নির্বাচন সংলাপ

পোলিং এজেন্টরা এদিকে আসেন।এই যে এই বুথের ব্যালট বক্স।স্বচ্ছ, তবু উল্টা করে দেখাচ্ছি।দেখেন, কিচ্ছু নাই।এই যে ঢাকনা।এতে চারপাশে আর মাঝখানে ফুটা আছে। এখন ঢাকনাটা বক্সে লাগাই।এই যে লক।প্লাস্টিকের তৈরী।বক্স আর ঢাকনার ফুটাতে লকটা লাগিয়ে দিলাম টাইট করে।এটা আপনাদের সামনে এই টেবিলে থাক।ঢাকনাতে শুধু উপরের ফুটাটা খোলা থাকল ব্যালট পেপার ঢুকানর জন্য।ওহ্যাঁ, ব্যালট বক্স আর চারটা লকের সিরিয়াল নম্বর বলছি লিখে নেন। আর একটা কথা।এই লকটা একেবারে ওয়ান টাইম।এটা শুধু ছিড়েঁই খোলা যাবে।

৮টা বাজে।এখন তাহলে ভোট গ্রহণ শুরু করা যাক।
আপনার নাম কি ? গ্রামের নাম ? বাপের নাম ? ভোটার নম্বর ? কাগজে লেখা ? আচ্ছা দেন। অ্যাঁ, হ্যাঁ, আপনার নাম, ঠিকানা, ছবি সব মিলেছে।পোলিং এজেন্টরা দেখেন লোক ঠিক আছে না কি।ভোটার লিস্টে দাগ দিলাম।হাতটা দেন।অমোচনীয় কালি লাগাই।এখানে সই দেন।না পারলে টিপ দেন।এই নেন ব্যালট পেপার।এই যে সীল।ঐ কোনায় ঘেরা দেয়া জায়গায় গিয়ে যাকে পছন্দ তার মার্কায় সীল দিবেন।তারপর ব্যালট পেপার এভাবে ভাঁজ করে ঐ বক্সে ঢুকাবেন।ঠিকাছে?

আপনার তো ছবি, বাপের নাম মিলছে না!বোধ হয় ভোটার নাম্বার ভুল দিছে।আবার লেখে নিয়াসেন।

আপনি ব্যালট পেপার পকেটে ঢুকাচ্ছেন কেন ? ঐ বক্সে ঢুকান।

বাবা, চোখে দেখিনা ।অমুক আমার ভোট দিয়া দিক।
তা তো করা যাবেনা বাপু।প্রিজাইডিং অফিসারকে ডাকছি।
কাকে ভোট দিবেন।আস্তে আস্তে বলেন।ফিসফিস।আচ্ছা ঠিকাছে।সীল দিয়ে দিলাম।

এই যে আমার ভোটার কার্ড। আমি ভোট দিব।
ওটা ভোটার কার্ড না।ওটা জাতীয় পরিচয়পত্র।ভোটার তালিকায় আপনার নাম থাকলে তবেই ভোট দিতে পারবেন।
নাহ! আপনার নাম তো ভোটার তালিকায় নাই। আপনি ভোট দিতে পারবেন না।
এটা কেমন কথা ? ভোটার কার্ড আছে, তাও ভোট দিতে দিলনা।সাংবাদিকদের বলব।

হ্যালো।আমি অমুক সংস্থা থেকে এসছি।ভোট কেমন হচ্ছে।শুনলাম সংখ্যালঘুরা নাকি ভোট দিতে পারছেনা।হয়রানি করা হচ্ছে।
সরি!ভুল শুনেছেন।
আমি কি মিথ্যা বলছি ?উনাকে জিজ্ঞাস করেন।
আচ্ছা আপনার গ্রামের নাম ? ঐ গ্রামের ভোটতো এই কেন্দ্রে না।সম্ভবত ঐ কেন্দ্রে।কোন  গ্রামের ভোট কোন বুথে হবে ভোটার নাম্বার সহ তা বেশ কয়েক জায়গায় লাগানো আছে।
সরি টু ডিসটার্ব ইউ বস।
ওকে, ইটস অল রাইট।

অনেক বেলা হল।ভোটার এখন কম।পালা করে খেয়ে নেয়া যাক।
স্যার খাসি না মুরগীর মাংশ খাবেন ?
সরি ভাই।আপনাদের খাবার খাওয়া যাবে না।থ্যান্কু।আপনারাই খান।

আর ত্রিশ মিনিট বাকি।যারা এখনও ভোট দেননি ভোট দেন।বেস্টনীর মধ্যে চলে আসেন।
আর পনের মিনিট।যারা এখনও ভোট দেননি বেস্টনীর মধ্যে চলে আসেন।
চারটায় ভোট শেষ।চারটার মধ্যে বেস্টনীর মধ্যে না আসলে ভোট দিতে পারবেন না।
আর মাত্র পাঁচ মিনিট।যারা এখনও ভোট দেননি বেস্টনীর মধ্যে চলে আসেন।চারটার মধ্যে বেস্টনীর মধ্যে না আসলে ভোট দিতে পারবেন না।

