টুকরো টুকরো কাব্য

//

জীবনের পথে কতকিছু ঘটে, মানুষেরা বোঝে ভুল,

ছোট ফুসকুড়ি, তবু যেন তা-ই মনে হয় নাকফুল।

বিশ্বাস ভাঙে, বিশ্বাস গড়ে, ভাঙে না যে সখ্যতা,

জীবনের পথে চলতে চলতে হতে পারে মূর্খতা।

অপরাধ করে অপরাধী যদি পোড়ে শোকানল তাপে,

ক্ষমা হয়ে যায়, যদি বা একটু বিচারক চোখ কাঁপে।

//

//

জানি একদিন যেতে হবে চলে পৃথিবীর মায়া ছেড়ে,

মৃত্যুদূতের হাত থেকে কেউ পারবে না নিতে কেড়ে।

রাতের আকাশে তারা দেখেছো যে, কেউ কি রেখেছে মনে?

একটা তারার অনুপস্থিতি, দেখে নিও কেউ গুণে।

কোয়েল পাপিয়া ডাক দিয়ে যাবে, ডাকবো না সাথে আমি,

চাঁদ হাতে পেয়ে বুঝতে পারোনি কেন সেটা এত দামি।

//

//

সব মানুষের দর্শন থাকে, নিজস্ব ভাবধারা,

তোমার সঙ্গে মিলবে যাদের, মনে হবে ভালো তারা।

//

//

চোখের জলে ভাসবে যেদিন তোমার দুটি গাল,

বুঝে নিও ফুরিয়ে গেছে আমার সময়কাল।

পাখির গানে শুনবে যেদিন আমার নামে রব,

বুঝবে সেদিন তোমায় ছেড়ে যাচ্ছি ফেলে সব।

হারাবে যবে আমার স্মৃতি তোমার জীবন থেকে,

ডুকরে কেঁদো চোখ ফুলিয়ে দুঃখটাকে ঢেকে।

//

//

বিদায়বেলায় কান্না লুকিয়ে লাভ কি তোমার বলো?

কান্না লুকিয়ে হারালে তোমার কাছের মানুষগুলো।

বরষার কালে ত্যাজি মেঘমালা,

আকাশমাতার সহে না তো জ্বালা,

ভরে তোলে সব নদী-খাল-নালা, দেখ নাই কী সে জলও?

সুবাস বিলিয়ে কিছুদিন পরে ঝরে যায় লালফুলও।

//

৫৫৯ বার দেখা হয়েছে

২ টি মন্তব্য : “টুকরো টুকরো কাব্য”

  1. ফেরদৌস জামান রিফাত (ঝকক/২০০৪-২০১০)
    চাঁদ হাতে পেয়ে বুঝতে পারোনি কেন সেটা এত দামি

    :clap: :clap: :clap:
    দোস্ত, আমি সবসময়ই তোর বিগেস্ট ফ্যান ছিলাম, এখনও আছি (সম্পাদিত)


    যে জীবন ফড়িঙের দোয়েলের- মানুষের সাথে তার হয় নাকো দেখা

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।