চ্যাম্পিওন্স লীগ সেমিফাইনালঃ চেলসি বনাম বার্সেলোনা

চ্যাম্পিওন্স লীগের ২য় সেমিফাইনালের ২য় লেগ হবে আগামী বুধবার। চেলসি বনাম বার্সেলোনা সম্ভাবনায় ব্যালেন্সড টাই। কোনো দলকেই ফেবারিটের তকমায় মুড়ে দেয়া যাচ্ছে না। স্বাগতিক দল চেলসি প্রতিপক্ষের মাটিতে গোল করতে পারে নাই মানে চেষ্টাও করে নাই। তাই গুরুত্বপূর্ণ এওয়ে গোল এর বাড়তি সুবিধা নাই। তাই এই খেলা আক্রমনাত্বক হবে। বার্সেলোনা প্রচন্ড প্রতাপের সাথে খেলেও ১ম লেগে গোল করতে পারে নাই। স্কোরিং ড্র বার্সেলোনার জন্য যথেষ্ট। কিন্তু আমার মনে হয় না এই খেলা ড্র মার্কা হবে বরং অনেক গোলের খেলা হবে যা ১ম লেগের গোল শূন্যতা পুষিয়ে দিবে।

গুস হিডিঙ্ক চেলসিকে বেশ গুছিয়ে এনেছে। মাইকেল এসিয়েন আর দ্রগবা ইঞ্জুরী থেকে ফিরে আসার পর তারা দল হিসাবে খেলা শুরু করেছে। চেলসির সৌভাগ্য তারা ২য় লেগ খেলছে স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে। তাই স্পেনে গিয়ে গোল করা কোনো চেষ্টাই তারা করেনি। আর তাই মামুন ভাই এর মত ফুটবল বোদ্ধাদের প্রশ্ন তাহলে বড়দল আর ছোট দলের পার্থক্য কি? কিন্তু খেলার নিয়মটাই চেলসিকে রক্ষনাত্বক খেলতে বাধ্য করেছিলো এবং তারা তাদের প্রয়োজনীয় ফলাফল আদায় করে নিয়েছে। আর বার্সেলোনার সাথে আক্রমনাত্বক অল আউট খেললে কি হয় তা রিয়াল লাস্ট উইক এন্ডে ভালোই টের পেয়েছে। তবে নিজের মাঠে চেলসি আক্রমনাত্বক খেললেও রিয়ালেও মত এতটা ফুলের রাস্তা বিছিয়ে রাখবে না বলা যায়। যাই হোক ১৮০ মিনিটের খেলা। প্রথম ৯০ মিনিট মেসি ইনিয়েস্তাদের ঠেকিয়ে রাখলেও পরের ৯০ মিনিটেও চেলসিকে খুব সংঘবদ্ধ হয়ে ডিফেন্ড করতে হবে।

