কাঁকড়া দ্বীপে কয়েক ঘন্টা …

কুয়ালালুমপুর থেকে মাত্র ২ ঘন্টার রাস্তা কাঁকড়া দ্বীপ । ক্রাব আইলান্ড, মাল্লাকা উপ সাগরের একটা দ্বীপ। এই দ্বীপ এ মাত্র ৮০০০ লোক বাস করে, এবং সবাই চাইনিজ। মূলত জেলেদের আবাস স্থল। একনকার কাঁকড়া খুব বিখ্যাত, এক কেজি কাঁকড়ার দাম ৪০ রিংগিত (৮০০ টাকা )।

কাঁকড়া দ্বীপ এর জেটি

কাঁকড়া দ্বীপ এর জেটি

কে এল সেন্ট্রাল

কে এল সেন্ট্রাল

চাইনিজ নিউ ইয়ারের ছুটি ৯ দিন। গতকাল ছুটির দিনের সকালের ঘুমের মায়া কাটিয়ে সকাল ৭টায়, চলে গেলাম কে এল সেন্ট্রাল। কিছুক্ষনের মধ্যে ট্রেন চলে আসল। ৪৫ মিনিটের ঝামেলাহীন ট্রেন যাত্রা। কুয়ালালুমপুর, শাহ আলাম আর ক্লাগ শহর আর শহরতলীর মজার মজার দৃশ্য দেখতে দেখতে চলে আসলাম পোট ক্লাং। এখান থেকে ফেরি। কিছুক্ষন হেটে চলে আসলাম ফেরি জেটি তে।

ক্রুজলাইনার

ক্রুজলাইনার


জেটিতে আমাদের জন্য তৈরি আমাদের ক্রুজলাইনার। ৩০ মিনিটের মিনি সমুদ্র যাত্রা শেষ করে চলে আসলাম কাঁকড়া দ্বীপে। এই দ্বীপে গাড়ি চলে না, চলে না মোটর সাইকেল। শুধু পা আর সাইকেল ভরসা। দোকানে দোকানে আবার সাইকেল ভাড়া দেয়। আমরা হেটে হেটে ঘুরলাম। খুব ছোট একটা দ্বীপে। এবার কিছু ছবি দেখুন …

(কিছু ছবির জন্য মিঃ গুগল এর কাছে কৃতজ্ঞ)

dsc000591

dsc000671

dsc000701

কাঁকড়া’র ছবি

কাঁকড়া’র ছবি

২,৩৬৯ বার দেখা হয়েছে

৩২ টি মন্তব্য : “কাঁকড়া দ্বীপে কয়েক ঘন্টা …”

  1. তাইফুর (৯২-৯৮)

    তিনবার আইসা ঘুইরা গেছি ... কমেন্ট অপশান বন্ধ ছিল।
    মেহেদি তো চামে ফুর্তি কইরা ঘুইরা বেড়াইতেছিস। চালায়া যা।
    কে এল সেন্ট্রাল আমার চরম লাগছে ... রাস্তা গুলা ঘুরায়া ঘুরায়া এত সুন্দর কইরা প্রতিটা ফ্লোরে নিয়া গ্যাছে ... সব ফ্লোররেই গ্রাউন্ড ফ্লোর মনে হয়।


    পথ ভাবে 'আমি দেব', রথ ভাবে 'আমি',
    মূর্তি ভাবে 'আমি দেব', হাসে অন্তর্যামী॥

    জবাব দিন
  2. তৌফিক (৯৬-০২)

    নীরব পাঠক থেকে সরব প্রদায়কে রুপান্তরের জন্য মেহেদী ভাইকে সংগ্রামী শুভেচ্ছা।

    আপনি আপনার মালয়েশিয়া জীবন নিয়ে লিখতে থাকেন। আমরা আগ্রহভরে পড়বো। 🙂

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।