড সাজেশন এর মাধ্যমে কোনো শব্দ লেখা শেষ করার আগেই সেই শব্দটি আপনার স্ক্রিনে ফুটে উঠবে। আপনি সেটিতে ছুঁয়ে দিলেই শব্দটি আপনার টেক্সট ফিল্ডে যোগ হয়ে যাবে।

আর একটি কথা। কম্পিউটারে শিফট কি চেপে যে অক্ষর আসে তা আনতে ঐ নির্দিষ্ট কি বেশি সময় ছুঁয়ে দিতে হয়।এক বা একাধিক বিকল্প থাকলে তা পর্দায় ফুটে উঠবে। তখন পছন্দেরটা ছুঁয়ে দিবেন। যেমন- বোতাম টিতে এবং বিকল্প রয়েছে। আবার বেশি ছুঁয়ে পাবেন বা পেতে আগে ALT  ছুঁয়ে দিতে হবে।

রিডমিক কিবোর্ড ব্যবহার করে আরও অনেক সুবিধা পাবেন। বিস্তারিত জানতে রিডমিক কিবোর্ডের অফিসিয়াল পাতা দেখুন আর উপভোগ করুন মাতৃভাষায় লেখালেখি ইত্যাদি ইত্যাদি…

Ridmik Keyboard –এ মুগ্ধ হয়ে এর বাংলা করলাম- “ছন্দময় চাবিগুচ্ছ”। আমার বিবেচনায় অ্যাণ্ড্রয়েড মুঠোফোনে বাংলা লেখার সেরা অ্যাপ। শামীম হাসনাত এবং তার দলকে সেলাম জানাই।

২,৩৮৪ বার দেখা হয়েছে

১৭ টি মন্তব্য : “ছন্দময় চাবিগুচ্ছ”

  1. মুজিব (১৯৮৬-৯২)

    খুবই উপকারী তথ্য সমৃদ্ধ একটা লেখা। অনেক ধন্যবাদ। :clap: :clap:
    এতদিনে আমার 'বিশিষ্ট আন-স্মার্ট স্মার্ট-ফোন-ইউজার' দশার অবসান ঘটল। :boss: :boss:

    ইয়ে, মানে মোস্তাফিজ ভাই, ভয়ে ভয়ে একটা প্রস্তাব করি, বাঙলায় নামটা "ছন্দময় বোতামপুঞ্জ" রাখলে কেমন হয়? .... :frontroll: :frontroll: (ঊর্ধ্বশ্বাসে দৌড়ে দিগন্ত রেখায় বিলীন হয়ে যাওয়া বোঝানোর মত একটা ইমোটিকন খুব দরকার ছিল, কারো জানা আছে কি?)


    গৌড় দেশে জন্ম মোর – নিখাঁদ বাঙ্গাল, তত্ত্ব আর অর্থশাস্ত্রের আজন্ম কাঙ্গাল। জাত-বংশ নাহি মানি – অন্তরে-প্রকাশে, সদাই নিজেতে খুঁজি, না খুঁজি আকাশে।

    জবাব দিন
  2. মোকাব্বির (৯৮-০৪)

    রিদমিক কীব‌োর্ড ব্যবহার করছি প্রায় দুই বছর হতে চললো। ইংরেজী লিখতে চাইলে সুইচ ব্যাক করতাম মোবাইলের ইংরেজী লে-আউটে। তারপরে হঠাৎ একদিন খেয়াল করে দেখি অটো কারেক্টের যন্ত্রণায় বানান ভোলা শুরু করেছি। আর উল্টাপাল্টা পরিবর্তন তো আছেই। মাস ছয়েকের মত হবে পুরোটাই এখন রিদমিক দিয়ে চালাই। অসাধারণ একটা এ্যাপ। 🙂


    \\\তুমি আসবে বলে, হে স্বাধীনতা
    অবুঝ শিশু হামাগুড়ি দিল পিতামাতার লাশের ওপর।\\\

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।