ঘুম আসেনা

ঘুম আসেনা, ঘুম আসেনা, ঘুম যে গেলো কই,
ঘুম পালালো নিরুদ্দেশে, একলা জেগে রই।
যাদুর একটা বালিশ ছিলো, রাখলে মাথা তাতে,
ঘুম পরীরা আসতো নেমে, কি মদির মৌতাতে!

বালিশটাতো আছে ঠিকই, তবে যাদুর পরশ নেই,
তাই ঘুম আসেনা ঘুম আসেনা, আসেনা কিছুতেই।
টিকটিকি আর ঘড়ির আওয়াজ শুনি থেকে থেকে,
লক্ষীছাড়া এক হুতোম পেঁচাও হঠাৎ ওঠে ডেকে।

ঘুম আসেনা, ঘুম আসেনা, ঘুম যে কোথায় গেলো,
স্বপ্নগুলোও আসছেনা, তাই লাগছে এলোমেলো।
এফ এম ব্যান্ডের গানগুলোতে দিলেম তাই মনটা,
কি আশ্চর্য্য, সেখানেও শুনি ঘুম পালানোর গানটা!

পাদটীকাঃ ব্যক্তিগতভাবে আমি একজন ঘুমকাতুরে লোক, আমার ঘুমের কোনই সমস্যা নেই। বালিশে মাথা রাখার পর বড়জোর দশ মিনিটের মধ্যেই ঘুমিয়ে পড়ি। সেদিন ইচ্ছে হলো, কানে হেডফোন লাগিয়ে এফ এম ব্যান্ডের গান শুনতে শুনতে ঘুমাবো। কিন্তু কেন জানি ঘুম আর আসছিলো না। গানগুলোই আমাকে জাগিয়ে রাখছিলো। তারপর হঠাৎ করে একটা ঘুম না আসার গান শুনতে শুনতে ঘুমিয়ে পড়ি। গানটা কার গাওয়া, কার লেখা, কিছুই এখন আর মনে নেই। তবে গান শোনার সময় আমার নিজস্ব পরিবেশে নিজস্ব কিছু অনুভব থেকে এ কবিতাটার খসড়া মানসপটে এঁকে রাখি।

আমার বাসার সামনে একটা নির্মাণাধীন দালানের ছাদের উপর প্রতিরাতে কোথা থেকে যেন দুটো পেঁচা এসে নিশ্চুপ বসে থাকে। মাঝে মাঝে তারা ডেকে ওঠে। কবিতায় পেঁচার ডাক শোনার কথাটায় তাই অনেকে চমকে উঠলেও (এই মহানগর ঢাকার বুকে বাস করে), আমার জন্য তা বাস্তব সত্য। আর বসন্ত পার হয়ে গেলেও, একটা কোকিলের ডাকতো মুহুর্মুহু এখনো শুনতে পাচ্ছি।

ঢাকা
১৩ এপ্রিল ২০১৫
স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।

১,৬৭৭ বার দেখা হয়েছে

১১ টি মন্তব্য : “ঘুম আসেনা”

  1. লুৎফুল (৭৮-৮৪)

    পলাতক ঘুম এসে দিতে হবে ধরা ।
    যে করে হোক ক্লান্তি তাকে পরাবেই হাতকড়া ।

    তার মাঝেই আমাদের কতনা ঘটনা, মনের কতো বিবিধ মন্ত্রনা ।
    এক টুকরো অনুভূতির কি সুন্দর প্রকাশ আমাদেরও দিয়ে গেলো এক রাশ ভাবনা কল্পনা ।

    :boss:

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।