চেলসিকে আক্রমন করতে হবে কিন্তু তার মানে এই না যে শুরু থেকেই অল-আউট খেলতে হবে। তাদের ৪-৩-৩ কিংবা ৪-৫-১ ফর্মেশন দলগতভাবে ডিফেন্ড করার জন্য আদর্শ। একি সাথে তা গোলও এনে দিতে পারে দ্রগবার মত টার্গেট স্ট্রাইকার কিংবা ল্যাম্পার্ড, বালাকদের মত এটাকিং মিডফিল্ডারদের মাধ্যমে। এটা তাদের সেই মরিনহো আমল থেকে বিশ্বস্ত ফর্মেশন। কিন্তু গত উইক-এন্ডে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়ারদের বিশ্রামের পরিবর্তে তারা ৪-৪-২ ফর্মেশনে মানে আনেলকা ও দ্রগবা কে একই সাথে খেলিয়েছে। দ্রগবা আনেলকা জুটি খেলেছেও দারুন একে অপরকে গোল বানিয়ে দিয়েছে এবং দুই জনই গোল করেছে। যদি চেলসিকে চেজ করে খেলতে হয় তাহলে ৪-৪-২ একটা অপশন এবং তাতে তারা ভালো ভাবেই প্র্যাক্টিস সেরেছে। ৪-৪-২ ফর্মেশনে খেলার জন্য বাম দিকে মালুদা থাকলেও ডান দিকে তাদের এই ধরনের কোনো উইংগার নাই। সে ক্ষেত্রে বসিঙ্গওয়া কে একটু সাহসী হয়ে খেলতে হবে আর তাতেই অনরী কেল্লা ফতে করে দিতে পারে। বসিঙ্গওয়া বামদিকে মেসিকে দারুনভাবে রুখে দেয়ায় অনেকেই তাকে একই পজিশনে দেখতে চাইবে, কিন্তু আমার ধারনা আশ্লে কোল সাস্পেন্সন থেকে ফিরে তার নিজের জায়গায় খেলবে। সাধারনত জ্ঞান বলে বার্সেলোনা দুই উইং থেকে আক্রমন করে মাইনাস করবে না কারন তারা জানে জন টেরী আর আলেক্স বাতাসে বেশ ভালো। আর বার্সেলোনার সর্বোপরি ফ্লুইড পাসিং ও ইনিয়েস্তা, মেসি আর শাবির ওয়ান-টু পাসিং এ মাঝখান দিয়েই আক্রমন বেশী হবে। তাই চেলসির টার্গেট হবে যতটা সম্ভব খেলাকে ছড়িয়ে দেয়া (কর্নার ফ্লাগের কাছে পাঠানো) এবং যথারীতি খুব দ্রুত মেসি, ইনিয়েস্তা কিংবা শাবি কে ক্লোজ ডাউন করা। আর এইসব ডিফেন্সিভ ব্যাপার গুলো সংঘবদ্ধ করতে টেরীকে নেতৃত্বের ভূমিকায় থাকতে হবে।

রিয়ালকে ৬-২ গোলে রিয়ালের মাটিতে উড়িয়ে দেবার পর বার্সেলোনার আত্ববিশ্বাসের কোনো কমতি নেই। আর শত ট্যাক্টিক্স আর সঙ্ঘবদ্ধতার পরও আমার মনে হয় না চেলসি বার্সেলোনাকে গোল করা থেকে ঠেকিয়ে রাখতে পারবে। মেসি আর অনরী রিয়ালের সাথে যা খেলসে তার পুনরাবত্তি হলে চেলসির কোনো আশাই নাই। মেসি এই মৌসুমের সেরা খেলা খেলসে ওই দিন। আর নীরব ঘাতক ইনিয়েস্তা তো আছেই। এই মৌসুমে বার্সেলোনার সেরা খেলোয়ার হলো ইনিয়েস্তা। মেসি আর ইনিয়েস্তা কে আরো ৯০ মিনিট চেলসি ঠেকিয়ে রাখতে পারবে না।
.
চেলসিকেও গোল পেতে হবে। বার্সেলোনার ডিফেন্সে বিশাল সমস্যা আছে। আর এখানেই চেলসির আশার আলো দেখা যাচ্ছে। কার্লোস পুয়োল, মার্কেজ কিংবা গ্যাব্রিয়েল মিলিতোর অনুপস্থিতিতে পিকে উপর দায়িত্ব অনেক বেশী। কিন্তু তার সাথে অনিয়মিত মার্টিন ক্যাকেরাসের ওপরেই বার্সেলোনাকে নির্ভর করতে হচ্ছে। আবিদাল আর দ্যানি আল্ভেস আক্রমনে সাহায্য করতে যতটা পারঙ্গম ডিফেন্সে ঠিক ততটাই ভুয়া। আর রিয়ালের হিগুইয়ান আর রামোস মাত্রই দেখিয়ে দিলো বাতাসে বার্সেলোনা কতটা দুর্বল। আর কর্নার, ফ্রি কিকের সেট পিসে ইংলিশ লিগের টিম হিসাবে চেলসির বালাক, দ্রগবা, টেরী বেশ ভালো। মোটের উপর দ্রগবা তার সেরা খেলা খেলতে পারলে (মানে পিকে কিংবা কাকেরাসকে সরিয়ে নিয়ে গেলে) ল্যাম্পার্ড, বালাক কিংবা এসিয়েনের জন্য ভালোই ফাঁকা জায়গা তৈরী হবে এবং গোল আসার সম্ভাবনা যথেষ্ট।
.
প্রথম গোল খুব গুরুত্বপূর্ণ আজকের খেলায়। বার্সেলোনা প্রথম গোল পেয়ে গেলে চেলসি অল-আউট খেলবে আর আমরা নিরপেক্ষ দর্শক আক্রমনাত্বক খেলা দেখবো কিন্তু চেলসি গোল পেয়ে গেলে আবার সেই ঠেকিয়ে রাখার খেলা শুরু হবে যাতে তারা প্রতি-আক্রমনে ২য় গোল আদায়ের চেষ্টায় থাকবে।

