কনকপ্রভা

কনকপ্রভা,
তুমি মাঘের কোমল রোদ্দুর হয়ে এসেছিলে,
তেমনই থেকো, এই আছো এই নেই।
এই অরণ্যচারীর নিভৃত নিবাসে
এক চিলতে সোনালী রোদ্দুর হয়ে থেকো।
আলোছায়া হয়ে মিশে রবো একসাথে।

কনকপ্রভা,
তুমি আষাঢ়ের মেঘ হতে চেওনা।
এমনিতেই তুমি আমার ভেতরে
শান্ত স্রোতস্বিনীর ন্যায় সততঃ প্রবাহমান।
তুমি নরম রোদ্দুর হয়েই থেকো,
গায়ে মুখে মেখে হবো, আঁধারেও চক্ষুস্মান!

ঢাকা
০৯ জুন ২০১৫
স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।

১,৪৪৩ বার দেখা হয়েছে

১৭ টি মন্তব্য : “কনকপ্রভা”

  1. মোঃ গোলাম মোস্তফা

    কোমল পানীয়ের মত মনে হলো বুঝি
    অথবা কোমল গান্ধারের মতো
    পানীয় গলা বেয়ে নামে ধীরে ধীরে
    আর বীণার তার ছুঁয়ে ছুঁয়ে নামে সুর
    হয়ত চক্ষুস্মান হলাম আঁধারে
    অথবা হারিয়ে গেলাম দুর্বোধ্য বহুদূর!

    জবাব দিন
  2. নূপুর কান্তি দাশ (৮৪-৯০)

    আপনার সব লেখায় যে ব্যাপারটি আমার চোখে পড়ে সেটি হচ্ছে -- একটি ধীরস্থির ভাব, কোথাও কোন তাড়াহুড়ো নেই, কখনো কখনো দ্রোহ আছে কিন্তু উচ্চারণ উচ্চকিত নয়।
    এ লেখাটি বড় স্নিগ্ধ মনে হল। আমার কাছে প্রেমের কবিতা হয়েই এলো।

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।