৪টা বাজে।এখন যারা বেস্টনীর ভিতরে আছেন শুধু তারাই ভোট দিতে পারবেন।

স্যার, স্যার, আমি ভোট দিতে পারিনি।ভোট দিব।
মাফ করবেন।পারবনা।আপনার ৪টার মধ্যেই আসা উচিত ছিল।

বেস্টনীর ভিতরের শেষ ভোটার ভোট দিয়েছেন।এখন আপনাদের সামনে ব্যালট পেপার ঢুকানর ছিদ্রটা লক করে দিচ্ছি।লকের সিরিয়াল নাম্বার লিখে নেন।চলেন ভোট গণনা রুমে। সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং পোলিং অফিসাররা আসেন।প্রতি প্রার্থীর ২জন করে প্রতিনিধি থাকতে পারবেন।ভোট গণনা শেষ হবার আগে বাইরে যাওয়া যাবেনা।কারও বাথরুমে যাবার দরকার হলে এখনই কাজ সারেন।সব প্রার্থীর প্রতিনিধি আছেন ? আছে।এবার দরজা বন্ধ করেন।

সবগুলো ব্যালট বক্স এখানে।ব্যালট বক্স এবং লকগুলোর নাম্বার বলছি মিলিয়ে নেন।মিলেছে ? তা হলে এবার লক খুলতে পারি।খুল্লাম।ও, সব মোবাইল বন্ধ হবে। নো কল।পোলিং এজেন্টরা দয়া করে এদিকে নজর দেন।কোন সমস্যা মনে হলে সাথে সাথেই বলবেন।পোলিং এবং সহ প্রিজাইডিং অফিসাররা ব্যালট পেপারের ভাঁজ খুলে মার্কা অনুসারে সাজান।১০০টা করে বান্ডিল করেন।পোলিং এজেন্টরা খেয়াল রাখবেন।এক মার্কার ব্যালট যেন অন্য মার্কার বান্ডিলে না ঢুকে।ভাল মত খেয়াল রাখেন।ভুল দেখলে সাথে সাথে ধরায় দেন।বান্ডিল ঠিক মত করা হয়েছে তো ? এবার একজন আরেকজনের করা বান্ডিল চেক করে দেখেন ঠিক আছে কি না। একটু সময় লাগুক কিন্তু ভুল যেন না হয়।

সবাই শুনেন। প্রার্থীদের ভোট,বাতিল ভোট,কাস্ট ভোট, অব্যবহৃত ব্যালট এসবের হিসাব ঠিক আছে।রেজাল্ট শীটে ঠিক ভাবে উঠান হয়েছে কি না দেখেন।ঠিকাছে?
ঠিক আছে।
তা হলে রেজাল্ট শীটে সব পোলিং এজেন্ট সই করেন। খাম গুলোতেও সই করেন।থ্যান্কু। প্রার্থী প্রতি একটা করে রেজাল্ট শীট প্রিজাইডিং অফিসারের সই সহ দেয়া হবে।সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং পোলিং অফিসাররা রেভিনু স্ট্যাম্প দিয়ে মাস্টার রোল সই করেন। সম্মানী নেন।হ্যাঁ, পোলিং এজেন্টরা রেজাল্ট শীট নেন। এবার মোবাইল খুলতে পারেন। বাইরে উৎসাহী পাবলিক।রেজাল্টটা দিয়ে আসি।
সম্মানীত এলাকাবাসী, আমি প্রিজাইডিং অফিসার এই ভোট কেন্দ্রে ফল ঘোষনা করছি।এবার রেজাল্ট শীট এখানে লাগিয়ে দেয়া হচ্ছে যাতে সবাই দেখতে পায়।সুন্দর নির্বাচন অনুষ্ঠানে সহযোগিতা করায় আপনাদের অশেষ ধন্যবাদ।

এবার কন্ট্রোল রুমে দুই কপি রেজাল্ট শীট জমা দিব।নির্বাচন কমিশনে এক কপি পোস্ট করব।নির্বাচন অফিসে মালামাল বুঝিয়ে দিব।পুলিশ এবং আনসার ভিডিপি ভাইয়েরা অনেক ধন্যবাদ।সবাই ভাল থাকবেন।খুব ঠান্ডা লাগছে।লেপের মধ্যে ঢুকতে হবে।দুই দিন যা ধকল গেল!এবার একটু শান্তি চাই।

১,৩১৫ বার দেখা হয়েছে

১২ টি মন্তব্য : “নির্বাচন সংলাপ”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।