আমার প্রিভিউ পড়েই বুঝা যাচ্ছে আমার সমর্থন কিছুটা চেলসির দিকে। 😛 যদিও প্লাটিনির খুব রাগ হবে তাও অল ইংলিশ ফাইনালের সম্ভাবনা যথেস্ট।

৫,৭০৯ বার দেখা হয়েছে

৯৭ টি মন্তব্য : “চ্যাম্পিওন্স লীগ সেমিফাইনালঃ চেলসি বনাম বার্সেলোনা”

  1. সামি হক (৯০-৯৬)

    এহসান ভাই প্লাটিনির কথা তুলে মন মেজাজ খারাপ করে দিলেন, বেডা যখন প্লেয়ার ছিল তারে খুব ভালা পাইতাম এখন ইউয়েফার প্রধান হয়ে খালি ইংলিস টিমদের পিছে লাগে।

    যাইহোক মন বলতেছে বার্সা দান মারবে, কিন্তু যখন চিন্তা করতেছি যুক্তি দিয়ে তখন মনে হচ্ছে চেলসি জিতবে। চেলসি বার্সার মাঠে যেভাবে খেলে বার্সার খেলার ফ্লো নষ্ট করছে তা যদি এইবার ও করতে পারে তাইলেই কিন্তু হয়ে যায় অনেকটা, আর এর ফাকে যদি একটা গোল পেয়ে যায় তাহলেই হয়ে গেলো। প্রথম লেগে যদি বার্সা জিতত তাহলে এই লেগটা খুব ভালো একটা খেলা হতো। আপাতত আমার মনে হচ্ছে চেলসি আগের লেগের মতো খেলে এক গোলে জিতে ফাইনাল খেলবে। সেটা হলে ফাইনালটা বেশ ম্যারমেরে হয়ে যাবে।

    জবাব দিন
    • বার্সার একমাত্র পজিটিভ দিক হাই মোরাল ... রিয়েল মাদ্রিদের সাথে ম্যাচটা মাঝে পড়ায় ভালোই হইছে 😀

      নেগেটিভ দিক, পুয়োল আর মার্কেজ না থাকা ... পিকে আগের ম্যাচে দারূন খেলছে কিন্তু ওর বয়স খুবই কম, আরেকটু ম্যাচুরিটি দরকার ... ক্যাসারাসকে নিয়ে কোন ভরসা নাই, এই সীজনে খুবই কম ম্যাচ খেলছে ইনজুরির জন্য, যে কয়টা খেলছে সেগুলিতেও সুবিধা করতে পারে নাই ... এই ডিফেন্স নিয়ে চেলসির এরিয়াল এটাক আটকানো খুব টাফ হবে ...

