পরিচয়

অনেকিদন থেকেই ব্লগিং করছি, হয় সামেহায়্যার ইন নয়তো সচলায়তনে. রায়হান আবীর জানালো এই ব্লগের কথা। শুনেই ভাল লাগল। নিজ ভূমি…….
তবে সবার আগে পরিচয়। আমি টিটো। ক্যাডেট নাম ছিল হাফিজ। ১৭ তম ব্যাচ (৯৪-০০)। বরিশাল ক্যাডেট কলেজ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে নৃ-বিজ্ঞান থেকে পাশ করেছি। এখন একটি বিজ্ঞাপনী সংস্থায় ক্রিয়েটিভ হিসেবে কাজ করছি। ছাত্রাবস্থায় পত্রিকার সাথে যুক্ত ছিলাম। যুগান্তরের বিচ্ছুতে ফান লিখেছি বহুদিন। তারপর সাপ্তাহিক ২০০০ এ। বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় পাশাপাশি সংগঠন করেছি চুটিয়ে। চুটিয়ে শব্দটা কেবল প্রেমের ক্ষেত্রেই ব্যবহার করা হয়। সুতরাং ওটাই যে আমার প্রেম ছিল এটা বুঝতে আইনস্টাইন হতে হয় না। সংগঠনটির নাম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদ। ওখানকার জেনারেল সেক্রেটারী হয়েছিলাম, প্রিসেডন্ট ও। তখন কয়েকটি শর্ট ফিল্মও বানিয়েছিলাম। একটি বার্লীন ফিল্ম ফেস্টিভাল এ চান্স পেয়েছিল। সামনে হয়ত নাটক বা ফিল্ম নিয়ে মাঠে নামব আবার। এখন তার রসদ সংগ্রহ করছি।

সবাইকে ধন্যবাদ, যারা এটি তৈরী করেছেন। লেখালেখির :duel: হোক এখানে।
আমিও থাকতে চাই

২,৯০৬ বার দেখা হয়েছে

৪৩ টি মন্তব্য : “পরিচয়”

  1. আরে মামা কি অবস্থা তোর? আমাদের ব্যাচের পোলাপাইনে তো ব্লগ জমজমাট হইয়া গেলো।
    তোর অভাবটাই ফিল করতেছিলাম। তাড়াতাড়ি তোর কাহিনীর ঝুড়ি খুইলা বস। তারেকের মতো ফাকিবাজি করিস না।

    অফ টপিকঃ
    তোর ফোন বন্ধ পাইতেছি। তাই মেইল করছি একটা। জি-মেইলে। আমারে একটা ফোন দিস।

    জবাব দিন
  2. সায়েদ (১৯৯২-১৯৯৮)
    ওর লগে সংসার গঠন অর্থাত সংগঠন করছি। আর সংগঠনের লগে প্রেম…

    "মন্তব্যই ব্লগের প্রাণ" - সম্ভবত এখানের "রেড বুক" সেকশনে কথাটা পড়েছিলাম। এই আর্টিকেলটার মন্তব্যগুলো পড়তে যেয়ে একরকম হাসতে হাসতে খুন অবস্থা 😀 :)) =)) । এক্সেলেন্ট।

    হাফিজ (নাকি টিটো?), স্বাগতম। বাই এনি চান্স, তুমি কি শেরে বাংলায় ছিলা? তাইলে তোমার যেই চেহারা আমার মনে পড়ে তা হইল - 'পিচ্চি একটা পোলা'।
    গুড লাক।


    Life is Mad.

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।