বাংলাদেশ এর এই বিজয়ে আমি পুরাই অস্থির

১৬ মার্চ বাংলাদেশ এর ক্রিকেট ইতিহাস এর জন্য মনে হয় একটা শুভ দিন । অনেক গুলো ইতিহাস , মাইলফলক আর সবশেষে বাংলাদেশ এর বিজয় এর মাধ্যমে শেষ হল ১৬-০৩-২০১২ । ১৬ মার্চ বাংলাদেশ এর ক্রিকেট ইতিহাস এর জন্য একটি শোকের দিনও বটে । ২০০৭ সালের ১৬ মার্চ সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান বাংলাদেশ এর প্রতিভাবান একজন স্পিনার মাঞ্জারুল রানা

বাংলাদেশ এর ক্রিকেট দল তখন বিশ্বকাপ খেলার জন্য ওয়েস্টইন্ডিজ অবস্থান করছে ।

শোকে আপ্লুত বাংলাদেশ ক্রিকেট দল পরের দিন ১৭ মার্চ ভারত গুড়িয়ে দেয় তার বাঘের হুংকার দিয়ে ।বাংলাদেশ এর গতকাল এর বিজয়ে বাংলাদেশের অধিনায়ক মুসফিকুর রহিম বাংলাদেশ এর বিজয় মাঞ্জারুল রানার নামে উৎসর্গ করলেন । আল্লাহ মাঞ্জারুল রানাকে জান্নাত দিন ।

 

গতকাল এর এই ম্যাচে অনেকগুলো ইতিহাস হল । ক্রিকেট দুনিয়ায় ব্যাটিং এর সমার্থক শব্দ অনেক গুলো রেকর্ডের মালিক শচীন টেন্ডুলকার তার শততম সেঞ্চুরি পূরণ করলেন ।বাংলাদেশ এর মাটি সাক্ষী হয়ে থাকল শচীন এর এই অনবদ্য মাইল ফলকের । অনেক গুলো রেকর্ডের মাধ্যমে নিজেকে পৌঁছে নিয়েছেন এভারেস্টের উঁচু আসনে । গতকাল প্রথম ব্যাটসম্যান ওয়ানডে ক্রিকেটে ২০০০ চার মারেন শচীন । ২য় অবস্থানে তার চেয়ে অনেক দূরে সনাৎ জয়সুরিয়ার ১৫০০ চার ।

বাংলাদেশ এর বিপক্ষে শততম সেঞ্চুরির পর শচীন টেন্ডুলকার ।

 

শততম সেঞ্চুরির পর সবার অভিনন্দন প্রদান ।

শততম সেঞ্চুরির পর মাশরাফির অভিনন্দন প্রদান এবং শচীনকেই পরবর্তীতে হজম করেন মাশরাফি ।

 

 

এর পরের অধ্যায় শুধুই বাংলাদশ এর ।

বাংলাদেশ এর জয়ের নায়কেরা । তাদের দেখলে গর্বে বুক ফুলে যায় ।

 

সাকিব এর বাংলা কোপ । বল গ্যালারিতে এবং ছক্কক্কক্কক্কা ।

Captain leading in the front .

বাংলাদেশ এর বিজয়ী মুহূর্ত ।

আমার ফেসবুকের প্রোফাইল পিকচার । 😀

ইন্ডিয়া খাইলাম । ভাল্লাগসারে ভাল্লাগসে ।

Yesss India রে বাঁশ দিছি ।

কোন বড় দলের সাথে বাংলাদেশ এর খেলা হলে আম্পায়ারদের বাংলাদেশ এর প্রতি ভুল সিদ্ধান্তের পরিমাণ বেড়েই চলেছে । মানুষ মাত্রই ভুল হয় । মেনে নিলাম আম্পায়ারদেরও ভুল হয় । কিন্তু সব ভুলকি বাংলাদেশ এর সাথেই হয় । বাংলাদেশ এর প্রতি কোন সিদ্ধান্ত নিতে গেলে আম্পায়ার রা হয় দিন কানা অথবা রাত কানা হয় । আর বাংলাদেশ এর প্রতিপক্ষ টিম এর প্রতি কোন সিদ্ধান্ত নিতে গেলে দৃষ্টিশক্তি ক্ষমতা ৭:৬ হয়ে যায় । তাইতো তখন স্ট্যাম্পের বল স্ট্যাম্পের বাইরে দেখে । স্ট্যাম্পের বাইরের বল স্ট্যাম্পের ভিতরে দেখে । ভিরাট কোহলি পরিস্কার LBW ছিলেন ।কিন্তু আম্পায়ার নাকজ করে দিলেন । সাকিবকে করা হাই ফুল টস বল নো বল ডাকা হয় নি । সাকিব benefit of doubt  এ not out.কিন্তু তাকে out দেয়া হল । এর আগে পাকিস্তানের বিপক্ষে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ কে একটি ভুল LBW out দেয়া হল । অনেক দিন আগে পাকিস্তানের বিপক্ষে একটি টেস্টে বাংলাদেশ ১ উইকেটে পরাজিত হয় । ওই ম্যাচে যত দূর মনে পড়ে ইনজামাম এর পরিস্কার LBW আম্পায়ার নাকজ করে দেন । বাংলাদেশী খেলোয়াড়রা গলা ফাটিয়ে জোরাল আবেদন করলেও আম্পায়াররা আমলে নেন না । অথচ প্রতিপক্ষ টিম ফুসফাস শব্দ করেও যদি আবেদন করে তাও তারা আমলে নেন । এই রকম আর কতো?

এশিয়া কাপ এর মতো একটা বড় টুর্নামেন্টে আম্পায়ার Simon Taufel কে রাখা দরকার ছিল ।

এশিয়া কাপ এর মতো একটা বড় টুর্নামেন্টে আম্পায়ার Billy Bowden কে রাখা দরকার ছিল

 

তবে খেলার মধ্য বিরতিতে বিটিভিতে বিস্ময়কর কণ্ঠের অধিকারী চৌধুরী জাফর উল্লাহ সারাফাত এর সাথে আশরাফুল এর সাক্ষাৎকার খুব ভাল লাগছিলো । এক কথায় বলতে গেলে গতকাল এর দিন টা ছিল অসাধারণ ।

 

 

( গতকাল বাংলাদেশ বনাম ইন্ডিয়া খেলাটি আমার পাবনা ক্যাডেট কলেজ এর বড় ভাই জিয়াউল কবির ভাই (১৯৮৯-১৯৯৫) এর বাসায় দেখছি । খুব মজা হইছে । ধন্যবাদ কবির ভাই) ।

 

১,৬৫১ বার দেখা হয়েছে

৬ টি মন্তব্য : “বাংলাদেশ এর এই বিজয়ে আমি পুরাই অস্থির”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।