      আমার মনে হয় গার্ডিওলা ভালো করবে যদি দুইটা ডিফেন্সিভ মিড নামায় ... ইনিয়েস্তাকে পরে সুপারসাব হিসাবে নামাইতে পারে ... কিন্তু সমস্যা হচ্ছে ইনিয়েস্তা ইজ টূ গুড টু বী বেঞ্চড ...

      দেখা যাক ... যুক্তি বলে চেলসি উঠবে, মঞ্চায় বার্সা 😀

      অফটপিকঃ সামি ভাই যে ব্লগ লেখেন জানতাম না ... আমাকে চিনতে পারছেন? 🙂

      জবাব দিন
  2. আমিন (১৯৯৬-২০০২)

    আজকে চেলসি মিনিমাম দুই গোল দিবে। তিন গোল দেয়ার সম্ভাবনাই বেশি। চেলসি টিমটাকে বিরক্ত লাগত আগে প্লেয়ার কিনা নিয়া টাকা ঢাইল্যা ছ্যাবলামি করার জন্য , বরং রোনাল্ডিনহো থাকতে বার্সারে ভালা পাইতাম। মেসি হেনরিরে ভালা পাই। কিন্তু ঐ কোচ প্বেপ গর্ডিওলারে অসহ্য লাগে । তাই এইবার বার্সার বিদায় চাই।
    জয়তু গুস। জয়তু চেলসি।

    জবাব দিন
        • এহসান (৮৯-৯৫)

          গার্ডিওলা ইতো হেনরীর ম্যানেজার/BOSS। ম্যানেজারদের কখনো চুম্মা দেয়া উচিত না। রোনাল্ডিনহো, ইতো, ডেকো তো টিমের বারোটা বাজাইসিলো.... না শাসাইলে.... হবে না।

          দেখছি না সে কী খেলত

          প্রতিভা যাই হোক নিজের ১০০% দিয়া খেলত।

          Guardiola's guiding hand

          জবাব দিন
        • এহসান ভাই যা বলার বলে দিছে, একশো ভাগ একমত উনার সাথে ...

          রাইকার্ডের বার্সা প্রথম দুই বছর এত ভালো করার পরেও পরের দুই বছর এত পচানোর একমাত্র কারণ ডিসিপ্লিনের অভাব ... রোনালদিনহো-ইতো-ডেকো নিজেদেরকে ডিসিপ্লিনের ঊর্ধ্বে ভাবা শুরু করছিল, সেই টীমকে আবার লাইনে ফিরায়ে আনার জন্য গার্ডিওলা যা করছে তার বিকল্প ছিল না ... মাত্র সাঁইত্রিশ বছর বয়স নিয়েও অঁনরি-ইতো-মেসির মত সুপারস্টারদের হুকুম করতে প্রচন্ড রকমের পার্সোনালিটি আর কনফিডেন্স থাকা লাগে, আই স্যালুট গার্ডিওলা ফর দ্যাট ...

          আর গার্ডিওলার খেলা দেখি নাই কখনও ... কিন্তু যেমনই খেলুক তাতে কিছু যায় আসে না ... ফার্গুসন-মরিনহো-ওয়েংগার কেউই খুব ভালো খেলোয়াড় ছিল বলে মনে হয় না ...

          জবাব দিন
  3. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    মোল্লার দৌড় মসজিদ পর্যন্ত আর হিডিঙ্কের দৌড় সেমিফাইনাল পর্যন্ত

    :grr: :grr: :grr:


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  4. এহসান (৮৯-৯৫)
    মামুন ভাই এর মত ফুটবল বোদ্ধাদের প্রশ্ন তাহলে বড়দল আর ছোট দলের পার্থক্য কি?

    মামুন ভাই এর মতে শুধু এই লাইনটা কোট করায় বিভ্রান্তি তৈরী হচ্ছে। এর আগে পিছে আরো কিছু কথা ছিলো.........

