সকালের প্রথম রৌদ্র……

প্রথম সকালে
তুমি এসে ছুঁয়ে দিয়ে গেলে আমাকে আদ্যপান্ত
আছড়ে পড়লে আমার উদল বুকে-গলায়-মুখে
জড়িয়ে নিলে কোমল ছোঁয়ায় উষ্ণ আচল তলে

শেষ রাতে জড়িয়ে ধরা বিছানায় আমি ক্লান্ত
তোমার উত্তাপে খানিকটা বিরক্ত

এই ধ্বংসস্তুপে বর্ষার আকাশের তীব্র রৌদ্রে
ধর্ষিত রমনীর মতোই বিপর্যস্ত সবাই

পূব জানালা থেকে খানিকটা দূরে দেখি প্রতিদিন
পানির ট্যাংকির শরীর বেয়ে ওঠা সবুজ শ্যাওলা
বেচেঁ থাকে তোমার উত্তাপে। দরজা খুলে দিলেই সামনের বাগানে
আঁছড়ে পড়া রৌদ্রে নেচে ওঠে রঙ্গন-পাতাবাহার
চিকচিক করে ওঠে টলটলে পানি

সকালের প্রথম চুম্বনে বিমোহিত হয়ে
আড়মোড়া দিয়ে উঠে বসে ঘুম ঘুম চোখে

তারপর শুরু করি কর্মব্যস্ত দিন ।

৮৪৩ বার দেখা হয়েছে

১৫ টি মন্তব্য : “সকালের প্রথম রৌদ্র……”

  1. নূপুর কান্তি দাশ (৮৪-৯০)

    সুন্দর মিষ্টি মিষ্টি অনুভূতি।
    'আঁছড়ে' হবেনা, 'আছড়ে' হবে।

    লেখার শুরুর দিকের সাথে শেষটা কেমন যেনো পরষ্পরবিরোধী :
    "রোদের তীব্রতায় বিরক্তি, বিপর্যস্ততার সংগে সকালের প্রথম রোদের
    মিষ্টি মিষ্টি ভাব"
    কেনো? ইচ্ছাকৃত?

    জবাব দিন
  2. আয়েশা ( মগকক) আয়েশা

    বেঁচে তে ব এর উপর চন্দ্রবিন্দু হবে।আলীম,পারলে ঠিক করে নাও। অনেক সময় আমরা বাংলা টাইপ-এ আনাড়ী এবং তাড়াহুড়ো করি ব'লে মনে হয় জানা বানানগুলোও ভুল হয়ে যায়।
    নূপুর ভাই, আপনি তো অনেক বিচক্ষনী! এমন মন্তব্য আমার ব্লগে করলে আমার কিছু উপকার হত।

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।