মাজহার ভাই, হায়দার ভাই………

মাজহার ভাই, হায়দার ভাই, মোশারফ স্যার ,তোমরা কি শুনতে পাও। আমাদের কান্না? তোমরা তোমাদের বিবেকের কাছেতো হেরে যাওনি? এই অকৃতজ্ঞ জাতি তোমাদের কে দুর্নিতিবাজ আর ব্যর্থ কমান্ডার বলে……তোমাদের লাশটাকে খুজে বের করারা প্রয়াস করেনি, কেউ তোমাদের কথা বলেনি। তোমরা আমাদেরকে ক্ষমা করে দিও।
তোমরা কষ্ট পেয়োনা প্লিজ। তোমরাতো তোমাদের বিবেকের কাছে হেরে যাও নি। তোমাদের জীবনের বিনিময়ে এই জাতি বেচে আছে। যারা আজ তোমাদের দুর্নীতিবাজ বলছে, কিন্তু তোমাদের আত্মা তাদেরকে থুথু মেরে বলছে……বাংলাদেশ! ছি! তোর তো অনেক আগেই মরে যাওয়া উচিত ছিল। আমাদের জীবনের বিনিময়ে আজ তোরা টক শোতে চায়ের কাপে চুমুক দিচ্ছিস, তোদের কি এতটুকু লজ্জা নেই?

কই তুমিতো না খেয়ে সারাদিন খেটেছো, তুমিতো বেতনের অতিরিক্ত টাকা না পেয়ে মাথার ঘাম পায়ে ফেলেছো, তুমিতো বিদ্রোহ কর নি? তোমরা তোমাদের বিবেকের কাছে হারনি। হেরেছে এই নির্লজ্জ জাতি। যারা তোমাদের হত্যা করেছে। আমাদেরকে তোমরা ক্ষমা করে দিও না প্লিজ, তাইলে যে আমরা প্রয়াশ্চিত্ত করতে পারব না।

তোমাদের হত্যা কে নিয়ে যারা সেলিব্রেট করতে বলে টিভি চ্যানেলে, তাদের বোধ শক্তি নেই, ওরা উন্মত্ত উন্মাদ, তাদের সন্তানেরাও একদিন তাদের ক্ষমা করবে না।
তারা তোমার লাশটা খুজে পাওয়ার প্রয়োজন অনুভব করেনি, তারা তাদের বীর জোয়ানদের বীরত্ত্ব গাথার কারন অনুসন্ধানেই ব্যস্ত………আর আমরা তোমাদের ভাই হইয়েও রক্ষা করতে পারলাম না, এই অকৃতজ্ঞ জাতি একদিন আমাদেরকেও তোমাদের চাইতেও জঘন্য ভাবে হত্যা করবে। তাইলেই হয়ত আমাদের প্রায়শ্চিত্ত হবে।

শুধু জেনে রেখো- তোমাদের জন্য তোমাদের ভাইরা কাঁদছে। তোমরা শান্তিতে ঘুমাও……..।

৩,২০৩ বার দেখা হয়েছে

২১ টি মন্তব্য : “মাজহার ভাই, হায়দার ভাই………”

  1. কনক রায়হান (৯৮-০৪)

    আমাদের কষ্টগুলো কাউকে বোঝানো যায় না...খুব খারাপ লাগছে...বাসার অনেক মানুষজনের হাসাহাসি..খুশি হওয়া দেখে তাদেরকে নিজের আত্মীয় ভাবতে খারাপ লাগছে..

    জবাব দিন
  2. আমি আর্মির লোক না। ক্যাডেট কলেজ়ের ও না। যেই জাতির কথা বলছেন তার একটি অংশ। আমি এই ঘটনাতে শহীদ আর্মি অফিসারদের সালাম জ়ানাই। আর যারা এই ঘটনার পক্ষে তাদেরকে ধিক।আমি হতবাক আর লজ্জিত যে কেউ এই ঘটনার পক্ষে কথা বলতে পারে!