    কথা গুলো হলো... নু ক্যাম্প এ এসে ছোট দল গুলো খালী ডিফেন্ড করে। চেলসি এসেও সবাই মিলে নিজের অর্ধে বসে রইল আর ঠেকাইলো তাহলে বড়দল আর ছোট দলের পার্থক্য কি।

    আমি বলি এটা কোনো কাপ ফাইনাল বা নক আউট খেলা ছিলো না। দুই লেগ মিলিয়ে খেলা। বার্সেলোনার সাথে জিততে হলে অবশ্যই নু ক্যাম্প এ কম গোল খাইতে হবে। ভালো এটাক মাইন্ডেড দলও যদি এটাকের কথা ভাবে তখন বার্সা স্পিড দিয়ে ছিন্ন ভিন্ন করে ফেলবে। মাত্র আগের রাউন্ডেই বায়ার্ন মাস্তানী মাইরা ৪ গোল খাইসে এর নিজের মাঠে শত এটাক করেও ১ গোলের বেশী করতে পারলো না বরং শেষ মুহুর্তে বার্সা আরেক্টা গোল দিয়ে দিসে।

    ভালো খেইলা হাইরা গেলে কি লাভ। রেকর্ডে থাকে কে জিতসে বা কে ফাইনালে খেলসে। এই যে ধরেন ৯০ এর বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা ডিফেন্সিভ খেলে খেলে গায়কোচিয়ার উপর ভর করে টাইব্রেকারে জিততে জিততে ফাইনাল খেললো। এখন কি আর্জেন্টিনা বড় দল না ছোট দলের মত খেলসে ঐটা কি রেকর্ডে আছে? না আর্জেন্টিনার সমর্থকরা ঐটা মনে রাখতে চায়?

    চেলসি তার সামর্থ্য অনুযায়ী খেলসে। চেলসির আশা নিজের মাঠে ১/২টা গোল দিয়ে ডিফেন্ড করবে। বার্সার সামর্থ্য থাকলে আজকে ওপেন খেলায় জিতে ফাইনাল খেলবে। দেখা যাক।

    জবাব দিন
  5. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    Chelsea v Barcelona line-ups:
    Chelsea: Cech, Bosingwa, Cole, Alex, Terry, Essien, Ballack, Lampard, Malouda, Anelka, Drogba.
    Subs: Hilario, Ivanovic, Di Santo, Mikel, Kalou, Belletti, Mancienne.
    Barcelona: Valdes, Alves, Abidal, Pique, Toure, Busquets, Keita, Xavi, Iniesta, Eto'o, Messi.
    Subs: Pinto, Caceres, Gudjohnsen, Bojan, Sylvinho, Hleb, Pedro.


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  6. আজকে হবে বলে মনে হচ্ছে না 🙁

    পুয়োল, মার্কেজ আর অঁনরি না থাকাটা একটা বিশাল লস ... ক্যাসারাসের উপরে গার্ডিওলাও ভরসা রাখতে পারে নাই, বদলে ডিফেন্স করতেছে ইয়াইয়া টুরে, যারে কোনদিন ডিফেন্সে খেলতে দেখি নাই ... কেমনে হয় ...

    তবে লাস্ট কথা, চেলসি খুব ভালো খেলতেছে ...

    জবাব দিন
  7. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    আর যাই হোক এক্সট্রা টাইমে যাবে না খেলা 🙂 ... সকালে এমনিতেই তাড়াতাড়ি উঠতে হবে 😛


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  8. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    আনেলকাকে মনে হয় গ্যালারী থেকে কেউ গুলি করছিল... যেমনে ডিগবাজিটা খাইল... এরকম বাজে রেফারিং হইলে ক্যামনে কি x-( x-( x-(


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  9. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    এই কানা রে রেফারি বানাইছে কে ~x( ~x( হ্যান্ডবল দেখলো না !!!


