ইনসোমনিয়া

আমাদের সেইন্টমারটিন পার হয়ে,
দেশের জলসীমায় কিম্বা তারও বাইরে
কোন এক অজানা দ্বীপে হারিয়ে যাবার কথা ছিল।
তোমার স্বপ্ন ছিল বালিয়াড়ি থেকে খানেকদূ্রে,
বাশের একটা ছোট্ট ঘর, আর অর্কিড।
আমার চাহিদা আরো ছোট,
একটা বারান্দা আর ঝোলানো হ্যামক।
আমাদের কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখতে যাবার কথা ছিল।
কথা ছিল সিং শোর ব্রীজের উপর দাঁড়িয়ে
ছবি তুলবো একদম মনের মত করে,
যে ছবি নাকি কথা বলবে।
সে বয়সে ফেলুদা ভক্ত তোমার টান
গ্যাংটক কিম্বা দার্জিলিং
আর সবে বড় হতে শুরু করা আমার
অনিমেষ হয়ে যেতে চাওয়া,
আর সাইকেল চালাতে চাওয়া
জলপাই কিম্বা শিলিগুড়ির রাস্তায় রাস্তায়।

বয়সের সাথে স্বপ্নও বড় হল,
ওই স্বপ্নগুলোই রয়ে গেলো বাকি।
আমি এখন স্বপ্ন ফেলে,
বেড সাইড বাতির আলো গায়ে মেখে
শুধু চিৎ কাত হয়ে শুয়ে থাকি।

৫২৫ বার দেখা হয়েছে

২ টি মন্তব্য : “ইনসোমনিয়া”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।