ডিজেলবাবা

খেজুর-গুড় হাসির
মিষ্টি রসে,
গাল ভরাইয়া,
পড়ে তরতরাইয়া-
জীবন উথালপাথাল আনন্দে ভাসে!
সে আনন্দ, তাহাকে বিনা কি আর আসে?

তাহার
ঘাড়ের মাঝখানে, দেখি হায় একী…
ভীষন সর্বনাশা, জোয়ান মশকী!
বিষভরা দংশন,
নিকষ কালো-
মুহূর্তে গিলিবে সে পৃথিবীর আলো!
কাঁদো কাঁদো কন্ঠে, প্রভুপানে কহি-
“সব মশা না মারিয়া ঘুমাইব নাহি!”

স্কন্ধ কুঞ্চিত,
কান করে স্পর্শ;
জোড়াতালুর ঘষা, চলে সারা বর্ষ।
হস্তরেখা বিলোপ,
জ্যোতিষীমশাই কয়-
“আপনার কোষ্ঠী? আমার কম্মো নয়!”

কুয়োর তেলটা ভারী মিষ্টি ও খাসা
আপনার দেখানো পথে বেঁধেছি বাসা
কূপ-গভীরে বসিয়া আপনাকে মর্দন
জন্মাবধি আমার স্বপন, মহাত্মন !
(হে মহীয়ান, তুমি
লও মোর নিবেদন!
গলা ব্যাথা- তাড়াতাড়ি
লও মোর নিবেদন!)

১,৯৫৯ বার দেখা হয়েছে

৮ টি মন্তব্য : “ডিজেলবাবা”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।