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  10. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    অনেক দিন পর গুডিওনসন কে দেখতেছি... তাও আবার চেলসির বিপক্ষে


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  11. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    বালাক তো রেফরিরে খাইয়াই ফেলাইতো আরেকটু হইলে :)) :))


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  12. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    বেচারা চেলসি... রেফরি আর দ্রগবা মিলা চেলসিরে ডুবায় দিল :)) :))

    বেচারা হিডিঙ্ক... আবার সেমিফাইনালে ধরা :)) :))

    তবে এই লেভেলে এত ফালতু রেফরিং সত্যিই দুঃখজনক


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  13. রকিব (০১-০৭)

    রেফারিং অসন্তোষজনক। x-(
    পরের ম্যাচে ড্যানি আলভেজ (গাধার বাচ্চা বেগারত) নাই 😀 , ঐ ব্যাটারে আমার খলনায়ক মনে হয়েছে বার্সার জন্য।বার্সার জোড়াতালি দেয়া ডিফেন্সে আজকে খালি পিকোর খেলাই ভালো লাগছে।


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  14. কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)

    সেরকম একটা ফাইনালের আশা করতেছি 🙂
    এখন গেলুম, ভোর বেলায় উইঠা আবার আপিস মুখে যেতে হবে কিনা, আহসান গিয়া ঘুম দে 😀 ফয়েজ ভাইয়ের অল ইংলিশ ফাইনালের স্বপ্ন টা পুরা হইলোনা এই যা 😉 কিংকং আর রকিবের তো মনে হয় এখন ঘুমানির টাইমিং না 🙂 , তারপরেও বয়েজ, সবাইরে গুড নাইট


    সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

    জবাব দিন
  15. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    দ্রগবা আমার মনে হয় চেলসির আসল ভিলেন :grr: :grr: :grr:
    আজকে দুইটা আর ১ম লেগে ১টা নিশ্চিত সুযোগ মিস করছে... আর চেলসি তো মনে হয় আজকে কোন মিড ফিল্ড খেলায় নাই


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  16. কামরুলতপু (৯৬-০২)

    গত লেগে একটা মন্তব্য করছিলাম।

    কামরুলতপু (৯৬-০২) কামরুলতপু (৯৬-০২) বলেছেন:
    এপ্রিল ২৯, ২০০৯ ‌, ১১:০৪ পূর্বাহ্ন

    আমার মনে হয় বার্সা ২-০ গোলে জিতলে খেলার ধারার সাথে রেজাল্ট মিল থাকত। যাই হোক পরের খেলা ১-১ ড্র হবে মনে হয় আর বার্সা ফাইনালে…

    [জবাব দিন ]

    আমি তো মনে হয় এইবার টিয়াপাখি নিয়ে গুলিস্তানের মোড়ে বসতে পারি। অর্থনৈতিক মন্দার মধ্যে একটা চাকরি ব্যবস্থা হইল।

    জবাব দিন
  17. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    ফাইনালের কোন প্রিভিউ এখনো আসলো না 🙁

    এহসান ভাই, আছেন নাকি আশেপাশে...


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  18. আমিন (১৯৯৬-২০০২)

    মাইনুল ভাই সাবধান এদের থেকে। ম্যানইউরে হারাইতে এরা সাপোর্ট দিবো। এক সময় কুফা লাগলে আমিও এমন করতাম তো তাই জানি।
    আর আজকে চেলসি রিয়েলের সাপোর্টার আর পিউর ম্যানইউ ছাড়আ সবাই বার্সা। সো বিভ্রান্ত হয়েন না।
    চেলসি আড় রিয়েলের সাপোর্টাররা নিরপেক্ষ। দুই দল হারলে বেশি মজা পাই্তো 😀 😀 😀

    যাক আমাগো ভাড়াটে সাপোর্টার লাগে না।
    রেডডেভিলস রকস। :awesome: :awesome:

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।