আমার একমাত্র ‘ভ্যালেন্টাইন’স ডে’….সন ২০০৬

বস ডেকে বলে দিলেন, কালকে একটু ব্রাহ্মণবাড়িয়া যাও তো……… ~x(

উফ!! এতো দেখি মহা মুশকিল, জানি তেমন কোন কাজের কাজ নাই, শুধু শুধু যাওয়া হবে……..কিন্তু তা তো আর বলা যায়না……তার উপর প্রথম চাকরি……তাই বললাম, স্যার ভ্যালেন্টাইন’স ডে তে ঢাকায় থাকা দরকার…….

তখনই চরম শুদ্ধভাষী বসের মুখে শুনলাম অমোঘ এক বাণী…. :no: …তোমার বউ যেদিন তোমার চাকরিকে তার সতিন মনে করবে, বুঝতে পারবে তুমি সফল!!! যেহেতু এখনো বউ হয়নাই, সো আগে থেকেই প্র্যাকটিসটা করিয়ে রাখার গুরুত্ত্ব কিছুক্ষন বুঝিয়ে তবেই ক্ষান্ত দিলেন উনি…….

যাহোক ফিরতে ফিরতে যথারীতি সন্ধ্যা…..সায়েদাবাদে নেমে ট্রান্স সিলভায় উঠলাম মিরপুর-১ যাব বলে…….প্রচন্ড ভীড় ঠেলে ৩২ নম্বরের স্টপেজ থেকে এক মেয়ে উঠলো হাতে বাহারি ভ্যানিটি ব্যাগের সাথে বিদায় দিতে আসা তরুনের নানা উপহার, দুইহাত একেবারেই ভর্তি……

পড়বি পড় মালির ঘাড়েই
সে ছিল ‘কোনার সিটেই’ :hug:

তো পপাৎধরনিতল…. …আইসক্রিমটা পড়লো মুখ থুবড়ে, আর দুইটা প্যাকেট…..পেষ্ট্রিটাইপ কিছু আছে তাতে আবার কার্ড-টার্ডের সাথে……..তো আমি যথারীতি শশব্যস্ত হয়ে উঠলাম…:goragori: ..বেচারি বসলো আমার আসনটাতেই……তাকে বললাম ব্যস্ত না হতে, তুলে দিলাম ওগুলো……

যাক, থ্যাংকসটা দিতেই জিজ্ঞেস করলাম এগুলো ভ্যালেন্টাইন গিফট কিনা……আলতো মাথা নাড়তেই ভাবলাম কিছু প্যাচাল পাড়া যাক এর সাথে এই বোরিং যাত্রায়…. 😡 .মন খারাপ ভাব নিয়ে জানালাম এমন একটা দিনে ডার্লিংকে ছেড়ে সেই ‘সুদূর’ ব্রাহ্মণবাড়িয়া যাওয়ার কথা……সেই থেকে আমার ‘উনি’র মোবাইল বন্ধ করে রাখার কথা কথাটাও বললাম দীর্ঘশ্বাস ছেড়ে……হায়রে একটা আইসক্রিমও খাওয়া হলোনা আজকের দিনটায়, গলায় আমার আফসোস বেয়ে বেয়ে পড়ে যেন…….মেয়েটা কো-অপারেট করলো বেশ……মজা করেই বললো, হাতে তো আমার আইসক্রিমটা আছেই আপনার……আপনি খেলে খুশিই হবো…….

আরে এইতো চাচ্ছিলাম…. 😛 …আইসক্রিমটা খেয়ে ফেললাম ধন্যবাদ জানিয়ে……সে নেমে গেল শ্যামলিতেই……..যাওয়ার আগে বললো……আশা করি কালকেই ‘সে’ আর রাগ করে থাকবে না…….তখন কিন্তু এই আইসক্রিম তাকেও একটা খাওয়াবেন…….

আহারে…….আমার অমন কেউ যদি থাকতো!!!!!!!!!! 🙁

২,৭৯৪ বার দেখা হয়েছে

৫৭ টি মন্তব্য : “আমার একমাত্র ‘ভ্যালেন্টাইন’স ডে’….সন ২০০৬”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।