    জবাব দিন
  3. দোস্ত সাইফ, কান্না্আটকে রাখতে পারলাম না রে। একজন মানুষ হিসেবে বলতে পারি, পেপারে যখন ছবি দেখলাম, একজন মৃত অফিসারের উপর হুমড়ি খেয়ে পড়ে আছে সদ্য স্বামীহারা এক অসহায় নারী, তখন শুধু ভাবছিলাম, ওই মৃতদেহটা আমারো হতে পারেতো। হলে বড় ভালো হতো। অন্তত এখনো বেচে থাকার কষ্টটা পেতাম না। অন্তত এই প্রতিষ্ঠানে চাকুরীরত আমরা যে কত অসহায়, কত দুর্বল তা হাড়ে হাড়ে বোঝার তীব্র দাহন অনুভুত হত না। দোস্ত, ত্ই লেখ। তোর লেখা ছড়িয়ে দে মূর্খদের মাঝে। ভালো থাকিস দোস্ত। গত ৪৮ ঘন্টা একফোটা ঘুমাতে পারিনি। ঘুমাতে চাইও না।

    জবাব দিন
  4. মহিব (৯৯-০৫)

    কান্না আটকে রাখতে পারলাম না। অবশ্য আমার এই কান্নার কোন মূল্য নেই। কারণ- কালকেই সব ভুলে যাবো। মাজহার ভাই হায়দার ভাইয়ের কথা মনেই থাকবে না। এত কষ্ট।

    জবাব দিন
  5. ai hottakando porikolpito . bangali jati-k ai hottar jonno onek boro kesharot dite hobe.. Ki r khesarot dibe (!!) er cheye ki r boro khesarot hobe ??
    Third party had worked behind this issue. & they are total success.
    Bangladesh Army-k durbol korar jonno-e ai hottakando. I guess ppl from bangladesh polical parties are related to this hottakando. Most probably it is jamate-islami.& BD govt should look after this issue carefully.They don't want democratic in this country,and army is helping most for democracy. Thats why they are trying to destroy BD army.I guess they have taken a back attack. Bangla vhai & his bro was hanged by govt. that's why they did it.
    Its only my opinion.& Retired.army chief said to NTV .I support him. and he challenged to BD govt. that it is very hard to catch these evil guys.

    3 din er national shok ghosona kora hoyse. (!!!!!!)
    j ghotona ghotlo (!!) 500 bosor shok korle-o bangali shok vhulbe parar kotha na ( jodi atta bole vitore kisu theke thake )

    Woory for BD people.Where ARMY is not secure from violence and murdering .So how the civilian could be ?? (!!)
    Important issue is that.. when officers were in the darbar hall .
    there were 4000 BDR soldier at the hall.After that the massacre happend . My question is that how all these 4000 BDR soldier came to a decission that they will kill their commanders within such a small amount of time ?(!!) So, that was decisioned before.

    জবাব দিন
  6. ওবায়দুল্লাহ (১৯৮৮-১৯৯৪)

    "আমি ইদানিং ঘুমাতে পারি না।
    একদমই না।
    এখানে ওখানে কুড়িয়ে পাওয়া
    কিংবা ভেসে যাওয়া
    সনাক্ত অযোগ্য মরদেহের ছবিগুলো
    নারীদের আকুতি -মিনতি - চিৎকার
    শিশুদের কান্না - আতংক
    আমার বন্ধ কামরার চারদেয়ালে বারংবার বাধা পেয়ে
    একেকটি প্রশ্নবোধক চিহ্ন হয়ে
    আমার কাছেই ফিরে আসছে।
    উফ্‌ফ! আমার মস্তিষ্কের নিউরোনে নিউরোনে ভীষন ঝড়।
    শরীরের লক্ষ কোটি লোহিত কণিকার মাঝে এখন দারুন গন্ডগোল।
    আহ !
    বানোয়াট অভিযোগের অন্তরালে ষড়যন্ত্রকারীর বেপরোয়া উল্লাসের
    সেই তে...ত্রি...শ ঘণ্টাব্যাপী
    কিংকর্তব্যবিমূঢ় থাকার শাস্তির মেয়াদ মেনে নিয়ে
    আমি আজো
    বেঁচে আছি
    প্রহর গুনছি
    প্রস্তুত আছি...।"


    সৈয়দ সাফী

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।